X
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

বেতন ৩০ হাজার, ব্যাংকে লেনদেন শত কোটি টাকা!

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ০০:১৫

রাজধানীর মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজে উপ-সহকারী প্রকৌশলী হিসেবে চাকরি করেন তিনি। নন-এমপিও হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত তৃতীয় শ্রেণির এই কর্মচারী অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে প্রশাসনিক কাজকর্মও করেন। সাকুল্যে বেতন পান তিনি ৩০ হাজার টাকা। এছাড়া অতিরিক্ত কাজের জন্য আরও কিছু ভাতা পান তিনি। কিন্তু তার ব্যাংক হিসাবে একশ’ কোটি টাকারও বেশি লেনদেন। তাও একটি-দুটি নয়, ৯৭টি ব্যাংক হিসাব পাওয়া গেছে তার। ঢাকায় একাধিক বাড়ি-ফ্ল্যাটের মালিক তিনি, ব্যবহার করেন দামি গাড়িও। অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম আতিকুর রহমান খান। স্কুলের ভর্তি বাণিজ্যের মাধ্যমে তিনি বিপুল সম্পদের মালিক হয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। একটি গোয়েন্দা সংস্থা ও নিজস্ব অনুসন্ধানে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

বিপুল এই সম্পদের উৎস সম্পর্কে জানতে চাইলে আতিকুর রহমান খান প্রথমে কোনও মন্তব্য করতেই রাজি হননি। পরে নিজেই ফোন করে এই প্রতিবেদককে বলেন, আইডিয়াল স্কুলের চাকরিতে যোগ দেওয়ার আগে থেকেই তিনি ব্যবসা করেন। এছাড়া বিভিন্ন ব্যাংক থেকে তিনি প্রায় ১০ কোটি টাকার মতো ঋণও নিয়েছেন। ব্যবসা করেই তিনি সম্পদ গড়েছেন।

আতিকুর রহমান খান ২০০৪ সালে মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজে তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী হিসেবে উপ-সহকারী প্রকৌশলী পদে যোগদান করেন। ২০১৫ সাল থেকে তিনি প্রশাসনিক কর্মকর্তা হিসেবে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করছেন। অভিযোগ আছে, ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যোগ দেওয়ার পর থেকেই তিনি ‘সোনার হরিণ’ হাতে পেয়েছেন। প্রতিবছর স্কুলের বিভিন্ন শ্রেণিতে অবৈধভাবে ছাত্রছাত্রী ভর্তি করানোর নামে বিপুল অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেন। এসব অর্থ দিয়েই গড়ে তুলেছেন সম্পদের পাহাড়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গাজীপুরের কালিগঞ্জের বাসিন্দা আতিকুর রহমানের বাবা একজন কৃষক। আইডিয়াল স্কুলে যোগ দেওয়ার আগে তিনি কনকর্ড নামে একটি ডেভেলপার প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। আইডিয়াল স্কুলে ভর্তি বাণিজ্যের সঙ্গে জড়িয়ে আয়কৃত অর্থ দিয়ে তিনি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন। রামপুরার বনশ্রী মসজিদ মার্কেটে বিশ্বাস লাইব্রেরি রয়েছে, আফতাবনগরে বি ব্লকে বিশ্বাস বাজার নামে একটি প্রতিষ্ঠান, রামপুরা বনশ্রী এলাকার ৫ নম্বর সড়কের ১২ নম্বর প্লটে ভিশন-৭১ নামে একটি রিয়েল এস্টেট প্রতিষ্ঠান, আফতাবনগরে চারটি বাড়ি এবং বনশ্রীতে আরেকটি বাড়ির সন্ধান পাওয়া গেছে। এছাড়া বনশ্রী এলাকায় খান ফিলিং অ্যান্ড এলপিজি, আফতাবনগরে ন্যাশনাল ফ্রায়েড কিচেন নামে একটি প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

 আতিকুর রহমান খানের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান। ছবি: সংগৃহীত

দেশের ১৫টি ব্যাংকে আতিকুর রহমান খানের ৯৭টি ব্যাংক হিসাবের তথ্য পাওয়া গেছে। ব্যাংকগুলো হলো, আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক, ডাচ বাংলা ব্যাংক, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক, এনসিসি ব্যাংক, এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক, ওয়ান ব্যাংক, সাউথইস্ট ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, আইএফআইসি ব্যাংক ও ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড। এসব ব্যাংকে ২০০৭ সাল থেকে চলতি বছরের ২৮ মার্চ পর্যন্ত ১১০ কোটি ৬৯ লাখ ৯২ হাজার ৩৯২ টাকা লেনদেন হয়েছে।

এরমধ্যে আতিকুর রহমানের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান, স্ত্রী নাহিদা আক্তার নীপা, বড় ভাই আব্দুস সালাম খান, ফজলুর রহমান খান ও শ্বশুর নুরুল ইসলামের নামেও লেনদেনও রয়েছে। আতিকুরের বড় ভাই আব্দুস সালাম মতিঝিল আইডিয়াল স্কুলের বাংলা মাধ্যম দিবা শাখার সহকারী প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, আতিকুর রহমান খানের মালিকানাধীন ন্যাশনাল ফ্রায়েড চিকেনের নামে সাউথইস্ট ব্যাংকে ২০১৫ সালে একটি হিসাব খোলা হয়। ওই হিসাবে প্রায় সোয়া ২ কোটি টাকা লেনদেন হয়েছে। কিন্তু সরেজমিন আফতাবনগরে সেই প্রতিষ্ঠানের কোনও হদিস পাওয়া যায়নি। এছাড়া আতিকুর রহমান খানের মালিকানাধীন এইচ কে খান এন্টারপ্রাইজের নামে প্রাইম ব্যাংকের একটি হিসাবে ৮ কোটি টাকার লেনদেন পাওয়া গেছে। খোঁজ নিয়ে ওই প্রতিষ্ঠানের ঠিকানায় বনশ্রীর মসজিদ মার্কেটের বিশ্বাস লাইব্রেরি দেখা গেছে।

 আতিকুর রহমান খানের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান। ছবি: সংগৃহীত

ভর্তি বাণিজ্য করেই বিপুল সম্পদ
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মতিঝিল আইডিয়াল স্কুলে যোগ দেওয়ার পর থেকেই ভর্তি বাণিজ্য করেই বিপুল সম্পদের মালিক হয়েছেন আতিকুর রহমান খান। মতিঝিল আইডিয়াল স্কুলের প্রধান শাখা ছাড়াও মুগদা ও রামপুরায় পৃথক দুটি শাখা রয়েছে। এই স্কুলে বাংলা মাধ্যমে প্রভাতী ও দিবা এবং ইংলিশ ভার্সনে প্রভাতী ও দিবা শাখায় প্রতি বছর অন্তত ৩ থেকে ৪ হাজার শিক্ষার্থী ভর্তি হয়ে থাকে। প্রতিবছরই অর্থের বিনিময়ে এখানে শিক্ষার্থী ভর্তি করানো হয়ে থাকে। অবৈধভাবে শিক্ষার্থী ভর্তি সিন্ডিকেটের অন্যতম সদস্য হলেন এই আতিকুর রহমান খান।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, চলতি বছর মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের বিভিন্ন শাখায় ৩ হাজার শিক্ষার্থী ভর্তি হয়। এরমধ্যে কয়েকশ’ শিক্ষার্থী অর্থের বিনিময়ে ভর্তি করানো হয়েছে। প্রতি শিক্ষার্থীকে ভর্তির বিনিময়ে আতিকুল ইসলাম খান ৫ থেকে ৬ লাখ টাকা নিতেন। এই প্রতিবেদকের কাছে তিন জন অভিভাবক অর্থের মাধ্যমে ভর্তি করানোর বিষয়টি স্বীকার করেছেন। এছাড়া একজন দালালের সঙ্গে ভর্তির বিষয়ে আতিকুর রহমান খানের কথোপকথনের কয়েকটি রেকর্ড রয়েছে এই প্রতিবেদকের কাছে।

অর্থের বিনিময়ে শিক্ষার্থী ভর্তির বিষয়ে জানতে চাইলে বিষয়টি অস্বীকার করে আতিকুর রহমান খান বলেন, ‘তিনি অবৈধ এই ভর্তি বাণিজ্যের সঙ্গে জড়িত নন।’

তবে মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজে অবৈধভাবে শিক্ষার্থী ভর্তি হওয়ার কথা স্বীকার করেন তিনি। আতিকুর রহমানের ভাষ্য, ‘অবৈধভাবে যাদের ভর্তি করা হয়েছে তাদের লিস্ট এবং রেজুলেশন স্কুলে আছে। তারা কার সুপারিশে ভর্তি হয়েছে তা খোঁজ নিলেই জানতে পারবেন। আমি এর সঙ্গে জড়িত নই।’

/ইউএস/এমওএফ/

সম্পর্কিত

ছেলেরা কি সোনা-রুপার অলঙ্কার পরতে পারবে?

ছেলেরা কি সোনা-রুপার অলঙ্কার পরতে পারবে?

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের

কেরানীগঞ্জে হেরোইনসহ গ্রেফতার ২

কেরানীগঞ্জে হেরোইনসহ গ্রেফতার ২

প্রত্যেকটি খালের পাড়ে ওয়াকওয়ে হবে: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

প্রত্যেকটি খালের পাড়ে ওয়াকওয়ে হবে: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

পুলিশের নামে ইমেইল পাঠিয়ে সাইবার জালিয়াতির চেষ্টা

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:০০

বাংলাদেশ পুলিশের নামের সঙ্গে মিল রেখে ওয়েবসাইট ও ইমেইল আইডি খুলে একটি সাইবার অপরাধী চক্র বিভিন্ন ব্যক্তি ও ট্রাভেল এজেন্সির মালিকদের মেইল করেছে। ইমেইলে জানানো হয়েছে, ওই এজেন্সির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মামলার নথি নামানোর জন্য একটি ওয়েব লিংকও দেওয়া হয় মেইলে।

পুলিশ ও প্রযুক্তিবিদরা বলছেন, মূলত কম্পিউটার বা ডিভাইস হ্যাক করার জন্য চক্রটি এমন মেইল করছে। লিংকে প্রবেশ করলেই কম্পিউটার বা ডিভাইস হ্যাক হয়ে যাবে। ব্যক্তিগত তথ্য চলে যাবে সাইবার অপরাধীর কাছে। আর সেই তথ্য নিয়ে করা হবে ব্ল্যাকমেইল।

ভুক্তোভোগীরা বিষয়টি পুলিশকে জানালে ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ সবাইকে সতর্ক করে।

ভুক্তোভোগীদের একজন নির্মল চন্দ্র বৈরাগী। তিনি একটি ট্রাভেল এজেন্সির মালিক। তার প্রতিষ্ঠানের নাম সাদিয়া ট্রাভেলস।

তিনি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘গত ১৪ সেপ্টেম্বর আমার কাছে মেইলটি আসে। আমি সিআইডির পরিচিত এক অফিসারকে জানাই। এরপর আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলি। জানতে পারি এটি ভুয়া। এরপর পল্টন থানায় জিডি করি।’

নির্মল চন্দ্র আরও বলেন, ‘আমাদের ফকিরাপুল, পল্টন এলাকার সব ট্রাভেল এজেন্সির কাছেই এরকম মেইল এসেছে। আমরা পরে বুঝতে পেরেছি এটি একটি চক্রের কাজ। তবে আমি লিংকে ক্লিক করিনি। আগেই পুলিশের সঙ্গে কথা বলেছি।’

১৪ সেপ্টেম্বর রাত ৯টা ২৬ মিনিটে [email protected] ই-মেইল আইডি থেকে নিজেদের বাংলাদেশ পুলিশ দাবি করে এক ব্যক্তির কাছে মেইল আসে। মেইলে ওই ব্যক্তিকে জানানো হয়-

‘১৮৯৮ সালের ৫ নং আইনের ৫ নং তফশিলের ফৌজদারি কার্যবিধির ৬৮ ধারা অনুযায়ী আপনাকে জানানো যাচ্ছে যে আপনার বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন ২০১৯ অনুযায়ী ফৌজদারি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নম্বর- gd202176823। আপনার মামলার কপি ডাউনলোড করতে ভিজিট করুন policebd.com/gr_case.php যেহেতু আপনার বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন ২০১৯-এর ১৪ ধারার অপরাধের অভিযোগ আসিয়াছে, সেহেতু উহার উত্তর প্রদানের জন্য আপনি আসামি ২৮/০৯/২০২১ তারিখ স্বয়ং অথবা উকিলের মাধ্যমে আমার সম্মুক্ষে হাজির হইবেন। ইহার যেন অন্যথা না হয়। যেহেতু আপনার ইমেইল ঠিকানা মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে সেহেতু অদ্য ২০২১ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর তারিখে আপনাকে ইমেইল ও রেজিস্টার্ড ডাক মারফতে আপনার প্রতি জারিকৃত পরোয়ানার বিষয় অবগত করা হলো।’

তাসমিয়া সুলতানা/ ম্যাজিস্ট্রেট/ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ২৮তম আদালত/ ঢাকা।’

সরকারি ওয়েবসাইটের ডোমেইনের শেষে থাকে .gov.bd। কিন্তু যে ওয়েবসাইটের লিংক দেওয়া হয়েছে সেটি .com ডোমেইন-এর। মেইলে পাঠানো লিংকে গেলে সেটা রি-ডিরেক্ট হয়ে আবার বাংলাদেশ পুলিশের ওয়েবসাইটেই চলে যাচ্ছে।

ডোমেইনটির তথ্য যাচাই করে দেখা গেছে, গত ১২ সেপ্টেম্বর ওটা কেনা হয়েছিল। ১৪ সেপ্টেম্বর থেকেই সবাইকে মেইল করা হয় ওটা থেকে।

আইনজীবীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ইমেইলে যে কথিত মামলার নম্বর দেওয়া হয়েছে, বাংলাদেশের জিআর বা সিআর মামলার নম্বর এমন হয় না। মেইলে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তাসমিয়া সুলতানার ২৮তম আদালতের নাম উল্লেখ করা হলেও এই নামে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে কোনও বিচারকও নেই।

মেইলে পাঠানো লিংকে কথিত মামলা নম্বর দিলে একটি জিপ ফাইল ডাউনলোড হবে। ওতেই থাকে ভাইরাস। একে বলে ফিশিং লিংক অ্যাপ্লিকেশন। এটি অটো ইনস্টল হলে ট্রাভেল এজেন্সির টিকেটিং সিস্টেম বা অন্য কোনও সিস্টেমের নিয়ন্ত্রণ হ্যাকারদের হাতে চলে যাবে।

প্রযুক্তিবিদ তানভীর হাসান জোহা বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘এসব ফিশিং লিংক দিয়ে ট্রাভেল এজেন্সির তথ্য ও কম্পিউটারের ডাটা হ্যাক করার চেষ্টা করেছিল হ্যাকাররা।’

তিনি বলেন, ‘সারা বিশ্বে ক্রেডিট কার্ড দিয়ে ডোমেইন কেনা হয়। ক্রেডিট কার্ড ট্র্যাকিং করলেই বেরিয়ে আসবে এটা কাদের কাজ।’

এ বিষয়ে ডিএমপির সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশনও সবাইকে সতর্ক করে জানিয়েছে, ‘মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের গ্রেফতারি পরোয়ানার আদেশ যদি [email protected] থেকে পেয়ে থাকেন এবং লিংকে যাওয়ার পর যদি policebd.com সাইটটি রিডিরেক্ট করে (এক সাইট থেকে অন্য সাইটে যাওয়া) তবে অবশ্যই কোনও অ্যাটাচমেন্ট ডাউনলোড করবেন না। এটি মূলত একটি ম্যালওয়্যার যা কম্পিউটারের ফাইল নষ্ট করে দিতে পারে।’

সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন আরও জানায়, সিটি সাইবার ক্রাইম ডিভিশন ওই ম্যালওয়্যার সংশ্লিষ্ট অভিযোগ তদন্ত করছে। এরকম ইমেইল কেউ পেয়ে থাকলে তা ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগকে জানাতে অনুরোধ করেছে সংস্থাটি।

এমন ইমেইল পেলে যা করবেন

যে সব চিঠি সন্দেহজনক ইমেইল থেকে আসবে এবং কোনও অ্যাটাচমেন্ট ডাউনলোড করতে বলবে, সেগুলো এড়িয়ে যাওয়া উচিৎ।

আদালতের আদেশ কখনও পুলিশের নামে কোনও ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে না। এটা আদালত থেকেই ইস্যু করা হয়।

policebd.com-এর সঙ্গে বাংলাদেশ পুলিশের কোনও সম্পর্ক নেই। এটি মূলত একটি বেটিং ওয়েবসাইট, যেখান থেকে ম্যালওয়্যার অসংখ্য ভিকটিম-এর মেশিনে এ প্রবেশ করানো হচ্ছে।

/এফএ/এমএস/

সম্পর্কিত

আঙ্গুলের অপারেশন করাতে গিয়ে জুডো খেলোয়াড়ের মৃত্যু

আঙ্গুলের অপারেশন করাতে গিয়ে জুডো খেলোয়াড়ের মৃত্যু

শুক্রবারে শপথ, শনিবারে ডাকাতি

শুক্রবারে শপথ, শনিবারে ডাকাতি

ঘুমধুম সীমান্তে দেড় লাখ পিস ইয়াবা জব্দ

ঘুমধুম সীমান্তে দেড় লাখ পিস ইয়াবা জব্দ

ঢাবি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

ঢাবি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

ছেলেরা কি সোনা-রুপার অলঙ্কার পরতে পারবে?

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:০০

আংটি ছাড়া ছেলেদের জন্য সকল প্রকার অলঙ্কার নিষিদ্ধ। তবে আংটির মধ্যে শুধু রুপার আংটি ব্যবহার করতে পারবে। এক্ষেত্রে শর্ত হলো-আংটিতে রুপার পরিমাণ সোয়া চার গ্রামের কম হতে হবে। রাসুল (সা.)-এর হাদিস- আবদুল্লাহ ইবনে আমর (রা.) বলেন, ‘রাসুল (সা.) এক ব্যক্তিকে স্বর্ণের আংটি পরা দেখে তার থেকে মুখ ফিরিয়ে নিলেন। লোকটি দেখে তা খুলে ফেললো। এরপর সে লোহার আংটি বানাল। আল্লাহর রাসুল বললেন, এটা তো আরও খারাপ, এটা জাহান্নামিদের অলঙ্কার। তখন ওই ব্যক্তি সেটিও খুলে ফেললো এবং একটি রূপার আংটি বানাল। মহানবী (সা.) তখন নিরব থাকলেন।’ (মুসনাদে আহমাদ, হাদিস: ৬৫১৮)।

আবু দাউদ শরিফের এক হাদিসে এসেছে-‘এক ব্যক্তি জিজ্ঞাসা করল, হে আল্লাহর রাসুল! তবে আমি কীসের আংটি বানাবো? তিনি বললেন, রুপার আংটি বানাও। কিন্তু এক মিসকাল (সোয়া চার গ্রাম) পূর্ণ করো না।’

তথ্যসূত্র: কিতাবুল আসার ২/৭২৬, ফাতাওয়া কাজী খান ৩/৪১৩, হেদায়া ৪/৪৪১, ফাতাওয়া রহীমিয়া ১০/১৫৮, ইমদাদুল আহকাম ৪/৩৫৮

লেখক: শিক্ষক, মারকাযুদ দিরাসাহ আল ইসলামিয়্যাহ ঢাকা।

 

/এফএ/

সম্পর্কিত

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের

কেরানীগঞ্জে হেরোইনসহ গ্রেফতার ২

কেরানীগঞ্জে হেরোইনসহ গ্রেফতার ২

প্রত্যেকটি খালের পাড়ে ওয়াকওয়ে হবে: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

প্রত্যেকটি খালের পাড়ে ওয়াকওয়ে হবে: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

একটি হাত ব্যাগ ও সৌদি আরব প্রবাসীর কান্না-হাসি

একটি হাত ব্যাগ ও সৌদি আরব প্রবাসীর কান্না-হাসি

আঙ্গুলের অপারেশন করাতে গিয়ে জুডো খেলোয়াড়ের মৃত্যু

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:০৪

ন্যাশনাল চ্যাম্পিয়নশিপে স্বর্ণ পদকপ্রাপ্ত ও জাতীয় জুডো দলের খেলোয়াড় প্রিয়াংকা আক্তারের (১৯) মৃত্যু হয়েছে। রাজধানীর গ্রিন রোডের গ্রিন লাইফ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে আঙ্গুলের অপারেশন করাতে গিয়ে তার মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠেছে।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যার দিকে প্রিয়াংকা মারা যান বলে নিশ্চিত করেন কলাবাগান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পরিতোষ চন্দ্র পাল।

ওসি বলেন, অপারেশনের পর আনেস্থেসিয়ার সময় কার্ডিয়াক অ্যারেস্টে বিকেএসপির সাবেক জুডো খেলোয়াড় মারা গেছেন বলে জানতে পেরেছি। ভিক্টিমের পরিবারের সঙ্গে কথা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আ ফ ম আসাদুজ্জামানের নেতৃতে একটি টিম কাজ করছে।

আ ফ ম আসাদুজ্জামান বলেন, চিকিৎসক বলছেন, বৃহস্পতিবার প্রিয়াংকা আক্তার হাসপাতালে ভর্তি হন। শুক্রবার সন্ধ্যায় তার হাতে একটি অপারেশন হয়। অপারেশনের পরে তার কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয় এবং এরপর তিনি মারা যান। চিকিৎসকেরা দাবি করছেন, তাদের চেষ্টার ত্রুটি ছিল না। তবে ভুক্তভোগী পরিবার থানায় অভিযোগ দিলে পুলিশ এ বিষয়ে তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেবে।

জুডোর জাতীয় দলের কোচ আবু বকর সিদ্দিক বলেন, প্রিয়াংকা আক্তার ন্যাশনাল চ্যাম্পিয়নশিপে স্বর্ণ পদকপ্রাপ্ত একজন খেলোয়াড়। তার বাম হাতের একটি আঙ্গুল বাঁকা থাকার কারণে বৃহস্পতিবার অপারেশনের জন্য গ্রিন লাইফ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি হয়। আজ অপারেশন থিয়েটারে ঢোকানোর পর চিকিৎসকেরা বের হয়ে বলেছিলো রোগীর অবস্থা খারাপ।

তিনি বলেন, চিকিৎসকেরা আমাদের জানিয়েছেন, রোগীকে আনেস্থেসিয়া দেওয়া হয়েছিল। হয়তো আনেস্থেসিয়ার মাত্রা বেশি ছিল এ কারণে রোগী সহ্য করতে না পেরে স্ট্রোক করে মারা যান। কিন্তু হাতের আঙ্গুলের ছোট্ট একটি নরমাল অপারেশনের জন্য কীভাবে রোগী মারা যায়?

অভিযোগের বিষয়ে গ্রিন লাইফ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের অ্যাসিস্টেন্ট ম্যানেজার মো. ইকরাম হোসেন বলেন, অপারেশনটি করেন বাংলাদেশের একজন স্বনামধন্য চিকিৎসক। হাতের আঙ্গুলের ছোট্ট একটি অপারেশনটি ছিল। এ অপারেশন করার আগে রোগীর ফিটনেসসহ যাবতীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছে। অপারেশনের আধাঘণ্টা থেকে এক ঘণ্টা পরে রোগীর কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয়।

/আরটি/এমএস/

সম্পর্কিত

পুলিশের নামে ইমেইল পাঠিয়ে সাইবার জালিয়াতির চেষ্টা

পুলিশের নামে ইমেইল পাঠিয়ে সাইবার জালিয়াতির চেষ্টা

শুক্রবারে শপথ, শনিবারে ডাকাতি

শুক্রবারে শপথ, শনিবারে ডাকাতি

ঘুমধুম সীমান্তে দেড় লাখ পিস ইয়াবা জব্দ

ঘুমধুম সীমান্তে দেড় লাখ পিস ইয়াবা জব্দ

আইস আসছে মিয়ানমার হয়ে, কারবারে বিদেশফেরত উচ্চ শিক্ষিতরা

আইস আসছে মিয়ানমার হয়ে, কারবারে বিদেশফেরত উচ্চ শিক্ষিতরা

বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষার ল্যাব স্থাপনের কাজ শেষ, ট্রায়াল আজ

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০৫

অবশেষে সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রবাসীদের জন্য ঢাকার বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষার ল্যাব স্থাপনের কাজ শেষ হয়েছে। ২২ সেপ্টেম্বর ৬টি প্রতিষ্ঠান হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ল্যাব স্থাপনের কাজ শুরু করে। তাদের অবকাঠামো তৈরিতে সহায়তা করেছে স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর। এদিকে আজ শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ল্যাবের ট্রায়াল অনুষ্ঠিত হবে। কোনও ত্রুটি না থাকলে ল্যাবগুলো ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করা হবে।

বিমানবন্দরের স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, ল্যাবের অবকাঠামোর কাজ বৃহস্পতিবার রাতের মধ্যেই শেষ হয়েছে। শুক্রবার ৬টি প্রতিষ্ঠান যন্ত্রপাতি বসানোর কাজ সম্পন্ন করেছে। ল্যাবের গুণগত মান মনিটরিং করতে আইইডিসিআর’র সিনিয়র সায়েন্টিফিক অফিসার ডা. শারমিন সুলতানার নেতৃত্বে ৫ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেছিল স্বাস্থ্য অধিদফতর। এ ছাড়া কার্যক্রম মনিটরিংয়ের জন্য গঠিত এই কমিটি আজ ল্যাব পরিদর্শন করবে। কমিটির সদস্যরা ল্যাবে কোনও ত্রুটি না পেলে সেটা ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত হবে। এরপর যেকোনও সময় বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ এয়ারলাইন্সগুলোর ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দিতে পারবে।

প্রায় তিন মাস ফ্লাইটে নিষেধাজ্ঞার পর গেলো ৪ আগস্ট বাংলাদেশসহ ছয় দেশের যাত্রীদের ট্রানজিট সুবিধা চালু করে সংযুক্ত আরব আমিরাত। তবে দেশটিতে প্রবেশের জন্য শর্ত দেওয়া হয়, ফ্লাইট ছাড়ার ৬ ঘণ্টার মধ্যে বিমানবন্দরে র‌্যাপিড পিসিআর পদ্ধতিতে করোনা পরীক্ষা করে নেগেটিভ রিপোর্ট থাকতে হবে।

এরপর প্রায় দেড় মাস ল্যাব স্থাপন নিয়ে নানা জটিলতা দেখা দেয়। বিমানবন্দরের পার্কিং ভবনের ছাদে ল্যাব স্থাপনের উদ্যোগ নেওয়া হলেও অনুমোদন পাওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর আপত্তি ছিল। এই সংকট নিরসনে ২১ সেপ্টেম্বর প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বিমানবন্দরে আসেন। তখন টার্মিনালের ভেতরে নতুন স্থান নির্ধারণ করে দ্রুত কাজ শুরুর নির্দেশ দেন তারা। টার্মিনাল ভবনের দ্বিতীয় তলার উত্তর পাশে যাত্রীদের করোনা পরীক্ষার স্যাম্পল নেওয়া হবে। আর নিচতলায় ল্যাবে হবে পরীক্ষা।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকালে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ল্যাব স্থাপনের অগ্রগতি পরিদর্শন করেছেন। তিনি বলেন, ল্যাব কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, রাতের মধ্যে তারা রেডি হয়ে যাবে। এরপরই এয়ারলাইন্স ফ্লাইট চালু করবে।

এর আগে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিমানবন্দরে ল্যাব পরিদর্শন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। এ সময় তিনি জানান, শনিবারের মধ্যেই পিসিআর ল্যাব থেকে পরীক্ষা করা সম্ভব হবে।

প্রসঙ্গত, ১৫ সেপ্টেম্বর সাতটি প্রতিষ্ঠানকে বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষার আরটি-পিসিআর ল্যাব বসাতে অনুমোদন দেয় প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়। এরমধ্যে জয়নুল হক সিকদার ওমেন্স মেডিক্যাল কলেজ অ্যান্ড হসপিটাল এই কাজ থেকে সরে আসে। বাকি প্রতিষ্ঠানগুলো হলো, স্টেমজ হেলথ কেয়ার (বিডি) লিমিটেড ঢাকা, সিএসবিএফ হেলথ সেন্টার, এএমজেড হাসপাতাল লিমিটেড, আনোয়ার খান মডার্ন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, গুলশান ক্লিনিক লিমিটেড ও ডিএমএফআর মলিকুলার ল্যাব অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক।

/সিএ/এনএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

পুলিশের নামে ইমেইল পাঠিয়ে সাইবার জালিয়াতির চেষ্টা

পুলিশের নামে ইমেইল পাঠিয়ে সাইবার জালিয়াতির চেষ্টা

ছেলেরা কি সোনা-রুপার অলঙ্কার পরতে পারবে?

ছেলেরা কি সোনা-রুপার অলঙ্কার পরতে পারবে?

আঙ্গুলের অপারেশন করাতে গিয়ে জুডো খেলোয়াড়ের মৃত্যু

আঙ্গুলের অপারেশন করাতে গিয়ে জুডো খেলোয়াড়ের মৃত্যু

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে ক্লাস চালুর পরামর্শ

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে ক্লাস চালুর পরামর্শ

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে ক্লাস চালুর পরামর্শ

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৫৯

দেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো শর্ত সাপেক্ষে চালু রাখার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় বিভাগের পরিচালক ওমর ফারুক স্বাক্ষরিত চিঠি দেশের সব বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।  

ওই চিঠিতে বলা হয়, সংশ্লিষ্ট সকলের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে; শর্ত সাপেক্ষে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো অ্যাকাডেমিক কাউন্সিল ও সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্তক্রমে নিজ ব্যবস্থাপনায় যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে সশরীরে সরাসরি ক্লাস, পরীক্ষা ইত্যাদিসহ শিক্ষা কার্যক্রম চালু রাখতে পারবে।

শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করার শর্তে বলা হয়, শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করা যাবে— শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীরা ইতোমধ্যে কমপক্ষে এক ডোজ ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন অথবা ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য জাতীয় পরিচয়পত্রসহ জাতীয় সুরক্ষাসেবা ওয়েব পোর্টাল অথবা অ্যাপের মাধ্যমে নিবন্ধন করে থাকলে।

শর্তে আরও বলা হয়, ইউজিসির (২) ১৮ বছর বা তদূর্ধ্ব শিক্ষার্থী যাদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই; তারা জন্ম নিবন্ধন সনদের বার্থ ওয়েবলিংকে ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য প্রাথমিক নিবন্ধন এবং পরবর্তীতে জাতীয় সুরক্ষাসেবা ওয়েব পোর্টালে টিকা গ্রহণের জন্য নিবন্ধন করে থাকলে- ক্লাসে অংশগ্রহণ করতে পারবে। 

/এসএমএ/এনএইচ/

সম্পর্কিত

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের

ঠাকুরগাঁওয়ের সেই প্রাথমিকে রবিবার থেকে চলবে দুই শ্রেণির ক্লাস 

ঠাকুরগাঁওয়ের সেই প্রাথমিকে রবিবার থেকে চলবে দুই শ্রেণির ক্লাস 

অধিভুক্ত কলেজের নাম থেকে ‘বিশ্ববিদ্যালয়’ শব্দ প্রত্যাহারের নির্দেশ

অধিভুক্ত কলেজের নাম থেকে ‘বিশ্ববিদ্যালয়’ শব্দ প্রত্যাহারের নির্দেশ

বিএড পরীক্ষা শুরু হচ্ছে ২৪ অক্টোবর থেকে

বিএড পরীক্ষা শুরু হচ্ছে ২৪ অক্টোবর থেকে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ছেলেরা কি সোনা-রুপার অলঙ্কার পরতে পারবে?

ছেলেরা কি সোনা-রুপার অলঙ্কার পরতে পারবে?

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের

কেরানীগঞ্জে হেরোইনসহ গ্রেফতার ২

কেরানীগঞ্জে হেরোইনসহ গ্রেফতার ২

প্রত্যেকটি খালের পাড়ে ওয়াকওয়ে হবে: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

প্রত্যেকটি খালের পাড়ে ওয়াকওয়ে হবে: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

একটি হাত ব্যাগ ও সৌদি আরব প্রবাসীর কান্না-হাসি

একটি হাত ব্যাগ ও সৌদি আরব প্রবাসীর কান্না-হাসি

শিল্পকলা একাডেমিতে ‘শরৎ উৎসব’ উদ্বোধন

শিল্পকলা একাডেমিতে ‘শরৎ উৎসব’ উদ্বোধন

মাদকবিরোধী অভিযানে রাজধানীতে গ্রেফতার ৫২

মাদকবিরোধী অভিযানে রাজধানীতে গ্রেফতার ৫২

দুর্গাপূজাকে ঘিরে ব্যস্ত প্রতিমাশিল্পী,  উদযাপনের কিছু শর্ত শিথিল হতে পারে

দুর্গাপূজাকে ঘিরে ব্যস্ত প্রতিমাশিল্পী,  উদযাপনের কিছু শর্ত শিথিল হতে পারে

নদীর দখল রোধে আবার পিলার

নদীর দখল রোধে আবার পিলার

বাউবি’র স্থগিত বিএ ও বিএসএস পরীক্ষা  শুক্রবার শুরু

বাউবি’র স্থগিত বিএ ও বিএসএস পরীক্ষা  শুক্রবার শুরু

সর্বশেষ

বিকল ট্রাকে পিকআপভ্যানের ধাক্কায় নিহত ৩

বিকল ট্রাকে পিকআপভ্যানের ধাক্কায় নিহত ৩

গবেষণায় চুরি ঠেকাতে শাবিতে কর্মশালা

গবেষণায় চুরি ঠেকাতে শাবিতে কর্মশালা

ছয় শিক্ষক ও ১৩ শিক্ষার্থী আক্রান্ত, চালু থাকবে বিদ্যালয়

ছয় শিক্ষক ও ১৩ শিক্ষার্থী আক্রান্ত, চালু থাকবে বিদ্যালয়

পুলিশের নামে ইমেইল পাঠিয়ে সাইবার জালিয়াতির চেষ্টা

পুলিশের নামে ইমেইল পাঠিয়ে সাইবার জালিয়াতির চেষ্টা

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট ছেলেকে বাঁচাতে প্রাণ গেলো মায়েরও

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট ছেলেকে বাঁচাতে প্রাণ গেলো মায়েরও

© 2021 Bangla Tribune