X
শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

হিমায়িত মৎস্য রফতানি বাড়াতে সরকার সচেষ্ট: মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী

আপডেট : ২১ জুন ২০২১, ১৭:৩৬

হিমায়িত মৎস্য রফতানি বাড়াতে সরকার সচেষ্ট রয়েছে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

সোমবার (২১ জুন) সচিবালয়ে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ ফ্রোজেন ফুডস এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে অনুষ্ঠিত সভায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

এ বিষয়ে মন্ত্রী আরও বলেন, ‘মৎস্য খাতকে আরও সমৃদ্ধ করার জন্য এ খাতের রফতানি বৃদ্ধিসহ এর সঙ্গে সম্পর্কিত যে কোনও সমস্যা দূর করার জন্য সবধরনের পদক্ষেপ নিতে সরকার প্রস্তুত রয়েছে। হিমায়িত খাদ্য রফতানির ক্ষেত্রে কোনও প্রতিবন্ধকতা থাকলে তা দূর করার বিষয়টি সর্বোচ্চ আন্তরিকতা দিয়ে সরকার বিবেচনা করবে। তবে এ ব্যাপারে বেসরকারি উদ্যোক্তাসহ এ খাতের সংশ্লিষ্ট সকলকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে।’

সরকার মৎস্য খাতকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য বিভিন্ন পরিকল্পনা নিয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা থেকে শুরু করে সব বিষয়ে এ খাতকে আলাদাভাবে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। করোনাকালেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মৎস্য খাতের উন্নয়নে গৃহীত সকল প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় আমাদের মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট ২৯ প্রজাতির দেশীয় বিলুপ্তপ্রায় মাছ নতুন করে বৈজ্ঞানিক গবেষণার মাধ্যমে ফিরিয়ে এনেছে। মাছ উৎপাদনে ক্ষতিগ্রস্ত খামারিদের সরকারিভাবে পোনা বিতরণ করা হয়েছে। মৎস্য খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে এবং একশ’ কোটি টাকা নগদ প্রণোদনা দেওয়া হয়েছে। উৎপাদিত মাছ বিক্রয়ের জন্য ভ্রমাম্যাণ ও অনলাইন ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে। এভাবে করোনায় মৎস্য খাতকে সচল রাখার জন্য সরকার বিভিন্ন ব্যবস্থা নিয়েছে।’

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার,  বাংলাদেশ ফ্রোজেন ফুডস এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মো. আমিন উল্লাহ, সিনিয়র সহসভাপতি মো. খলিলুল্লাহ, সহসভাপতি আশরাফ হোসেন মাসুদ ও হুমায়ুন কবির, পরিচালক শ্যামল দাস, মহাসচিব শেখ সোহেল পারভেজ, সাবেক সহসভাপতি ড. সৈয়দ আবু আসফার, এসিআই অ্যাগ্রোবিজনেসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. ফা হ আনসারী এবং জেমিনি সী ফুডস্ লিমিটেড, খুলনা-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী ইনাম আহমেদ সভায় অংশগ্রহণ করেন।

/এমএইচবি/জেইউ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে আরও এক মামলা

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে আরও এক মামলা

অনলাইনে বোমা তৈরির স্কুল চালাতো জঙ্গি ফোরকান

অনলাইনে বোমা তৈরির স্কুল চালাতো জঙ্গি ফোরকান

হেলেনা জাহাঙ্গীর ৩ দিনের রিমান্ডে

হেলেনা জাহাঙ্গীর ৩ দিনের রিমান্ডে

হেলেনা জাহাঙ্গীরের ৫ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

হেলেনা জাহাঙ্গীরের ৫ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

টিকার টার্গেট এক কোটি, তবে পরিকল্পনায় আসতে পারে পরিবর্তন

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২১, ০৯:০০

শুরুতে মাসে ২৫ লাখ, এরপর ৫০ লাখ। এবার মাসে এক কোটি বা তারও বেশি মানুষকে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা করছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। আর তাতে করে দেশে করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকার পরিধি আরও বাড়ছে। বেশি সংখ্যক মানুষকে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনায় এবার ইউনিয়ন পর্যায়ে টিকা দেওয়া, টিকার বয়সসীমা কমিয়ে আনাসহ নানাবিধ কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সরকার। সঙ্গে দেশে আসতে শুরু করেছে থেমে থাকা অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকাও।

দেশে আগামী ৭ আগস্ট থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ে গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু করতে যাচ্ছে সরকার।

প্রসঙ্গত, গত ২৭ জুলাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন- একেবারে গ্রাম পর্যায়ে টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার। সেখানে আইডি কার্ড দেখিয়ে রেজিস্ট্রেশন করে সরাসরি টিকা নিতে পারবেন সাধারণ মানুষ।

করোনাভাইরাস থেকে সবার সুরক্ষিত থাকা দরকার জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ইতোমধ্যে টিকা যেখানে যা পাওয়া যাচ্ছে তা আমরা কিনছি। তার জন্য টাকাও রাখা আছে। প্রয়োজনে আরও টাকা খরচ করবো। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা মোতাবেক যারা টিকা নিতে পারবে, তারা সবাই যাতে টিকা নিতে পারে সেই ব্যবস্থা আমরা করে দিচ্ছি। ইতোমধ্যে ১ কোটি ৮৭ লাখের কাছাকাছি টিকা দেওয়া হয়ে গেছে। আমরা আরও টিকা দিচ্ছি।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানাচ্ছে, গণটিকাদান কর্মসূচির অংশ হিসেবে তারা প্রস্তুতি নিচ্ছেন। আগামী সাত আগস্ট থেকে  ইউনিয়ন পর্যায়ে টিকাদান কর্মসূচির জন্য সব কাজ সম্পন্ন করে আনছেন তারা।

ইউনিয়ন পর্যায়ে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হতে যাচ্ছে। আর এ বিষয়ে প্রস্তুতি কতটুকু রয়েছে জানতে চাইলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম জানিয়েছেন, ইউনিয়ন পর্যায়ে টিকা দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রশিক্ষণ চলছে।

সারাদেশের বিভাগগুলোতে বিভিন্ন ব্লক করে অনলাইনে প্রশিক্ষণ চলছে জানিয়ে তিনি বলেন, আগামী ছয় আগস্ট পর্যন্ত প্রশিক্ষণ চলবে। আর সেদিনেই স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক একটি সংবাদ সম্মেলন করবেন বলেও জানান তিনি। সেদিনই এ বিষয়ে সম্পূর্ণ পরিকল্পনা জানানো হবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে, টিকা পেতে সরকারি অনলাইন নিবন্ধন প্ল্যাটফর্ম সুরক্ষা ওয়েবসাইটে নিবন্ধন করার বাইরেও জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা হচ্ছে। সেক্ষেত্রে ঢাকার বাইরে গ্রাম পর্যায়ে কোনও বিশৃঙ্খলার আশঙ্কা করছেন কিনা প্রশ্নে তিনি বলেন, কিছুটাতো হতেই পারে।

তবে এজন্য স্থানীয় সরকার এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে সহায়তা চেয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর- জানান তিনি।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক বলেন, ‘স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদেরও ইনভল্ব করেছি। আর এজন্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক দেশের মেয়র, উপজেলা চেয়ারম্যান এবং সংসদ সদস্যদের সঙ্গে ভার্চুয়ালি মিটিং করবেন- এমন একটি পরিকল্পনা রয়েছে’।

তবে এখানে সবার সহযোগিতা লাগবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, কেবল আইন প্রয়োগকারী লোকদের দিয়েতো হবে না। কারণ, জনপ্রতিনিধিরা ইনভল্ব না হলে সমস্যা হতেই পারে।

এক কোটি টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা হচ্ছে। কিন্তু এত পরিমাণ টিকা দেশে আসবে কিনা প্রশ্নে অধ্যাপক আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম বলেন, আমরা প্ল্যান করে রেখেছি, কিন্তু প্ল্যান প্রতি মুহূর্তেই বদলাবে টিকা পাওয়ার সাপেক্ষে।

তিনি বলেন, ‘আমাদের মত দেশে যদি প্ল্যান না করে রাখি, তাহলে তো কাজ করা যাবে না। আর প্ল্যান তো ফিক্সড কিছু না। আমরা মনে করি, প্ল্যান প্রতি মুহূর্তেই কাস্টমাইজড করা হবে কতটুকু পাওয়া গেল, কত বুথে টিকা দেওয়া যাবে- সবকিছুর ওপর’।

হয়তো কোনও ব্লকে টিকা দেওয়ার জন্য ১৬ জন কর্মী রয়েছেন, কিন্তু ১৬ জনই অসুস্থ হয়ে গেল- তাহলে তখন কী হবে? এটা হতেই পারে জানিয়ে স্বাস্থ্যের মহাপরিচালক বলেন, ‘সেজন্যই আমরা পরিকল্পনা করে রেখেছি, যখন যেভাবে টিকা আসবে, সেভাবে আমরা কাজ করবো। তবে আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে, মাসে এক কোটির অধিক টিকা দেওয়া। তা না হলে আমরা সারাদেশকে কাভারে আনতে পারবো না’।

দেশের ৮০ শতাংশ মানুষকে টিকা দিতে হলে…সেটাই করতে হবে বলেন অধ্যাপক আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম।

এদিকে, ইউনিয়ন পর্যায়ে টিকাদানের বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতর নির্দেশনা পাঠিয়েছে।

অধ্যাপক আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম বলেন, ইউনিয়ন পর্যায়ের টিকাদান নিয়ে একেবারে একটি মাইক্রো প্ল্যান ঠিক করা হয়েছে। সে অনুযায়ীই কাজ হবে। সবাইকে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা হলেও সেখানে ৫০ বছরের বেশি নারী এবং পুরুষদের প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে আর সকাল নয়টা থেকে বিকাল তিনটা পর্যন্ত টিকা দেওয়া হবে।

টিকাকেন্দ্রের স্থান ঠিক করবে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, কাউন্সিলর ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনা করে। তবে কমিউনিটি ক্লিনিক, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের মত স্থানগুলোকে টিকাকেন্দ্র করা হবে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের ভ্যাকসিন ডেপ্লয়মেন্ট কমিটির সদস্য সচিব ডা. শামসুল হক বলেন, প্রতিটি ইউনিয়নে একটি করে সাড়ে চার হাজারের মতো বা তারও বেশি টিকাকেন্দ্র হবে। একইসঙ্গে পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডে একটি করে আর সিটি কর্পোরেশনের প্রতিটি ওয়ার্ডে তিনটি করে কেন্দ্র করার পরিকল্পনা করা হয়েছে।

ডা. শামসুল হক বলেন, সপ্তাহে তিন দিন টিকা দেওয়া হবে। কেন্দ্রগুলোতে দুজন থাকবেন টিকা দেওয়ার জন্য আর তিনজন ভলান্টিয়ার থাকবেন। তারাই টিকাদানের প্রতিদিনের কার্যক্রম মনিটর করবেন।

বিজ্ঞান এবং সংস্কৃতি যেখানে মিলে যায়, সেখানে বিজ্ঞান বলছে বেশি বয়সী-অসুস্থ-গর্ভবতী নারী এবং ঝুঁকিগ্রস্ত যারা তাদের টিকা দিলে মৃত্যু এবং হাসপাতালে ভর্তি হওয়া কমবে জানিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মাকোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক সায়েদুর রহমান খসরু বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘কারণ প্রোটেকশন তাদের বেশি দরকার। একইসঙ্গে দেশের সংস্কৃতি বলে, আমাদের অভিভাবক অথবা অসুস্থদের আগে খাবার দিই অথবা ভালো ঘরটা দিই ঘুমানোর জন্য। অতএব বর্তমানে এই যে ২৫ বা ৩০ বছর টিকার জন্য বয়স কমানো হয়েছে, এটা কমানো হোক। রেজিস্ট্রেশন হোক। কিন্তু সর্বস্তরে যেন এই সংস্কৃতি বহাল থাকে, যেহেতু এটা বিজ্ঞানের সঙ্গে মানানসই’।

অধ্যাপক সায়েদুর রহমান বলেন, একটি ইউনিয়নে ৬০ বছরের কাউকে বাদ দিয়ে যেন ৫০ বছর বয়সীদের টিকা না দেওয়া হয় জ্ঞানত। কেউ অসুস্থ হয়ে ঘরে থাকলে যেন তাকে অন্তত টিকাদান কেন্দ্রে এনে টিকা দেওয়া হয়। গর্ভবতী এবং যেসব মায়েরা সন্তানকে বুকের দুধ খাওয়াচ্ছেন, তাদেরকে টিকা দেওয়া হোক। এই বিষয়গুলোকে গুরুত্ব দিতে হবে।

অগ্রাধিকার যদি বদলে যায়, কেবল সংখ্যায় ভ্যাকসিন কাভার করলে কিন্তু তেমন বড় কোনও অগ্রগতি হবে না- বলেন তিনি।

‘যারা তরুণ তাদের তুলনায় বৃদ্ধ এবং অসুস্থদের কেউ আক্রান্ত হলে মৃত্যুর সম্ভাবনা চার থেকে পাঁচগুণ বা কোথাও কোথাও আটগুণ বেশি থাকে বয়স্ক মানুষটির। তাই এবারে যখনি টিকাদান কর্মসূচি সম্প্রসারিত হবে সেখানে ঝুঁকিগ্রস্ত যারা বয়স-রোগ-প্রসূতি এবং দুগ্ধ দানকারী- এই চার গ্রুপ, যারা ঝুঁকিগ্রস্ত তাদেরকে টিকা দেওয়ার বিষয়ে স্থানীয় প্রতিনিধিরা যেন খুঁজে খুঁজে এনে টিকা দেন।’

আর নারীরা যে টিকাদানে পিছিয়ে গেছে- এবারের টিকাদানে যেন সেটা কাভার করার জন্য নজর থাকে বলেন অধ্যাপক সায়েদুর রহমান।

 

/এনএইচ/

সম্পর্কিত

করোনা রোগীর চাপ ঢাকা মেডিক্যালে

করোনা রোগীর চাপ ঢাকা মেডিক্যালে

শনি ও বুধবার আসছে অ্যাস্ট্রাজেনেকার আরও ১৩ লাখ ডোজ টিকা

শনি ও বুধবার আসছে অ্যাস্ট্রাজেনেকার আরও ১৩ লাখ ডোজ টিকা

রাজধানীর ৯ সরকারি হাসপাতালে ফাঁকা নেই আইসিইউ বেড

রাজধানীর ৯ সরকারি হাসপাতালে ফাঁকা নেই আইসিইউ বেড

ঢাকায় একদিনে রেকর্ড ডেঙ্গু রোগী

ঢাকায় একদিনে রেকর্ড ডেঙ্গু রোগী

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে আরও এক মামলা

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২১, ০৮:৫৮

আওয়ামী লীগের উপকমিটি থেকে অব্যাহতি পাওয়া হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। শুক্রবার (৩০ জুলাই) দিবাগত রাতে রাজধানীর পল্লবী থানায় মামলাটি করেন র‌্যাব-৪ এর একজন কর্মকর্তা।

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনের ৩৫, ৫৫ ও ৭৩ ধারায় মামলাটি দায়ের করা হয়। পল্লবী থানার ডিউটি অফিসার এসআই অনয় শুক্রবার দিবাগত রাত ২টার দিকে বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। 

তিনি বলেন, অনলাইন টেলিভিশিন ‘জয়যাত্রা টেলিভিশন’- এর বৈধ কাগজপত্র না থাকায় এবং বেশকিছু অনুনোমোদিত সম্প্রচার কাজে ব্যবহৃত ডিভাইস ব্যবহার করার অভিযোগ করা হয় এজাহারে। এছাড়া জব্দ করা বেশ কিছু আলামত হস্তান্তর করা হয়েছে।

গত ২৯ জুলাই রাতে দীর্ঘ ৪ ঘণ্টা অভিযানের পর গুলশানের নিজ বাসা থেকে ব্যবসায়ী হেলেনা জাহাঙ্গীরকে আটক করা হয়। পরদিন ৩০ জুলাই র‌্যাব বাদি হয়ে রাজধানীর গুলশান থানায় তার বিরুদ্ধে দুটি মামলা দায়ের করে। এরমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচারের অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা করা হয়েছে।

আর হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসা থেকে উদ্ধার করা মদ, ওয়াকিটকি, ক্যাসিনো সরঞ্জাম ও হরিণের চামড়ার বিষয়ে বন্যপ্রাণী আইন, টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ও বিশেষ ক্ষমতা আইনের ধারায় আরেকটি মামলা দায়ের করা হয়।

/আরটি/ইউএস/

সম্পর্কিত

অনলাইনে বোমা তৈরির স্কুল চালাতো জঙ্গি ফোরকান

অনলাইনে বোমা তৈরির স্কুল চালাতো জঙ্গি ফোরকান

হেলেনা জাহাঙ্গীর ৩ দিনের রিমান্ডে

হেলেনা জাহাঙ্গীর ৩ দিনের রিমান্ডে

হেলেনা জাহাঙ্গীরের ৫ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

হেলেনা জাহাঙ্গীরের ৫ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে দুই মামলা

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে দুই মামলা

করোনা রোগীর চাপ ঢাকা মেডিক্যালে

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২১, ০০:১৯

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে অন্যান্য দিনের মতো বৃহস্পতিবারও করোনা রোগীর চাপ লক্ষ্য করা গেছে। বেশির ভাগ রোগীই আসছেন বিভিন্ন জেলা থেকে। তাদের অধিকাংশই রেফার্ড রোগী। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ৫৭ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন এই হাসপাতালের করোনা ইউনিটে। রোগীদের মধ্যে যাদের অবস্থা গুরুতর তাদেরই কেবল ভর্তি নেওয়া হচ্ছে। যে সব রোগীর অবস্থা মোটামুটি ভালো, অক্সিজেন লাগছে না, তাদের ব্যবস্থাপত্র দিয়ে ছেড়ে দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। বাসায় রেখে চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন। সিট ফাঁকা না থাকলে বাধ্য হয়ে অনেককে অন্য হাসপাতালে রেফার করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে ঢামেক হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত উপপরিচালক আশরাফুল আলম বলেন, ‘আমাদের এখানে সিট ফাঁকা হলেই রোগী ভর্তি দেওয়া হয়। আমরা চাই না কোনও রোগী অন্যত্র চলে যাক। বিভিন্ন জেলা থেকে বেশির ভাগ রোগীকে ঢামেক হাসপাতালে রেফার করা হয়। আমাদের এখানে কোনও রকম ব্যবস্থা করতে পারলে তাই করে থাকি। সিটের বাইরেও অনেক রোগী ভর্তি নিয়েছি।’

করোনা ইউনিটে ডিউটিরত একজন নার্স জানিয়েছেন, রোগী ছুটি হয় সকাল থেকে দুপুরের মধ্যে। সেই সিটের বিপরীতে বাকি সময়ে রোগী ভর্তি দেন জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা।

ঢাকা মেডিক্যালে করোনা রোগী

কুমিল্লা জেলার হোমনা উপজেলার রোগী মায়া বেগম (৫০)। তার ছেলে মাহমুদুল বলেন, আমার মায়ের ডায়াবেটিস আছে। তার মধ্যে ঈদের পর থেকেই জ্বরে ভুগছেন। সঙ্গে কাশি আছে। প্রথমে স্থানীয় চিকিৎসকের পরামর্শে চিকিৎসা করাচ্ছিলাম। এখন তিনি খুবই দুর্বল হয়ে গেছেন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে দেয়। তাই নিয়ে আসি। চিকিৎসকরা পরীক্ষা নিরীক্ষার পর কাগজ-পত্র দেখে ভর্তি দিয়েছেন।’

ঢামেক হাসপাতালের একজন সিনিয়র স্টাফ নার্স বলেন, ‘৩-৪ দিন ধরে আমি অসুস্থ বোধ করছিলেন। বুধবার করোনা টেস্ট করাতে দেই। আজ রিপোর্ট পেয়েছি পজিটিভ। তাই ভর্তি হতে এসেছি।’

নরসিংদী সদর উপজেলার বাসিন্দা হেলাল উদ্দিন (৫০)। তিনি সৌদি প্রবাসী। হেলাল উদ্দিনের শ্যালক আরিফুল ইসলাম বলেন, ‘আমার ভগ্নিপতি ছুটিতে দেশে এসেছেন। সেখান থেকে এক ডোজ টিকাও নিয়েছেন। কয়েক দিন ধরে জ্বর, শ্বাসকষ্ট হচ্ছে। আমরা নরসিংদী সদর উপজেলাসহ দুটি হাসপাতালে নিয়েছি। সেখানে নাকি সিট নেই। তারাই ঢাকায় নিয়ে আসতে বলেছে। তাই অক্সিজেন লাগিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে নিয়ে আসেছি। জানি না এখন ভর্তি করাতে পারি কিনা। অপেক্ষায় রয়েছি।’

 

/আইএ/

সম্পর্কিত

শনি ও বুধবার আসছে অ্যাস্ট্রাজেনেকার আরও ১৩ লাখ ডোজ টিকা

শনি ও বুধবার আসছে অ্যাস্ট্রাজেনেকার আরও ১৩ লাখ ডোজ টিকা

রাজধানীর ৯ সরকারি হাসপাতালে ফাঁকা নেই আইসিইউ বেড

রাজধানীর ৯ সরকারি হাসপাতালে ফাঁকা নেই আইসিইউ বেড

ঢাকায় একদিনে রেকর্ড ডেঙ্গু রোগী

ঢাকায় একদিনে রেকর্ড ডেঙ্গু রোগী

অনুমোদন পেলো বুয়েট উদ্ভাবিত অক্সিজেট

অনুমোদন পেলো বুয়েট উদ্ভাবিত অক্সিজেট

প্রতি শনিবার ১০ মিনিট সময় চান মেয়র আতিক

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২১, ০০:০৯

ডেঙ্গু প্রতিরোধে প্রতি শনিবার সকাল ১০টা থেকে ১০টা ১০ মিনিট পর্যন্ত ১০ মিনিট সময় চান ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

তারই অংশ হিসেবে এদিন তিনি নগরবাসীকে সচেতন করতে নিজ বাসা নিজ হাতে পরিষ্কার করবেন।

বিষয়টি তার ভেরিফায়েড ফেসবুক অডিয়েন্স ইসির ফেসবুক পেজ থেকে সরাসরি সম্প্রচার করা হবে।

‘দশটায় ১০ মিনিট প্রতি শনিবার, নিজ নিজ বাসাবাড়ি করি পরিষ্কার’ স্লোগানকে সামনে রেখে এ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে।

 

/এসএস/এনএইচ/

সম্পর্কিত

ডেঙ্গু প্রতিরোধে মাঠে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘মাঞ্জা’

ডেঙ্গু প্রতিরোধে মাঠে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘মাঞ্জা’

লকডাউন অমান্য করায় শুক্রবার রাজধানীতে ৩৮১ জন গ্রেফতার

লকডাউন অমান্য করায় শুক্রবার রাজধানীতে ৩৮১ জন গ্রেফতার

জয়যাত্রা টেলিভিশন ঘিরে ছিল হেলেনা জাহাঙ্গীরের চাঁদাবাজি

জয়যাত্রা টেলিভিশন ঘিরে ছিল হেলেনা জাহাঙ্গীরের চাঁদাবাজি

করোনা কোথায়? (ফটোস্টোরি)

করোনা কোথায়? (ফটোস্টোরি)

করোনায় প্রথম র‌্যাবের নারী সদস্যের মৃত্যু, মহাপরিচালকের শোক

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২১, ০০:০৪

করোনায় আক্রান্ত হয়ে রাশেদা ফেরদৌস নামে একজন নারী র‌্যাব সদস্য মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) রাতে রাজধানীর ইমপালস হাসপাতালে মারা যান তিনি। তার মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছেন র‌্যাব মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন। শুক্রবার (৩০ জুলাই) গণমাধ্যমে পাঠানো এক শোকবার্তায় এ তথ্য জানানো হয়।

শোক বার্তায় বলা হয়, রাশেদা ফেরদৌস র‌্যাব-৩ এ প্রেষণে কর্মরত ছিলেন। করোনা সংক্রমণের শুরু থেকেই চলমান সব অপারেশন কর্মকাণ্ডে সম্মুখ যোদ্ধা হিসেবে সাহসিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন তিনি। এই নারী সদস্যের অকাল মৃত্যুতে আমরা মর্মাহত। করোনায় র‌্যাবে এই প্রথম কোনও নারী সদস্য জীবন উৎসর্গ করলেন। তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয় শোক বার্তায়।

মরহুমার গ্রামের বাড়ি সিলেটের গোপালগঞ্জ উপজেলা। সেখানেই তাকে দাফন করা হয়েছে। তার পরিবার-পরিজন যেন এই অপরিমেয় শোক সহ্য করতে পারেন সে জন্য আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করেন র‌্যাব মহাপরিচালক। 

রাশেদা ফেরদৌস ২০২১ সালের ৫ মার্চ হতে র‌্যাবে কর্মরত। তিনি গাজীপুরের সফিপুরের মহিলা আনসার ব্যাটালিয়ন থেকে র‌্যাবে যোগদান করেন। 

 

/আরটি/আইএ/

সম্পর্কিত

হেলেনা জাহাঙ্গীরের ৫ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

হেলেনা জাহাঙ্গীরের ৫ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

রাশিয়া সফর শেষে দেশে ফিরলেন নৌবাহিনী প্রধান

রাশিয়া সফর শেষে দেশে ফিরলেন নৌবাহিনী প্রধান

‘মানবপাচার মামলার প্রসিকিউশনে ত্রুটিগুলোর দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে’

‘মানবপাচার মামলার প্রসিকিউশনে ত্রুটিগুলোর দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে’

সৌদি আরব থেকে ফেরত পাঠালে হজ-ওমরাহ ছাড়া প্রবেশ করা যাবে না

সৌদি আরব থেকে ফেরত পাঠালে হজ-ওমরাহ ছাড়া প্রবেশ করা যাবে না

সর্বশেষ

টিকার টার্গেট এক কোটি, তবে পরিকল্পনায় আসতে পারে পরিবর্তন

টিকার টার্গেট এক কোটি, তবে পরিকল্পনায় আসতে পারে পরিবর্তন

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে আরও এক মামলা

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে আরও এক মামলা

সার্বভৌম ক্ষমতার ভিত্তিতে সমস্যা সমাধানের আহ্বান

সার্বভৌম ক্ষমতার ভিত্তিতে সমস্যা সমাধানের আহ্বান

৭৮ বছর বয়সে টিকটকে ভাইরাল

৭৮ বছর বয়সে টিকটকে ভাইরাল

বিরল তুষারপাতে ঢেকে গেলো ব্রাজিল

বিরল তুষারপাতে ঢেকে গেলো ব্রাজিল

গাদ্দাফির ছেলে জীবিত, প্রেসিডেন্ট হওয়ার ইঙ্গিত!

গাদ্দাফির ছেলে জীবিত, প্রেসিডেন্ট হওয়ার ইঙ্গিত!

ওমান উপকূলে জাহাজে হামলায় ইরান দায়ী: ইসরায়েল

ওমান উপকূলে জাহাজে হামলায় ইরান দায়ী: ইসরায়েল

সিনহা হত্যা: সাক্ষ্যগ্রহণে থেমে আছে বিচারকাজ

সিনহা হত্যা: সাক্ষ্যগ্রহণে থেমে আছে বিচারকাজ

ইতালি প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা বাড়লো

ইতালি প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা বাড়লো

রুশ সমর্থিত আসাদ বাহিনীর ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় সিরিয়ায় নিহত ১৮

রুশ সমর্থিত আসাদ বাহিনীর ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় সিরিয়ায় নিহত ১৮

৫ আগস্টের আগে কারখানায় যোগ দেওয়া বাধ্যতামূলক নয়: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

৫ আগস্টের আগে কারখানায় যোগ দেওয়া বাধ্যতামূলক নয়: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

ঈদে বিক্রি না হওয়া ‘কালো মানিক’কে নিয়ে বিপাকে খামারি

ঈদে বিক্রি না হওয়া ‘কালো মানিক’কে নিয়ে বিপাকে খামারি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে আরও এক মামলা

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে আরও এক মামলা

অনলাইনে বোমা তৈরির স্কুল চালাতো জঙ্গি ফোরকান

অনলাইনে বোমা তৈরির স্কুল চালাতো জঙ্গি ফোরকান

হেলেনা জাহাঙ্গীর ৩ দিনের রিমান্ডে

হেলেনা জাহাঙ্গীর ৩ দিনের রিমান্ডে

হেলেনা জাহাঙ্গীরের ৫ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

হেলেনা জাহাঙ্গীরের ৫ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে দুই মামলা

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে দুই মামলা

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসা থেকে যা উদ্ধার হলো (ফটোস্টোরি)

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসা থেকে যা উদ্ধার হলো (ফটোস্টোরি)

যেসব মামলা হতে পারে হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে

যেসব মামলা হতে পারে হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে

‘গেলো ৫ বছরের তুলনায়  সড়কে এবার ঈদে দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি বেড়েছে’

‘গেলো ৫ বছরের তুলনায় সড়কে এবার ঈদে দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি বেড়েছে’

বনবিড়াল পিটিয়ে হত্যাকারী সেই ব্যক্তি আটক

বনবিড়াল পিটিয়ে হত্যাকারী সেই ব্যক্তি আটক

কারবারিরা লেনদেন করছে ভার্চুয়াল মুদ্রায়

মাদক ভয়ংকর-৫কারবারিরা লেনদেন করছে ভার্চুয়াল মুদ্রায়

© 2021 Bangla Tribune