X
রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

আপডেট : ২৫ জুন ২০২১, ১৮:৩৮

দুই মেয়াদে উপাচার্যের দায়িত্ব পালন করা টাঙ্গাইলের মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আলাউদ্দিনের বিরুদ্ধে শেষ সময়ে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ উঠেছে। উপাচার্য তার অনুগত ব্যক্তিদের গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব দেওয়ার আয়োজন করেছেন এবং গণনিয়োগ দেওয়ার চেষ্টা করছেন বলেও অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।

সম্প্রতি শিক্ষামন্ত্রী বরাবর লিখিত অভিযোগ করে উপাচার্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও আইসিটি বিভাগের অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ শাহীন উদ্দিন। গত ১৭ জুন লিখিতভাবে অভিযোগ করেন তিনি। 

জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও আইসিটি বিভাগের অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ শাহীন উদ্দিন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘শিক্ষকরা মিলেই এই অভিযোগ আমরা করেছি।  বর্তমান উপাচার্য মেয়াদের শেষ দিকে এসে অনেকটা স্বেচ্ছাচারীর মতো আচরণ করছেন।  প্রশাসনিক পদগুলোতে নিয়োগ দেওয়ার চেষ্টা করছেন। আমরা উপাচার্যকেও বলার চেষ্টা করেছি, শেষ মুহূর্তে এগুলো করবেন না। কিন্তু কোনোভাবেই তিনি শুনতে চাচ্ছেন না।’

তিনি আরও বলেন, ‘নতুন উপ-উপাচার্য যোগদান করেছেন। বিষয়টি তাকেও বলেছি। তিনি আমাদের সঙ্গে একমত হয়েছেন যে, শেষ মুহূর্তে এগুলো হওয়া উচিত নয়।  তারপরও উপাচার্য শুনছেন না। সে কারণেই মন্ত্রীর কাছে লিখিতভাবে জানিয়েছি।’   

ভিসির বিরুদ্ধে শিক্ষামন্ত্রীর বরাবর দেওয়া চিঠিতে অভিযোগ করা হয়, বর্তমান উপাচার্যের মেয়াদ শেষ হবে আগামী ২৮ জুলাই। এর আগেই শিক্ষকদের মতামত উপেক্ষা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের রিজেন্ট বোর্ড, প্রক্টর, প্রভোস্টসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে উপাচার্যের অনুগত ব্যক্তিদের দায়িত্ব দেওয়ার আয়োজন করেছেন উপাচার্য।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, প্রায় দুই বছর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিনির্ধারণী সর্বোচ্চ পর্যায় রিজেন্ট বোর্ডের মেয়াদ শেষ হলেও সম্প্রতি উপাচার্য তার আস্থাভাজন লোকদের রিজেন্ট বোর্ডে আনার তোড়জোর শুরু করেছেন।

মন্ত্রণালয়ে দেওয়া চিঠির সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসির আস্থাভাজনদের মধ্যে  একজন হচ্ছেন এনভায়রনমেন্ট সায়েন্স অ্যান্ড রিসোর্স ম্যানেজমেন্টের অধ্যাপক ড. মো. সিরাজুল ইসলাম। বর্তমান উপাচার্য  বিভাগীয় প্লানিং কমিটির আপত্তি থাকা সত্ত্বেও পদোন্নতির নীতিমালা উপেক্ষা করে সিরাজুল ইসলামকে অধ্যাপক পদে পদোন্নতি দিয়েছেন।

এই বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ এবং পদোন্নতির ক্ষেত্রে শিক্ষা জীবনের সকল পর্যায়ে প্রথম বিভাগ থাকা বাধ্যতামূলক থাকলেও রসায়ন বিভাগের শিক্ষক ড. খাদেমুল ইসলামের স্নাতক পর্যায় দ্বিতীয় বিভাগ থাকা সত্ত্বেও পদোন্নতির নীতিমালা লঙ্ঘন করে ২০১৯ সালে তাকে অধ্যাপক পদে পদোন্নতি দিয়েছেন উপাচার্য। এছাড়া ড. খাদেমুল ইসলাম প্রক্টরের দায়িত্বে থাকাকালীন একজন ছাত্র হত্যা এবং দুই জন ছাত্র নিখোঁজ হয়। এসব ঘটনায় প্রশ্নবিদ্ধ হয় প্রক্টর খাদেমুলের ভূমিকা।

এ ছাড়াও গণিত বিভাগের শিক্ষক ড. পিনাকি দে বেসরকারি কলেজের অভিজ্ঞতা ব্যবহার করে ও নীতিমালা লঙ্ঘন করে ২০১৯ সালে অধ্যাপক পদে পদোন্নতি পেয়েছেন উপাচর্যের ইচ্ছায়। এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিমালা বহির্ভূত বলে অভিযোগ শিক্ষকদের।

এছাড়া সম্প্রতি উপাচার্য ড. আলাউদ্দিন ও তার ঘনিষ্ঠ সহযোগী হিসেবে পরিচিত হিসাব শাখার পরিচালক এ. কে. এস. এম তোফাজ্জল হকের বিরুদ্ধে সমন্বয়হীনভাবে প্রায় ১৯ কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ করা হয় শিক্ষামন্ত্রীকে দেওয়া চিঠিতে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক প্রক্টর ও ক্রিমিনোলজি অ্যান্ড পুলিশ সায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক ড. উমর ফারুক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘উপাচার্যের নানা অনিয়ম, বাণিজ্য ও দুর্নীতির সহযোগী শিক্ষকদেরকে অনিয়মের মাধ্যমে পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে। বর্তমান উপাচার্য তার সহযোগীদেরকে বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দিয়ে বিদায় নিতে চাইছেন, যেন তার দুর্নীতির বিষয়গুলো প্রকাশিত না হয়। এটি পরবর্তী প্রশাসনের জন্য হুমকি হতে পারে। এতে বিশ্ববিদ্যালয় ও সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হবে।’

শুক্রবার (২৫ জুন) বিকালে অভিযোগ প্রসঙ্গে মওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আলাউদ্দিন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘নিয়মের বাইরে আমি কিছুই করিনি। মনে রাখতে হবে, ভাইস চ্যান্সেলর একা কিছু করেন না, যা করেন নিয়ম অনুযায়ী পর্ষদের মাধ্যমে।  যিনি অভিযোগ করেছেন, তার কাছে ব্যাখ্যা চান কেনও অভিযোগ করেছেন।’

 

/এসএমএ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

১৫ আগস্টে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি

১৫ আগস্টে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি

প্রতিদিন রান্না করা খাবার তুলে দেবো কর্মহীনদের: বিদিশা

প্রতিদিন রান্না করা খাবার তুলে দেবো কর্মহীনদের: বিদিশা

চামড়া নিয়ে এবার কোনও অভিযোগ পাইনি: শিল্পমন্ত্রী

চামড়া নিয়ে এবার কোনও অভিযোগ পাইনি: শিল্পমন্ত্রী

১৫ আগস্টে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২১:৩৪

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদৎ বার্ষিকীতে দেশব্যাপী যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগম্ভীর পরিবেশে জাতীয় শোক দিবস (১৫ আগস্ট) পালনের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় জাতীয় কর্মসূচির আলোকে নির্দেশনা দিয়েছে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণলয় থেকে গত ১৯ জুলাই এই নির্দেশনা দেওয়া হয়।

নির্দেশনা অনুযায়ী, এবারের কর্মসূচিতে দফতর, সংস্থা, বিভাগীয়, জেলা ও উপজেলা কার্যালয়, সকল পিটিআই, প্রাথমিক বিদ্যালয় ও শিশু কল্যাণ ট্রাস্টের স্কুলগুলোতে ১৫ আগস্ট জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখতে হবে।

দফতর, সংস্থা এবং পিটিআইয়ের মসজিদে বাদ জোহর সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত ও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে বিশেষ মোনাজাত করতে হবে। মন্দির, গির্জা, প্যাগোডা ও অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে সুবিধাজনক সময়ে বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করতে হবে।

বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী, কারাগারের রোজনামচা, সিক্রেট ডকুমেন্ট অব ইন্টেলিজেনস ব্রাঞ্চ অন ফাদার অব দ্য নেশন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, আমার দেখা নয়া চীন ও বাংলাদেশ শিশু একাডেমির শিশুদের জন্য প্রকাশিত বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক ২৬টি গ্রন্থ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কিনবে এবং পাঠের ব্যবস্থা করবে। উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা কার্যক্রম ও কৃতি শিক্ষার্থীদের এসব বই উপহার হিসেবে দেওয়ার ব্যবস্থা নিতে হবে। জাতীয় শোক দিবসে আয়োজিত সকল প্রতিযোগিতায় বইগুলো উপহার হিসেবে দিতে হবে।

প্রতিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কেনা বইয়ের তালিকার একটি প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে পাঠাবেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক।

এছাড়া দফতর ও সংস্থা ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠানের আয়োজন করবে।

/এসএমএ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

প্রতিদিন রান্না করা খাবার তুলে দেবো কর্মহীনদের: বিদিশা

প্রতিদিন রান্না করা খাবার তুলে দেবো কর্মহীনদের: বিদিশা

চামড়া নিয়ে এবার কোনও অভিযোগ পাইনি: শিল্পমন্ত্রী

চামড়া নিয়ে এবার কোনও অভিযোগ পাইনি: শিল্পমন্ত্রী

যেখানে ডেঙ্গু রোগী সেখানেই বিশেষ অভিযান: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

যেখানে ডেঙ্গু রোগী সেখানেই বিশেষ অভিযান: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ১ আগস্ট থেকে ড্রপডাউন ব্যানার টানানোর নির্দেশ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ১ আগস্ট থেকে ড্রপডাউন ব্যানার টানানোর নির্দেশ

মোটরবাইক এখন দূরপাল্লার বাহন!

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২১:২৯

যশোর থেকে জাহিদ হাসান, পাবনা থেকে শহিদুল, দিনাজপুর থেকে নাহিদ আলম ঢাকায় এসেছেন। লকডাউনে বাস চলছে না, তাই বিকল্প পরিবহন হিসেবে মোটরসাইকেলে চড়ে তারা ঢাকায়  এসেছেন।  টাকা একটু বেশি খরচ হলেও কোনও বাধা বিপত্তি ছাড়াই তারা ঢাকায় চলে এসেছেন।

রবিবার (২৫ জুলাই) দিনভর গাবতলিতে দেখা গেলো, যারা ঢাকায় আসছেন তাদের অধিকাংশ মোটরসাইকেলে চড়ে  এসেছেন। যারা ঢাকা ছাড়ছেন তারাও মোটরসাইকেলে যাচ্ছেন।  তবে মোটরসাইকেলে এলেও তাদের কয়েক দফা ভেঙে ভেঙে আসতে হয়েছে। আর যাদের নিজের মোটরসাইকেল তারা আসছেন সরাসরি। আমিনবাজার ব্রিজের ওপর যাত্রী নেওয়ার জন্য দাঁড়িয়ে থাকছেন ভাড়ায় চলা মোটরসাইকেলগুলো।  এসব মোটরসাইকেল দক্ষিণাঞ্চলের যাত্রীদের ফেরিঘাট আর উত্তরবঙ্গের মানুষদের চান্দুরা পর্যন্ত পৌঁছে দেয়।

গাবতলিতে ঢাকামুখী মানুষের ভিড়

যাত্রীরা বলছেন,  বাস বন্ধ থাকায় মাইক্রোবাস, প্রাইভেট কারের চাহিদা বেড়েছে। যে কারণে চাইলেও ভাড়ায় পাওয়া যাচ্ছে না সময়মতো। লম্বা পথ একই মোটরসাইকেল না এলেও কয়েক দফায় মোটরসাইকেলে ভরসা। যদিও স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে কয়েকগুণ বেশি ভাড়া গুণতে হয়েছে।

আমিন বাজার ব্রিজের ওপর মোটরসাইকেল স্ট্যান্ডে পরিণত হয়েছে। হাঁকডাক দিয়েই যাত্রী ডাকছেন চালকরা। গাবতলিতে আমিন বাজার ব্রিজের পূর্ব প্রান্তে ঢাকা মহানগর পুলিশের চেক পোস্ট। অন্য দিকে আমিন বাজার ব্রিজের পশ্চিম প্রান্তে থেকে  একটু দূরেই ঢাকা জেলা পুলিশের চেক পোস্ট। অনায়াসে ঢাকা জেলা পুলিশের চেক পোস্ট পার হয়ে যাত্রী নামাচ্ছে ব্রিজের কাছে ।  তবে যাত্রী নিয়ে ঢাকা মহানগর পুলিশের চেক পোস্ট পার হওয়ার চেষ্টা করে না মোটরসাইকেলগুলো।

পাবনা থেকে ঢাকায় এসেছেন মজিবুর আহমদ। প্রথম একটি মোটরসাইকেলে বঙ্গবন্ধু সেতু পার হয়েছেন, তারপর আরেক মোটরসাইকেলে চড়ে টাঙ্গাইল। এরপর কিছুটা পথ ভ্যানে।  আবারও পেয়ে গেলেন  মোটরসাইকেল। সেটিতে চড়ে একেবারে আমিন বাজার পর্যন্ত আসেন তিনি। মজিবুর বলেন, রাস্তায় গাড়ি নেই, তাই মোটরসাইকেলই ভরসা। ভেঙে আসতে হয়েছে, এজন্য সময়ও বেশি লেগেছে।

রিকশা-ভ্যানে চড়ে বাড়ি থেকে বঙ্গবন্ধুর সেতুর পূর্ব প্রান্ত পর্যন্ত এসেছেন সবুজ কুমার রায়।  সেখান থেকে চান্দুরা পর্যন্ত আসতে মোটরসাইকেলে ১৫০০ টাকা ভাড়া দিয়েছেন তিনি। তার সঙ্গে ছিলেন আরেক যাত্রী তিনিও দিয়েছেন ১৫০০ টাকা। আর চান্দুরা থেকে আমিন বাজার ব্রিজ পর্যন্ত ৬০০ টাকা ভাড়া দিয়েছেন তিনি।

মোটরসাইকেল চালকরা জানালেন, মূলত যারা উবার পাঠাওয়ে কাজ করতেন তারাই বেশি যাত্রী পরিবহন করছেন। অন্যদিকে করোনা পরিস্থিতিতে চাকরি হারিয়ে, ব্যবসায় লোকসানের মুখে পড়া অনেকেই আয়ের জন্য এসেছেন এ পথে।

হাফেজ  মাসুদুর রহমান সাভারে একটি মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করতেন। এখন মাদ্রাসা বন্ধ তাই আয়ও নেই। পরিবারের খরচ যোগাতে মোটরবাইকে যাত্রী পরিবহন করেন তিনি। মাসুদুর রহমান বলেন,  বেঁচে থাকতে একটা কাজ করতে হবে।  চাইলে তো কোনও ব্যবসা করতে পারবো না, আমার পুঁজি নেই। তাই মোটরসাইকেলে যাত্রী পরিবহন করছি।

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে শুক্রবার (২৩ জুলাই) সকাল ৬টা থেকে কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয়েছে। ৫ আগস্ট দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত বিধিনিষেধ কার্যকর থাকবে। বন্ধ রয়েছে গণপরিবহন। কঠোর বিধিনিষেধে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘরের বাইরে বের হলে তাকে শাস্তির আওতায় নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে সরকার।

/সিএ/এমআর/

সম্পর্কিত

ডেঙ্গুবিরোধী অভিযানে দেড় লাখ টাকা জরিমানা

ডেঙ্গুবিরোধী অভিযানে দেড় লাখ টাকা জরিমানা

পল্লবীতে কুপিয়ে হত্যা: আসামি বাবু রিমান্ডে

পল্লবীতে কুপিয়ে হত্যা: আসামি বাবু রিমান্ডে

থুতনিতে মাস্ক রেখে সিগারেট খাওয়ায় ৫০০ টাকা জরিমানা

থুতনিতে মাস্ক রেখে সিগারেট খাওয়ায় ৫০০ টাকা জরিমানা

রামপুরায় যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

রামপুরায় যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

প্রতিদিন রান্না করা খাবার তুলে দেবো কর্মহীনদের: বিদিশা

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২১:২২

বিদিশা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান বিদিশা বলেছেন, প্রতিদিন রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় কর্মহীন ও অসহায়দের মাঝে খাদ্যসামগ্রী এমনকি রান্না করা খাবার মুখে তুলে দেবো আমরা। তিনি বলেন, ‘করোনায় কর্মহীন অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছে সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ট্রাস্ট। আজ  থেকে তাদের গোপনে নগদ অর্থ ও খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। দেশের যে প্রান্ত থেকে কর্মহীনরা সাহায্য চাইবেন নাম প্রকাশ না করেই, তাদের ডাকে সাড়া দেবে আমাদের টিম।’ 

রবিবার (২৫ জুলাই) গুলশানে অসহায় নিম্নবিত্ত কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলেন।

সম্প্রতি এরিক এরশাদ ঘোষিত ‘নতুন জাতীয় পার্টি’র ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ও এরশাদ ট্রাস্ট্রের চেয়ারম্যান কাজী মো. মামুনুর রশীদ এ সময় উপস্থিত ছিলেন। তারা গুলশান এলাকা ঘুরে কর্মহীনদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন।

 

 

/এসটিএস/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

১৫ আগস্টে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি

১৫ আগস্টে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি

চামড়া নিয়ে এবার কোনও অভিযোগ পাইনি: শিল্পমন্ত্রী

চামড়া নিয়ে এবার কোনও অভিযোগ পাইনি: শিল্পমন্ত্রী

যেখানে ডেঙ্গু রোগী সেখানেই বিশেষ অভিযান: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

যেখানে ডেঙ্গু রোগী সেখানেই বিশেষ অভিযান: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

স্ত্রী-মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যা: বাবার বিরুদ্ধে আরেক মেয়ের জবানবন্দি

স্ত্রী-মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যা: বাবার বিরুদ্ধে আরেক মেয়ের জবানবন্দি

চামড়া নিয়ে এবার কোনও অভিযোগ পাইনি: শিল্পমন্ত্রী

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২০:৩১

শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন বলেছেন, শিল্প মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্টদের পূর্বপ্রস্তুতি ও সার্বিক তত্ত্বাবধায়নের কারণে এবারের কোরবানির চামড়া নিয়ে কোনও ধরনের বিশৃঙ্খলা বা অব্যবস্থাপনা তৈরি হয়নি।

রবিবার (২৫ জুলাই) শিল্প মন্ত্রণালয় ও এর আওতাধীন সংস্থাগুলোর কর্মকর্তাদের সঙ্গে ঈদুল আজহার পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি  যুক্ত হয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শিল্পসচিব জাকিয়া সুলতানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার, অতিরক্ত সচিব  শিবনাথ রায়, শাহ ইমদাদুল হক, বিসিআইসির চেয়ারম্যান মোশতাক হাসান বক্তৃতা করেন। 

এ সময় শিল্পমন্ত্রী বলেন, ‘করোনা মহামারির মাঝেও শিল্প মন্ত্রণালয়ের উন্নয়ন কার্যক্রমকে এগিয়ে নিতে সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে। শিল্প খাতের মঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে স্বাস্থ্য সুরক্ষা ব্যবস্থা প্রতিপালন করে সুস্থ থাকতে হবে এবং সচেতন হতে হবে।’

অনুষ্ঠানে শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার বলেন, ‘কোরবানির চামড়া কীভাবে সংরক্ষণ ও স্থানান্তর করতে হবে, এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়  যথাসময়ে সিদ্ধান্ত ও যথাযথ কার্যক্রমের  গ্রহণের কারণে এ বছর চামড়া নিয়ে আমরা কোনও অভিযোগ পাইনি। ব্যবসায়ীরা চামড়ার সঠিক দাম পেয়েছেন।’

সভাপতির বক্তব্যে শিল্প সচিব বলেন, ‘শিল্প মন্ত্রণালয়, বিসিক এবং মাঠ পর্যায়ায়ের প্রশাসনের সহায়তায় এবং কর্মকর্তাদের অক্লান্ত পরিশ্রম ও আন্তরিক সহযোগিতায় এবারের কোরবানির পশুর চামড়া সংরক্ষণ প্রক্রিয়া সুষ্ঠুভাবে সম্পূর্ণ হয়েছে।’

 

/এসআই/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

১৫ আগস্টে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি

১৫ আগস্টে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি

প্রতিদিন রান্না করা খাবার তুলে দেবো কর্মহীনদের: বিদিশা

প্রতিদিন রান্না করা খাবার তুলে দেবো কর্মহীনদের: বিদিশা

যেখানে ডেঙ্গু রোগী সেখানেই বিশেষ অভিযান: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

যেখানে ডেঙ্গু রোগী সেখানেই বিশেষ অভিযান: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

স্ত্রী-মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যা: বাবার বিরুদ্ধে আরেক মেয়ের জবানবন্দি

স্ত্রী-মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যা: বাবার বিরুদ্ধে আরেক মেয়ের জবানবন্দি

যেখানে ডেঙ্গু রোগী সেখানেই বিশেষ অভিযান: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২০:৪১

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, এডিসসহ অন্যান্য মশার প্রাদুর্ভাব ও ডেঙ্গু রোগ নিয়ন্ত্রণে যে এলাকায়, অর্থাৎ যে বাসাবাড়িতে রোগী পাওয়া যাবে, হাসপাতাল থেকে সেই ব্যক্তির নাম-ঠিকানা নিয়ে তার বাসাসহ ওই অঞ্চল চিহ্নিত করে বিশেষ চিরুনি অভিযান চালানো হবে।

ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় সরকার বিভাগের উদ্যোগে গঠিত ‘ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণ সমন্বয় সেল’-এ এবং দুই সিটি করপোরেশনে তথ্য পাঠানোর জন্য স্বাস্থ্য অধিদফতরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশ প্রদান করেন মন্ত্রী।

রবিবার (২৫ জুলাই) মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এডিস মশার প্রাদুর্ভাব ও ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় করণীয় ঠিক করতে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের মেয়র এবং সংশ্লিষ্টদের নিয়ে এক জরুরি সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘নিয়মিত মশক নিধন অভিযানের পাশাপাশি সরকারি-বেসরকারি যে হাসপাতালেই ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হবে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর আমাদের সেলে এবং সিটি করপোরেশনে পাঠালে ওই ব্যক্তির বাসাবাড়ি চিহ্নিত করে পুরো এলাকায় বিশেষ মশা নিধন কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে।’

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘অভিযান চালানোর সময় সিটি করপোরেশনের লোকজনকে বাসাবাড়িতে ঢুকতে দেওয়া হয় না বলে অভিযোগ আসে। অনেক সময় আক্রান্ত রোগীর আসল ঠিকানা না দিয়ে ভুল তথ্য দেওয়া হয়। এটি একজন সচেতন নাগরিকের কাজ হতে পারে না। কোথায় এডিস মশার লার্ভা আছে, তা জানালে আমরা সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবো।’ মানুষের অংশগ্রহণ ছাড়া মশা নিধন সম্ভব নয় বলেও মন্তব্য করেন মো. তাজুল ইসলাম।

মন্ত্রী বলেন, ‘স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে যেসব অঞ্চলকে এডিস মশার হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে, অর্থাৎ যে অঞ্চল থেকে বেশি রোগী হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে, সেসব এলাকায় সোমবার (২৬ জুলাই) থেকে চিরুনি অভিযান চালানো হবে।’

তাজুল ইসলাম বলেন, ‘ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড, রেলওয়ে, সিভিল এভিয়েশন এবং গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়সহ অন্যান্য সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান স্ব-স্ব উদ্যোগে এডিস মশা নিধনে কার্যক্রম পরিচালনা করবে এবং প্রয়োজনে সিটি করপোরেশনের সহযোগিতা নেবেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘ব্যক্তি হোক বা সরকারি-বেসরকারি যে প্রতিষ্ঠানই হোক—নির্মাণাধীন, পরিত্যক্ত বা যেকোনও ভবনে পানি জমিয়ে রেখে ডেঙ্গু প্রজননে ভূমিকা রাখলে, তাকে শাস্তি বা জরিমানা করে জনসম্মুখে আনতে হবে। বাসাবাড়ি, শিল্প কল-কারখানা নির্মাণ করার অধিকার সবার আছে। কিন্তু জনগণের জান-মাল ক্ষতিগ্রস্ত করার কোনও অধিকার কারোরই নেই।’

সভায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম, দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, গাজীপুর সিটি করপোরেশন মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ এবং স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রতিনিধিসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 

 

/এসএস/এপিএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

১৫ আগস্টে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি

১৫ আগস্টে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি

প্রতিদিন রান্না করা খাবার তুলে দেবো কর্মহীনদের: বিদিশা

প্রতিদিন রান্না করা খাবার তুলে দেবো কর্মহীনদের: বিদিশা

চামড়া নিয়ে এবার কোনও অভিযোগ পাইনি: শিল্পমন্ত্রী

চামড়া নিয়ে এবার কোনও অভিযোগ পাইনি: শিল্পমন্ত্রী

স্ত্রী-মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যা: বাবার বিরুদ্ধে আরেক মেয়ের জবানবন্দি

স্ত্রী-মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যা: বাবার বিরুদ্ধে আরেক মেয়ের জবানবন্দি

সর্বশেষ

‌‘ইত্যাদি’ এবার মেট্রোরেলের ডিপোতে!

‌‘ইত্যাদি’ এবার মেট্রোরেলের ডিপোতে!

সরকারের ভুলেই করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ: মির্জা ফখরুল

সরকারের ভুলেই করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ: মির্জা ফখরুল

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও  ব্রুনাইয়ের সুলতানের জন্য আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও  ব্রুনাইয়ের সুলতানের জন্য আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

মসজিদের নামকরণ নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১২

মসজিদের নামকরণ নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১২

সাকিবের সঙ্গে ট্রফি জিতে গর্বিত শামীম

সাকিবের সঙ্গে ট্রফি জিতে গর্বিত শামীম

টি-২০ সিরিজ জেতায় রাষ্ট্রপতির অভিনন্দন

টি-২০ সিরিজ জেতায় রাষ্ট্রপতির অভিনন্দন

১৫ আগস্টে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি

১৫ আগস্টে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি

মোটরবাইক এখন দূরপাল্লার বাহন!

মোটরবাইক এখন দূরপাল্লার বাহন!

ঈদ বার্তায় এরদোয়ানের ‘ঘুমিয়ে পড়া’র ভিডিও ভাইরাল

ঈদ বার্তায় এরদোয়ানের ‘ঘুমিয়ে পড়া’র ভিডিও ভাইরাল

প্রতিদিন রান্না করা খাবার তুলে দেবো কর্মহীনদের: বিদিশা

প্রতিদিন রান্না করা খাবার তুলে দেবো কর্মহীনদের: বিদিশা

চাঁদপুরে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে অক্সিজেন সংকট

চাঁদপুরে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে অক্সিজেন সংকট

অলিম্পিক ইতিহাসে একই দিনে সোনা জিতলেন ভাই-বোন

অলিম্পিক ইতিহাসে একই দিনে সোনা জিতলেন ভাই-বোন

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

১৫ আগস্টে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি

১৫ আগস্টে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি

প্রতিদিন রান্না করা খাবার তুলে দেবো কর্মহীনদের: বিদিশা

প্রতিদিন রান্না করা খাবার তুলে দেবো কর্মহীনদের: বিদিশা

চামড়া নিয়ে এবার কোনও অভিযোগ পাইনি: শিল্পমন্ত্রী

চামড়া নিয়ে এবার কোনও অভিযোগ পাইনি: শিল্পমন্ত্রী

যেখানে ডেঙ্গু রোগী সেখানেই বিশেষ অভিযান: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

যেখানে ডেঙ্গু রোগী সেখানেই বিশেষ অভিযান: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ১ আগস্ট থেকে ড্রপডাউন ব্যানার টানানোর নির্দেশ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ১ আগস্ট থেকে ড্রপডাউন ব্যানার টানানোর নির্দেশ

স্ত্রী-মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যা: বাবার বিরুদ্ধে আরেক মেয়ের জবানবন্দি

স্ত্রী-মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যা: বাবার বিরুদ্ধে আরেক মেয়ের জবানবন্দি

ডেঙ্গুবিরোধী অভিযানে দেড় লাখ টাকা জরিমানা

ডেঙ্গুবিরোধী অভিযানে দেড় লাখ টাকা জরিমানা

কারিগরিতে পদোন্নতি

কারিগরিতে পদোন্নতি

প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে নির্মিত শহীদ মিনারের তালিকা চেয়েছে সরকার

প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে নির্মিত শহীদ মিনারের তালিকা চেয়েছে সরকার

© 2021 Bangla Tribune