X
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

বিসিএস থেকে চিকিৎসক নিয়োগে হস্তক্ষেপ করবে না হাইকোর্ট

আপডেট : ০২ আগস্ট ২০২১, ১৫:২১

কততম বিসিএস থেকে কীভাবে, কতজন চিকিৎসককে নিয়োগ দেওয়া হবে; সেটি সরকারের পলিসি মেকিংয়ের বিষয়। তাই এ বিষয়ে কোনও হস্তক্ষেপ করবেন না বলে জানিয়েছেন হাইকোর্ট। 

৩৯তম বিসিএস (বিশেষ) পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মধ্য থেকে চিকিৎসক নিয়োগের নির্দেশনা চেয়ে দায়ের করা রিটের শুনানিকালে সোমবার (২ আগস্ট) বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ রিটকারীদের আইনজীবীদের উদ্দেশে এ মন্তব্য করেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ন ও অ্যাডভোকেট মো. মশিউর রহমান। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

রিটের শুনানিকালে রিটকারীদের আইনজীবীদের উদ্দেশে আদালত বলেন, এ বিষয়ে আমরা (হাইকোর্ট) হস্তক্ষেপ করবো না। সরকারের সংশ্লিষ্ট দফতরে কথা বলুন। তবে, চিকিৎসক নিয়োগে আইনের কোনও ব্যত্যয় হলে আপনারা তখন আদালতে আসতে পারেন।

এর আগে ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত ৩৯তম বিসিএস-এ (বিশেষ) উত্তীর্ণদের মধ্য থেকে চিকিৎসক নিয়োগের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে একটি আবেদন জানানো হয়। গত ২৯ জুলাই ৩৯তম বিসিএসে উত্তীর্ণ চিকিৎসক ডা. রাফা মো. নুরুল ইসলামসহ ১ হাজার ৩৬০ জন শিক্ষার্থীর পক্ষে এ আবেদন করেন আইনজীবী মশিহুর রহমান।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে ৩৯তম বিসিএস (বিশেষ) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এ পরীক্ষায় চুড়ান্তভাবে উত্তীর্ণ হয়ে সহকারী সার্জন পদে ১৩ হাজার ২১৯ চিকিৎসক তালিকাভুক্ত হন। এর মধ্য থেকে প্রথম দফায় ৪ হাজার ৫৪২ জন চিকিৎসককে স্বাস্থ্য ক্যাডারে নিয়োগ দেয় সরকার। তখন বলা হয়- এরা উভয় পরীক্ষায় কৃতকার্য হলেও শূন্য পদ না থাকার কারণে তাদের নিয়োগের বিষয়ে সুপারিশ করা গেল না। পরবর্তীতে নিয়োগের রিকুইজিশন পাওয়া গেলে নন ক্যাডার হিসেবে বিধি-বিধান অনুসরণ করে নিয়োগ দেওয়া হবে। এরপর ২০২০ সালে করোনার প্রার্দুভাব বেড়ে যাওয়া তখন আরও ২ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেওয়া হয়। তবে আরও বাকী থাকেন প্রায় সাড়ে ৬ হাজার চিকিৎসক।

তবে সম্প্রতি নতুন করে ৪ হাজার চিকিৎসক নিয়োগের ঘোষণা দিয়েছে সরকার। বলা হয়েছে, নতুন এ নিয়োগ ৪২তম বিসিএস (বিশেষ) এ উত্তীর্ণদের মধ্য থেকে নেওয়া হবে। সে কারণেই হাইকোর্টে আবেদন জানানো হয়। আবেদনে ৩৯তম বিসিএসে (বিশেষ) উত্তীর্ণ তালিকাভুক্ত সাড়ে ৬ হাজার চিকিৎসক থেকে নিয়োগের নির্দেশনা চাওয়া হয়।

/বিআই/ইউএস/

সম্পর্কিত

উগ্রবাদী বইয়ের প্রকাশক গ্রেফতার

উগ্রবাদী বইয়ের প্রকাশক গ্রেফতার

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের গড়িমসির ব্যাখ্যা তলব

হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের গড়িমসির ব্যাখ্যা তলব

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

উগ্রবাদী বইয়ের প্রকাশক গ্রেফতার

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:১৪

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের (এবিটি) উগ্রবাদী মতাদর্শ প্রচার করা বইয়ের প্রকাশক হাবিবুর রহমান ওরফে শামীমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অ্যান্টি টেরোরিজম ইউনিট (এটিইউ)।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর বাংলাবাজারের ইসলামি মার্কেট এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত শামীম আল রিহাব পাবলিকেশন্সের স্বত্বাধিকারী ও প্রকাশক।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেন অ্যান্টি টেরোরিজম ইউনিটের মিডিয়া অ্যান্ড অ্যাওয়ারনেস শাখার পুলিশ সুপার মো. আসলাম খান।

তিনি বলেন, ২০১৬ সাল থেকে হাবিবুর রহমান ওরফে শামিম আল রিহাব পাবলিকেশন্স নামে একটি প্রকাশনা চালু করে। মুফতি জসীমউদ্দিন রাহমানীর একান্ত সহযোগী ফিরোজ তাকে মুফতি জসিম উদ্দিন রহমানের কিছু বই প্রকাশ করার জন্য দেয়। সে তার প্রকাশনা থেকে বইগুলো প্রকাশ ও বিক্রি করে। বই প্রকাশ সূত্রে সে মুফতি জসীমউদ্দিন রাহমানীর মতাআদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে আনসারুল্লাহ বাংলা টিম সমর্থন করা শুরু করে। সে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সক্রিয় সদস্য। প্রকাশনাসূত্রে আনসারুল্লাহ বাংলাটিমের কতিপয় সংগঠকের সাথে তার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

গ্রেফতারকৃত হাবিবুর এবিটি সদস্য ও অন্যান্য অনুসারীদের কাছে মুফতি জসীমুদ্দীন রাহমানীর উগ্রবাদী বই ছাড়াও অন্যান্য উগ্রপন্থী বই-পত্রিকার প্রকাশনা সরবরাহ, বিতরণ ও অনলাইন প্লাটফর্মে গোপনে বিক্রি করতো। এছাড়া বিভিন্ন সময়ে সে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের মতাদর্শের বিভিন্ন প্রিন্ট ও ভিডিও কনটেন্ট সমর্থকদের সাথে শেয়ার করত।

এটিইউ’র মিডিয়া অ্যান্ড অ্যাওয়ারনেস শাখার এএসপি ওয়াহিদা বলেন, উগ্রপন্থী মতাদর্শের বিভিন্ন বই গোপনে অনলাইনে এবং অফলাইনে বিক্রি ও উগ্রপন্থী কর্মকাণ্ডকে উদ্বুদ্ধ করায় তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। গত ১৬ সেপ্টেম্বর ময়মনসিংহ থেকে গ্রেফতারকৃত আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সদস্য কায়সার আহমেদ ওরফে মিলন ও জাহিদ মোস্তফা দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বাংলাবাজার থেকে গ্রেফতার করা হয় হাবিবুরকে।

/আরটি/এমএস/

সম্পর্কিত

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের গড়িমসির ব্যাখ্যা তলব

হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের গড়িমসির ব্যাখ্যা তলব

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

ফোনে আড়িপাতা বন্ধে তদন্ত চেয়ে রিটের আদেশ ২৯ সেপ্টেম্বর

ফোনে আড়িপাতা বন্ধে তদন্ত চেয়ে রিটের আদেশ ২৯ সেপ্টেম্বর

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:০৩

সরকারি অফিস থেকে ‘তথ্য চুরি’র অভিযোগে শাহাবাগ থানায় দায়ের করা মামলায় দৈনিক প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামের পাসপোর্ট, দুটি মোবাইল ফোন ও পিআইডি অ্যাক্রেডিটেশন কার্ড ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবুবকর সিদ্দিকের আদালত এই আদেশ দেন। আদালতের সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে এ তথ্য জানা যায়।

এর আগে, গত ১৫ সেপ্টেম্বর ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. আসাদুজ্জামান নূরের আদালতে এ আবেদন করেছিলেন রোজিনার আইনজীবী প্রশান্ত কুমার কর্মকার। এরপর এই বিষয়ে শুনানির জন্য আদালত আজকের দিন ধার্য করেন।

চলতি বছর ১৭ মে সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কক্ষ থেকে ‘তথ্য চুরি’র অভিযোগ এনে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে শাহবাগ থানায় সোপর্দ করা হয়। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। প্রায় এক সপ্তাহ দেশব্যাপি বিষয়টি নিয়ে তুমুল আলোচনার সৃষ্টি করে। গত ২৩ মে সকালে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বাকি বিল্লার আদালত পাঁচ হাজার টাকার মুচলেকায় সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের জামিন মঞ্জুর করেন।

আরও পড়ুন:
সাংবাদিক রোজিনার রিমান্ড নামঞ্জুর, কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ 
সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

/এমএইচজে/ইউএস/

সম্পর্কিত

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের গড়িমসির ব্যাখ্যা তলব

হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের গড়িমসির ব্যাখ্যা তলব

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:০৩

বিষয়ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগ ও কর্মরত শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ হিসেবে প্রস্তুত করতে না পারলে নতুন জাতীয় শিক্ষাক্রম বাস্তবায়ন সম্ভব নয় বলে অভিমত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞ ও সংশ্লিষ্টরা। তারা বলেছেন, নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়ন করতে হলে সবার আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাতে ‘আগামীর বাংলাদেশ’ আয়োজিত ‘নতুন জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা-২০২০: চ্যালেঞ্জ ও করণীয়’ শীর্ষক ভার্চুয়াল আলোচনায় এই অভিমত উঠে আসে।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, জবাবদিহিমূলক অ্যাকাডেমিক ভিজিটের মাধ্যমে নতুন জাতীয় শিক্ষাক্রম বাস্তবায়ন সম্ভব হবে।

সাবেক শিক্ষা সচিব নজরুল ইসলাম আই খান বলেন, ‘নতুন জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা-২০২০’ বাস্তবায়নের জন্য সকল পক্ষের জবাবদিহি নিশ্চিত করতে হবে। অ্যাকাডেমিক পরদর্শন, ফেস অনুযায়ী অ্যাকশন প্ল্যান বাস্তবায়ন, এলাকাভিত্তিক প্রান্তিক শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ, স্থানীয় রাজনীতিবিদ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটিকে সম্পৃক্ত করতে হবে। বিষয়ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগ ও শিক্ষকদের শিক্ষা প্রশাসনের কাজের সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে। শিক্ষকদের সামাজিক মর্যাদা বাড়াতে হবে। প্রশিক্ষণ দিয়ে শিক্ষকদের দক্ষ হিসেবে প্রস্তুত করা না গেলে এবং অ্যাকশন প্ল্যান বাস্তবায়ন সম্ভব না হলে, নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়ন সম্ভব হবে না।’

জাতীয় শিক্ষাক্রম উন্নয়ন কমিটির সদস্য অধ্যাপক ড. তারিক আহসান বলেন, ‘যুগের প্রয়োজনে নতুন জাতীয় শিক্ষাক্রমকে যুগোপযোগী করা হচ্ছে। এটি বাস্তবায়নের জন্য দক্ষ শিক্ষক ও স্থানীয় পর্যায়ের প্রশিক্ষণের বিষয়ে প্রতিবেদনে জোরোলো সুপারিশ করা হয়েছে। নবম-দশম শ্রেণিতে বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের যথাযথ মৌলিক জ্ঞানের পাশাপাশি উদ্ভাবনী ও বাস্তবসম্মত জ্ঞান অর্জনের পথ তৈরি করা হয়েছে এই শিক্ষাক্রমে। মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের কারিকুলামও  আধুনিকায়ন করা হবে।  পাঠ্যবই তৈরি হবে সেভাবেই।’

সেশনের শুরুতে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক আবু জাফর আহমেদ মুকুল জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা-২০২০ এর সার সংক্ষেপ উপস্থাপন ধরেন।

 

/এসএমএ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

অতিরিক্ত ও সহকারী পুলিশ সুপার পদমর্যাদার ২০ জনকে বদলি

অতিরিক্ত ও সহকারী পুলিশ সুপার পদমর্যাদার ২০ জনকে বদলি

শ্রমিকদের জন্য বিশ্রামাগার স্থাপনসহ ১৫ দাবিতে কর্মবিরতির ঘোষণা

শ্রমিকদের জন্য বিশ্রামাগার স্থাপনসহ ১৫ দাবিতে কর্মবিরতির ঘোষণা

হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের গড়িমসির ব্যাখ্যা তলব

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:৫২

আদালতের আদেশ যথাসময়ে না পাঠানোয় হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের কাছে ব্যাখ্যা তলব করেছেন হাইকোর্ট। আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে হাইকোর্টের রেজিস্ট্রার মো. গোলাম রব্বানীকে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দাখিল করতে বলা হয়েছে।

সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ বিষয়ে লিখিত আদেশ দেন।

আদালতে রিটকারীর অ্যাডভোকেট সৈয়দ নাসরিন শুনানিতে ছিলেন।

এর আগে গত ১৪ জুন কক্সবাজার সদরের বাঁকখালী নদীর তীরবর্তী উত্তর মুহুরিপাড়ার প্রায় ৬০ একর জমি অবৈধভাবে দখল ও ভরাটের অভিযোগের বিষয়ে বিচারিক অনুসন্ধান করতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। কক্সবাজারের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটকে ৬০ দিনের মধ্যে অনুসন্ধান করে হাইকোর্টে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়। একইসঙ্গে ভরাট কার্যক্রমের ওপর স্থিতাবস্থা বজায় রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়।

মানবাধিকার সংগঠন আইন ও সালিশ কেন্দ্রের (আসক) পক্ষে করা এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে বিচারপতি মো. মুজিবর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

আদালতের এই আদেশ কক্সবাজারের চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটসহ সংশ্লিষ্টদের কাছে কমিউনিকেট করতে হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারকে বলা হয়। কিন্তু হাইকোর্টের রেজিস্ট্রার যথাসময়ে আদালতের আদেশ প্রেরণ না করায় হাইকোর্ট তাকে ব্যাখ্যা দিতে নির্দেশ দিলেন।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ১৪ মার্চ একটি জাতীয় দৈনিকে ‘কক্সবাজার অবৈধভাবে ভরাট হচ্ছে ৬০ একর ফসলি জমি, জমির মালিকরা অসহায়, প্রশাসন নীরব’ শীর্ষক প্রকাশিত প্রতিবেদন যুক্ত করে এ রিট করে আইন ও সালিশ কেন্দ্র-আসক। প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, কক্সবাজার সদরের বাঁকখালী নদীর তীরবর্তী উত্তর মুহুরিপাড়ার তিন ফসলি প্রায় ৬০ একর উর্বর জমি ভরাট করে ফেলা হচ্ছে। দুই কিলোমিটার দূরত্বে গড়ে ওঠা রেলস্টেশনকে কেন্দ্র করে বাণিজ্যিক চিন্তায় আবাসন প্রকল্প গড়তেই আইন উপেক্ষা করে রাত-দিনে এসব জমি ভরাট করছে ভূমিদস্যু চক্র।

/বিআই/এমএস/

সম্পর্কিত

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

ফোনে আড়িপাতা বন্ধে তদন্ত চেয়ে রিটের আদেশ ২৯ সেপ্টেম্বর

ফোনে আড়িপাতা বন্ধে তদন্ত চেয়ে রিটের আদেশ ২৯ সেপ্টেম্বর

মির্জা ফখরুলের মামলার চার্জগঠন পেছালো

মির্জা ফখরুলের মামলার চার্জগঠন পেছালো

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:৪৬

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোতে ব্যবসার নামে গ্রাহকরা যেভাবে প্রতারিত হচ্ছেন, সে জন্য গ্রাহকদের লোভ কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণা চালানোর পরামর্শ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

ফোনালাপে আড়িপাতা নিয়ে রিট শুনানির সময় রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মুস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ পরামর্শ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী শিশির মনির। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

শুনানির এক পর্যায়ে আদালত আইনজীবী শিশির মনিরের কাছে জানতে চান, ই-কমার্স ব্যবসার বিষয়ে কিছু বলুন। এ সম্পর্কে একটা ধারণা দিন।

তখন আইনজীবী শিশির মনির বলেন, ‘আমাদের দেশে ই-কর্মাস ব্যবসার নামে অনেক বেশি ফ্রি অফার থাকে। যা বিদেশি প্রতিষ্ঠান আলী বাবা, অ্যামাজনে থাকে না। আমাদের দেশের গ্রাহকরা অতি লোভে পড়ে প্রতারণার শিকার হন।’

এ সময় আদালত বলেন, ‘হ্যাঁ। আমরাতো দেখি, একটা কিনলে আরেকটা ফ্রি। বিমানের টিকিট কিনলে হোটেল ফ্রি। এ জন্যই গ্রাহকদের লোভ কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণা চালান।’

পরে হাইকোর্ট ফোনালাপে আড়িপাতা বন্ধ চেয়ে দায়ের করা রিটের আদেশের জন্য আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর দিন নির্ধারণ করেন।

 

বিআই/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

অতিরিক্ত ও সহকারী পুলিশ সুপার পদমর্যাদার ২০ জনকে বদলি

অতিরিক্ত ও সহকারী পুলিশ সুপার পদমর্যাদার ২০ জনকে বদলি

শ্রমিকদের জন্য বিশ্রামাগার স্থাপনসহ ১৫ দাবিতে কর্মবিরতির ঘোষণা

শ্রমিকদের জন্য বিশ্রামাগার স্থাপনসহ ১৫ দাবিতে কর্মবিরতির ঘোষণা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

উগ্রবাদী বইয়ের প্রকাশক গ্রেফতার

উগ্রবাদী বইয়ের প্রকাশক গ্রেফতার

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের গড়িমসির ব্যাখ্যা তলব

হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের গড়িমসির ব্যাখ্যা তলব

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

ফোনে আড়িপাতা বন্ধে তদন্ত চেয়ে রিটের আদেশ ২৯ সেপ্টেম্বর

ফোনে আড়িপাতা বন্ধে তদন্ত চেয়ে রিটের আদেশ ২৯ সেপ্টেম্বর

মির্জা ফখরুলের মামলার চার্জগঠন পেছালো

মির্জা ফখরুলের মামলার চার্জগঠন পেছালো

আদালতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল

আদালতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল

ওয়াকিটকি-মোটরবাইকসহ ভুয়া ইন্সপেক্টর গ্রেফতার

ওয়াকিটকি-মোটরবাইকসহ ভুয়া ইন্সপেক্টর গ্রেফতার

সবজির আড়ালে সৌদিতে ইয়াবা পাচারের চেষ্টা 

সবজির আড়ালে সৌদিতে ইয়াবা পাচারের চেষ্টা 

সর্বশেষ

উগ্রবাদী মতাদর্শ প্রচার করা বইয়ের প্রকাশক গ্রেফতার

উগ্রবাদী মতাদর্শ প্রচার করা বইয়ের প্রকাশক গ্রেফতার

ইন্দোনেশিয়ার মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গি নেতা অভিযানে নিহত

ইন্দোনেশিয়ার মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গি নেতা অভিযানে নিহত

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

দেড় বছর পর দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু

দেড় বছর পর দর্শনা ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের কার্যক্রম শুরু

© 2021 Bangla Tribune