X
সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ৮ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

রাজপথে প্রতীকী ক্লাস করবে প্রগতিশীল ছাত্র জোট

আপডেট : ১৬ আগস্ট ২০২১, ২০:০৭

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের নিয়ে ২২ আগস্ট রাজপথে প্রতীকী ক্লাস করার ঘোষণা দিয়েছেন প্রগতিশীল ছাত্র জোটের সমন্বয়ক রাশেদ শাহরিয়ার।

সোমবার (১৬ আগস্ট) দুপুর বারোটায় অবিলম্বে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া, করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে দুর্নীতি-অব্যবস্থাপনা বন্ধ ও শিক্ষার্থীদের বেতন-ফি মওকুফের দাবিতে আয়োজিত সমাবেশে তিনি এ ঘোষণা দেন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, “শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো প্রায় দেড় বছর ধরে বন্ধ। প্রায় ৫ কোটি শিক্ষার্থী চরম অনিশ্চয়তায় দিন কাটাচ্ছে। তারা আর্থিক-একাডেমিক-মানসিক-পারিবারিক বিভিন্ন সংকটে পড়েছে। প্রায় ৩০ শতাংশ শিক্ষার্থী এরই মধ্যে ঝরে পড়েছে। এ সংখ্যা আরও বাড়বে বলে বিশেষজ্ঞরা মতামত দিয়েছেন। শিক্ষার্থীদের মাঝে হতাশা বাড়ছে। কিন্তু আমরা আশ্চর্যজনকভাবে লক্ষ্য করলাম, সরকার এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো এসব শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ায়নি, সহযোগিতা করেনি।  হাট-বাজার-শপিং মল-গণপরিবহন সবকিছুই চলছে। বন্ধ শুধু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। মহামারি পরিস্থিতিতে কীভাবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা সম্ভব ছিলো সে বিষয়ে কোনও পরিকল্পনা বা রোডম্যাপ ছিলো না।  সরকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ রেখে ফায়দা হাসিলে ব্যস্ত। তারা জানে, শিক্ষা মানে জ্ঞান, শিক্ষা মানে প্রতিবাদ। তাই  যতটুকু শিক্ষা থেকে বঞ্চিত রাখা যায়, ততটুকুই সরকারের লাভ।”

সমাবেশে ছাত্র জোটের সমন্বয়ক ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক রাশেদ শাহরিয়ারের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট’র কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দীন প্রিন্স এবং ছাত্র ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি মোহাম্মদ ফয়েজউল্লাহ্।

/এমএস/

সম্পর্কিত

১২ হাজার ভর্তি পরীক্ষার্থীর ৩৮০০ জনই অনুপস্থিত

১২ হাজার ভর্তি পরীক্ষার্থীর ৩৮০০ জনই অনুপস্থিত

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে নাট্য পরিবেশন (ফটোস্টোরি)

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে নাট্য পরিবেশন (ফটোস্টোরি)

ঢাবির থিয়েটার বিভাগের ‘শৈল্পিক’ প্রতিবাদ

ঢাবির থিয়েটার বিভাগের ‘শৈল্পিক’ প্রতিবাদ

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ ঢাবি শিক্ষক সমিতির

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ ঢাবি শিক্ষক সমিতির

ঢাবি ক্যাম্পাসে ফিরলো বিশ্বকাপের উন্মাদনা 

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২১, ২০:০৬

ক্রিকেটের কোনও বড় আসর মানে বাংলার ঘরে ঘরে, পাড়ায় পাড়ায় কিংবা মোড়ের চায়ের দোকানে উন্মাদন। পিছিয়ে থাকে না ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি কিংবা আবাসিক হলগুলো। তবে করোনা মহামারিতে খেলাও যেমন ছিল না, আবার হল বন্ধ থাকায় দীর্ঘদিন এমন হইহুল্লোরও ছিল ঢাবি ক্যাম্পাসে। বিশ্বকাপের শ্রীলঙ্কা-বাংলাদেশ ম্যাচ দিয়ে যেন সেই উন্মাদনাই ফিরে এলো।

ক্রিকেটে সবশেষ উত্তেজনায় মেতেছিল ২০২০ সালে ভারতের সাথে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ের দিন। যুব টাইগারদের বিশ্ব জয়ে আনন্দ মিছিল করেছিল শিক্ষার্থীরা। এরপর দীর্ঘ প্রায় দুই বছর শিক্ষার্থীরা না থাকায় এমন দৃশ্য অনুপস্থিত ছিল। গত ৫ অক্টোবর হল খোলার পর থেকে আবারও মুখরিত হতে শুরু করে ঢাবি ক্যাম্পাস। শুরু হয় গান-কবিতার কনসার্ট, টিএসসির আড্ডা। 

চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুপারে টুয়েলভে বাংলাদেশ কোয়ালিফাই করার পর আবারও সেই ক্রিকেটীয় উন্মাদনায় মেতেছেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা। টাইগারদের চার-ছয় আর প্রতিপক্ষের উইকেটের পতনে গর্জন করে ওঠে শিক্ষার্থীরা। যদিও শেষ পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার কাছে ৫ উইকেটের হার নিয়ে মণক্ষুণ্ন হতে হয়েছে দর্শকদের।

বিশ্বকাপের উদ্মাদনা বাড়াতে টিএসসির পায়রা চত্বরে প্রজেক্টরে বড় স্ক্রিনে খেলা দেখার আয়োজন করেছেন শিক্ষার্থীরা। এছাড়াও খেলা চলাকালে বিশেষ করে প্রথম ইনিংসে সূর্যসেন হল, বঙ্গবন্ধু হল, বিজয় একাত্তরের হলসহ সব হল থেকেই শোনা গেছে  ক্রিকেট পাগল শিক্ষার্থীদের গর্জন, প্রায় একই দৃশ্য মেয়েদের হলগুলোতেও। 

টিএসসিতে খেলা দেখছিলেন হাসান আলী নামে এক শিক্ষার্থী। তিনি বলেন, অনেকদিন পর ক্যাম্পাসে ফিরে এমনিতেই খুব ভালো লাগছে। তার ওপর আবার বিশ্বকাপ ক্রিকেট শুরু হয়েছে। টিএসসিতে বড় স্ক্রিনে খেলা, সেই ক্রিকেটীয় উত্তেজনা। প্রিয় আঙিনায় খেলা দেখতে পেরে আমি খুবই উচ্ছ্বসিত।

/ইউএস/

সম্পর্কিত

আবারও মুখর ঢাবির টিএসসি

আবারও মুখর ঢাবির টিএসসি

ঢাবির 'ঘ' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

ঢাবির 'ঘ' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

ঢাবি ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

ঢাবি ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

ঢাবির ‘গ’ ইউনিটের পরীক্ষা শুক্রবার, প্রতি আসনে লড়বেন ২২ শিক্ষার্থী

ঢাবির ‘গ’ ইউনিটের পরীক্ষা শুক্রবার, প্রতি আসনে লড়বেন ২২ শিক্ষার্থী

ঢাবিতে ৭৬তম জাতিসংঘ দিবস উদযাপন

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৪১

ঢাকা ইউনিভার্সিটি মডেল ইউনাইটেড নেশনস অ্যাসোসিয়েশন-ডিইউএমইউএনএ’র উদ্যোগে ৭৬তম জাতিসংঘ দিবস উদযাপন করা হয়েছে।

রবিবার (২৪ অক্টোবর)  বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের মিলনায়তনে জাতিসংঘ দিবস উপলক্ষে ‘নিউ ইমারজেন্স অব বাংলাদেশ ইন দ্য গ্লোবাল অ্যারিনা’

শীর্ষক এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ‘২০৩০ সালের মধ্যে জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনের লক্ষ্যে বিশ্বের সকল দেশ কাজ করে যাচ্ছে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের পথে বাংলাদেশ ইতোমধ্যেই অনন্য অগ্রগতি সাধন করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অসাধারণ বিচক্ষণতা, দক্ষতা ও নেতৃত্বের মাধ্যমে দেশ ও জাতির সামগ্রিক আর্থ-সামজিক উন্নয়ন ঘটেছে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এখন সারা বিশ্বের কাছে রোল মডেল। অসাধারণ নেতৃত্বের গুণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতোমধ্যেই ‘জুয়েল ইন দ্য ক্রাউন অব দ্য ডে’ সহ অসংখ্য আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিও লাভ করেছেন।’

টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন এবং দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে যথাযথ ভূমিকা পালনের জন্য উপাচার্য ঢাকা ইউনিভার্সিটি মডেল ইউনাইটেড নেশনস অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানান।

ডিইউএমইউএনএ’র সভাপতি মোহাম্মদ আশিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে সেমিনারে সংগঠনের মডারেটর ও ঢাবি আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ড. দেলোয়ার হোসেন মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। সাংবাদিক ও কলামিস্ট অজয় দাস গুপ্ত এবং ইউনাইটেড নেশনস ইন্ড্রাস্ট্রিয়াল ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ জাকিউজ জামান প্রবন্ধের ওপর আলোচনায় অংশ নেন।

 

/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

১৯ মাস পর প্রাণ ফিরেছে জাবি ক্যাম্পাসে

১৯ মাস পর প্রাণ ফিরেছে জাবি ক্যাম্পাসে

স্বাস্থ্য ও জীবন বিমার আওতায় ঢাবি শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

স্বাস্থ্য ও জীবন বিমার আওতায় ঢাবি শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

পরীক্ষা দিয়েও ১৬০০ শিক্ষার্থী অনুপস্থিত, ওয়েসাইট থেকে সরলো ফল

পরীক্ষা দিয়েও ১৬০০ শিক্ষার্থী অনুপস্থিত, ওয়েসাইট থেকে সরলো ফল

চবিতে ১৯ অক্টোবর ক্লাস শুরুর পর ১৬ দিনের ছুটি

চবিতে ১৯ অক্টোবর ক্লাস শুরুর পর ১৬ দিনের ছুটি

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় শাবিতে উপস্থিতি ৯৫ শতাংশ

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৭:১৯

গুচ্ছভুক্ত ২০টি (সাধারণ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি) বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বয়ে আয়োজিত বি- ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। সিলেট অঞ্চলের চার জেলার পরীক্ষা কেন্দ্র শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে উপস্থিতি ছিল ৯৪.৭০ শতাংশ। 

রবিবার (২৪ অক্টোবর) দুপুর ১২টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত শাবিসহ দেশের ২২টি বিশ্ববিদ্যালয়ে একযোগে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এই কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে এক হাজার ৯৬৫ শিক্ষার্থী আবেদন করলেও উপস্থিত ছিল এক হাজার ৮৬১ শিক্ষার্থী, অনুপস্থিত ১০৪ জন শিক্ষার্থী।  

পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছেন শাবি ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সভাপতি ও এপ্লাইড সায়েন্সেস অ্যান্ড টেকনোলজি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মুশতাক আহমদ।
তিনি বলেন, কোনও অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ছাড়াই বি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। পরীক্ষায় উপস্থিতি সন্তোষজনক ছিল। এ ছাড়া সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করেই পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে পরীক্ষার কেন্দ্র পরিদর্শন করেন গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা কোর কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক ও শাবি উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।

পরিদর্শন শেষে উপাচার্য বলেন, সাধারণ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি (জিএসটি) গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা মধ্য দিয়ে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের দুর্ভোগ কমেছে। এতে বাংলাদেশে নতুন এক দৃষ্টান্ত স্থাপন হয়েছে। আশা করি, এই অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে আগামী দিনে আরও সুন্দরভাবে এই পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেওয়া যাবে।

আগামী ১ নভেম্বর গুচ্ছ ভুক্ত বাণিজ্য বিভাগ ‘সি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা দেশের ২২টি কেন্দ্রে একযোগে অনুষ্ঠিত হবে। এতে শাবি কেন্দ্রে সিলেট অঞ্চলের ৮৬৭ জন শিক্ষার্থী অংশ নেবেন। 

/এএম/

সম্পর্কিত

পরীক্ষা দিতে এলেন মেয়ে, কিউআর কোড বলছে ছেলে 

পরীক্ষা দিতে এলেন মেয়ে, কিউআর কোড বলছে ছেলে 

১২ হাজার ভর্তি পরীক্ষার্থীর ৩৮০০ জনই অনুপস্থিত

১২ হাজার ভর্তি পরীক্ষার্থীর ৩৮০০ জনই অনুপস্থিত

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ‘এ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ‘এ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় উপস্থিতির হার ৯০ শতাংশ

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় উপস্থিতির হার ৯০ শতাংশ

পরীক্ষা দিতে এলেন মেয়ে, কিউআর কোড বলছে ছেলে 

আপডেট : ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৫:৫৬

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে বি-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় এক পরীক্ষার্থীর প্রবেশপত্রে গুরুতর অমিল ধরা পড়েছে। প্রবেশপত্রে ওই মেয়ে পরীক্ষার্থীর নাম ও ছবি দেখা গেলেও কিউআর কোড স্ক্যান করলে এক ছেলে পরীক্ষার্থীর তথ্য প্রদর্শিত হয়। 

শুধু তাই নয়, প্রবেশপত্রে কেন্দ্র হিসেবে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় উল্লেখ থাকলেও পাশে লেখা ছিল ঢাকা। পাশাপাশি, এমন এক ভবনের নাম উল্লেখ ছিল যার অস্তিত্বই নেই কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে। 

রবিবার (২৪ অক্টোবর) সকালে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষা দিতে এসে ওই পরীক্ষার্থী স্বেচ্ছাসেবীদের কাছে কেন্দ্রের তথ্য জানতে চাইলে বিষয়টি ধরা পড়ে। 

প্রবেশপত্রটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, ৫২০১০০ রোলধারী ওই শিক্ষার্থীর প্রবেশপত্রে নিউ একাডেমিক বিল্ডিং (৭ম তলা), কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা কেন্দ্র লেখা রয়েছে। পরীক্ষার হল খুঁজে না পেয়ে পরীক্ষার্থী স্বেচ্ছাসেবীদের বিষয়টি জানালে কেন্দ্রের সিট প্ল্যানে ওই রোল নম্বর খুঁজে পাননি তারা। 

পরবর্তী সময়ে, তার প্রবেশপত্রে থাকা কিউআর কোড স্ক্যান করা হলে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে সিট পড়েছে এমন এক শিক্ষার্থী অনিক আকন্দের তথ্য প্রদর্শিত হয়। এ ছাড়া, প্রবেশপত্রে কেন্দ্র হিসেবে কুমিল্লা ল বিশ্ববিদ্যালয়ের নামের ইংরেজি বানানেও ভুল দেখা যায়।

পরে স্বেচ্ছাসেবীরা বিষয়টি বি-ইউনিটের আহ্বায়ক কমিটিকে জানালে ওই শিক্ষার্থীকে আলাদাভাবে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়।

সোনিয়া আক্তার শিলা বলেন, এ রকম কেন হলো আমি জানি না। আমি ঢাকা থেকে এসেছি এবং প্রবেশপত্রটি দোকান থেকে প্রিন্ট করিয়েছি।

এ বিষয়ে গুচ্ছ পদ্ধতির কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রের বি-ইউনিটের আহ্বায়ক ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. এম এম শরীফুল করিম বলেন, আমরা ওই শিক্ষার্থীকে কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে রিপোর্টেড করেছি। আপাতত তাকে আলাদাভাবে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ দিয়েছি। তার খাতা আলাদা খামে কেন্দ্রের কাছে পাঠানো হবে। পরবর্তীতে তারা যে সিদ্ধান্ত দেয়, তাই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত বলে গণ্য হবে। 

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সচিব ও জবি রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান বলেন, বিষয়টি আমরা জানি। লিখিত অভিযোগ পেলে আমরা সরাসরি ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও গুচ্ছ পদ্ধতির কেন্দ্রীয় পরীক্ষা কমিটির সদস্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী এ বিষয়ে বলেন, আমরা কেন্দ্রীয় কমিটিকে বিষয়টি জানিয়েছি। ওই শিক্ষার্থীর খাতা আলাদাভাবে পাঠানো হবে। তারা সবকিছু দেখবে।

/এএম/

সম্পর্কিত

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় শাবিতে উপস্থিতি ৯৫ শতাংশ

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় শাবিতে উপস্থিতি ৯৫ শতাংশ

১২ হাজার ভর্তি পরীক্ষার্থীর ৩৮০০ জনই অনুপস্থিত

১২ হাজার ভর্তি পরীক্ষার্থীর ৩৮০০ জনই অনুপস্থিত

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ‘এ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ‘এ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় উপস্থিতির হার ৯০ শতাংশ

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় উপস্থিতির হার ৯০ শতাংশ

আবারও মুখর ঢাবির টিএসসি

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ২২:১১

প্রতিষ্ঠার শতবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রত্যক্ষ করে পৃথিবীর এক ভয়ংকর রূপ। পুরো বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও হানা দেয় মহামারি করোনা। অন্য দেশগুলোর মতো এখানেও থমকে যায় সব কিছু। করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে শিক্ষার্থীদের ফিরতে হয় বাড়িতে। সুনসান হয়ে পড়ে পুরো ক্যাম্পাস। প্রায় দুই বছর এভাবেই থমকে ছিলো বিশ্ববিদ্যালয়ের এই প্রাঙ্গণ।

তবে গত ৫ অক্টোবর শর্তসাপেক্ষ অনার্স চতুর্থ বর্ষ ও মাস্টার্সের শিক্ষার্থীদের জন্য হল খোলার পর থেকে আবারও জমে ওঠতে শুরু করে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি)। এরপর ১৭ অক্টোবর থেকে সশরীরে শ্রেণি কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর পুরোদমে জমে ওঠে বিশ্ববিদ্যালয়ের এই প্রাঙ্গণ। মানানসই চেনা রূপে ফিরে টিএসসি।

প্রায় দুই বছর পর শুক্রবার (২২ অক্টোবর) টিএসসিতে অনুষ্ঠিত কনসার্ট। তাছাড়া, গান-কবিতাসহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে সহিংসতার প্রতিবাদ জানানো হয় এই প্রাঙ্গণে। যেন প্রাণ ফিরেছে এক মৃতপুরীতে!

বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থী সামলান সাগর বলেন, "টিএসসি এমন একটি জায়গা যেখানে এলে আমাদের সকল ক্লান্তি-অবসাদ কেটে যায়। এখানে ঘণ্টার পর ঘণ্টা সময় কাটালেও কোনও ধরনের বিরক্তি আসে না। বহুদিন এই প্রিয় আঙ্গিনাটাকে মিস করেছি। ক্যাম্পাস খোলার পর আবার সেই চেনা রূপে প্রিয় আঙিনাকে দেখে সত্যিই খুব ভালো লাগছে।"

বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী ফারিয়া শান্তা বলেন, "গত দেড় বছরে এই জায়গাটাকে, এর পরিবেশকে ভীষণ মিস করেছি। এখন আবারও টিএসসিকে সরব দেখে খুবই আনন্দিত।"

টিএসসি এলাকায় চা বিক্রি করেন কালাম হোসেন। তিনি বলেন, "এই দোকানের আয় দিয়ে সংসার চালাতে হয়। অনেকদিন বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় আয় অনেক কমে গিয়েছিলো। সংসার চালাতে খুবই কষ্ট হতো। বিশ্ববিদ্যালয় আবার খোলার পর আয় বেড়েছে। আগের চেয়ে একটু ভালো চলছি।"

/এমএস/
সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

১২ হাজার ভর্তি পরীক্ষার্থীর ৩৮০০ জনই অনুপস্থিত

১২ হাজার ভর্তি পরীক্ষার্থীর ৩৮০০ জনই অনুপস্থিত

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে নাট্য পরিবেশন (ফটোস্টোরি)

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে নাট্য পরিবেশন (ফটোস্টোরি)

ঢাবির থিয়েটার বিভাগের ‘শৈল্পিক’ প্রতিবাদ

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ওপর হামলাঢাবির থিয়েটার বিভাগের ‘শৈল্পিক’ প্রতিবাদ

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ ঢাবি শিক্ষক সমিতির

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ ঢাবি শিক্ষক সমিতির

ঢাবিতে আজ থেকে শুরু সশরীরে ক্লাস

ঢাবিতে আজ থেকে শুরু সশরীরে ক্লাস

শহীদ শেখ রাসেল দিবস পালন করবে ঢাবি

শহীদ শেখ রাসেল দিবস পালন করবে ঢাবি

সব বর্ষের শিক্ষার্থীরা ঢাবি হলে, ফুল-চকলেট-মাস্কে বরণ

সব বর্ষের শিক্ষার্থীরা ঢাবি হলে, ফুল-চকলেট-মাস্কে বরণ

ঢাবি হলে প্রথম-দ্বিতীয়-তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীরা (ফটোস্টোরি)

ঢাবি হলে প্রথম-দ্বিতীয়-তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীরা (ফটোস্টোরি)

ডাকসু নির্বাচন দিয়ে সুস্থ ধারার ছাত্র রাজনীতি বিকশিত হতে দিন: নুর

ডাকসু নির্বাচন দিয়ে সুস্থ ধারার ছাত্র রাজনীতি বিকশিত হতে দিন: নুর

ফুল-চকলেট-মাস্কে ঢাবি শিক্ষার্থীদের বরণ

ফুল-চকলেট-মাস্কে ঢাবি শিক্ষার্থীদের বরণ

সর্বশেষ

ম্যানইউকে গোল বন্যায় ভাসালো লিভারপুল

ম্যানইউকে গোল বন্যায় ভাসালো লিভারপুল

রাজধানীতে দুই শিশু যৌন নির্যাতনের শিকার, অভিযুক্তরা গ্রেফতার

রাজধানীতে দুই শিশু যৌন নির্যাতনের শিকার, অভিযুক্তরা গ্রেফতার

প্রস্তুত জেলেরা, মধ্যরাত থেকে ইলিশ ধরা শুরু

প্রস্তুত জেলেরা, মধ্যরাত থেকে ইলিশ ধরা শুরু

ভারতকে হারিয়ে ভাগ্য বদলালো পাকিস্তান

ভারতকে হারিয়ে ভাগ্য বদলালো পাকিস্তান

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছুরিকাঘাতে আহত ৩

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছুরিকাঘাতে আহত ৩

© 2021 Bangla Tribune