X
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

থাইল্যান্ডে চীনা ভ্যাকসিন নিয়েও করোনায় আক্রান্ত ৬১৮ স্বাস্থ্যকর্মী

আপডেট : ১১ জুলাই ২০২১, ১৯:১৬

থাইল্যান্ডে চীনের তৈরি সিনোভ্যাক টিকার দুই ডোজ নেয়ার পরও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৬১৮ জন স্বাস্থ্যকর্মী। আক্রান্তদের মধ্যে একজন নার্সের মৃত্যু হয়েছে, গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় রয়েছেন আরও একজন। ১১ জুলাই রবিবার থাই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।

২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে জুলাই পর্যন্ত ছয় লাখ ৭৭ হাজার ৩৪৮ জন স্বাস্থ্যকর্মীকে সিনোভ্যাকের করোনা টিকার উভয় ডোজ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। রবিবার এক সংবাদ সম্মেলনে থাইল্যান্ডের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সপন আয়ামসিরিথন এ তথ্য জানান।

সপন আয়ামসিরিথন জানান, স্বাস্থ্যকর্মীদের কোভিডের ঝুঁকি ন্যুনতম পর্যায়ে নিয়ে আসতে তাদের সবাইকে ভ্যাকসিনের তৃতীয় বা বুস্টার ডোজ দেওয়া হবে। সম্প্রতি এ সংক্রান্ত প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। এক্ষেত্রে সিনোভ্যাক ব্যবহার করা হবে না। অ্যাস্ট্রাজেনেকা কিংবা অন্য কোনও আরএনএ শ্রেণির ভ্যাকসিনই অগ্রাধিকার তালিকায় থাকবে।

চীনা ভ্যাকসিন নেওয়ার পরও করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা এটিই প্রথম নয়। ইন্দোনেশিয়াতেও এমন ঘটনা ঘটেছে। দেশটিতে সিনোভ্যাকের উভয় ডোজ নেয়ার পরও কমপক্ষে ২০ জন চিকিৎসক এবং ১০ জন নার্স কোভিডে ভুগে মারা গেছেন।

ইন্দোনেশিয়ায় অ্যাস্ট্রাজেনেকা, সিনোফার্ম উভয় কোম্পানির ভ্যাকসিন থাকলেও সিংহভাগ সরবরাহ এসেছে সিনোভ্যাক থেকে। ফলে প্রশ্ন দেখা দিলেও সিনোভ্যাক দিয়ে টিকা কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়া ছাড়া তেমন কোনো বিকল্প তাদের হাতে নেই। দেশটিতে চিকিৎসকরা এ নিয়ে খোলাখুলি কথা বলতে চান না, কিন্তু তারা স্বীকার করেন তারা নিরাপদ বোধ করছেন না। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন ফুসফুস বিশেষজ্ঞ বিবিসিকে জানান, সিনোভ্যাকের দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার এক মাস পর তিনি অ্যান্টিবডি পরীক্ষা করে দেখেন কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের মতো কোনও সুরক্ষাই দেহে তৈরি হয়নি। আরও এক মাস পর দ্বিতীয় দফায় পরীক্ষা করেও তিনি একই ফল পান। তবে ওই চিকিৎসক বলেন, তার কিছু সহকর্মী ভালো ফল পেয়েছেন, কিন্তু তার শরীরে সিনোভ্যাক টিকা কোনও কাজ করেনি। সূত্র: রয়টার্স, বিবিসি।

/এমপি/

সম্পর্কিত

‘শুধু ক্ষমা চাইলেই হবে না, যুক্তরাষ্ট্রকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে’   

‘শুধু ক্ষমা চাইলেই হবে না, যুক্তরাষ্ট্রকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে’   

আফগান মেয়েদের স্কুল থেকে বাদ দেওয়া উচিত না: ইউনিসেফ

আফগান মেয়েদের স্কুল থেকে বাদ দেওয়া উচিত না: ইউনিসেফ

পুতিনের সঙ্গে বসছেন এরদোয়ান

পুতিনের সঙ্গে বসছেন এরদোয়ান

‘সবকিছু অন্ধকার লাগছে’, স্কুলে যেতে না পারা আফগান মেয়ে

‘সবকিছু অন্ধকার লাগছে’, স্কুলে যেতে না পারা আফগান মেয়ে

১০ হাজার হাইতির অভিবাসীকে ফেরত পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:১১

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের দক্ষিণাঞ্চলের ডেল রিও সীমান্তে অবস্থান করা হাইতি অভিবাসীদের চরম মানবিক সংকট দেখা দিয়েছে। ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় খোলা আকার নিচে কমপক্ষে ১০ মানুষ যুক্তরাষ্ট্র প্রবেশের অপেক্ষায় আছেন। কিন্তু তাদের যত দ্রুত সম্ভব হাইতিতে ফেরত পাঠানো হবে জানিয়েছে প্রশাসন।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বলছেন, মানবিক দিক বিবেচনায় কিছু অভিবাসীকে সাময়িক সময়ের জন্য সীমান্ত থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। কারণ স্থানীয় কর্মকর্তারা তাদের জন্য খাবার ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা করতে হিমশিম খাচ্ছেন।

বহু দূর থেকে আগত এসব অভিবাসীদের নিয়ে সমস্যায় যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন সরকারের নীতি নির্ধারকরা বলছেন, এদের মধ্যে দুই হাজার লোককে ইমিগ্রেশন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। তারা যেখান থেকে এসেছেন সেখানেই পাঠানোর বিষয়ে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন। যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় রবিবার থেকে তাদের প্রত্যাবাসনের কাজ শুরু হবে।

শনিবার হাইতির প্রধানমন্ত্রী এরিয়েল হেনরি অভিবাসীদের জন্য মানবিক সহায়তা পাঠিয়েছেন। তিনি বলেন, যারা ফিরে আসছে তাদের স্বাগত জানাতে আমরা প্রস্তুত।

অভিবাসীবিষয়ক সংগঠনগুলো জানিয়েছে, লাতিন ও উত্তর আমেরিকার অভিবাসীরা উন্নত জীবনের আশায় প্রায় সময়ই যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের চেষ্টা চালান।

/এলকে/

সম্পর্কিত

মহাকাশ ঘুরে পৃথিবীতে ফিরলেন চার পর্যটক

মহাকাশ ঘুরে পৃথিবীতে ফিরলেন চার পর্যটক

অস্ট্রেলিয়া-যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে:  ফ্রান্স

অস্ট্রেলিয়া-যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে:  ফ্রান্স

ক্যাপিটল প্রাঙ্গণে ট্রাম্প সমর্থকদের মিছিল

ক্যাপিটল প্রাঙ্গণে ট্রাম্প সমর্থকদের মিছিল

সবচেয়ে সাদা রঙ আবিষ্কার, হবে এসির বিকল্প!

সবচেয়ে সাদা রঙ আবিষ্কার, হবে এসির বিকল্প!

যুক্তরাজ্যে বিরল ‘ম্যাড কাউ’ রোগে গবাদি পশুর মৃত্যু

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:২০

ব্রাজিলের পর এবার যুক্তরাজ্যে গবাদি পশুর বিরল রোগ ‘ম্যাড কাউ’ শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্ত হয়ে একটি গরুর মৃত্যুর খবর জানিয়েছে বিবিসি।

যুক্তরাজ্যের অ্যানিমেল অ্যান্ড প্ল্যান্ট হেলথ এজেন্সি –এপিএইচএ’র কর্মকর্তা বলছেন, ইংল্যান্ডের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলে সমারসেটের একটি খামারে ম্যাড কাউ রোগে আক্রান্ত হওয়ার পর ওই পশুর মৃত্যু হয়। এ অবস্থায় সংক্রমণের উৎস খুঁজতে তদন্ত শুরু করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

আপাতত খামারটিতে খাদ্য নিরাপত্তা সংক্রান্ত কোনো ঝুঁকি নেই বলে জানিয়েছে এপিএইচএ। ভেটানারি কর্মকর্তা ক্রিস্টিন মিডলমিস বলেন, সংক্রমণে গবাদি পশুর মৃত্যুর খবর খামারিদের জন্য উদ্বেগজনক। আমরা তাদের পাশে আছি’। সম্প্রতি ব্রাজিলের দুই রাজ্যে এই রোগে গবাদি পশু আক্রান্ত হয়। তাৎক্ষণিকভাবে চীনে মাংস রফতানি বন্ধ করে দেয় দেশটি।

যুক্তরাজ্যে ২০১৪ সাল থেকে এখন পর্যন্ত পাঁচটি পশুর শরীরে ম্যাড কাউ রোগ শনাক্ত হয়েছে। ৯০ –এর দশকে সংক্রমণ মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়লে ম্যাড কাউ রোগ নিয়ন্ত্রণে লাখ লাখ গরু হত্যা করা হয়। তখন গরুর মাংস শিল্পে সংকট দেখা দেয়।

/এলকে/

সম্পর্কিত

অস্ট্রেলিয়া-যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে:  ফ্রান্স

অস্ট্রেলিয়া-যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে:  ফ্রান্স

যুক্তরাজ্যে এক বাংলাদেশির ছুরিকাঘাতে আরেক বাংলাদেশি নিহত

যুক্তরাজ্যে এক বাংলাদেশির ছুরিকাঘাতে আরেক বাংলাদেশি নিহত

‘মধ্যযুগীয় বোরকা’ মন্তব্যে বিতর্কে ব্রিটিশ সংস্কৃতিমন্ত্রী

‘মধ্যযুগীয় বোরকা’ মন্তব্যে বিতর্কে ব্রিটিশ সংস্কৃতিমন্ত্রী

৯০ বছর গোপন থাকবে প্রিন্স ফিলিপের উইল

৯০ বছর গোপন থাকবে প্রিন্স ফিলিপের উইল

ইসরায়েলের জেল থেকে পালানো শেষ দুই ফিলিস্তিনি আটক

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৩৪

ইসরায়েলের হাই সিকিউরিটি কারাগার থেকে পালানো শেষ দুই ফিলিস্তিনিকে আটক হয়েছে। রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, পশ্চিম তীরের জেনিন শহর অভিযান চালালে আটক হয় দুই ফিলিস্তিনি।

অভিযানের বিষয়ে ইসরায়েল সেনাবাহিনীর মুখপাত্র আভিচয় আদ্রাই জানান, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে পলাতক আসামিদের ঘিরে ফেলা হয়। পরে বাধ্য হয়ে দুইজন আত্মসমর্পণ করেন।

এদের মধ্যে একজন নায়েফ কামামজি অন্যজন মুনাদেল ইয়াকুব ইনফিয়াত। এ নিয়ে পলাতক ৬ ফিলিস্তিনিকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে ইসরায়েল।

গত (৬ সেপ্টেম্বর) গিলবোয়া কারাগারে সুড়ঙ্গ খুঁড়ে পালিয়ে যায় ছয় ফিলিস্তিনি। এই ঘটনার পর ইসরায়েল এবং পশ্চিম তীর জুড়ে ব্যাপক তল্লাশি শুরু হয়। পালিয়ে যাওয়া সকলেই পশ্চিম তীরের জেনিন শহরের বাসিন্দা। এ ঘটনারয় কারাগারের নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও জোরদার করেছে তেল আবিব।

/এলকে/

সম্পর্কিত

ফিলিস্তিনিদের ‘মুক্তি’র নতুন প্রতীক চামচ

ফিলিস্তিনিদের ‘মুক্তি’র নতুন প্রতীক চামচ

জেনারেল সিসির আমন্ত্রণে মিসরে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী

জেনারেল সিসির আমন্ত্রণে মিসরে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী

ইসরায়েলের কারাগার থেকে পালানো দুই ফিলিস্তিনি গ্রেফতার

জেল পালানো দুই ফিলিস্তিনি ফের গ্রেফতার

মহাকাশ ঘুরে পৃথিবীতে ফিরলেন চার পর্যটক

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:০৬

মহাকাশ ভ্রমণে নতুন মাইলফলক স্পর্শ করলো চার পর্যটক। কক্ষপথে তিনদিন ভ্রমণ শেষে শনিবার নিরাপদে পৃথিবীতে ফিরে এসেছেন তারা। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, ঐতিহাসিক সফর শেষে যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) আটলান্টিক মহাসাগরে স্পেসএক্স-এর ক্যাপুসলে করে অতরণ করতে দেখা যায় তাদের।

পরে একটি বোটে করে তাদের তীরে নিয়ে আসেন সংশ্লিষ্টরা। আর মহাকাশ থেকে ফেরার দৃশ্য সরাসরি সম্প্রচার করে স্পেসএক্স। সাধারণ পর্যটক হিসেবে মহাকাশ ও পৃথিবীর কক্ষপথে ভ্রমণ এটিই প্রথম।

এর আগে, গত বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে ৪ জনকে নিয়ে কক্ষপথের উদ্দেশে রওনা হয় স্পেসএক্সের ফ্যালকন নাইন রকেট। এই মহাকাশ যাত্রার নাম দেওয়া হয় ‘ইন্সপিরেশন ফোর’।

স্পেসএক্স-এর ক্যাপসুলে চেপে ফিরলেন চার পর্যটক

এটি ছিল প্রথম পূর্ণাঙ্গ বাণিজ্যিক ফ্লাইট। ধনকুবের এলন মাস্কের প্রতিষ্ঠান স্পেস এক্স’র রকেট। মিশনে ধনকুবের জ্যারেড আইজ্যাকম্যানের নেতৃত্বে আরও তিন সাধারণ যাত্রী অংশ নেন। এই তিনজন হলেন, পেডিয়াট্রিক ক্যানসার থেকে বেঁচে যাওয়া ২৯ বছর বয়সী হেইলি আর্সেনউক্স। দ্বিতীয়জন মার্কিন বিমানবাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা ক্রিস সেমব্রোস্কি। তৃতীয় ব্যক্তি ৫১ বছর বয়সী ভূতত্ত্ববিদ সিয়ান প্রক্টর। 

ড্রাগন ক্যাপসুলে চেপে ৫৩৮ কিলোমিটার উচ্চতায় ঘুরে আসেন তারা। চার পর্যটক ঘণ্টায় ১৭ হাজার পাঁচশ মাইল বেগে পৃথিবীর কক্ষপথ প্রদক্ষিণ করতে সক্ষম হন।

/এলকে/

সম্পর্কিত

১০ হাজার হাইতির অভিবাসীকে ফেরত পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

১০ হাজার হাইতির অভিবাসীকে ফেরত পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

অস্ট্রেলিয়া-যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে:  ফ্রান্স

অস্ট্রেলিয়া-যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে:  ফ্রান্স

ক্যাপিটল প্রাঙ্গণে ট্রাম্প সমর্থকদের মিছিল

ক্যাপিটল প্রাঙ্গণে ট্রাম্প সমর্থকদের মিছিল

সবচেয়ে সাদা রঙ আবিষ্কার, হবে এসির বিকল্প!

সবচেয়ে সাদা রঙ আবিষ্কার, হবে এসির বিকল্প!

অস্ট্রেলিয়া-যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে:  ফ্রান্স

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:০৫

নতুন নিরাপত্তা চুক্তি নিয়ে অস্ট্রেলিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে বলে অভিযোগ করেছেন ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেয়ান উভস লে ড্রাইয়ান। এটি প্যারিসকে তার রাষ্ট্রদূতদের প্রত্যাহারে প্ররোচিত করেছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।  তিনি বলেন, ‘এর মধ্য দিয়ে দেশ দুটি দ্বিচারিতা, বিশ্বাস ভঙ্গ এবং ঘৃণা উসকে দিয়েছে।’ শনিবার ফ্রান্সের দুটি টেলিভিশনে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেন। ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়।  

এইউকেইউএস নামে অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে ওই চুক্তির আওতায় অস্ট্রেলিয়া প্রযুক্তি সরবরাহের বিপরীতে পরমাণু-সমৃদ্ধ সাবমেরিন আমদানি করবে।

এই পদক্ষেপের ফলে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ফ্রান্সের বহু বিলিয়ন ডলারের চুক্তি বাতিল হয়ে গেছে। যেখানে যুক্তরাজ্যও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। ত্রিদেশীয় এই চুক্তিকে দক্ষিণ চীন সাগরে চীনের প্রভাব মোকাবিলার প্রচেষ্টা হিসেবে দেখা হচ্ছে।   

লে ড্রাইয়ান বলেন, `এর  মধ্য দিয়ে মিত্রদের মধ্যে গুরুতর সংকট তৈরি হলো।’

তিনি বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র এবং ফ্রান্সের সম্পর্কের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো আমরা আমাদের রাষ্ট্রদূতদের পরামর্শের জন্য প্রত্যাহার করছি। এটি একটি গুরুতর রাজনৈতিক কাজ। এটা দেশগুলোর মধ্যে সম্পর্কের মাত্রা চিহ্নিত করে।’ রাষ্ট্রদূতদের ‘পরিস্থিতি পুনর্মূল্যায়নের’ জন্য তলব করা হচ্ছে বলেও জানান ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘এই পুরো বিষয়ে ব্রিটেন কিছুটা তৃতীয় চাকার মতো।’ 

এর আগে মিত্র দেশের কাছ থেকে এমন চুক্তি অপ্রত্যাশিত উল্লেখ করে ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘ত্রিদেশীয় পারমাণবিক সাবমেনি চুক্তি স্বাক্ষরের মাধ্যমে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্যারিসের পিঠে ছুরিকাঘাত করেছেন।’

গত বুধবার অত্যাধুনিক প্রতিরক্ষা প্রযুক্তি ভাগাভাগি করে চীনকে মোকাবিলায় বিশেষ নিরাপত্তা চুক্তি স্বাক্ষরের ঘোষণা দেয় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু ত্রিদেশীয় চুক্তির ফলে ফ্রান্সের কাছ থেকে আর সাবমেরিন নেবে না ক্যানবেরা। আর এতেই ক্ষুব্ধ হয় ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর প্রশাসন।

 

/আইএ/

সম্পর্কিত

১০ হাজার হাইতির অভিবাসীকে ফেরত পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

১০ হাজার হাইতির অভিবাসীকে ফেরত পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাজ্যে বিরল ‘ম্যাড কাউ’ রোগে গবাদি পশুর মৃত্যু

যুক্তরাজ্যে বিরল ‘ম্যাড কাউ’ রোগে গবাদি পশুর মৃত্যু

মহাকাশ ঘুরে পৃথিবীতে ফিরলেন চার পর্যটক

মহাকাশ ঘুরে পৃথিবীতে ফিরলেন চার পর্যটক

ক্যাপিটল প্রাঙ্গণে ট্রাম্প সমর্থকদের মিছিল

ক্যাপিটল প্রাঙ্গণে ট্রাম্প সমর্থকদের মিছিল

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

‘শুধু ক্ষমা চাইলেই হবে না, যুক্তরাষ্ট্রকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে’   

‘শুধু ক্ষমা চাইলেই হবে না, যুক্তরাষ্ট্রকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে’   

আফগান মেয়েদের স্কুল থেকে বাদ দেওয়া উচিত না: ইউনিসেফ

আফগান মেয়েদের স্কুল থেকে বাদ দেওয়া উচিত না: ইউনিসেফ

পুতিনের সঙ্গে বসছেন এরদোয়ান

পুতিনের সঙ্গে বসছেন এরদোয়ান

‘সবকিছু অন্ধকার লাগছে’, স্কুলে যেতে না পারা আফগান মেয়ে

‘সবকিছু অন্ধকার লাগছে’, স্কুলে যেতে না পারা আফগান মেয়ে

তালেবান খুঁজে পেলে হত্যা করবে, আতঙ্কে সমকামীরা

তালেবান খুঁজে পেলে হত্যা করবে, আতঙ্কে সমকামীরা

২ হাজার বছর পুরনো ব্যাকট্রিয়ান সোনার খোঁজে তালেবান

২ হাজার বছর পুরনো ব্যাকট্রিয়ান সোনার খোঁজে তালেবান

জাতিসংঘ মহাসচিবকে পাঠানো চিঠিতে যা বললো তালেবান

জাতিসংঘ মহাসচিবকে পাঠানো চিঠিতে যা বললো তালেবান

তালেবানের সঙ্গে সংলাপের উদ্যোগ ইমরান খানের

তালেবানের সঙ্গে সংলাপের উদ্যোগ ইমরান খানের

ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ স্থাপনা সম্প্রসারণ করছে উত্তর কোরিয়া

ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ স্থাপনা সম্প্রসারণ করছে উত্তর কোরিয়া

মন্ত্রিসভা নিয়ে পদত্যাগ করলেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর

মন্ত্রিসভা নিয়ে পদত্যাগ করলেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর

সর্বশেষ

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

নায়ককে নিয়ে শাবনূরের আবেগঘন স্মরণ

৫০-এ সালমান শাহনায়ককে নিয়ে শাবনূরের আবেগঘন স্মরণ

অনুশীলনে সাকিব, ভালো করার প্রত্যাশা (ভিডিও)

অনুশীলনে সাকিব, ভালো করার প্রত্যাশা (ভিডিও)

মিনা ক্লিকে চাকরির সুযোগ

মিনা ক্লিকে চাকরির সুযোগ

© 2021 Bangla Tribune