X
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ৬ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

গাজার ভবনে ইসরায়েলি হামলা বেআইনি: এইচআরডব্লিউ

আপডেট : ২৪ আগস্ট ২০২১, ০৩:৫৪
image

গাজা উপত্যকার চারটি ভবনে ইসরায়েলি বিমান হামলা যুদ্ধাপরাধ হয়ে থাকতে পারে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক মানবাধিকার গ্রুপ হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ)। গত মে মাসে সংঘাতের সময় এসব ভবন ধ্বংস হয়। এইচআরডব্লিউ বলছে, এসব হামলায় বহু পরিবার গৃহহীন হয়ে পড়ে।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর দাবি ওই ভবনগুলো সামরিক কাজে ব্যবহার করতো ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠী হামাস। তাদের দাবি এসব ভবনের বাসিন্দাদের মানব ঢাল হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে। তবে এইচআরডব্লিউ বলছে, নিজেদের দাবির পক্ষে কোনও প্রমাণ দেখাতে পারেনি ইসরায়েল।

জাতিসংঘের হিসেব অনুযায়ী মে মাসে ইসরায়েল ও হামাসের মধ্যে ১১ দিনের সংঘাতে গাজায় অন্তত ২৫৬ জন নিহত হয়। ১১ থেকে ১৫ মে’র মধ্যে ইসরায়েল গাজা উপত্যকার হানাদি, জাওহারা, সোরুক এবং জালা টাওয়ার ধ্বংস করে দেয়।

এইচআরডব্লিউ’র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টাওয়ারগুলোর প্রতিটিতে হামলার আগে বাসিন্দাদের সতর্ক করে দেয় ইসরায়েলি বাহিনী। ফলে বাসিন্দারা সরে যেতে সক্ষম হয়।

এইচআরডব্লিউ’র অনুসন্ধানে দেখা গেছে, এসব টাওয়ারের কোনওটিতেই সামরিক কার্যক্রমের দীর্ঘমেয়াদী উপস্থিতি ছিলো না। আর সাময়িক সময়ের উপস্থিতি থাকলেও এসব হামলা নির্বিচারে বেসামরিক সম্পত্তি নষ্ট হিসেবে গণ্য করা যেতে পারে।

/জেজে/

সম্পর্কিত

মালয়েশিয়াকে ধন্যবাদ জানালো হামাস

মালয়েশিয়াকে ধন্যবাদ জানালো হামাস

সিরিয়ায় মার্কিন ঘাঁটিতে ড্রোন হামলা

সিরিয়ায় মার্কিন ঘাঁটিতে ড্রোন হামলা

লাইভের সময় রিপোর্টারের ফোন ছিনতাই, চেহারা দেখালো চোর

লাইভের সময় রিপোর্টারের ফোন ছিনতাই, চেহারা দেখালো চোর

অনির্দিষ্টকাল রাস্তা আটকে বিক্ষোভ চলতে পারে না: ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ১০:০৫

বিক্ষোভের অধিকার রয়েছে। তবে অনির্দিষ্টকালের জন্য রাস্তা আটকে নয়। ভারতের কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে এমন মত দিয়েছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম জি নিউজ।

দিল্লির সিঙ্ঘু সীমানায় প্রায় এক বছর ধরে রাস্তা আটকে বিক্ষোভ করছে কৃষকরা। বিক্ষোভকারীদের সরাতে দায়ের হয়েছে জনস্বার্থ মামলা। এ নিয়ে কৃষক সংগঠনগুলোকে মতামত জানাতে তিন সপ্তাহের সময় দিয়েছেন ভারতের শীর্ষ আদালত। মামলার পরবর্তী শুনানি আগামী ৭ ডিসেম্বর।

দিল্লিতে সড়কে অবস্থানরত বিক্ষোভকারীদের হঠাতে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছিলেন নয়ডার এক ব্যক্তি। ওই মামলায় সুপ্রিম কোর্ট জানায়, ‘শেষ পর্যন্ত একটা সমাধান তো দরকার। আইনি লড়াই চললেও বিক্ষোভের অধিকারের বিপক্ষে নই আমরা। কিন্তু রাস্তা তো আটকানো যায় না।’

দুই বিচারকের বেঞ্চের বিচারপতি এসকে কল বলেন, ‘পার্লামেন্টে বিতর্কের মাধ্যমে বিষয়টির সমাধান হতে পারে। কিন্তু দিনের পর দিন কীভাবে হাইওয়ে আটকে রাখা হচ্ছে?’

আরেক বিচারক এমএম সুনন্দ্রেশ বলেন, ‘আপনাদের বিক্ষোভ চালিয়ে যাওয়ার মৌলিক অধিকার রয়েছে। কিন্তু এভাবে রাস্তা আটকে রাখা তো ঠিক নয়। মানুষের রাস্তায় চলার অধিকারও রয়েছে।’

বিক্ষোভের অধিকার নিয়ে গত বছর সাবেক প্রধান বিচারপতি এসএ বোবডে-র বেঞ্চের পর্যবেক্ষণ তুলে ধরেন কৃষক সংগঠনগুলোর আইনজীবী দুষ্যন্ত দাভে। তবে আদালত বলেন, ‘এ ব্যাপারে ঢুকতে চাই না।' দাভে বলেন, ‘রামলীলা ময়দানে কৃষকদের ঢুকতে দেওয়া হোক। এটাই সমাধান। সেখানে পাঁচ লাখ মানুষ নিয়ে সভা করেছে বিজেপি। অথচ কৃষকদের বাধা দিয়েছে পুলিশ। কেন এই দ্বিচারিতা?’

রামলীলায় কয়েকজনকে ঢুকতে দেওয়ার পর গুরুতর বিষয় ঘটে গিয়েছিল বলে দাবি করেন সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা। দাভে তখন বলেন, ‘গোটা বিষয়টি পরিকল্পিত ছিল। লালকেল্লায় যারা উঠেছিল তাদের জামিন দেওয়া হয়েছে। রাজ্যের কোনও সমস্যা নেই।’

/এমপি/

সম্পর্কিত

তালেবানের সঙ্গে বৈঠক ভারতের

তালেবানের সঙ্গে বৈঠক ভারতের

প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে সেলফি তোলায় পুলিশ সদস্যদের নোটিস

প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে সেলফি তোলায় পুলিশ সদস্যদের নোটিস

তালেবানের সঙ্গে বৈঠক ভারতের

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৭:০৯

কাবুলে ক্ষমতার পালাবদল নিয়ে ভারতের অস্বস্তি কাটছেই না। একদিকে তালেবানের ওপর পাকিস্তানের প্রভাব, অন্যদিকে আফগানিস্তানে দিল্লির বিপুল অঙ্কের বিনিয়োগ এখন হুমকির মুখে। অর্থাৎ, শুধু রাজনৈতিক নয়, বরং অর্থনৈতিকভাবেও উদ্বেগ বেড়েছে দিল্লির। এমন পরিস্থিতিতেই বুধবার রাতে রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে তালেবান নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হয়েছে ভারতীয় প্রতিনিধি দল।

আফগানিস্তানের উপপ্রধানমন্ত্রী আব্দুল সালাম হানাফির সঙ্গে আলোচনায় উঠে এসেছে দেশটিতে সাহায্য পাঠানো এবং সন্ত্রাস দমনের মতো বিষয়গুলো। বৈঠকের পর তালেবান মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদ একটি বিবৃতি দিয়েছেন। এতে তিনি বলেন, ‘দুই পক্ষই মনে করছে পারস্পরিক উদ্বেগের দিকটি গুরুত্ব দিয়ে দেখা প্রয়োজন। কূটনৈতিক ও অর্থনৈতিক সম্পর্কের উন্নতি ঘটানো প্রয়োজন।’

বৈঠকে ভারতীয় প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন দেশটির পাকিস্তান-আফগানিস্তান-ইরান বিষয়ক যুগ্ম সচিব জে পি সিংহ।

সূত্রের খবর, ভারতীয় প্রতিনি‌ধিরা ওই বৈঠকে তালেবান সরকারকে জানিয়েছেন, আফগানিস্তানের মানুষের জন্য ত্রাণ ও মানবিক সাহায্য পাঠাতে প্রস্তুত দিল্লি। টুইটারে দেওয়া পোস্টে জবিউল্লাহ মুজাহিদও বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, বৈঠকে ভারতীয় দূত জানিয়েছেন আফগানিস্তানের মানুষের মানবিক সহায়তা প্রয়োজন। দেশ একটি কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। তাই সাহায্য করতে ভারত প্রস্তুত রয়েছে।

সূত্র জানিয়েছে, আফগানিস্তানের মাটি থেকে ভারতে ‘সন্ত্রাস পাচার’ নিয়েও দিল্লির উদ্বেগের কথা তালেবান প্রতিনিধিদের জানিয়েছেন ভারতীয় কূটনীতিকরা।

এদিকে ভারতীয় কূটনীতিকদের সঙ্গে তালেবানের বৈঠকের একদিনের মাথায় বৃহস্পতিবার কাবুল সফরে গেছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি। উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন তিনি। আফগানিস্তানের অন্তর্বর্তী প্রধানমন্ত্রী মোল্লা হাসান আখুন্দ এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকি-সহ দেশটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাতের কথা রয়েছে তার। ইসলামাবাদ জানিয়েছে, এসব বৈঠকে আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতার জন্য পাকিস্তানের দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরা হবে। সূত্র: আনন্দবাজার, রয়টার্স।

/এমপি/

সম্পর্কিত

অনির্দিষ্টকাল রাস্তা আটকে বিক্ষোভ চলতে পারে না: ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

অনির্দিষ্টকাল রাস্তা আটকে বিক্ষোভ চলতে পারে না: ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে সেলফি তোলায় পুলিশ সদস্যদের নোটিস

প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে সেলফি তোলায় পুলিশ সদস্যদের নোটিস

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ২৪ কোটি ৩২ লাখ ছাড়িয়েছে

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৬:১৯

করোনার ছোবলে বিপর্যস্ত বিশ্ব। প্রতিদিনই নতুন করে শনাক্ত হচ্ছে অনেকে। প্রতিদিনই বড় হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল। দুনিয়াজুড়ে এখন পর্যন্ত ২৪ কোটি ৩২ লাখেরও বেশি মানুষের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারস জানিয়েছে, করোনাভাইরাস বৈশ্বিক মহামারিতে এ পর্যন্ত বিশ্বের ২২১টি দেশ ও অঞ্চল আক্রান্ত হয়েছে। বাংলাদেশ সময় শুক্রবার ভোর ৬টার দিকে প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, এ পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে করোনায় মোট শনাক্তের সংখ্যা ২৪ কোটি ৩২ লাখ ৩৭ হাজার ৩২৬। এর মধ্যে ৪৯ লাখ ৪৪ হাজার ৬৪১ জনের মৃত্যু হয়েছে। ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছে ২২ কোটি চার লাখ ২৪ হাজার ৫৮৪ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। এক পর্যায়ে উৎপত্তিস্থল চীনে ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব কমলেও বিশ্বের অন্যান্য দেশে এর প্রকোপ বাড়তে শুরু করে। চীনের বাইরে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ১৩ গুণ বৃদ্ধি পাওয়ার প্রেক্ষাপটে ২০২০ সালের ১১ মার্চ দুনিয়াজুড়ে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। তবে এরইমধ্যে করোনার একাধিক টিকা আবিষ্কৃত হয়েছে। বিশ্বজুড়ে সংক্রমণের মাত্রা কমে আসায় অনেক দেশেই লকডাউন তুলে নেওয়া হয়েছে। তবে এখনও মাস্ক পরা ও টিকা নেওয়ার ওপর জোর দেওয়া হচ্ছে।

ওয়ার্ল্ডোমিটারস-এর তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা চার কোটি ৬১ লাখ ৭১ হাজার ২৮২। মৃত্যু হয়েছে সাত লাখ ৫৩ হাজার ৭২৩ জনের।

আক্রান্তের হিসাবে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা তিন কোটি ৪১ লাখ ৪২ হাজার ৪৪১। এর মধ্যে চার লাখ ৫৩ হাজার ৭৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। ব্রাজিলে আক্রান্তের সংখ্যা দুই কোটি ১৬ লাখ ৯৭ হাজার ৩৪১। এর মধ্যে ছয় লাখ চার হাজার ৭৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বাংলাদেশে আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ লাখ ৬৬ হাজার ৯০৭। এর মধ্যে ২৭ হাজার ৮০১ জনের মৃত্যু হয়েছে। উৎপত্তিস্থল চীনে আক্রান্তের সংখ্যা ৯৬ হাজার ৬২২ জন। এর মধ্যে চার হাজার ৬৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। যদিও দেশটির বিরুদ্ধে প্রকৃত পরিস্থিতি গোপন করার অভিযোগ রয়েছে। উহানের একজন স্বেচ্ছাসেবী বলেন, ‘বুদ্ধি-বিবেচনাসম্পন্ন যেকোনও মানুষ এই সংখ্যা (সরকারি পরিসংখ্যান) নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করবেন।’

মহামারির শুরু থেকেই যুক্তরাষ্ট্র দাবি করে আসছিল, করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পেছনে চীনের ভূমিকা রয়েছে। ট্রাম্প প্রশাসনের সেই দাবিকে আরও জোরালো করে চীনের উহানের ল্যাবের এক ভাইরোলজিস্ট লি মেং ইয়ানের বক্তব্য। লি মেং ইয়ান বলেন, চীনের ল্যাবেই তৈরি করা হয়েছে করোনাভাইরাস। এটি মানুষের তৈরি বলে তার কাছে শতভাগ প্রমাণ রয়েছে।

হংকংয়ে জন্ম নেওয়া ভাইরোলজিস্ট লি মেং ইয়ান পালিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রে। চীন হত্যা করতে চেয়েছিল বলে ভয়ে মার্কিন মুলুকে পালিয়ে যান তিনি।

/এমপি/

সম্পর্কিত

আবারও করোনার সংক্রমণ বাড়ছে পশ্চিমবঙ্গে

আবারও করোনার সংক্রমণ বাড়ছে পশ্চিমবঙ্গে

যুক্তরাজ্যে আবারও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু

যুক্তরাজ্যে আবারও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু

চলে গেলেন প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী কলিন পাওয়েল

চলে গেলেন প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী কলিন পাওয়েল

করোনার গেম চেঞ্জার হবে 'মলনুপিরাভির'

করোনার গেম চেঞ্জার হবে 'মলনুপিরাভির'

প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে সেলফি তোলায় পুলিশ সদস্যদের নোটিস

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৩:৫৭

ভারতের কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর সঙ্গে সেলফি তোলায় দেশটির একদল নারী পুলিশ সদস্যকে নোটিস পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে প্রাথমিক তদন্তের নির্দেশ দিয়ে এই নোটিস জারি করেন লখনউয়ের পুলিশ কমিশনার ধ্রুবকান্ত ঠাকুর।

উত্তরপ্রদেশে পুলিশি হেফাজতে মৃত এক দলিত ব্যক্তির পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে বুধবার লখনউ থেকে আগ্রার উদ্দেশে রওনা দেন প্রিয়াঙ্কা। লখনউ-আগ্রা এক্সপ্রেস ওয়েতেই তাকে আটকে দেয় পুলিশ। আর সেখানেই কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে সেলফি তোলার হিড়িক পড়ে যায়। বিনা মাস্কেই সেলফি নিতে দেখা যায় বেশ কয়েকজন নারী পুলিশ সদস্যকেও।

বিকেলে লখনউ পুলিশ জানায়, ১৪৪ ধারা ভেঙে পাঁচ জনের বেশি একসঙ্গে যাওয়ার কারণেই প্রিয়াঙ্কার গাড়ি আটকানো হয়। সূত্রের খবর, এই অবস্থায় কংগ্রেস নেত্রীর সঙ্গে উর্দিধারীদের সেলফি পুলিশি আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছে কি না সে বিষয়ে লখনউয়ের ডেপুটি উপ পুলিশ কমিশনারকে পূর্ণাঙ্গ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশ কমিশার।

এদিকে সেলফি তুলে নারী পুলিশ সদস্যদের বিপাকে পড়ার ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। তিনি বলেন, ‘আমার সঙ্গে সেলফির এই ছবি যোগী প্রশাসনকে অস্বস্তিতে ফেলেছে। সেজন্যই নারী পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। আমার সঙ্গে ছবি তোলা যদি অপরাধ হয়, তাহলে আমাকেই শাস্তি দিন। এই মেধাবী ও বিশ্বস্ত পুলিশ সদস্যদের ক্যারিয়ার নষ্টের কোনও মানে হয় না।’

প্রসঙ্গত, ২৫ লাখ রুপি চুরির অভিযোগে অরুণ বাল্মিকী নামে দলিত পরিবারের এক পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছিল আগ্রার জগদীশপুরা থানার পুলিশ। মঙ্গলবার পুলিসি হেফাজতেই তার মৃত্য হয়। মৃতের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করতে বুধবার লখনউ যান প্রিয়াঙ্কা।

/এমপি/

সম্পর্কিত

অনির্দিষ্টকাল রাস্তা আটকে বিক্ষোভ চলতে পারে না: ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

অনির্দিষ্টকাল রাস্তা আটকে বিক্ষোভ চলতে পারে না: ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

তালেবানের সঙ্গে বৈঠক ভারতের

তালেবানের সঙ্গে বৈঠক ভারতের

মালয়েশিয়াকে ধন্যবাদ জানালো হামাস

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ০০:৪১

ইসরায়েলি মিথ্যাচারের জবাব দেওয়ায় মালয়েশিয়াকে ধন্যবাদ জানিয়েছে ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস। একইসঙ্গে ইসরায়েলি দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনি জনগণের পাশে থাকায় কুয়ালালামপুরের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে দলটি।

সম্প্রতি ইসরায়েলের আঞ্চলিক সহযোগিতা বিষয়ক মন্ত্রী দাবি করেন, ওমান, তিউনিসিয়া, কাতার ও মালয়েশিয়া তাদের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে পারে।

বুধবার এ বিষয়ে নিজ দেশের অবস্থান স্পষ্ট করেন মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাইফুদ্দিন আব্দুল্লাহ। তিনি বলেন, ফিলিস্তিনি জাতির স্বাধিকারের সংগ্রামের প্রতি আমাদের সমর্থন অব্যাহত থাকবে। আগ্রাসী ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার কোনও পরিকল্পনা কুয়ালালামপুরের নেই।

পরে হামাসের এক বিবৃতিতে বলা হয়, মালয়েশিয়া সব সময় ইসরায়েলকে স্বীকৃতি দেওয়ার বিরোধী। তারা ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে ইহুদিবাদী শক্তির দখলদারিত্বের বিরোধী। সূত্র: পার্স টুডে।

/এমপি/

সম্পর্কিত

অনির্দিষ্টকাল রাস্তা আটকে বিক্ষোভ চলতে পারে না: ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

অনির্দিষ্টকাল রাস্তা আটকে বিক্ষোভ চলতে পারে না: ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

তালেবানের সঙ্গে বৈঠক ভারতের

তালেবানের সঙ্গে বৈঠক ভারতের

প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে সেলফি তোলায় পুলিশ সদস্যদের নোটিস

প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে সেলফি তোলায় পুলিশ সদস্যদের নোটিস

সুপারম্যান-এর বিরুদ্ধে ভারতে ক্ষোভ

সুপারম্যান-এর বিরুদ্ধে ভারতে ক্ষোভ

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মালয়েশিয়াকে ধন্যবাদ জানালো হামাস

মালয়েশিয়াকে ধন্যবাদ জানালো হামাস

সিরিয়ায় মার্কিন ঘাঁটিতে ড্রোন হামলা

সিরিয়ায় মার্কিন ঘাঁটিতে ড্রোন হামলা

লাইভের সময় রিপোর্টারের ফোন ছিনতাই, চেহারা দেখালো চোর

লাইভের সময় রিপোর্টারের ফোন ছিনতাই, চেহারা দেখালো চোর

বড় ধরনের বিমান মহড়া চালাবে ইরান

বড় ধরনের বিমান মহড়া চালাবে ইরান

সিরিজ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা হামাসের

সিরিজ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা হামাসের

সিরিয়ার সামরিক বাসে প্রাণঘাতী বিস্ফোরণ

সিরিয়ার সামরিক বাসে প্রাণঘাতী বিস্ফোরণ

ইসরায়েল উপকূলে মিললো ক্রুসেডারদের তলোয়ার

ইসরায়েল উপকূলে মিললো ক্রুসেডারদের তলোয়ার

সর্বশেষ

প্রেমিক থেকে ধর্ষণ মামলার আসামি

প্রেমিক থেকে ধর্ষণ মামলার আসামি

ফারহান ও ফারিণ দম্পতির গল্প...

ফারহান ও ফারিণ দম্পতির গল্প...

হাটহাজারীতে বিশৃঙ্খলার ঘটনায় জামায়াত নেতা গ্রেফতার

হাটহাজারীতে বিশৃঙ্খলার ঘটনায় জামায়াত নেতা গ্রেফতার

জমি নিয়ে বিরোধে ইউপি সদস্যকে মারধর, কাটা হলো বাড়ির সড়ক 

জমি নিয়ে বিরোধে ইউপি সদস্যকে মারধর, কাটা হলো বাড়ির সড়ক 

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা ইকবালকে কক্সবাজার থেকে কুমিল্লায় আনছে পুলিশ 

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা ইকবালকে কক্সবাজার থেকে কুমিল্লায় আনছে পুলিশ 

© 2021 Bangla Tribune