X
শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

রাজধানীতে পশুর হাট

স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত, মাইকিং করেই দায়িত্ব সারছেন ইজারাদার

আপডেট : ১৮ জুলাই ২০২১, ১৬:১৮

স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না রাজধানী ঢাকার কোরবানির পশুর হাটগুলোতে। সিটি করপোরেশন নির্ধারিত ৪৬টি শর্তের কোনটিই মানছেন না কেউ। কোথাও কোথাও কিছুটা তদারকি দেখা গেলেও তা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই অপ্রতুল। এ অবস্থায় সচেতন ব্যক্তিরা হাটে প্রবেশের সাহস করতে পারছেন না। নগরীর হাটগুলো ঘুরে এমনই চিত্র দেখা গেছে।

দুই সিটির শর্ত অনুযায়ী হাটে মাস্ক, সাবান, জীবাণুমুক্তকরণ সামগ্রীর ব্যবস্থা করবেন ইজারাদার। সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। সবার ব্যক্তিগত সুরক্ষা জোরদার করা ও মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। হাঁচি, কাশির শিষ্টাচার, শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা, হাত ধোয়ার কথা সার্বক্ষণিক মাইকে প্রচার করতে হবে। হাটে প্রবেশের সময় গ্রাহক চাইলে তাকে বিনামূল্যে মাস্ক দিতে হবে। মাস্ক ছাড়া কাউকে ঢুকতে দেওয়া যাবে না। পর্যাপ্ত পানি ও ব্লিচিং পাউডার দিয়ে পশুর বর্জ্য দ্রুত পরিষ্কার করতে হবে। একটি পশু থেকে আরেকটি পশু এমনভাবে রাখতে হবে যেন ক্রেতাদের মধ্যে তিন ফুট দূরত্ব থাকে। ভিড় এড়াতে মূল্য পরিশোধ ও হাসিল আদায় কাউন্টারের সংখ্যা বাড়াতে হবে। মূল্য পরিশোধের সময় সারিবদ্ধভাবে লাইনে দাঁড়াতে হবে। প্রয়োজনে রেখা টেনে বা গোল চিহ্ন দিয়ে দিতে হবে। হাটের ধারণক্ষমতা অনুযায়ী পশু ঢোকাতে হবে।

শর্তে আরও বলা হয়েছে, প্রতিটি হাটে সিটি করপোরেশনের এক বা একাধিক ভ্রাম্যমাণ আদালত, স্বেচ্ছাসেবী মেডিক্যাল টিম গঠন করে সেবা দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। টিমের কাছে শরীরের তাপমাত্রা মাপার ডিজিটাল থার্মোমিটার থাকতে হবে। তাৎক্ষণিকভাবে রোগীকে আলাদা করার জন্য হাটে একটি আইসোলেশন ইউনিট রাখতে হবে। হাটের ধারণ ক্ষমতা অনুযায়ী নির্দিষ্ট সংখ্যক ক্রেতাকে প্রবেশ করতে দিতে হবে। বাকিরা বাইরে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে অপেক্ষা করবেন।

তাছাড়া একটি পশু কিনতে একসঙ্গে দুজনের বেশি হাটে ঢুকতে পারবে না। হাটে প্রবেশ ও বের হওয়ার গেটের দুই পাশে এবং পশুর হাটের মাঝে পর্যাপ্ত সংখ্যক পানির আধার, বেসিন ও সাবান এবং আলাদা স্থানে হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখতে হবে। হাটে ঢোকার আগে ও বের হয়ে ক্রেতাকে হাত ধুতে হবে। হাটে সব কর্মীকে স্বাস্থ্যবিধির প্রশিক্ষণ দিতে হবে। শিশু ও বৃদ্ধদেরও ঢুকতে দেওয়া যাবে না। এসব শর্তগুলোর মধ্যে মাঝে মধ্যে শুধু ইজারাদার মাইকে সচেতনতা মূলক কিছু বার্তা ঘোষণা করছেন। আর হাটের বিভিন্ন স্থানে স্বাস্থ্যবিধির সচেতনতামূলক কিছু নিয়ম সংবলিত বার্তা ঝুঁলিয়ে রাখা হয়েছে।

রবিবার (১৮ জুলাই) রাজধানীর শাহজাহানপুর মৈত্রী সংঘের মাঠে গিয়ে দেখা গেছে, হাটের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি বলতে কোনও কিছুই দেখা যাচ্ছে না। অধিকাংশ মানুষকে মাস্ক ছাড়াই হাটে দলবেঁধে প্রবেশ করতে দেখা গেছে। কিছু স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করা হলেও তারা পশুর হাসিল আদায়ে ব্যস্ত। স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে তাদেরও কোনও সচেতনতা নেই। অধিকাংশ স্বেচ্ছাসেবককে মুখের নিচে মাস্ক ঝুলিয়ে রাখতে দেখা গেছে।

একই চিত্র আফতাব নগর হাটের। হাটে বিপুল সংখ্যক কোরবানির পশু দেখা গেলেও বেচা-বিক্রি এখনো শুরু হয়নি। তবে হাটে শিশু-বৃদ্ধ থেকে শুরু করে সব বয়সের মানুষ দেখা গেছে। হাটের প্রবেশপথগুলোতে হাত ধোয়ার কোনও ব্যবস্থা দেখা যায়নি। ভেতরেও নেই কোনও স্বাস্থ্য বিধি তবে হাটটি পরিদর্শনে এসে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম কঠোর বার্তা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, স্বাস্থ্যবিধি না মানলে প্রয়োজনে হাট বাতিল করা হবে।

মেরাদিয়া হাটে গিয়ে দেখা গেছে, এলাকার প্রধান সড়কটিতে গরুর হাট বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। হাটের স্বেচ্ছাসেবকরা ট্রাক থেকে গরু নামানোর কাজে ব্যস্ত। স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে নেই কোনও সচেতনতা। হাটটিতে সিটি করপোরেশনের ঘোষণা অনুযায়ী কোনও ভ্রাম্যমাণ আদালতও দেখা যায়নি।

বনশ্রীর বাসিন্দা হাজী আশরাফুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, যে পরিমাণ মানুষ তাতে খুবই আতঙ্ক লাগবে। করোনাকালেও কোনও স্বাস্থ্যবিধি নেই। যে যার মতো করে ঘুরে বেড়াচ্ছে। বিনা কারণেও হাটে বিপুল পরিমাণ মানুষের সমাগম ঘটছে। কেউ বাধাও দিচ্ছে না। আমি একজন স্বাস্থ্য সচেতন মানুষ। হাটে ঢুকতে এখন আমার আতঙ্ক লাগছে।

খিলগাঁও এলাকার বাসিন্দা নাজমুল হাসান বলেন, কীসের স্বাস্থ্যবিধি আর নিয়ম-কানুন। হাট বসানোর আগে সিটি করপোরেশন অনেক কথা বলে। কিন্তু কোনও জরিমানা বা কোনও সতর্কতা কিছুই করা হয় না। অনেক শর্তের কথা শুনেছি। কিন্তু সব তো দেখি কাগজে আর করলে। হাটে নেই।

বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ১৯ নম্বর ওয়ার্ড ও হাট মনিটরিং টিমের আহ্বায়ক মো. মফিজুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, গতকাল আমরা মেয়রের সভাপতিত্বে একটি বড় মিটিং করেছি। আজ রবিবার (১৮ জুলাই) থেকে আমাদের সকল টিম মাঠে রয়েছে। আমরা কাজ করছি। এরই মধ্যে মেয়র আতিকুল ইসলাম সাঈদ নগর ও আফতাব নগর হাট পরিদর্শন করেছেন। অপরদিকে হাটগুলোতে ঢাকা দক্ষিণ সিটির তেমন কোনও মনিটরিং দেখা যায়নি। বিষয়টি সম্পর্কে কথাও বলতে রাজি হননি সংস্থাটির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন।

/এমএস/

সম্পর্কিত

শনি ও বুধবার আসছে অ্যাস্ট্রাজেনেকার আরও ১৩ লাখ ডোজ টিকা

শনি ও বুধবার আসছে অ্যাস্ট্রাজেনেকার আরও ১৩ লাখ ডোজ টিকা

দেশে পৌঁছেছে সিনোফার্মের ৩০ লাখ ডোজ টিকা

দেশে পৌঁছেছে সিনোফার্মের ৩০ লাখ ডোজ টিকা

‘সবাইকে নিয়ে সেই বিপদেই পড়তে হলো’

‘সবাইকে নিয়ে সেই বিপদেই পড়তে হলো’

কোথায় গেলে একটা সিট পাবো?

কোথায় গেলে একটা সিট পাবো?

করোনা রোগীর চাপ ঢাকা মেডিক্যালে

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২১, ০০:১৯

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে অন্যান্য দিনের মতো বৃহস্পতিবারও করোনা রোগীর চাপ লক্ষ্য করা গেছে। বেশির ভাগ রোগীই আসছেন বিভিন্ন জেলা থেকে। তাদের অধিকাংশই রেফার্ড রোগী। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ৫৭ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন এই হাসপাতালের করোনা ইউনিটে। রোগীদের মধ্যে যাদের অবস্থা গুরুতর তাদেরই কেবল ভর্তি নেওয়া হচ্ছে। যে সব রোগীর অবস্থা মোটামুটি ভালো, অক্সিজেন লাগছে না, তাদের ব্যবস্থাপত্র দিয়ে ছেড়ে দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। বাসায় রেখে চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন। সিট ফাঁকা না থাকলে বাধ্য হয়ে অনেককে অন্য হাসপাতালে রেফার করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে ঢামেক হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত উপপরিচালক আশরাফুল আলম বলেন, ‘আমাদের এখানে সিট ফাঁকা হলেই রোগী ভর্তি দেওয়া হয়। আমরা চাই না কোনও রোগী অন্যত্র চলে যাক। বিভিন্ন জেলা থেকে বেশির ভাগ রোগীকে ঢামেক হাসপাতালে রেফার করা হয়। আমাদের এখানে কোনও রকম ব্যবস্থা করতে পারলে তাই করে থাকি। সিটের বাইরেও অনেক রোগী ভর্তি নিয়েছি।’

করোনা ইউনিটে ডিউটিরত একজন নার্স জানিয়েছেন, রোগী ছুটি হয় সকাল থেকে দুপুরের মধ্যে। সেই সিটের বিপরীতে বাকি সময়ে রোগী ভর্তি দেন জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা।

ঢাকা মেডিক্যালে করোনা রোগী

কুমিল্লা জেলার হোমনা উপজেলার রোগী মায়া বেগম (৫০)। তার ছেলে মাহমুদুল বলেন, আমার মায়ের ডায়াবেটিস আছে। তার মধ্যে ঈদের পর থেকেই জ্বরে ভুগছেন। সঙ্গে কাশি আছে। প্রথমে স্থানীয় চিকিৎসকের পরামর্শে চিকিৎসা করাচ্ছিলাম। এখন তিনি খুবই দুর্বল হয়ে গেছেন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে দেয়। তাই নিয়ে আসি। চিকিৎসকরা পরীক্ষা নিরীক্ষার পর কাগজ-পত্র দেখে ভর্তি দিয়েছেন।’

ঢামেক হাসপাতালের একজন সিনিয়র স্টাফ নার্স বলেন, ‘৩-৪ দিন ধরে আমি অসুস্থ বোধ করছিলেন। বুধবার করোনা টেস্ট করাতে দেই। আজ রিপোর্ট পেয়েছি পজিটিভ। তাই ভর্তি হতে এসেছি।’

নরসিংদী সদর উপজেলার বাসিন্দা হেলাল উদ্দিন (৫০)। তিনি সৌদি প্রবাসী। হেলাল উদ্দিনের শ্যালক আরিফুল ইসলাম বলেন, ‘আমার ভগ্নিপতি ছুটিতে দেশে এসেছেন। সেখান থেকে এক ডোজ টিকাও নিয়েছেন। কয়েক দিন ধরে জ্বর, শ্বাসকষ্ট হচ্ছে। আমরা নরসিংদী সদর উপজেলাসহ দুটি হাসপাতালে নিয়েছি। সেখানে নাকি সিট নেই। তারাই ঢাকায় নিয়ে আসতে বলেছে। তাই অক্সিজেন লাগিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে নিয়ে আসেছি। জানি না এখন ভর্তি করাতে পারি কিনা। অপেক্ষায় রয়েছি।’

 

/আইএ/

সম্পর্কিত

শনি ও বুধবার আসছে অ্যাস্ট্রাজেনেকার আরও ১৩ লাখ ডোজ টিকা

শনি ও বুধবার আসছে অ্যাস্ট্রাজেনেকার আরও ১৩ লাখ ডোজ টিকা

রাজধানীর ৯ সরকারি হাসপাতালে ফাঁকা নেই আইসিইউ বেড

রাজধানীর ৯ সরকারি হাসপাতালে ফাঁকা নেই আইসিইউ বেড

ঢাকায় একদিনে রেকর্ড ডেঙ্গু রোগী

ঢাকায় একদিনে রেকর্ড ডেঙ্গু রোগী

অনুমোদন পেলো বুয়েট উদ্ভাবিত অক্সিজেট

অনুমোদন পেলো বুয়েট উদ্ভাবিত অক্সিজেট

প্রতি শনিবার ১০ মিনিট সময় চান মেয়র আতিক

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২১, ০০:০৯

ডেঙ্গু প্রতিরোধে প্রতি শনিবার সকাল ১০টা থেকে ১০টা ১০ মিনিট পর্যন্ত ১০ মিনিট সময় চান ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

তারই অংশ হিসেবে এদিন তিনি নগরবাসীকে সচেতন করতে নিজ বাসা নিজ হাতে পরিষ্কার করবেন।

বিষয়টি তার ভেরিফায়েড ফেসবুক অডিয়েন্স ইসির ফেসবুক পেজ থেকে সরাসরি সম্প্রচার করা হবে।

‘দশটায় ১০ মিনিট প্রতি শনিবার, নিজ নিজ বাসাবাড়ি করি পরিষ্কার’ স্লোগানকে সামনে রেখে এ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে।

 

/এসএস/এনএইচ/

সম্পর্কিত

ডেঙ্গু প্রতিরোধে মাঠে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘মাঞ্জা’

ডেঙ্গু প্রতিরোধে মাঠে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘মাঞ্জা’

লকডাউন অমান্য করায় শুক্রবার রাজধানীতে ৩৮১ জন গ্রেফতার

লকডাউন অমান্য করায় শুক্রবার রাজধানীতে ৩৮১ জন গ্রেফতার

জয়যাত্রা টেলিভিশন ঘিরে ছিল হেলেনা জাহাঙ্গীরের চাঁদাবাজি

জয়যাত্রা টেলিভিশন ঘিরে ছিল হেলেনা জাহাঙ্গীরের চাঁদাবাজি

করোনা কোথায়? (ফটোস্টোরি)

করোনা কোথায়? (ফটোস্টোরি)

করোনায় প্রথম র‌্যাবের নারী সদস্যের মৃত্যু, মহাপরিচালকের শোক

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২১, ০০:০৪

করোনায় আক্রান্ত হয়ে রাশেদা ফেরদৌস নামে একজন নারী র‌্যাব সদস্য মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) রাতে রাজধানীর ইমপালস হাসপাতালে মারা যান তিনি। তার মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছেন র‌্যাব মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন। শুক্রবার (৩০ জুলাই) গণমাধ্যমে পাঠানো এক শোকবার্তায় এ তথ্য জানানো হয়।

শোক বার্তায় বলা হয়, রাশেদা ফেরদৌস র‌্যাব-৩ এ প্রেষণে কর্মরত ছিলেন। করোনা সংক্রমণের শুরু থেকেই চলমান সব অপারেশন কর্মকাণ্ডে সম্মুখ যোদ্ধা হিসেবে সাহসিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন তিনি। এই নারী সদস্যের অকাল মৃত্যুতে আমরা মর্মাহত। করোনায় র‌্যাবে এই প্রথম কোনও নারী সদস্য জীবন উৎসর্গ করলেন। তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয় শোক বার্তায়।

মরহুমার গ্রামের বাড়ি সিলেটের গোপালগঞ্জ উপজেলা। সেখানেই তাকে দাফন করা হয়েছে। তার পরিবার-পরিজন যেন এই অপরিমেয় শোক সহ্য করতে পারেন সে জন্য আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করেন র‌্যাব মহাপরিচালক। 

রাশেদা ফেরদৌস ২০২১ সালের ৫ মার্চ হতে র‌্যাবে কর্মরত। তিনি গাজীপুরের সফিপুরের মহিলা আনসার ব্যাটালিয়ন থেকে র‌্যাবে যোগদান করেন। 

 

/আরটি/আইএ/

সম্পর্কিত

হেলেনা জাহাঙ্গীরের ৫ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

হেলেনা জাহাঙ্গীরের ৫ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

রাশিয়া সফর শেষে দেশে ফিরলেন নৌবাহিনী প্রধান

রাশিয়া সফর শেষে দেশে ফিরলেন নৌবাহিনী প্রধান

‘মানবপাচার মামলার প্রসিকিউশনে ত্রুটিগুলোর দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে’

‘মানবপাচার মামলার প্রসিকিউশনে ত্রুটিগুলোর দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে’

সৌদি আরব থেকে ফেরত পাঠালে হজ-ওমরাহ ছাড়া প্রবেশ করা যাবে না

সৌদি আরব থেকে ফেরত পাঠালে হজ-ওমরাহ ছাড়া প্রবেশ করা যাবে না

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব রটানোর অভিযোগে একজন গ্রেফতার

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২১, ০০:০০

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ও ইউটিউবে রাষ্ট্রবিরোধী ও ধর্মীয় উস্কানিমূলক গুজব রটিয়ে আইন শৃঙ্খলার অবনতি ঘটানোর চেষ্টার অভিযোগে একজনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) সিটি-সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ।

গ্রেফতারকৃতের নাম মো. শফিকুল ইসলাম ওরফে শাফী।

বুধবার (২৮ জুলাই) ১২টা ৫ মিনিটে ঝালকাঠি সদরে অভিযান পরিচালনা করে তাকে গ্রেফতার করে সিটি সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগের ইন্টারনেট রেফারেল টিম।

প্রযুক্তির সহায়তায় উক্ত পেজ ও চ্যানেল পরিচালনাকারী শফিকুল ইসলামকে শনাক্ত করে ঝালকাঠি সদর এলাকা হতে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে ইউটিউব চ্যানেল এবং ফেসবুক পেজ ‘শান্তির আহ্বান’ লগড ইন অবস্থায় একটি মোবাইল উদ্ধার করা হয়। উক্ত ইউটিউব চ্যানেলে সংশ্লিষ্ট ভিডিওসহ একই রকম প্রায় পাঁচ শতাধিক ভিডিও পাওয়া যায়।

সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ সূত্রে জানা যায়, বেশ কিছু দিন থেকে ‘শান্তির আহবান’ নামক একটি ইউটিউব চ্যানেল ও ফেসবুক পেজ থেকে হাদিস অস্বীকার ও অপব্যাখ্যা করে ধর্ম অবমাননাকর ভিডিও শেয়ার করা হচ্ছে বলে সাইবার পেট্রোলিং’র মাধ্যমে জানা যায়। তা ছাড়াও উক্ত চ্যানেলে প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় সংসদে প্রদত্ত বক্তব্যের খণ্ডচিত্র বিকৃতভাবে উপস্থাপনের মাধ্যমে ধর্মীয় উস্কানি প্রদান করা হয়। সাম্প্রতিক সময়ের বিভিন্ন আলোচিত ঘটনাকে কেন্দ্র করে, বিভিন্ন মিথ্যা বক্তব্যের ভিডিও ও ছবি যুক্ত করে নতুন ভিডিও প্রস্তুত করে এ ইউটিউব চ্যানেলটিতে আপলোড করা হয়। এসকল ভিডিওতে ধর্ম, রাষ্ট্র, সরকার বিরোধী নানা প্রকার আক্রমণাত্মক, মিথ্যা, মানহানিকর ও ধর্মীয় উস্কানীমূলক গুজব রটিয়ে দেশের আইন শৃঙ্খলার অবনতি ঘটানোর চেষ্টা করছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে প্রাপ্ত তথ্য সম্পর্কে সূত্র জানায়, গ্রেফতারকৃত শফিকুল ‘শান্তির আহ্বান’ নামক ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে অর্থ আয়ের উদ্দেশ্যে উক্ত মনগড়া ও উস্কানীমূলক গুজব রটানোর ভিডিও গুলো ধারণ, সম্পাদনা ও প্রচার করতো।

গ্রেফতারকৃতের বিরুদ্ধে রমনা মডেল থানার মামলায় রিমান্ড আবেদন করে আদালতে পাঠানো হয়। আদালত তার দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

 

/আরটি/এনএইচ/

সম্পর্কিত

অনলাইনে বোমা তৈরির স্কুল চালাতো জঙ্গি ফোরকান

অনলাইনে বোমা তৈরির স্কুল চালাতো জঙ্গি ফোরকান

হেলেনার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলায় প্রতিবেদন ১২ সেপ্টেম্বর

হেলেনার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলায় প্রতিবেদন ১২ সেপ্টেম্বর

‘দলের ও রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করেছেন হেলেনা’

‘দলের ও রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করেছেন হেলেনা’

মানবপাচার প্রতিরোধ আইনের বিষয়ে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান

মানবপাচার প্রতিরোধ আইনের বিষয়ে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান

অনলাইনে বোমা তৈরির স্কুল চালাতো জঙ্গি ফোরকান

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২১, ০০:৩৩

সাধারণ শিক্ষার্থীরা অনলাইনে যেভাবে ক্লাস করেন সেভাবেই বোমা তৈরির একটি স্কুল গড়ে তুলেছিল এক তরুণ। এই অনলাইন স্কুলে অংশ নিতো নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন নব্য জেএমবির সদস্যরা। এতে প্রশিক্ষক হিসেবে জঙ্গি সদস্যদের প্রশিক্ষণ দিতো নব্য জেএমবির এক বোমা তৈরির কারিগর। তার নাম জাহিদ হাসান ওরফে রাজু ওরফে ইসমাইল ওরফে ফোরকান। সম্প্রতি অনলাইনে এমন একটি বোমা তৈরির স্কুলের সন্ধান পেয়ে নড়েচড়ে বসেছে পুলিশের জঙ্গি প্রতিরোধে বিশেষায়িত ইউনিট-কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট (সিটিটিসি)। বোমা তৈরির ওই প্রশিক্ষককে গ্রেফতারে শুরু হয়েছে অভিযান।

সিটিটিসির কর্মকর্তারা বলছেন, ধারাবাহিক অভিযানে কোণঠাসা নব্য জেএমবি আবার নতুন করে মাথাচাড়া দিয়ে ওঠার চেষ্টা করছে। তুরস্ক থেকে মাহাদী হাসান জন ওরফে আবুল আব্বাস আল বাঙ্গালি পরিচয়ে এক জঙ্গি আমীর হিসেবে নব্য জেএমবিকে সংগটিত করছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের টার্গেট করে তারা এখন সংগঠনের সব সদস্যদের বোমা তৈরির প্রশিক্ষণ দিচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় সাংগঠনিক সিদ্ধান্তে জাহিদ ওরফে ফোরকান গোপনে একটি অনলাইন স্কুল তৈরি করেছে। সংগঠনের সামরিক শাখার সদস্যদের সেখানে বোমা তৈরির প্রশিক্ষণ দেওয়া হতো।

সিটিটিসির অতিরিক্ত উপ-কমিশনার রহমত উল্লাহ চৌধুরী সুমন বলেন, ‘অনলাইনে বোমা তৈরির স্কুল পরিচালনা করছে জঙ্গিরা, এমন তথ্যের ভিত্তিতে নজরদারি শুরু করা হয়। প্রযুক্তিগত তথ্য ও আগে গ্রেফতার হওয়া জঙ্গিদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তারা বোমা তৈরির অনলাইন স্কুলের সত্যতা পান। পরে এই স্কুলের প্রশিক্ষককে গ্রেফতারের জন্য তার বিস্তারিত নাম-পরিচয় সংগ্রহ শুরু করেন।’

সিটিটিসি সূত্র জানায়, অনলাইনে বোমা তৈরির স্কুল পরিচালনাকারী জাহিদ হাসান ওরফে ফোরকান জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের রসায়ন বিভাগের শিক্ষার্থী। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার সময় থেকেই সে জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়ে। বিস্ফোরকের নানা উপকরণ নিয়ে পড়াশুনা করে এবং অনলাইনে প্রশিক্ষণ নিয়ে নিজেই বোমা তৈরির দক্ষ কারিগর হয়ে ওঠে। এরপর সাংগঠনিক সিদ্ধান্তে সে নিজেই বোমা তৈরির স্কুল পরিচালনা শুরু করে।

সিটিটিসির একজন কর্মকর্তা জানান, জাহিদ ওরফে ফোরকান এনক্রিপ্টেড বিভিন্ন অ্যাপসের মাধ্যমে সংগঠনের সহযোগী সদস্যদের কাছে প্রথমে বোমা তৈরির ম্যানুয়াল পাঠিয়ে দিতো। তারপর সপ্তাহের একটি নির্দিষ্ট সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে ভিডিও কলে হাতে-কলমে শেখাতো। তার তৈরি করা বোমা বা আইইডি (ইমপ্রোভাইজ এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস) সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জের একটি পুলিশ বক্স থেকে উদ্ধার করা হয়।

সূত্র জানায়, গত ১২ জুলাই নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার ও বন্দর থানাধীন দুটি জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালিয়ে একাধিক আইইডি উদ্ধারের পর তা নিস্ক্রিয় করা হয়। এ ঘটনায় আব্দুল্লাহ আল মামুন ও কাউসার হোসেন ওরফে মেজর উসামা নামে দুই জঙ্গিকে গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তারা বোমা তৈরির অনলাইন স্কুলের মাধ্যমে প্রশিক্ষণ নেওয়ার কথা স্বীকার করে। তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে প্রশিক্ষক জাহিদ ওরফে ফোরকানের বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ শুরু করা হয়।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, তারা ইতোমধ্যে জাহিদ ওরফে ফোরকানের বিস্তারিত পরিচয় সংগ্রহ করেছেন। ফোরকান বোমা তৈরিতে দক্ষতা অর্জনের পাশাপাশি মার্শাল আর্টের প্রশিক্ষণও নিয়েছে। বান্দরবানে গিয়ে নিজে অস্ত্র চালানোর প্রশিক্ষণ নিয়ে সে একাধিকবার কথিত হিজরতের জন্য দেশের বাইরে যাওয়ার চেষ্টাও করেছিল।

সিটিটিসির দায়িত্বশীল একজন কর্মকর্তা জানান, জঙ্গিরা শুরু থেকেই আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহারের চাইতে আইইডি বা বোমা ব্যবহার করতো বেশি। আত্মঘাতী হামলা বা বিস্ফোরণের মাধ্যমে বেশি লোকজনকে হতাহত করে আলোচনায় আসা তাদের টার্গেট। এ জন্য আগে পার্শ্ববর্তী দেশ থেকে বিস্ফোরকের উপাদান ও ডেটোনেটর সংগ্রহ করা হতো। কিন্তু এখন পার্শ্ববর্তী দেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরাও সতর্ক অবস্থানে থাকায় দেশীয় বাজার থেকে সহজেই সংগ্রহ করা যায় এমন রাসায়নিক উপাদান এনে বোমা তৈরি করছে তারা। এমনকি জঙ্গিরা বোমা তৈরির ডেটোনেটরও নিজেরা তৈরি করছে।

সিটিটিসির ওই কর্মকর্তা জানান, জঙ্গিরা এখন অনেক বেশি অনলাইনকেন্দ্রিক হয়ে আছে। তারা সদস্য সংগ্রহ থেকে শুরু করে যোগাযোগ, প্রশিক্ষণ, অর্থ সংগ্রহ ও প্রোপাগান্ডা প্রচার বা ভ্রান্ত মতাদর্শ প্রচারণার সবকিছুই করছে অনলাইনে। এ কারণে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও অনলাইনে কড়া নজরদারি করছে।

 

/আইএ/ 

সম্পর্কিত

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব রটানোর অভিযোগে একজন গ্রেফতার

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব রটানোর অভিযোগে একজন গ্রেফতার

হেলেনার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলায় প্রতিবেদন ১২ সেপ্টেম্বর

হেলেনার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলায় প্রতিবেদন ১২ সেপ্টেম্বর

‘দলের ও রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করেছেন হেলেনা’

‘দলের ও রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করেছেন হেলেনা’

মানবপাচার প্রতিরোধ আইনের বিষয়ে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান

মানবপাচার প্রতিরোধ আইনের বিষয়ে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান

সর্বশেষ

রুশ সমর্থিত আসাদ বাহিনীর ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় সিরিয়ায় নিহত ১৮

রুশ সমর্থিত আসাদ বাহিনীর ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় সিরিয়ায় নিহত ১৮

৫ আগস্টের আগে কারখানায় যোগ দেওয়া বাধ্যতামূলক নয়: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

৫ আগস্টের আগে কারখানায় যোগ দেওয়া বাধ্যতামূলক নয়: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

ঈদে বিক্রি না হওয়া ‘কালো মানিক’কে নিয়ে বিপাকে খামারি

ঈদে বিক্রি না হওয়া ‘কালো মানিক’কে নিয়ে বিপাকে খামারি

অটোরিকশা থেকে চাঁদা আদায় নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১৩

অটোরিকশা থেকে চাঁদা আদায় নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১৩

ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর বিয়ের আয়োজন করায় বাবার জরিমানা

ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর বিয়ের আয়োজন করায় বাবার জরিমানা

ভয়াবহ দাবানলে পুড়ছে তুরস্ক

ভয়াবহ দাবানলে পুড়ছে তুরস্ক

খুলনায় বৃষ্টিতে ভেসে গেছে ১০৮ কোটি টাকার মাছ

খুলনায় বৃষ্টিতে ভেসে গেছে ১০৮ কোটি টাকার মাছ

হেফাজতের হরতালে সহিংসতা মামলার আসামি গ্রেফতার

হেফাজতের হরতালে সহিংসতা মামলার আসামি গ্রেফতার

করোনা রোগীর চাপ ঢাকা মেডিক্যালে

করোনা রোগীর চাপ ঢাকা মেডিক্যালে

প্রতি শনিবার ১০ মিনিট সময় চান মেয়র আতিক

প্রতি শনিবার ১০ মিনিট সময় চান মেয়র আতিক

করোনায় প্রথম র‌্যাবের নারী সদস্যের মৃত্যু, মহাপরিচালকের শোক

করোনায় প্রথম র‌্যাবের নারী সদস্যের মৃত্যু, মহাপরিচালকের শোক

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব রটানোর অভিযোগে একজন গ্রেফতার

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব রটানোর অভিযোগে একজন গ্রেফতার

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

শনি ও বুধবার আসছে অ্যাস্ট্রাজেনেকার আরও ১৩ লাখ ডোজ টিকা

শনি ও বুধবার আসছে অ্যাস্ট্রাজেনেকার আরও ১৩ লাখ ডোজ টিকা

দেশে পৌঁছেছে সিনোফার্মের ৩০ লাখ ডোজ টিকা

দেশে পৌঁছেছে সিনোফার্মের ৩০ লাখ ডোজ টিকা

‘সবাইকে নিয়ে সেই বিপদেই পড়তে হলো’

‘সবাইকে নিয়ে সেই বিপদেই পড়তে হলো’

কোথায় গেলে একটা সিট পাবো?

কোথায় গেলে একটা সিট পাবো?

‘হতভম্ব’ জাতীয় কমিটি এবার ‘হতাশ’

‘হতভম্ব’ জাতীয় কমিটি এবার ‘হতাশ’

টিকা দিতে কারিগরি শিক্ষকদের তথ্য চেয়েছে সরকার

টিকা দিতে কারিগরি শিক্ষকদের তথ্য চেয়েছে সরকার

সরকারি ৭ হাসপাতালে আইসিইউ ফাঁকা নেই

সরকারি ৭ হাসপাতালে আইসিইউ ফাঁকা নেই

টিকা গ্রহীতাদের চাপ সামলাতে ঢামেকে বাড়তি কেন্দ্র

টিকা গ্রহীতাদের চাপ সামলাতে ঢামেকে বাড়তি কেন্দ্র

করোনায় মারা গেছেন নির্বাচন কর্মকর্তা ইসরাইল হোসেন

করোনায় মারা গেছেন নির্বাচন কর্মকর্তা ইসরাইল হোসেন

ঈদ উপলক্ষে আত্মীয়ের বাসায় ঘুরতে বেরিয়ে গুনতে হচ্ছে জরিমানা

ঈদ উপলক্ষে আত্মীয়ের বাসায় ঘুরতে বেরিয়ে গুনতে হচ্ছে জরিমানা

© 2021 Bangla Tribune