X
সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

বাগবিতণ্ডার জেরে মসজিদে তালা, সংঘর্ষে আহত ৫

আপডেট : ২১ জুলাই ২০২১, ২২:১৫

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার চন্দ্রপাড়ার উত্তরপাড়া জামে মসজিদে প্রধান ফটকে তালা দেওয়াকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে পাঁচজন আহত হয়েছেন। সংঘর্ষে গুরুতর আহত মসজিদ কমিটির সভাপতি মাহবুবুল আলম (৬৫), স্থানীয় খালেকুজ্জামান (৩৪) ও জুয়েল রানাকে (২৮) কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন। 

বুধবার (২১জুলাই) দুপুরে জোহরের নামাজের আগ মুহূর্তে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় পাঁচ জন আহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কেন্দুয়া থানার ওসি কাজী শাহ নেওয়াজ। 

তিনি বলেন, সকালে জামে মসজিদে ঈদুল আজহার নামাজ পড়াকে কেন্দ্র করে মসজিদ কমিটির সভাপতি মাহবুবুল আলম ও প্রতিবেশী শফিকুল ইসলাম শফিকের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। এর জেরে ঈদ জামাতের পর একটি পক্ষ মসজিদের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেয়। মসজিদ কমিটির সভাপতি মাহবুবুল আলমসহ স্থানীয় মুসুল্লিরা দুপুরে জোহরের নামাজ পড়তে গিয়ে দেখেন প্রধান ফটকে তালা ঝোলানো। পরে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু'পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষে আহত হয় পাঁচ জন। 

খবর পেয়ে কেন্দুয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে এ ঘটনায় কোনও মামলা দায়ের হয়নি।

কেন্দুয়া থানার এসআই আনিসুর রহমান বলেন, বুধবার বিকাল চারটার সময় ঘটনাস্থলে গিয়ে মসজিদে তালা ঝোলানো অবস্থায় দেখতে পাই। পরে স্থানীয়দের ডেকে ঘটনার বিষয়ে জানার চেষ্টা করি। কিন্তু তালা ঝোলানোর বিষয়ে একটি পক্ষ অপর পক্ষকে দায়ী করেছে। পরে মসজিদের প্রধান ফটকের তালা খুলে দিয়ে থানায় চলে আসি। এখন পর্যন্ত কেউ থানায় এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ দেননি বলে জানান তিনি।

/টিটি/

সম্পর্কিত

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ৪ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ৪ জনের মৃত্যু

নির্মাণের ১৫ দিনে হেলে পড়া সেতুটি ৪ বছরেও ‌‘সোজা’ হয়নি

নির্মাণের ১৫ দিনে হেলে পড়া সেতুটি ৪ বছরেও ‌‘সোজা’ হয়নি

শূন্য শনাক্তের দিনে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ৩ মৃত্যু

শূন্য শনাক্তের দিনে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ৩ মৃত্যু

ট্রাকের পেছনে বাসের ধাক্কা, নিহত বেড়ে ৭

ট্রাকের পেছনে বাসের ধাক্কা, নিহত বেড়ে ৭

ছাত্রলীগ নেতা রকি হত্যায় প্রধান আসামিসহ গ্রেফতার ২

আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫৯

গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান রকি হত্যা মামলার প্রধান আসামি কাঞ্চন ও সোহাগকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

রবিবার (১৭ অক্টোবর) রাতে সদর উপজেলার ব্রিজ রোডের কদমতলী এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। শহরের পূর্বপাড়ার নবাব আলীর ছেলে কাঞ্চন (২৮) ও সোহাগ (২৫)।

সদর থানার ওসি (তদন্ত) ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আব্দুর রউফ মিয়া জানান, রকি হত্যার ঘটনায় চার জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত পরিচয় আরও ৭-৮ জনকে আসামি করে মামলা করেন তার বড় ভাই। ঘটনার তিন মাস পর হত্যাকাণ্ডে সরাসরি অংশ নেওয়া প্রধান আসামি কাঞ্চন ও তার ভাই সোহাগকে গোপন খবরে শহরের কদমতলি এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। দুই আসামিকে সোমবার সকালে আদালতে তুলে রিমান্ড চাওয়া হবে। এ নিয়ে মামলার এজাহারনামীয় চার আসামিসহ মোট নয় জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতার সবাই জেলা কারাগারে আছেন।  

উল্লেখ্য, গত ১১ জুলাই রাত সাড়ে ১০টার দিকে গাইবান্ধা জেলা শহরের পূর্বপাড়ার সড়কের ওপরে আশিকুর রহমান রকির ওপর হামলা হয়। তাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় রকিকে উদ্ধার করে গাইবান্ধা জেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় রকির সঙ্গে থাকা দুই প্রতিবেশী আহত হন।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

১৮ লাখ টাকা ফেরত দিয়ে ‘ক্ষমা’ চাইলেন চেয়ারম্যান

১৮ লাখ টাকা ফেরত দিয়ে ‘ক্ষমা’ চাইলেন চেয়ারম্যান

করোনাকালীন প্রণোদনার দাবিতে নার্সদের বিক্ষোভ

করোনাকালীন প্রণোদনার দাবিতে নার্সদের বিক্ষোভ

পঞ্চগড়ে চায়ের অকশন মার্কেট স্থাপনের পরিকল্পনা

পঞ্চগড়ে চায়ের অকশন মার্কেট স্থাপনের পরিকল্পনা

ফেনীতে বিশৃঙ্খলার ঘটনায় দুই মামলায় ৪০০ অজ্ঞাতনামা আসামি

আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫৪

সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলার ঘটনায় ফেনী মডেল থানায় পৃথক দুই মামলায় চারশ’ অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে। রবিবার (১৭ অক্টোবর) রাতে ফেনী মডেল থানার দুই জন উপপরিদর্শক (এসআই) বাদী হয়ে পৃথক দুটি মামলা করেন। 

ফেনী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মনির হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, একটি মামলায় ২০০ থেকে ২৫০ জন এবং অপর একটি মামলায় ১০০ থেকে ১৫০ অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে। এই মামলায় এখনও কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে আসামি চিহ্নিত করার কাজ শুরু হয়েছে।

অন্যদিকে র‍্যাব-৭ চট্টগ্রামের অধিনায়ক লে. কর্নেল এ এস এম ইউছুফ ফেনীর বিভিন্ন মন্দির পরিদর্শন করে দোষীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনার আশ্বাস দেন। এ সময় তার সঙ্গে ফেনীর জেলা প্রশাসক আবু সেলিম মাহমুদ উল হাসান, পুলিশ সুপার খোন্দকার নুরুন্নবী, ফেনী পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম মিয়াজী, শহরের ব্যবসায়ী নেতারা, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ ও পূজা উদ্‌যাপন পরিষদের নেতারা ছিলেন। 

এদিকে মন্দির পরিচালনা কমিটির সভাপতি মানিক লাল দাস সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, একদল দুষ্কৃতকারী আশ্রমে হামলা ও ভাঙচুর চালিয়েছে।  

যেকোনও ধরনের বিশৃঙ্খলা এড়াতে ফেনী শহরের ট্রাংক রোড ও তাকিয়া রোডের মোড়ে শ্রী শ্রী কালীমন্দির, বড় বাজারের কালীমন্দির, জগন্নতবাড়ী মন্দির, বাঁশপাড়া মন্দিরসহ সব মন্দিরের সামনেই পুলিশের পাহারা দেখা গেছে।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

প্রেমিকার আপত্তিকর ছবি-ভিডিও ছড়িয়ে যুবক গ্রেফতার 

প্রেমিকার আপত্তিকর ছবি-ভিডিও ছড়িয়ে যুবক গ্রেফতার 

পাহাড়ে রাস্তা ছাড়াই সেতু, ঘষে তুলে ফেলেছে নির্মাণ ব্যয়

পাহাড়ে রাস্তা ছাড়াই সেতু, ঘষে তুলে ফেলেছে নির্মাণ ব্যয়

রাঙামাটির ১১ ইউপিতে ৩৯৭ জনের মনোনয়ন দাখিল

রাঙামাটির ১১ ইউপিতে ৩৯৭ জনের মনোনয়ন দাখিল

সেন্ট মার্টিনে আটকে পড়েছেন তিনশ’ পর্যটক

সেন্ট মার্টিনে আটকে পড়েছেন তিনশ’ পর্যটক

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ৪ জনের মৃত্যু

আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১০:৩৪

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় চার জনের মৃত্যু হয়েছে। তারা করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। এ নিয়ে চলতি মাসের ১৮ দিনে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে করোনা ও উপসর্গে ৭১ জনের মৃত্যু হলো।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) সকালে হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. মহিউদ্দিন খান জানান, করোনা ইউনিটে নতুন ১১ জন ভর্তি হয়েছেন। মোট চিকিৎসাধীন ৮৭ জন। তাদের মধ্যে আইসিইউতে তিন জন। এ ছাড়া সুস্থ হয়ে নয় জন হাসপাতাল ছেড়ে গেছেন।

এদিকে সিভিল সার্জন ডা. নজরুল ইসলাম জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ১৫৮টি নমুনা পরীক্ষায় কারও করোনা শনাক্ত হয়নি। এ পর্যন্ত জেলায় মোট ২২ হাজার ৫৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আর সুস্থ হয়েছেন ২১ হাজার ৩৯৩ জন।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

নির্মাণের ১৫ দিনে হেলে পড়া সেতুটি ৪ বছরেও ‌‘সোজা’ হয়নি

নির্মাণের ১৫ দিনে হেলে পড়া সেতুটি ৪ বছরেও ‌‘সোজা’ হয়নি

শূন্য শনাক্তের দিনে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ৩ মৃত্যু

শূন্য শনাক্তের দিনে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ৩ মৃত্যু

ট্রাকের পেছনে বাসের ধাক্কা, নিহত বেড়ে ৭

ট্রাকের পেছনে বাসের ধাক্কা, নিহত বেড়ে ৭

পরিবারের ৪ জনকে হারিয়ে সড়কে বসেই বিলাপ

পরিবারের ৪ জনকে হারিয়ে সড়কে বসেই বিলাপ

হত্যা মামলায় যুবলীগ নেতা ফোয়াদের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি 

আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১০:১১

বাস শ্রমিক হত্যা মামলায় ফরিদপুর জেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক এ এইচ এম ফোয়াদ আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। রবিবার (১৭ অক্টোবর) সন্ধ্যায় ফরিদপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফারুক হোসেন এ জবানবন্দি নথিভুক্ত করেন। জবানবন্দি গ্রহণ শেষে আদালতের নির্দেশে ফোয়াদকে জেল হাজতে পাঠানো হয়। 

দুই দফায় চারদিন পুলিশি রিমান্ড শেষে রবিবার বিকালে ফোয়াদকে আদালতে উপস্থিত করা হয়।  

মানি লন্ডারিং, ছোটন বিশ্বাস হত্যা মামলাসহ আট মামলার আসামি ফোয়াদকে গত ১২ অক্টোবর ঢাকার বসুন্ধরা এলাকার ‘সি’ ব্লকের ৮ নম্বর সড়কে অবস্থিত ১৮৩ নম্বর বাসার সামনে থেকে আটক করে ফরিদপুরের গোয়েন্দা পুলিশ। পরে তাকে ২০১৬ সালের ১২ জুলাই সংঘটিত ফরিদপুর শহরের রাজবাড়ী রাস্তার মোড় এলাকায় ছোটন বিশ্বাস হত্যা মামলার আসামি হিসেবে গ্রেফতার দেখানো হয়।  পর পর দুই দফায় মোট চারদিন পুলিশি রিমান্ড শেষে তাকে এক নম্বর আমলি আদালতের বিচারক মো. ফারুক হোসেনের আদালতে উপস্থিত করা হয়।

তদন্ত কর্মকর্তা ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল গফফার বলেন, স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণ শেষে রাতে আদালতের নির্দেশে এ এইচ এম ফোয়াদকে জেল হাজতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

এছাড়া ফরিদপুরের আলোচিত দুই ভাই শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন বরকত ও ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি (পরে বহিস্কৃত) ইমতিয়াজ হাসান রুবেলের বিরুদ্ধে ঢাকার সিআইডির দায়ের করা দুই হাজার কোটি টাকা মানি লন্ডারিং মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি ফোয়াদ। 

২০১৮ সালের ২১ মার্চ এ এইচ এম ফোয়াদ ফরিদপুর জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক হন। এর আগে এক যুগ তিনি জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ছিলেন। গত বছরের ২৩ আগস্ট জেলা যুবলীগের ওই আহ্বায়ক কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়। ছাত্র অবস্থায় তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন।
 

/টিটি/

সম্পর্কিত

পাবজি খেলা নিয়ে হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত কিশোর সংশোধনাগারে

পাবজি খেলা নিয়ে হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত কিশোর সংশোধনাগারে

প্রেমিকার আপত্তিকর ছবি-ভিডিও ছড়িয়ে যুবক গ্রেফতার 

প্রেমিকার আপত্তিকর ছবি-ভিডিও ছড়িয়ে যুবক গ্রেফতার 

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক থেকে প্রবাসীর লাশ উদ্ধার

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক থেকে প্রবাসীর লাশ উদ্ধার

১১ বছর আইনি লড়াইয়ের পর চাকরি ফিরে পেলেন অধ্যক্ষ  

১১ বছর আইনি লড়াইয়ের পর চাকরি ফিরে পেলেন অধ্যক্ষ  

পাবজি খেলা নিয়ে হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত কিশোর সংশোধনাগারে

আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৫৩

অনলাইন প্লাটফর্মে পাবজি খেলার বিরোধের জেরে সিংগাইর উপজেলায় এক কিশোরকে হত্যার ঘটনায় ঢাকার জেলার নবাবগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা হয়েছে। এ ছাড়া লাইসেন্সকৃত (নবায়ন) অস্ত্র দিয়ে ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগে সিংগাইর থানায় অস্ত্র আইনে আরেকটি মামলা হয়েছে।

হত্যা মামলায় অভিযুক্ত কিশোরকে এবং অস্ত্র আইনে কিশোরের মা ও ভগ্নিপতিকে আসামি করা হয়েছে। পৃথক দুই মামলায় গ্রেফতার কিশোর গাজীপুর কিশোর সংশোধনাগারে এবং মা ও ভগ্নিপতিকে মানিকগঞ্জ জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে জানা গেছে, পাবজি খেলা নিয়ে সিংগাইর উপজেলায় দুই কিশোরের মধ্যে বিরোধের সৃষ্টি হয়। এরই জের ধরে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কৌশলে রাজুকে সাইকেলে করে গ্রামের পাশে ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলার শোল্লা ইউনিয়নের রুপারচর এলাকায় নিয়ে যায় অভিযুক্ত কিশোর। সেখানে কালীগঙ্গা নদীর তীরে কাশবনে রাজুকে ইট দিয়ে মাথায় আঘাত করা হয়। আহত রাজু শনিবার সকালে ঢাকার সাভারে এনাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।
 
এ ঘটনায় শনিবার দুপুরে নিহতের স্বজন ও এলাকাবাসী অভিযুক্ত কিশোরের বাড়ি ঘেরাও করে তাকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় অভিযুক্ত কিশোরের ভগ্নিপতি লাইসেন্স করা একটি শর্টগান দিয়ে স্থানীয় লোকজনকে ভয়ভীতি দেখান। এতে স্থানীয় লোকজন আরও উত্তেজিত হয়ে ওঠেন। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গেলে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে স্থানীয়রা। এতে তিন জন পুলিশ সদস্য আহত হন। পরে পুলিশ কিশোর অভিযুক্ত কিশোর, তার মা ও ভগ্নিপতিকে শর্টগানসহ আটক করে থানায় নিয়ে যায়। 

এ ঘটনায় রবিবার (১৭ অক্টোবর) অভিযুক্ত কিশোরের ভগ্নিপতি ও মায়ের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে পুলিশ বাদী হয়ে সিংগাইর থানায় মামলা করে।
 
সিংগাইর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সফিকুল ইসলাম মোল্লা বলেন, রবিবার বিকালে দুই আসামিকে মানিকগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারকের নির্দেশে তাদের জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে নবাবগঞ্জ থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, রবিবার দুপুরে নিহত কিশোর রাজুর বাবা মোসলেম উদ্দিন বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেছেন। সন্ধ্যায় অভিযুক্ত কিশোরকে গাজীপুরে কিশোর সংশোধনাগারে পাঠানো হয়েছে।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

হত্যা মামলায় যুবলীগ নেতা ফোয়াদের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি 

হত্যা মামলায় যুবলীগ নেতা ফোয়াদের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি 

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক থেকে প্রবাসীর লাশ উদ্ধার

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক থেকে প্রবাসীর লাশ উদ্ধার

১১ বছর আইনি লড়াইয়ের পর চাকরি ফিরে পেলেন অধ্যক্ষ  

১১ বছর আইনি লড়াইয়ের পর চাকরি ফিরে পেলেন অধ্যক্ষ  

জেলের জালে ২৫ কেজির বাঘাইড়, ২৫ হাজার বিক্রি

জেলের জালে ২৫ কেজির বাঘাইড়, ২৫ হাজার বিক্রি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ৪ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ৪ জনের মৃত্যু

নির্মাণের ১৫ দিনে হেলে পড়া সেতুটি ৪ বছরেও ‌‘সোজা’ হয়নি

নির্মাণের ১৫ দিনে হেলে পড়া সেতুটি ৪ বছরেও ‌‘সোজা’ হয়নি

শূন্য শনাক্তের দিনে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ৩ মৃত্যু

শূন্য শনাক্তের দিনে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ৩ মৃত্যু

ট্রাকের পেছনে বাসের ধাক্কা, নিহত বেড়ে ৭

ট্রাকের পেছনে বাসের ধাক্কা, নিহত বেড়ে ৭

পরিবারের ৪ জনকে হারিয়ে সড়কে বসেই বিলাপ

ত্রিশালে সড়ক দুর্ঘটনাপরিবারের ৪ জনকে হারিয়ে সড়কে বসেই বিলাপ

দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে বাসের ধাক্কায় নিহত ৬

দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে বাসের ধাক্কায় নিহত ৬

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও চার জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও চার জনের মৃত্যু

হাসপাতালে চিকিৎসক পরিচয়ে রোগীর মোবাইলফোন চুরি

হাসপাতালে চিকিৎসক পরিচয়ে রোগীর মোবাইলফোন চুরি

জিয়া ও এরশাদ সরকার রেলপথ ধ্বংস করেছে: রেলমন্ত্রী

জিয়া ও এরশাদ সরকার রেলপথ ধ্বংস করেছে: রেলমন্ত্রী

সর্বশেষ

ভক্তদের ‘সারপ্রাইজ’ দিতে চান আইয়ুব বাচ্চুর স্ত্রী

ভক্তদের ‘সারপ্রাইজ’ দিতে চান আইয়ুব বাচ্চুর স্ত্রী

ছাত্রলীগ নেতা রকি হত্যায় প্রধান আসামিসহ গ্রেফতার ২

ছাত্রলীগ নেতা রকি হত্যায় প্রধান আসামিসহ গ্রেফতার ২

আফগানিস্তান ইস্যুতে আলোচনায় পাকিস্তানসহ পাঁচ দেশকে আমন্ত্রণ ভারতের

আফগানিস্তান ইস্যুতে আলোচনায় পাকিস্তানসহ পাঁচ দেশকে আমন্ত্রণ ভারতের

ফেনীতে বিশৃঙ্খলার ঘটনায় দুই মামলায় ৪০০ অজ্ঞাতনামা আসামি

ফেনীতে বিশৃঙ্খলার ঘটনায় দুই মামলায় ৪০০ অজ্ঞাতনামা আসামি

বিজয়ী হলেন সরোজ মোস্তফা, ইলিয়াস বাবর ও মাজেদা মুজিব

উজান বই আলোচনাবিজয়ী হলেন সরোজ মোস্তফা, ইলিয়াস বাবর ও মাজেদা মুজিব

© 2021 Bangla Tribune