X
বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

‘শিক্ষকরাই হবেন শুদ্ধাচারের প্রতীক’

আপডেট : ০১ জুলাই ২০২১, ১৮:৪৪

‘শিক্ষকরাই সমাজে শুদ্ধাচারের প্রতীক’ হবেন বলে জানিয়েছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান।  জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত ‘জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল বাস্তবায়ন’ নিয়ে বুধবার (৩০ জুন) রাতে অংশীজনের সঙ্গে ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় তিনি এ কথা জানান।

অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান বলেন, ‘পৃথিবীতে শুদ্ধাচারের শ্রেষ্ঠ জায়গা হচ্ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। যেখানে শুদ্ধাচারের পথ দেখানো হয়। শিক্ষক নিজে ক্লাসে যা পড়াবেন, সেটিই হবে ওই সমাজের শুদ্ধাচারের প্রতীক। শিক্ষক যা করবেন, সেটি হবে ওই সমাজে শুদ্ধাচারের বাস্তব উদাহরণ।’

উপাচার্য বলেন, ‘‘ইনটিগ্রিটির প্রধান ক্ষেত্র হচ্ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। আমাদের মাধ্যমেই অন্যান্য প্রতিষ্ঠান শিখবে। এটাই সমাজের একটা ‘সেট নরমস’। সুতরাং, এটার দায়বদ্ধতা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে আমাদের ওপর বেশি পড়ে। প্রতিষ্ঠানের ভেতরের যে শুদ্ধাচার সেটি নিশ্চিত করতে হবে।’’

শিক্ষকদেরকে পাঠদান এবং গবেষণায় বেশি নিবিষ্ট হওয়ার আহ্বান জানিয়ে উপাচার্য বলেন, ‘আমাদের মনে রাখা উচিত, শিক্ষক যে সম্মান পান সেটা তো সমাজের অন্য পেশার মানুষ পান না। শিক্ষক অন্যের কাছে বিশেষ করে শিক্ষার্থীর কাছে যেরকম মডেল, সেরকম তো সমাজে আর নেই। তাহলে আমাদের শূন্যতা কোথায়? দারিদ্র্য কোথায়? এপিএ, ইনটিগ্রিটি, সিটিজেন চার্টার যাই বলি না কেন, একজন শিক্ষকের ক্লাসরুম তার পবিত্র প্রাঙ্গণ।’

উপাচার্য  আরও  বলেন, ‘বেতনের মাপকাঠিতে যদি বলেন, তাহলে আমরা হয়তো পিছিয়ে আছি। কিন্তু মর্যাদার মাপকাঠিতে আমরা অনেক এগিয়ে আছি। প্রাইমারি থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা সমাজে অনেক বেশি পূজনীয়। সমাজ এখনও এই ধারণ পোষণ করে।’

অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান আরও বলেন, ‘দেশের উচ্চশিক্ষার ৭০ শতাংশ তরুণকে আমরা ধারণ করি। তাদের যদি আমরা তৈরি করে দিতে পারি, শুদ্ধাচার শিক্ষা দিতে পারি, তাহলে আগামীর বাংলাদেশ মেরুদণ্ড সোজা করে উন্নয়নের গতিধারায় প্রবাহিত হবে। সেই উন্নয়ন শুধু অর্থনৈতিক উন্নয়ন নয়, সেই উন্নয়ন সাংস্কৃতিক জাগরণ। বাংলাদেশকে তারা দেশপ্রেমিক নাগরিক হিসেবে গভীরভাবে ভালোবাসবে।’

মানবসম্পদ উন্নয়ন ও শুদ্ধাচার দফতরের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) জয়ন্ত ভট্টাচার্যের পরিচলনায় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন স্নাতকোত্তর শিক্ষা প্রশিক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্রের ডিন অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন, রেজিস্ট্রার মোল্লা মাহফুজ আল-হোসেন, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বদরুজ্জামান, বিভিন্ন দফতরের বিভাগীয় প্রধান ও বিভিন্ন কলেজের অধ্যক্ষরা।

উল্লেখ্য, ২৯ জুন সিটিজেন চার্টার বিষয়ে সভা এবং  ২৮ জুন নৈতিকতা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়।

/এসএমএ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

ভেটেরিনারিয়ানদের ‘গরু ছাগলের ডাক্তার’ বলায় ঢাবি শিক্ষককে আইনি নোটিশ

ভেটেরিনারিয়ানদের ‘গরু ছাগলের ডাক্তার’ বলায় ঢাবি শিক্ষককে আইনি নোটিশ

ডিআরইউ’র সভাপতি মিঠু, সম্পাদক হাসিব

ডিআরইউ’র সভাপতি মিঠু, সম্পাদক হাসিব

‘ডিএনসিসির সব গাড়িতে জিপিএস-ড্যাস ক্যামেরা বসানো হবে’

‘ডিএনসিসির সব গাড়িতে জিপিএস-ড্যাস ক্যামেরা বসানো হবে’

জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের মৃত্যুতে স্পিকারের শোক

জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের মৃত্যুতে স্পিকারের শোক

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

ভেটেরিনারিয়ানদের ‘গরু ছাগলের ডাক্তার’ বলায় ঢাবি শিক্ষককে আইনি নোটিশ

ভেটেরিনারিয়ানদের ‘গরু ছাগলের ডাক্তার’ বলায় ঢাবি শিক্ষককে আইনি নোটিশ

ডিআরইউ’র সভাপতি মিঠু, সম্পাদক হাসিব

ডিআরইউ’র সভাপতি মিঠু, সম্পাদক হাসিব

‘ডিএনসিসির সব গাড়িতে জিপিএস-ড্যাস ক্যামেরা বসানো হবে’

‘ডিএনসিসির সব গাড়িতে জিপিএস-ড্যাস ক্যামেরা বসানো হবে’

জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের মৃত্যুতে স্পিকারের শোক

জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের মৃত্যুতে স্পিকারের শোক

‘জেন্ডার সংবেদনশীল হতে ভাষায় আরও মনোযোগ দরকার’

‘জেন্ডার সংবেদনশীল হতে ভাষায় আরও মনোযোগ দরকার’

ঢাবির শতবর্ষের অনুষ্ঠান বর্জনের ঘোষণা নুরের

ঢাবির শতবর্ষের অনুষ্ঠান বর্জনের ঘোষণা নুরের

‘জলবায়ু পরিবর্তন সংশ্লিষ্ট প্রকল্পগুলো সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে হবে’

‘জলবায়ু পরিবর্তন সংশ্লিষ্ট প্রকল্পগুলো সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে হবে’

প্রকাশিত সংবাদ নিয়ে শিল্পকলা একাডেমির প্রতিবাদ ও প্রতিবেদকের বক্তব্য

প্রকাশিত সংবাদ নিয়ে শিল্পকলা একাডেমির প্রতিবাদ ও প্রতিবেদকের বক্তব্য

সমকাল ছাড়লেন মুস্তাফিজ শফি

সমকাল ছাড়লেন মুস্তাফিজ শফি

রামপুরায় বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনায় পুলিশের মামলা

রামপুরায় বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনায় পুলিশের মামলা

সর্বশেষ

চেনা উপসর্গ থেকে ভিন্ন ওমিক্রন

চেনা উপসর্গ থেকে ভিন্ন ওমিক্রন

৯১ হাজার টাকা বেতনে বিদ্যুৎ কোম্পানিতে চাকরির সুযোগ

৯১ হাজার টাকা বেতনে বিদ্যুৎ কোম্পানিতে চাকরির সুযোগ

খাদ্য সংগ্রহ সফল করতে ঐক্যজোটের প্রতি বঙ্গবন্ধুর আহ্বান

খাদ্য সংগ্রহ সফল করতে ঐক্যজোটের প্রতি বঙ্গবন্ধুর আহ্বান

টিকা না নিলেই গ্রিসের ষাটোর্ধ্বদের জরিমানা

টিকা না নিলেই গ্রিসের ষাটোর্ধ্বদের জরিমানা

শতাধিক নিরাপত্তা সদস্যকে খুন অথবা গুম করেছে তালেবান: এইচআরডব্লিউ

শতাধিক নিরাপত্তা সদস্যকে খুন অথবা গুম করেছে তালেবান: এইচআরডব্লিউ

© 2021 Bangla Tribune