X
সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

শত বছরের খাল ভরাট করে রাস্তা নির্মাণ

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৬:৩৫

বরিশালের গৌরনদী পৌরসভার দিয়াশুর মহল্লায় শত বছরের পুরোনো খাল ভরাট করে রাস্তা নির্মাণ করছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। খালের মধ্যে বাঁধ দেওয়ায় জলাবদ্ধতা তৈরি হয়ে পানিতে আমন ফসলের ক্ষতি হচ্ছে। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন এলাকাবাসী। তারা জলাবদ্ধতা নিরসনসহ খাল ভরাটকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

এলাকাবাসী জানান, দিয়াশুর গ্রামের চৌকিদার বাড়ি থেকে বাংলাবাজার হয়ে যাওয়া মোল্লার খালটি শত বছরের পুরোনো। কয়েকদিন আগে খালের মধ্যবর্তী স্থানে দিয়াশুর গ্রামের মৃত হাতেম আলী হাওলাদারের ছেলে সুলতান হাওলাদার, দুলাল হাওলাদার ও সাইদুল হাওলাদার ২০০ ফুট বাঁধ নির্মাণ করেন। পরে বালু দিয়ে খাল ভরাট করে রাস্তা নির্মাণ করেন তারা। এরই মধ্যে গত কয়েকদিনের বৃষ্টিতে এলাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে প্রায় ২০০ একর জমির আমন ধান তলিয়ে গেছে।

পাশাপাশি কালনা ও দিয়াশুর গ্রামের প্রায় শতাধিক পরিবার জলাবদ্ধতার ভোগান্তিতে পড়েছেন। ১০টি মুরগির ফার্ম ও একাধিক গরুর ফার্মে পানি ঢুকে গৃহস্থরা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এ ছাড়া দিয়াশুর ভোলাই মল্লিক বাড়ি থেকে বাংলাবাজার পর্যন্ত কার্পেটিং সড়কটি পানিতে তলিয়ে বিভিন্ন স্থান ভেঙে গেছে।

কালনা গ্রামের আবু আকন বলেন, বালু ভরাটের কারণে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়ায় আমার দুই একর জমির ধান নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। একই গ্রামের লাল চান ফকির বলেন, খাল ভরাটের কারণে পাঁচ বিঘা জমির ধান নষ্ট হয়ে গেছে। একই অভিযোগ অসংখ্য মানুষের।

স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর ইখতিয়ার হাওলাদার অবৈধভাবে সরকারি খাল দখলের কথা স্বীকার করে বলেন, আমি খালটি ভরাট করতে নিষেধ করেছি। কিন্তু তারা শোনেননি। খাল ভরাটের ফলে কৃষির ব্যাপক ক্ষতি ও মানুষের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

গৌরনদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিপিন চন্দ্র বিশ্বাস ‍আবেদন পাওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, কৃষকের ফসল রক্ষার জন্য পানি নিষ্কাশনসহ খাল ভরাটকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

খাল ভরাটের অভিযোগ অস্বীকার করে দুলাল হাওলাদার বলেন, আমাদের পূর্বপুরুষের মালিকানার সম্পত্তিতে বাঁধ দিয়ে ভরাট করেছি। আমাদের সড়কের প্রয়োজন।

/এএম/

সম্পর্কিত

কলাপাড়ায় ৬ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল 

কলাপাড়ায় ৬ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল 

স্ত্রী নির্যাতনের মামলায় কারাগারে পুলিশ সদস্য

স্ত্রী নির্যাতনের মামলায় কারাগারে পুলিশ সদস্য

ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সরকারি গাছ বিক্রির অভিযোগ

ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সরকারি গাছ বিক্রির অভিযোগ

বরগুনার ৪ ইউনিয়নে নৌকার জয়

বরগুনার ৪ ইউনিয়নে নৌকার জয়

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

কলাপাড়ায় ৬ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল 

কলাপাড়ায় ৬ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল 

স্ত্রী নির্যাতনের মামলায় কারাগারে পুলিশ সদস্য

স্ত্রী নির্যাতনের মামলায় কারাগারে পুলিশ সদস্য

ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সরকারি গাছ বিক্রির অভিযোগ

ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সরকারি গাছ বিক্রির অভিযোগ

বরগুনার ৪ ইউনিয়নে নৌকার জয়

বরগুনার ৪ ইউনিয়নে নৌকার জয়

বরিশালে একদিনেই ইভ্যালির রাসেলের বিরুদ্ধে ৩ মামলা

বরিশালে একদিনেই ইভ্যালির রাসেলের বিরুদ্ধে ৩ মামলা

গলাচিপার মেয়র পদে নৌকার প্রার্থীর জয়

গলাচিপার মেয়র পদে নৌকার প্রার্থীর জয়

ভোটকে‌ন্দ্রে হামলার জন্য মজুত করা দুই শতা‌ধিক লা‌ঠি উদ্ধার

ভোটকে‌ন্দ্রে হামলার জন্য মজুত করা দুই শতা‌ধিক লা‌ঠি উদ্ধার

বরগুনায় ভোটের সকালে কেন্দ্রে পৌঁছালো ব্যালট

বরগুনায় ভোটের সকালে কেন্দ্রে পৌঁছালো ব্যালট

ভোটের সরঞ্জাম নিয়ে কেন্দ্রে যাওয়ার পথে সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তার মৃত্যু

ভোটের সরঞ্জাম নিয়ে কেন্দ্রে যাওয়ার পথে সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তার মৃত্যু

মোবাইল নম্বর ব্লকলিস্টে রাখায় স্কুলছাত্রীকে হত্যাচেষ্টা, যুবক গ্রেফতার 

মোবাইল নম্বর ব্লকলিস্টে রাখায় স্কুলছাত্রীকে হত্যাচেষ্টা, যুবক গ্রেফতার 

সর্বশেষ

খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে বিদেশি কূটনীতিকদের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ব্রিফ

খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে বিদেশি কূটনীতিকদের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ব্রিফ

শেষ দিনে ‘বিশেষ কিছুর’ আশায় বাংলাদেশ

শেষ দিনে ‘বিশেষ কিছুর’ আশায় বাংলাদেশ

১২শ’ কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে এডিবি

১২শ’ কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে এডিবি

সেনাপ্রধানের সঙ্গে জাপানের রাষ্ট্রদূত ও তুরস্কের নৌ প্রধানের সাক্ষাৎ

সেনাপ্রধানের সঙ্গে জাপানের রাষ্ট্রদূত ও তুরস্কের নৌ প্রধানের সাক্ষাৎ

বাড়ছে মূল্যস্ফীতি

বাড়ছে মূল্যস্ফীতি

© 2021 Bangla Tribune