X
শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

ব্রহ্মপুত্রের ভাঙনে সর্বস্বান্ত মানুষ, নিষ্ক্রিয় পাউবো

আপডেট : ১১ জুলাই ২০২১, ২৩:০৮

ব্রহ্মপুত্র নদের বাঁ-তীরের ভাঙনে ফসলি জমি ও ভিটেমাটি হারিয়ে সর্বস্বান্ত হয়ে পড়েছেন রৌমারী উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়নের ধনারচর নতুনগ্রামের বাসিন্দারা। গত এক বছরে এ গ্রামের শতাধিক পরিবারের বসতভিটা, আবাদি জমি, ধর্মীয় স্থাপনাসহ ফৌজদারী-রাজীবপুর বেড়িবাঁধের এক কিলোমিটার সড়ক বিলীন হলেও ভাঙন প্রতিরোধে কার্যকর কোনও পদক্ষেপ নেয়নি পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)। অসাধু বালু ব্যবসায়ীদের অবৈধ ড্রেজারের অপরিকল্পিত খননে আরও আগ্রাসী হয়ে ওঠা এই নদের ভাঙনে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন এর অববাহিকার শত শত পরিবার। গত তিন দিনে নদের গর্ভে বিলীন হয়েছে ওই গ্রামের তিনটি পরিবারের বসতভিটা, আবাদি জমিসহ বেড়িবাঁধের একাংশ। এছাড়াও হুমকিতে রয়েছে ওই এলাকার অর্ধশতাধিক বসতবাড়ি ও আবাদি জমি।

উপজেলা শহরের অদূরে সর্বগ্রাসী রূপে প্রবাহিত সর্ববৃহৎ এ নদের ভাঙনে অনেকগুলো পরিবারে হাহাকার শুরু হলেও সে খবর পাউবো কর্তৃপক্ষের কানে পৌঁছায়নি। নদ অববাহিকার মানুষের বসতভিটা রক্ষার দায়িত্বে থাকা সরকারি এই প্রতিষ্ঠানটির নিষ্ক্রিয়তায় একের পর এক পরিবার সর্বস্বাস্ত হচ্ছে। আর পাউবো বলছে, ‘খোঁজ নিয়ে দেখে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমোদন সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

নতুনগ্রাম এলাকায় তীব্র ভাঙন শুরু হয়েছে ভাঙনকবলিত এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়নের ব্রহ্মপুত্র নদের বাঁ-তীরে অবস্থিত ধনারচর নতুনগ্রাম এলাকায় তীব্র ভাঙন শুরু হয়েছে। অস্তিত্ব সংকটে পড়া পরিবারগুলো ভাঙন রোধে নিজেদের উদ্যোগে গাছপালা ও বাঁশ কেটে নদে ফেলে ভাঙন ঠেকানোর চেষ্টা করলেও তা যেন তোয়াক্কাই করছে না সর্বগ্রাসী এ নদ। ভাঙন আতঙ্কে কেউ কেউ আবার ঘরবাড়ি অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা করছেন। ভাঙনের হুমকিতে রয়েছে নদ থেকে প্রায় ৫০ গজ দূরে থাকা ধনারচর সিএম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

ভাঙনের তীব্রতায় হতদরিদ্র পরিবারগুলোর দরিদ্রতা আরও প্রলম্বিত হলেও মুনাফা খেকো বালু ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ম্য কমেনি। অবৈধ ড্রেজার মেশিনের বিকট শব্দে নদ তীরবর্তী মানুষের দুঃখ আর হাহাকার যেন বাতাসে মিলিয়ে যাচ্ছে। এমন তথ্য পাওয়া গেল ধনারচর নতুন গ্রামের প্রৌঢ় আব্দুর রহমানের জবানিতে। তিনি বলেন, ‘গত তিন বছর থাইকা ভাঙতাছে। সরকারের পক্ষ থাইকা কোনও কিছুই করে নাই। পুরা গ্রামটাই উইঠা (ভাঙনে বিলীন) গেছে।’

নদের জলসীমার অদূরে দেখিয়ে এই প্রবীণ বলেন, ‘ওই দিক পর্যন্ত জমি আছিল। সব গ্যাছে। ওই দিক (ভাঙন রোধে) কয়টা বালুর বস্তা ফেলা ছাড়া আর কোনও কিছুই করে নাই।’

অবৈধ ড্রেজার মেশিনে বালু ওঠানো হচ্ছে ওই গ্রামের নওজ আলী, কমেলা বেগম, চাঁন মিয়া, নজু মিয়া, লাল মিয়াসহ ভাঙন হুমকিতে থাকা পরিবারগুলোর সদস্যরা জানান, গত বছরের মতো এবারও তীব্র ভাঙন শুরু হয়েছে। তারা এখন পরিবার ও সন্তানদের নিয়ে কোথায় যাবেন এ নিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। এই গ্রামবাসীদের অভিযোগ, প্রতি বছর নদের পাড় ঘেঁষে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করায় বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়। এতে পানি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে স্রোতের তীব্রতা বাড়ে, সঙ্গে বাড়ে ভাঙন প্রবণতা।

এদিকে তাদের এ করুণ অবস্থায়ও খোঁজ নিতে আসেন না স্থানীয় কোনও জনপ্রতিনিধি। এমন অভিযোগ করে মাঝ বয়সী নারী কমেলা বলেন, ‘ড্রেজার দিয়া আগত বালা তুলছে। সেজন্যে ধার (স্রোত) এই দিক চাপছে। ভাঙনে অনেকগুলা বাড়ি গেইলেও (বিলীন হলেও) চেয়ারম্যান-মেম্বার কেউ খোঁজ নিবার আহে নাই।’ ভুক্তভোগীদের দাবি, এখনই ভাঙনরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নিলে কয়েকদিনের মধ্যেই নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে পুরো গ্রাম।

জানতে চাইলে যাদুরচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সরবেশ আলী বলেন, ‘ওই এলাকায় এখনও যাওয়া হয়নি। তবে ইউএনও স্যারের সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আল ইমরান বলেন, ‘স্থানীয় চেয়ারম্যান ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলীর সঙ্গে কথা বলে জরুরি ভিত্তিতে ওই এলাকায় জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

তবে পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুল ইসলামের সঙ্গে কথা বলে ওই এলাকার ভাঙন রোধে ত্বরিত কোনও ব্যবস্থার আশ্বাস পাওয়া যায়নি। তিনি বলেন, ‘উপজেলার শৌলমারী ইউনিয়নে কিছ অংশে জিও ব্যাগ ফেলার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তবে এটা (যাদুরচর ইউনিয়নের ভাঙনের ব্যাপারে) আমরা খবর নেবো। যদি তেমন কিছু হয় তাহলে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমোদন সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেবো।’

তবে পাউবোর ‘ব্যবস্থা নেওয়ার’ সিদ্ধান্ত আসতে আসতে গ্রামটি তার অধিবাসীদের ধারণ করার জন্য ব্রহ্মপুত্রের সর্বগ্রাসী রূপের সঙ্গে লড়াই করে শেষ পর্যন্ত টিকে থাকতে পারবে কিনা, সে প্রশ্নের ইতিবাচক উত্তরে সন্দিহান দুর্গত এলাকার মানুষজন।

প্রসঙ্গত, ব্রহ্মপুত্র, তিস্তা ও ধরলার ভাঙনে জেলা জুড়ে শত শত পরিবার বাস্তুহারা হচ্ছে। প্রতি বছর ভাঙনের শিকার হয়ে জেলায় উদ্বাস্তু পরিবারের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। নদ-নদীময় কুড়িগ্রামের নদী তীরবর্তী এলাকায় চলছে এসব পরিবারের চাপা কান্না।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

মেয়ের জামাইকে গাছের সঙ্গে বেঁধে পেটালেন শ্বশুর-শাশুড়ি!

মেয়ের জামাইকে গাছের সঙ্গে বেঁধে পেটালেন শ্বশুর-শাশুড়ি!

‘অক্টোবরে রংপুরে থানা-ওয়ার্ড কমিটি গঠনে আ.লীগের বর্ধিত সভা’

‘অক্টোবরে রংপুরে থানা-ওয়ার্ড কমিটি গঠনে আ.লীগের বর্ধিত সভা’

তিস্তায় বিলীনের অপেক্ষায় কমিউনিটি ক্লিনিক

তিস্তায় বিলীনের অপেক্ষায় কমিউনিটি ক্লিনিক

মেয়ের জামাইকে গাছের সঙ্গে বেঁধে পেটালেন শ্বশুর-শাশুড়ি!

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:৩০

ঠাকুরগাঁওয়ে স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে শ্বশুর বাড়িতে গেলে নাসিরুল ইসলাম নামের এক যুবককে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। শ্বশুর-শাশুড়ি তাকে জনসমক্ষে গাছের সঙ্গে বেঁধে মারধর করেন। এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ঘটনার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

গত ২০ সেপ্টেম্বর (সোমবার) জেলার রাণীশংকৈল উপজেলার ভাঙবাড়িতে ঘটনাটি ঘটে। শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এ ঘটনায় শাশুড়ি সেলিনা রহমানকে আটক করেছে রাণীশংকৈল থানার পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাত ১২টার দিকে শাওন আমিন নামে এক ব্যক্তি নির্যাতনের ভিডিওটি ফেসবুকে পোস্ট করলে ভাইরাল হয়ে যায়। অনেকে নির্যাতনকারীদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন।

এলাকাবাসী ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, একই গ্রামের করিমুলের মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে নাসিরুলের। দীর্ঘদিন সম্পর্কে থাকার পর এক পর্যায়ে পরিবারকে না জানিয়ে তারা বিয়ে করে আত্মগোপনে থাকেন। এদিকে, সন্তানকে ফিরে পেতে চাপ প্রয়োগ করতে থাকে মেয়ের পরিবার। বিয়ে মেনে নেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দেয়। এতে স্ত্রীকে শ্বশুরের পরিবারে দিয়ে আসেন স্বামী নাসিরুল।

পরে ২০ সেপ্টেম্বর বিকেলে স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে তার বাসায় যান। তখনই মেয়ের বাবা-মা তাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করতে থাকেন। চিৎকার করে কেঁদে কেঁদে ছেড়ে দেওয়ার আকুতি জানান, ক্ষমা চান বারবার। তবুও তাকে মারধর করতে থাকে মেয়ের পরিবার। শেষে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। বর্তমানে দিনাজপুর আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

এ বিষয়ে রাণীসংকৈল থানার ওসি জাহিদ ইকবাল বলেন, ‘খবর পেয়ে পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে সেখানে গিয়ে আহতকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে। মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।’

/এফআর/

সম্পর্কিত

সিলেটের নদী থেকে ‘ভারতীয় নাগরিকের’ লাশ উদ্ধার

সিলেটের নদী থেকে ‘ভারতীয় নাগরিকের’ লাশ উদ্ধার

বঙ্গোপসাগরে সাড়ে চার লাখ ইয়াবাসহ আটক ৫

বঙ্গোপসাগরে সাড়ে চার লাখ ইয়াবাসহ আটক ৫

যাত্রীবাহী গাড়িতে গুলি: ২৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

যাত্রীবাহী গাড়িতে গুলি: ২৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

হাসপাতালের সাবেক তত্ত্বাবধায়কসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

হাসপাতালের সাবেক তত্ত্বাবধায়কসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

আমরা চাকরি করি না, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে রাজনীতি করি: শিক্ষামন্ত্রী

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:১৪

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ গণমানুষের রাজনীতি করে বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেছেন, ‘আমরা চাকরি করি না, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়ে রাজনীতি করি।’

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে এ কথা বলেন মন্ত্রী। মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি শামসুল আলমের সভাপতিত্বে সভায় দলটির উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, কার্যনির্বাহী সদস্য মারুফা আক্তার পপি, উপাধ্যক্ষ রেমন্ড আরেং, মহানগরের সাধারণ সম্পাদক মহিদুর রহমান শান্তসহ স্থানীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

দীপু মনি বলেন, ‘মানব সেবার ব্রত নিয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে রাজনীতি করে আওয়ামী লীগ। করোনাকালে মাঠে যখন কাউকে খুঁজে পাওয়া যায়নি, তখন আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। বাড়ি বাড়ি গিয়ে ত্রাণ পৌঁছে দিয়েছেন। যারা হাসপাতালে যেতে পারেননি, তাদের হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়ার কাজটি করেছেন নেতাকর্মীরা।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘৭৫ পরবর্তী বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে তার আদর্শের নেতাকর্মীদের অত্যাচার, নির্যাতন-নিপীড়ন করা হয়েছে। দলের জন্য যার ত্যাগ আছে, তাকে দলীয় পদ দিতে না পারলেও অন্তত সম্মান দিতে হবে।’

/এফআর/এমওএফ/

সম্পর্কিত

একই ব্যানারে গাজীপুরে আ.লীগের পাল্টাপাল্টি সমাবেশ

একই ব্যানারে গাজীপুরে আ.লীগের পাল্টাপাল্টি সমাবেশ

কমিউটার ট্রেনে ডাকাতি, ছুরিকাঘাতে ২ যাত্রী নিহত

কমিউটার ট্রেনে ডাকাতি, ছুরিকাঘাতে ২ যাত্রী নিহত

‘অক্টোবরে রংপুরে থানা-ওয়ার্ড কমিটি গঠনে আ.লীগের বর্ধিত সভা’

‘অক্টোবরে রংপুরে থানা-ওয়ার্ড কমিটি গঠনে আ.লীগের বর্ধিত সভা’

এমপিকে না জানিয়ে সোয়া কোটি টাকার টেন্ডার আহ্বান

এমপিকে না জানিয়ে সোয়া কোটি টাকার টেন্ডার আহ্বান

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ নিয়ে যা বললেন রেলমন্ত্রী

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:৩৫

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ নিয়ে যা হচ্ছে, এতটা করার কোনও অর্থ নেই বলে মন্তব্য করেছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। তিনি বলেছেন, ‘একটা হাসপাতাল ও মেডিক্যাল কলেজ হচ্ছে। সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান। বিদ্যুৎ নিয়েও এ রকম হয়েছে। আমাদের দেশে এক শ্রেণির মানুষ আছে, কোনও কাজই তাদের ভালো লাগে না।’

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

কক্সবাজার রেললাইন নির্মাণ কাজের পরিদর্শন শেষে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে মন্ত্রী চট্টগ্রাম আসেন। নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, ‘যেসব ইস্যু নিয়ে সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণের বিরোধিতা হচ্ছে, সেখানে তথ্যগত কোনও ভুল আছে কি-না সেটি খতিয়ে দেখার দরকার আছে। যে অভিযোগে আন্দোলন হচ্ছে, এটার ভিত্তি কতটুকু সেটি আমাদের যাচাই-বাছাই করতে হবে। এর জন্য সময় দিতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘এর আগে, আমরা আনুষ্ঠানিক কোনও অভিযোগ পাইনি। কয়েকদিন আগে আমাদের কাছে একটি অভিযোগ এসেছে। কিন্তু আন্দোলন এর আগেই শুরু হয়ে গেছে। আন্দোলন হচ্ছে, এটা আমার পত্রিকা-টেলিভিশনে দেখতেছি। কিন্তু কী নিয়ে আন্দোলন, এটি নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হয়নি। আমার বরাবরও কোনও দরখাস্ত করা হয়নি। জিএম, ডিজিএম, সচিব আছেন, তাদের কাছেও করা হয়নি। প্রধানমন্ত্রী আছেন, ওনার কাছেও করা হয়নি। দরখাস্ত করলে কী কারণে আন্দোলন, আমরা বুঝতে পারতাম। দরখাস্ত দেওয়ার পর যদি জোর করে কিছু হয়, তখন না হয় আন্দোলনের প্রশ্ন আসবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আমি বলতে চাচ্ছি, শুরুতে আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে আন্দোলনকারীদের কাছ থেকে কোনও অভিযোগ পাইনি। এখন মনে হয়, তারা আনুষ্ঠানিকভাবে তারা একটা দরখাস্ত করেছে। চুক্তি ও প্রকল্প তৈরি হচ্ছে, এটা নিয়ে যাচাই-বাছাই হচ্ছে, এই পর্যায়ে কিন্তু কোনও অভিযোগ আসেনি। ২০১৩/১৪ সালের দিকে এর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে, কিন্তু তখন কেউ কোনও আপত্তি তোলেনি। যখন বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছি, তখন এটা নিয়ে আন্দোলন হচ্ছে।’

এটি নিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ দুই ভাগে ‘বিভক্ত’ হয়ে পড়েছে- জবাবে তিনি বলেন, ‘আমাদের অভিভাবক হলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উনি সবার ওপরে। প্রধানমন্ত্রী যে সিদ্ধান্ত দেবেন আমাদের তা করতে হবে। আনুষ্ঠানিকভাবে আমরা যে অভিযোগ পেয়েছি, সেটি আগে আমরা খতিয়ে দেখবো। এরপর প্রধানমন্ত্রী আছেন। উনি যা বলবেন তাই হবে। আপনারা জানেন, প্রধানমন্ত্রী জনগণের কল্যাণে কাজ করেন। এখন আপনারা যদি না চান, তাহলে জোর করে তো চাপিয়ে দেওয়ার দরকার নেই।’

/এফআর/

সম্পর্কিত

গাছের সঙ্গে বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাসের ধাক্কায় নিহত ১, আহত ১২

গাছের সঙ্গে বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাসের ধাক্কায় নিহত ১, আহত ১২

‘বিদ্যালয়ে এসে করোনা আক্রান্তের প্রমাণ পাওয়া যায়নি’

‘বিদ্যালয়ে এসে করোনা আক্রান্তের প্রমাণ পাওয়া যায়নি’

গণমাধ্যম নিয়ে যা বললেন নওফেল

গণমাধ্যম নিয়ে যা বললেন নওফেল

‘জিনের বাদশার’ কথায় ২৮ লাখ টাকা হারালেন প্রবাসী

‘জিনের বাদশার’ কথায় ২৮ লাখ টাকা হারালেন প্রবাসী

জাহাজের ধাক্কায় ডুবলো মাছের ট্রলার, ২ জেলের লাশ উদ্ধার

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:২৮

ভোলা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরের মোহনায় জাহাজের ধাক্কায় মাছ ধরার ট্রলারডুবির ঘটনায় দুই জেলের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এখনও এক জেলে নিখোঁজ রয়েছেন।

নিহতরা হলেন- ভোলার মনপুরা উপজেলার হাজিরহাট ইউনিয়নের বাসিন্দা মো. মাহাবুব মাঝি (৩৬) ও মো. রুবেল মাঝি (২৭)।

স্থানীয় জেলেরা জানান, গত বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকালে মনপুরা উপজেলার হাজিরহাট চরফৈজুদ্দিন গ্রাম থেকে গিয়াস উদ্দিন মাঝি ১১ জেলেসহ ট্রলার নিয়ে বঙ্গোপসাগরের মোহনায় মাছ শিকার করতে যান। শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) ভোরে সাগরের মোহনার লাল বয়া নামক এলাকায় মাছ শিকার করছিলেন তারা। সে সময় একটি কার্গো জাহাজের ধাক্কায় ট্রলারটি ডুবে যায়। ওই সময় পাশে থাকা কামাল মাঝির ট্রলার দ্রুত ডুবে যাওয়া ট্রলারের আটজনকে উদ্ধার করে। এছাড়া মাহবুব মাঝি ও রুবেল মাঝির লাশ উদ্ধার করে ট্রলারটি।

মনপুরা থানার ওসি মো. সাঈদ আহমেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিখোঁজ জেলেকে উদ্ধারে সন্ধান চলছে।

/এফআর/

সম্পর্কিত

বঙ্গোপসাগরে সাড়ে চার লাখ ইয়াবাসহ আটক ৫

বঙ্গোপসাগরে সাড়ে চার লাখ ইয়াবাসহ আটক ৫

হাসপাতালের ছাদের পলেস্তারা খসে পড়ে ২ কর্মচারী আহত

হাসপাতালের ছাদের পলেস্তারা খসে পড়ে ২ কর্মচারী আহত

মাত্রাতিরিক্ত ভারী যান উঠলেই সিগন্যাল দেবে লেবুখালী সেতু

মাত্রাতিরিক্ত ভারী যান উঠলেই সিগন্যাল দেবে লেবুখালী সেতু

৬ মাসেই ভেঙে পড়ছে সাড়ে তিন কোটি টাকার সড়ক

৬ মাসেই ভেঙে পড়ছে সাড়ে তিন কোটি টাকার সড়ক

ধাক্কা দেওয়া সিএনজির ওপর একই ট্রাকের চাপা, নিহত ৪

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:০৩

খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়কের ডুমুরিয়া উপজেলার জিলেরডাঙ্গা এলাকায় বালুবাহী ট্রাকের ধাক্কায় সিএনজিচালিত অটোরিকশা ডোবায় পড়ে চার জন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) বেলা ১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এরপর টানা চার ঘণ্টার চেষ্টায় ডোবা থেকে বিকাল ৫টার দিকে নিহতদের লাশ উদ্ধার করেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। বালুবাহী ট্রাকের চালক রাকিব শেখকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহতরা হলেন- মধ্যে ডুমুরিয়া উপজেলার শরাফপুরের জাকারিয়া সরদারের ছেলে সিএনজিচালক ইলিয়াস সরদার (৪৫) ও রুদাঘরা গ্রামের মহিউদ্দিনের মেয়ে রেশমা খাতুন (৩২)। বাকি দুই জনের একজন নারী অন্যজন পুরুষ জানা গেলেও তাদের নাম-পরিচয় এখন পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন: বাস-ট্রাক-কাভার্ডভ্যান সংঘর্ষে প্রাণ গেলো ৩ জনের

ডুমুরিয়া থানার ওসি মো. ওবায়দুর রহমান বলেন, ‘বালুভর্তি ট্রাক (সাতক্ষীরা-ই ১১-০৩৯৪) এবং যাত্রীবাহী সিএনজি উভয় যানই খুলনামুখী ছিল। ট্রাকটি পেছন থেকে সাজোরে সিএনজিটিকে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজিটি যাত্রীসহ রাস্তার পাশের ডোবার মধ্যে পড়ে। সিএনজির ওপর বালুভর্তি ট্রাকটিও পড়ে। ফলে সিএনজিটি পানির নিচে দেবে যায়। এতে সিএনজি থেকে কেউ বের হতে পারেননি। ডুমুরিয়া ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা চার ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে চার জনের লাশ উদ্ধার করে।’

ওসি আরও বলেন, ‘ট্রাকচালক রাকিব শেখকে আটক করা হয়েছে। আটক রাজিব খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার মহসীন শেখের ছেলে।’

জানা গেছে, এ দুর্ঘটনায় পর উদ্ধার কাজের জন্য খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়কে চার ঘণ্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। এর ফলে রাস্তার দুই পাশে যানবাহনের দীর্ঘ জটলার সৃষ্টি হয়। বিকাল ৫টায় উদ্ধার কাজ শেষে এ মহাসড়কে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক হয়।

/এফআর/

সম্পর্কিত

গাছের সঙ্গে বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাসের ধাক্কায় নিহত ১, আহত ১২

গাছের সঙ্গে বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাসের ধাক্কায় নিহত ১, আহত ১২

শিকল খোলার পর প্রতিবন্ধীর লাঠির আঘাতে বোন নিহত

শিকল খোলার পর প্রতিবন্ধীর লাঠির আঘাতে বোন নিহত

নির্বাচনের আগেই খুলনায় পূর্ণাঙ্গভাবে চালু হবে বিটিভি: তথ্যমন্ত্রী

নির্বাচনের আগেই খুলনায় পূর্ণাঙ্গভাবে চালু হবে বিটিভি: তথ্যমন্ত্রী

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মেয়ের জামাইকে গাছের সঙ্গে বেঁধে পেটালেন শ্বশুর-শাশুড়ি!

মেয়ের জামাইকে গাছের সঙ্গে বেঁধে পেটালেন শ্বশুর-শাশুড়ি!

‘অক্টোবরে রংপুরে থানা-ওয়ার্ড কমিটি গঠনে আ.লীগের বর্ধিত সভা’

‘অক্টোবরে রংপুরে থানা-ওয়ার্ড কমিটি গঠনে আ.লীগের বর্ধিত সভা’

তিস্তায় বিলীনের অপেক্ষায় কমিউনিটি ক্লিনিক

তিস্তায় বিলীনের অপেক্ষায় কমিউনিটি ক্লিনিক

নীলফামারীর ৮৬৩ মণ্ডপে হবে শারদীয় দুর্গোৎসব

নীলফামারীর ৮৬৩ মণ্ডপে হবে শারদীয় দুর্গোৎসব

বেড়েছে কাঁচামরিচের ঝাঁজ

বেড়েছে কাঁচামরিচের ঝাঁজ

আমদানি কমার অজুহাতে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম

আমদানি কমার অজুহাতে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম

ববি ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

ববি ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

বেশি লাভের আশায় আগাম আলু চাষে ব্যস্ত কৃষক

বেশি লাভের আশায় আগাম আলু চাষে ব্যস্ত কৃষক

সর্বশেষ

বিদেশের কাছে দেনা বাড়ছেই

বিদেশের কাছে দেনা বাড়ছেই

ফেন্সিংয়ের সাবেক সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি

ফেন্সিংয়ের সাবেক সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি

মেয়ের জামাইকে গাছের সঙ্গে বেঁধে পেটালেন শ্বশুর-শাশুড়ি!

মেয়ের জামাইকে গাছের সঙ্গে বেঁধে পেটালেন শ্বশুর-শাশুড়ি!

শনিবারও খেলা হচ্ছে না মেসির

শনিবারও খেলা হচ্ছে না মেসির

ঘুমধুম সীমান্তে দেড় লাখ পিস ইয়াবা জব্দ

ঘুমধুম সীমান্তে দেড় লাখ পিস ইয়াবা জব্দ

© 2021 Bangla Tribune