X
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

এক ট্রেনের ১৭৬ বগি!

আপডেট : ১১ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৫৯

ভারতের ‘ত্রিশূল’ ট্রেন-এর বগি গুনতে গুনতে হাঁপিয়ে উঠতে হবে আপনাকে। কারণ, এই প্রথম ভারতীয় রেল একটি ট্রেনে ১৭৬টি বগি সংযোজন করে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এটি তিনটি ট্রেনের সমান দীর্ঘ হবে।

বিশাল এই পণ্যবাহী ট্রেনটি তৈরি করা হয়েছে ভারতের দক্ষিণ-মধ্য রেলের বিজয়ওয়াড়ায়। তিনটি ট্রেনের বগি জোড়া হয়েছে বলে নাম দেওয়া হয় ‘ত্রিশূল’।

বিজয়ওয়াড়া থেকে ট্রেনটি যায় দক্ষিণ-মধ্য রেলের দুভাড়া স্টেশন পর্যন্ত। তবে পণ্য বোঝাই ছিল না ট্রেনটিতে। যেখানে পণ্য বোঝাই হবে সেই ঠিকানায় কম সময়ে খালি বগি পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যেই এই উদ্যোগ নেয় রেল কর্তৃপক্ষ।

রেলের সংশ্লিষ্টদের দাবি, শুধু সময় নয় শ্রম বাঁচানোও লক্ষ্য ছিল এই ট্রেন চালানোর পেছনে। রেলের বক্তব্য, ১৭৬টি বগি যুক্ত ট্রেনের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৫০ কিলোমিটার।

/এলকে/

সম্পর্কিত

ভারতে তৈরি অ্যারোমাথেরাপি স্প্রে থেকে ছড়াচ্ছে বিরল রোগ: যুক্তরাষ্ট্র

ভারতে তৈরি অ্যারোমাথেরাপি স্প্রে থেকে ছড়াচ্ছে বিরল রোগ: যুক্তরাষ্ট্র

আটকেপড়া ভারতীয়দের উদ্ধারে মোদিকে চিঠি

আটকেপড়া ভারতীয়দের উদ্ধারে মোদিকে চিঠি

‘আফগানিস্তানের প্রভাব পড়তে পারে কাশ্মিরেও’

‘আফগানিস্তানের প্রভাব পড়তে পারে কাশ্মিরেও’

শাহরুখ বিজেপিতে যোগ দিলে মাদক হয়ে যাবে চিনি: মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী

শাহরুখ বিজেপিতে যোগ দিলে মাদক হয়ে যাবে চিনি: মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী

মিয়ানমারে জান্তাবিরোধীদের হামলায় তিন কর্মকর্তাসহ ৫ সেনা নিহত

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০০:৫০

মিয়ানমারের একটি সামরিক ঘাঁটিতে হামলা চালিয়ে তিন নারী কর্মকর্তাসহ পাঁচ সেনা সদস্যকে হত্যা করেছে জান্তাবিরোধী সশস্ত্র গোষ্ঠী পিপল’স ডিফেন্স ফোর্সেস (পিডিএফ)। গোষ্ঠীটির মুখপাত্র জানিয়েছেন, দক্ষিণ শান রাজ্যের পেখন এলাকায় তাদের ওপর হামলা চালানো হয়।

মুখপাত্র বলেন, গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে পেখনের লাইট ইনফ্যান্ট্রি ব্যাটালিয়নের ঘাঁটির পশ্চিম গেটে অভিযান চালায় পিডিএসের সশস্ত্র সদস্যরা। সেখান থেকে কয়েকটি অস্ত্র জব্দ করা হয়।

সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে এই অভিযানে সাতজন অংশ নেন। এই ঘাঁটিটি নারী কর্মকর্তার মাধ্যমে পরিচালিত হচ্ছিল তা জানা ছিল না বিদ্রোহীদের। অবশ্য অস্ত্র সংগ্রহ করতে গিয়েই বিষয়টি বুঝতে পারেন তারা।

পিডিএফের মুখপাত্র আরও বলেন, ‘এই ঘটনার সময় সেখানে খুবই অন্ধকার ছিল। ভালো করেই কিছুই বোঝা যাচ্ছিল না তারা নারী না পুরুষ। আমাদের দায়িত্ব সশস্ত্র এবং ইউনিফর্মধারী কেউকে দেখা মাত্রই গুলি করা। আমরা এখন যে অস্ত্রগুলো ব্যবহার করছি এগুলো তাদের কাছ থেকেই নিয়ে এসেছি’।

জান্তাবিরোধীদের ওপর এমন হামলার ঘটনার জেরে পেখনের বেসামরিক বাসিন্দাদের একাধিক বাড়ি-ঘর ধ্বংস করে দিয়েছে সেনারা।

মিয়ানমারে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করা জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে দিন দিন প্রতিরোধ গড়ে তুলছে দেশটির সাধারণ মানুষ। এর মধ্যে কয়েকটি সশস্ত্র গোষ্ঠী সম্মিলিত হয়ে গঠন করে পিপল’স ডিফেন্স ফোর্সেস (পিডিএফ)। গত ফেব্রুয়ারিতে মিয়ানমারে অং সান সু চির নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করে সেনাবাহিনী। এর বিরুদ্ধে ব্যাপক বিক্ষোভ শুরু হলে সহিংস দমন নীতি গ্রহণ করে জান্তা সরকার। নিহত হয় শত শত বিক্ষোভকারী। এরপরই এই দলটি গঠন হয়। এই বাহিনীর সদস্যরা হালকা অস্ত্র ও সীমিত প্রশিক্ষণ নিয়ে গ্রামীণ এলাকা বা ছোট শহরে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে হামলা চালাচ্ছে।

/এলকে/

সম্পর্কিত

সুর নরম হলো মিয়ানমার জান্তার, আসিয়ানে আস্থা

সুর নরম হলো মিয়ানমার জান্তার, আসিয়ানে আস্থা

যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে বন্দুক হামলা, নিহত ১

যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে বন্দুক হামলা, নিহত ১

আসিয়ান সম্মেলনে অরাজনৈতিক প্রতিনিধিকে আমন্ত্রণে ক্ষুব্ধ মিয়ানমার

আসিয়ান সম্মেলনে অরাজনৈতিক প্রতিনিধিকে আমন্ত্রণে ক্ষুব্ধ মিয়ানমার

শীতে লাখ লাখ আফগান অনাহারে থাকার আশঙ্কা!

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ২১:৩২

আসছে তীব্র শীত। আর শীত আসার আগেই জরুরি পদক্ষেপ না নিলে আফগানিস্তানের লাখ লাখ মানুষকে অনাহারে থাকতে হতে পারে। এমন সতর্কবার্তা দিয়েছে জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি (ডব্লিউএফপি)।

ডব্লিউএফপি’র নির্বাহী পরিচালক ডেভিড বিসলে বলেন, আফগানিস্তানের মোট জনসংখ্যার অর্ধেকের বেশি অর্থাৎ ২২ কোটি ৮০ লাখ মানুষ তীব্র খাদ্য সংকটে দিন কাটাতে হচ্ছে। এছাড়া পাঁচ বছরের কম বয়সী ৩২ লাখ শিশু অপুষ্টির শিকার হতে পারে। এ অবস্থায় আমরা ভয়াবহ বিপর্যয়ের দিকে যাচ্ছি’।

বিশ্বের চরম মানবিক সংকটে থাকা দেশগুলোর মধ্যে একটি আফগানিস্তান। গত ১৫ আগস্ট তালেবান আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখলে নেওয়ার পর থেকেই অর্থনীতিতে ধস নেমে আসে। যুক্তরাষ্ট্র দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাড়ে নয়শ কোটি ডলারেরও বেশি সম্পদ জব্দ করায় পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়।

তালেবান ক্ষমতায় ফেরায় বিদেশি সহায়তার উপর নির্ভর করা দেশটিতে সহযোগিতা করা বন্ধ করে দিয়েছে অধিকাংশ দেশ। আফগানিস্তানের ক্ষেত্রে জিডিপির প্রায় ৪০ শতাংশই আসে আন্তর্জাতিক সহায়তা থেকে।

তবে সংকট মোকাবিলায় বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশগুলোর সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে তালেবান সরকার।

/এলকে/

সম্পর্কিত

আফগানিস্তানে ফের কূটনৈতিক মিশন চালু করছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন?

আফগানিস্তানে ফের কূটনৈতিক মিশন চালু করছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন?

তালেবানের সঙ্গে বসছেন চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী

তালেবানের সঙ্গে বসছেন চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পরাজয় নিশ্চিত জেনেই তালেবানের সঙ্গে সমঝোতা: সাবেক মার্কিন দূত

পরাজয় নিশ্চিত জেনেই তালেবানের সঙ্গে সমঝোতা: সাবেক মার্কিন দূত

পুতিনের মন্তব্যকে স্বাগত জানালো আফগানিস্তান

পুতিনের মন্তব্যকে স্বাগত জানালো আফগানিস্তান

সুদানে অভ্যুত্থানে বিশ্বের প্রতিক্রিয়া

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ২০:৫১

সোমবার সকালে সামরিক অভ্যুত্থান ঘটে গেলো উত্তর আফ্রিকার দেশ সুদানে। প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লা হামদককে গৃহবন্দি করা হয়েছে। পাশাপাশি আরও কয়েকজন মন্ত্রীকেও আটকের খবর প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো। দেশটিতে নতুন করে রাজনৈতিক সংকট নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে বিশ্বের কয়েকটি দেশের পাশাপাশি জোটও।

নতুন করে সুদানে অভ্যুত্থানে গভীর উদ্বেগ জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। হর্ণ অব আফ্রিকার বিশেষ মার্কিন দূত বলেন, অভ্যুত্থানের কারণে সুদানের গণতন্ত্র ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

চলমান পরিস্থিতি নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছে আফ্রিকান ইউনিয়ন। সংকট উত্তরণে সামরিক ও বেসামরিক দলের প্রতিনিধিদের অবিলম্বে সংলাপে বসার তাগিদ দিয়েছে ইউনিয়ন নেতারা।

এদিকে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)-এর পররাষ্ট্র বিষয়ক প্রধান জোসেফ বোরেল বলেন, দেশটিকে আগের অবস্থানে ফেরাতে আঞ্চলিক সহযোগী দেশগুলোকে এক হয়ে কাজ করার বিকল্প নেই। অভ্যুত্থানের বিপক্ষে অবস্থান নিতে দেখা গেছে ইইউ’র আরেক দেশ জার্মানিকেও।

এদিকে সুদানের অন্তর্বর্তীকালীন সার্বভৌম কাউন্সিল ও সরকার ভেঙে দিয়ে জরুরি অবস্থা জারি করেছে দেশটির সামরিক বাহিনী। সুদানের প্রধানমন্ত্রীসহ একাধিক মন্ত্রীকে আটকের পর সামরিক প্রধান আব্দেল ফাত্তাহ আল-বুরহান এক ঘোষণায় জরুরি অবস্থা জারি করেন। এমন পরিস্থিতিতে সামরিক শাসনের বিরোধিতায় রাজপথে বিক্ষোভে নেমেছেন দেশটির বহু মানুষ।

/এলকে/

সম্পর্কিত

সুদানের প্রধানমন্ত্রীকে অবিলম্বে মুক্তির আহ্বান জাতিসংঘের

সুদানের প্রধানমন্ত্রীকে অবিলম্বে মুক্তির আহ্বান জাতিসংঘের

সুদানে সরকার ভেঙে জরুরি অবস্থা জারি

সুদানে সরকার ভেঙে জরুরি অবস্থা জারি

মিয়ানমারের জান্তা সরকারকে হুঁশিয়ার করলো মালয়েশিয়া

মিয়ানমারের জান্তা সরকারকে হুঁশিয়ার করলো মালয়েশিয়া

সবচেয়ে বাজে পর্যায়ে মিয়ানমারের দারিদ্র্য: জাতিসংঘ

সবচেয়ে বাজে পর্যায়ে মিয়ানমারের দারিদ্র্য: জাতিসংঘ

সুদানের প্রধানমন্ত্রীকে অবিলম্বে মুক্তির আহ্বান জাতিসংঘের

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৪২

সুদানের প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লা হামদকসহ অন্যান্য বেসামরিক বন্দি নেতাদের অবিলম্বে মুক্তির আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। এক বিবৃতিতে জাতিসংঘে নিযুক্ত সুদানের বিশেষ দূত ভোলকার পার্থস বলেন, ‘যাদের বেআইনিভাবে আটক বা গৃহবন্দি করা হয়েছে তাদের দ্রুত ছেড়ে দিন’।

বিবৃতিতে ভোলকার আরও উল্লেখ করেন, ‘সুদানে চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যেই অভ্যুত্থানের খবরে আমি গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। পরিস্থিতি উত্তরণে সব দলকে আলোচনায় ফেরা উচিত’।

স্থানীয় সময় সোমবার সকালে অভ্যুত্থান ঘটিয়ে দেশটির প্রধানমন্ত্রীকে গৃহবন্দি করে সেনাবাহিনী। একই সঙ্গে অন্যান্য মন্ত্রীদেরও আটক করা হয়।

ঘণ্টাখানেক পরই অন্তর্বর্তীকালীন সার্বভৌম কাউন্সিল ও সরকার ভেঙে দিয়ে জরুরি অবস্থা জারি করেন সামরিক প্রধান আব্দেল ফাত্তাহ আল-বুরহান। অভ্যুত্থান বিরোধিতায় সুদানের রাজপথে বিক্ষোভে নেমেছেন বহু মানুষ।

অভ্যুত্থানের পর দেশটির বেশিরভাগ সরকারি দফতর, মন্ত্রণালয়, গণমাধ্যমের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে সেনাবাহিনী। রাজধানী খার্তুমে ইন্টারনেট বন্ধ রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে একাধিক স্থানীয় সংবাদমাধ্যম। এ অবস্থায় দেশটিতে টেলিযোগাযোগ সীমিত করে দেওয়ায় সঠিক তথ্য পাওয়া কঠিন হয়ে পড়েছে।

/এলকে/

সম্পর্কিত

সুদানে অভ্যুত্থানে বিশ্বের প্রতিক্রিয়া

সুদানে অভ্যুত্থানে বিশ্বের প্রতিক্রিয়া

সুদানে সরকার ভেঙে জরুরি অবস্থা জারি

সুদানে সরকার ভেঙে জরুরি অবস্থা জারি

কলম্বিয়ার মোস্ট ওয়ান্টেড মাদক সম্রাট গ্রেফতার

কলম্বিয়ার মোস্ট ওয়ান্টেড মাদক সম্রাট গ্রেফতার

ইয়েমেন যুদ্ধে ১০ হাজার শিশু হতাহত : ইউনিসেফ

ইয়েমেন যুদ্ধে ১০ হাজার শিশু হতাহত : ইউনিসেফ

সুদানে সরকার ভেঙে জরুরি অবস্থা জারি

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৪৩

সুদানের অন্তর্বর্তীকালীন সার্বভৌম কাউন্সিল ও সরকার ভেঙে দিয়ে জরুরি অবস্থা জারি করেছে দেশটির সামরিক বাহিনী। সুদানের প্রধানমন্ত্রীসহ একাধিক মন্ত্রীকে আটকের পর সামরিক প্রধান আব্দেল ফাত্তাহ আল-বুরহান এক ঘোষণায় জরুরি অবস্থা জারি করেন। সোমবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

তিনি বলেন, ২০১৯ সালে বেসামরিক ও সামরিক নেতৃত্বের মধ্যে ক্ষমতা ভাগাভাগি নিয়ে যে চুক্তি হয়েছিল তা বর্তমানে দেশের শান্তি ও নিরাপত্তায় হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সুদানের সেনা প্রধান আব্দেল ফাত্তাহ আল-বুরহান

এর আগে অভ্যুত্থান ঘটিয়ে সুদানের প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লা হামদককে গৃহবন্দি করে দেশটির সেনাবাহিনী। ২৫ অক্টোবর সোমবার ভোরে সেনাবাহিনীর অজ্ঞাত একটি ফোর্স তার বাড়ি ঘিরে ফেলে। এর পরপরই রাজনৈতিক সংকটে টালমাটাল দেশটিতে সামরিক অভ্যুত্থানের গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে। তথ্য মন্ত্রণালয়ের ফেসবুকে পেইজে বলা হয়েছে, গ্রেফতারকৃতদের অজ্ঞাতস্থানে রাখা হয়েছে।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, সেনাবাহিনী ক্ষমতা দখলের বিরোধিতায় রাজপথে বিক্ষোভ নেমেছেন সুদানের গণতন্ত্রকামী জনগণ। বিক্ষোভস্থলে গোলাগুলির শব্দ শোনা গেছে এবং কয়েকজন আহত হয়েছেন। সেনা সদর দফতরে প্রবেশের চেষ্টা চালালে বাধার মুখে পড়েন বিক্ষুব্ধরা।

রাস্তায় টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করেন সামরিক শাসন বিরোধীরা

অভ্যুত্থানের পর দেশটির বেশিরভাগ সরকারি দফতর, মন্ত্রণালয়, গণমাধ্যমের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে সেনাবাহিনী। রাজধানী খার্তুমে ইন্টারনেট বন্ধ রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে একাধিক স্থানীয় সংবাদমাধ্যম। এ অবস্থায় দেশটিতে টেলিযোগাযোগ সীমিত করে দেওয়ায় সঠিক তথ্য পাওয়া কঠিন হয়ে পড়েছে।

২০১৯ সালে দীর্ঘদিনের প্রেসিডেন্ট ওমর আল বশিরকে সরিয়ে দেওয়ার পর ক্ষমতা ভাগাভাগির দুর্বল একটি চুক্তিতে উপনীত হয় সামরিক বাহিনী ও বেসামরিক গোষ্ঠীগুলো। ওই চুক্তির আলোকেই গত দুই বছর ধরে দেশটি পরিচালিত হয়ে আসছিল। কিন্তু গত সেপ্টেম্বরে বশিরের অনুসারী সামরিক কর্মকর্তাদের অভ্যুত্থানের চেষ্টা ব্যর্থ হওয়ার পর থেকে দেশটিতে আবারও উত্তেজনা বৃদ্ধি পায়। এরমধ্যে নতুন করে সংকট সৃষ্টি হল।

/এলকে/

সম্পর্কিত

সুদানে অভ্যুত্থানে বিশ্বের প্রতিক্রিয়া

সুদানে অভ্যুত্থানে বিশ্বের প্রতিক্রিয়া

সুদানের প্রধানমন্ত্রীকে অবিলম্বে মুক্তির আহ্বান জাতিসংঘের

সুদানের প্রধানমন্ত্রীকে অবিলম্বে মুক্তির আহ্বান জাতিসংঘের

সহকর্মীকে গুলি, পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দিচ্ছেন না নার্সরা

সহকর্মীকে গুলি, পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দিচ্ছেন না নার্সরা

পার্লামেন্টে ঢুকে শিক্ষকদের বেতনের দাবি জানালো স্কুল শিক্ষার্থীরা

পার্লামেন্টে ঢুকে শিক্ষকদের বেতনের দাবি জানালো স্কুল শিক্ষার্থীরা

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ভারতে তৈরি অ্যারোমাথেরাপি স্প্রে থেকে ছড়াচ্ছে বিরল রোগ: যুক্তরাষ্ট্র

ভারতে তৈরি অ্যারোমাথেরাপি স্প্রে থেকে ছড়াচ্ছে বিরল রোগ: যুক্তরাষ্ট্র

আটকেপড়া ভারতীয়দের উদ্ধারে মোদিকে চিঠি

আটকেপড়া ভারতীয়দের উদ্ধারে মোদিকে চিঠি

‘আফগানিস্তানের প্রভাব পড়তে পারে কাশ্মিরেও’

‘আফগানিস্তানের প্রভাব পড়তে পারে কাশ্মিরেও’

শাহরুখ বিজেপিতে যোগ দিলে মাদক হয়ে যাবে চিনি: মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী

শাহরুখ বিজেপিতে যোগ দিলে মাদক হয়ে যাবে চিনি: মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী

সামরিক প্রশিক্ষণ বাধ্যতামূলক করতে মোদিকে চিঠি

সামরিক প্রশিক্ষণ বাধ্যতামূলক করতে মোদিকে চিঠি

ভোটের পর রাজ্যের মর্যাদা ফিরে পাবে কাশ্মির: অমিত শাহ

ভোটের পর রাজ্যের মর্যাদা ফিরে পাবে কাশ্মির: অমিত শাহ

আরএসএস’র অনেক আদর্শই বামপন্থী, চাঞ্চল্যকর দাবি সাধারণ সম্পাদকের

আরএসএস’র অনেক আদর্শই বামপন্থী, চাঞ্চল্যকর দাবি সাধারণ সম্পাদকের

স্মার্টফোন কিনতে বিয়ের এক মাসের মধ্যেই স্ত্রীকে বিক্রি

স্মার্টফোন কিনতে বিয়ের এক মাসের মধ্যেই স্ত্রীকে বিক্রি

কাশ্মির সফরে অমিত শাহ, উপত্যকাজুড়ে নজিরবিহীন নিরাপত্তা ব্যবস্থা

কাশ্মির সফরে অমিত শাহ, উপত্যকাজুড়ে নজিরবিহীন নিরাপত্তা ব্যবস্থা

তুষারপাত ও বৈরী আবহাওয়ায় ভারতে ১১ পর্বতারোহীর মৃত্যু

তুষারপাত ও বৈরী আবহাওয়ায় ভারতে ১১ পর্বতারোহীর মৃত্যু

সর্বশেষ

চিকিৎসা গ্রহণ শেষে দেশে ফিরলেন রাষ্ট্রপতি

চিকিৎসা গ্রহণ শেষে দেশে ফিরলেন রাষ্ট্রপতি

দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো চালকদের 

দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো চালকদের 

আত্মসমর্পণ করে পরীমণির আবারও জামিনের আবেদন

আত্মসমর্পণ করে পরীমণির আবারও জামিনের আবেদন

পুকুরে ভেসে উঠলো বাবা-মা-মেয়ের লাশ

পুকুরে ভেসে উঠলো বাবা-মা-মেয়ের লাশ

১৫০ কোটি টাকার ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পের পিলারে ফাটল

১৫০ কোটি টাকার ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পের পিলারে ফাটল

© 2021 Bangla Tribune