X
শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

দুধের গোসলে ‘পবিত্র’ হয়ে রাজনীতিকে চিরবিদায়!

আপডেট : ০২ এপ্রিল ২০১৬, ২০:৪৯

টাঙ্গাইলের ভূঁঞাপুরে চলতি বছরের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জয় না পাওয়ায় দুধ দিয়ে গোসল করে ‘পবিত্র’ হয়ে রাজনীতিকে বিদায় জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ও সাবেক চেয়ারম্যান রহিজ উদ্দীন আকন্দ। তিনি উপজেলার অলোয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান।  

পরাজিত বিদ্রোহী প্রার্থীর দুধের গোসল

১৪৯ ভোটের ব্যবধানে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী নুরুল ইসলামের কাছে পরাজিত রহিজ উদ্দীন আকন্দ বাংলা ট্রিবিউনের কাছে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, আমাকে মাত্র ১৪৯ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করা হয়েছে। নৌকা প্রতীকে দেখানো হয়েছে ৫০৩৯ ভোট আর আমাকে দেখানো হয়েছে ৪৮৯০ ভোট। ভোটের ব্যবধান অনেক বেশি হলে মানতাম আমি অযোগ্য। কিন্তু সামান্য ভোটের ব্যবধানে পরাজয় মেনে নিতে পারছি না। আমাকে পরাজিত করানো হয়েছে। তাই আমি ক্ষোভে দুধ দিয়ে গোসলের মাধ্যমে রাজনীতি থেকে চিরবিদায়ের ও ভবিষ্যতে নির্বাচন না করার ঘোষণা দিয়েছি।’

সাবেক এই চেয়ারম্যান জানান, অলোয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে দুইবার উপজেলার শ্রেষ্ঠ ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি। জনপ্রিয়তা থাকার পরও আগেরবার দল থেকে মনোনয়ন না পেয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান পদের জন্য নির্বাচন করে জয়ী হয়েছিলেন। এবারও পাননি দলীয় মনোনয়ন। এরপরও ইউনিয়নবাসী ও দলের সাধারণ নেতাকর্মীদের চাপে নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মোটরসাইকেল প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক এই সভাপতি বলেন, যে দলের জন্য এতো শ্রম দিয়েছি, সেই দল থেকে কী পেলাম? সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আর রাজনীতি করবো না। তাই দুধ দিয়ে গোসল করে পবিত্র হলাম। নিয়মিত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়বো। যতটুকু পারি জনগণের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখবো।

উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারা ঘটনাটিকে রহিজ উদ্দীন আকন্দের ‘সাময়িক  ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ’ বলে মনে করছেন বলে জানা গেছে।

/এইচকে/

সম্পর্কিত

২০০ বছরের পুরনো হাটে ক্রেতা নেই

২০০ বছরের পুরনো হাটে ক্রেতা নেই

ধর্ষণের কথা আমলে নেয়নি মা, সৎ বাবাকে পুলিশে দিলো কিশোরী

ধর্ষণের কথা আমলে নেয়নি মা, সৎ বাবাকে পুলিশে দিলো কিশোরী

সড়ক থেকে তুলে নিয়ে নারী শ্রমিককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

সড়ক থেকে তুলে নিয়ে নারী শ্রমিককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

বোঝার উপায় নেই নারায়ণগঞ্জে চলছে লকডাউন

বোঝার উপায় নেই নারায়ণগঞ্জে চলছে লকডাউন

পরকীয়া নিয়ে রাতে ঝগড়া, সকালে ফ্যানে ঝুলছিল স্ত্রীর লাশ

পরকীয়া নিয়ে রাতে ঝগড়া, সকালে ফ্যানে ঝুলছিল স্ত্রীর লাশ

২১ ঘণ্টায়ও উদ্ধার হননি পদ্মা সেতু প্রকল্পের চীনা প্রকৌশলী

২১ ঘণ্টায়ও উদ্ধার হননি পদ্মা সেতু প্রকল্পের চীনা প্রকৌশলী

টিকার ২ ডোজ নেওয়া শিক্ষকের করোনায় মৃত্যু

টিকার ২ ডোজ নেওয়া শিক্ষকের করোনায় মৃত্যু

একসঙ্গে ৬ কোটি টাকার গরু বিক্রি করবেন এরশাদ

একসঙ্গে ৬ কোটি টাকার গরু বিক্রি করবেন এরশাদ

সৈয়দ নজরুল মেডিক্যালে কর্মচারীদের কর্মবিরতি, রোগীদের ভোগান্তি

সৈয়দ নজরুল মেডিক্যালে কর্মচারীদের কর্মবিরতি, রোগীদের ভোগান্তি

প্রেমিকার নামে ‘ফেক অ্যাকাউন্ট’ খুলে কারাগারে যুবক 

প্রেমিকার নামে ‘ফেক অ্যাকাউন্ট’ খুলে কারাগারে যুবক 

চীনা প্রকৌশলীকে খুঁজতে ২ ঘণ্টা দেরিতে ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিস

চীনা প্রকৌশলীকে খুঁজতে ২ ঘণ্টা দেরিতে ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিস

নদীতে পড়ে নিখোঁজ পদ্মা সেতু প্রকল্পের চীনা প্রকৌশলী

নদীতে পড়ে নিখোঁজ পদ্মা সেতু প্রকল্পের চীনা প্রকৌশলী

সর্বশেষ

মিয়ামির ধ্বংসস্তূপে শোনা যাচ্ছে জীবনের আর্তনাদ

মিয়ামির ধ্বংসস্তূপে শোনা যাচ্ছে জীবনের আর্তনাদ

অপূর্বর গল্পের নায়িকা সাবিলা নূর

অপূর্বর গল্পের নায়িকা সাবিলা নূর

গোষ্ঠীতান্ত্রিক শাসকগোষ্ঠী দেশ পরিচালনা করছে: আমীর খসরু

গোষ্ঠীতান্ত্রিক শাসকগোষ্ঠী দেশ পরিচালনা করছে: আমীর খসরু

ভূমধ্যসাগরে ভাসমান অবস্থায় ইউরোপগামী ২৬৪ বাংলাদেশি উদ্ধার

ভূমধ্যসাগরে ভাসমান অবস্থায় ইউরোপগামী ২৬৪ বাংলাদেশি উদ্ধার

২০০ বছরের পুরনো হাটে ক্রেতা নেই

২০০ বছরের পুরনো হাটে ক্রেতা নেই

নও মুসলিম ফারুক হত্যার বিচার দাবিতে বিক্ষোভ

নও মুসলিম ফারুক হত্যার বিচার দাবিতে বিক্ষোভ

গরিব মরলেও আ.লীগের কিছু যায় আসে না: মান্না

গরিব মরলেও আ.লীগের কিছু যায় আসে না: মান্না

অর্থনৈতিক পরিবর্তনের ‘গিয়ার’ হলো বাজেট: পরিকল্পনামন্ত্রী

অর্থনৈতিক পরিবর্তনের ‘গিয়ার’ হলো বাজেট: পরিকল্পনামন্ত্রী

প্রকাশনা শিল্পকে যেখানে রেখে গেলেন মহিউদ্দিন আহমেদ

প্রকাশনা শিল্পকে যেখানে রেখে গেলেন মহিউদ্দিন আহমেদ

রংপুরে মে মাসের সেরা থানা হাকিমপুর

রংপুরে মে মাসের সেরা থানা হাকিমপুর

সংসদীয় কমিটির সুপারিশে বন্ধ ‘ওভারনাইট বান্দরবান পাঠিয়ে দেবো’ বিজ্ঞাপন

সংসদীয় কমিটির সুপারিশে বন্ধ ‘ওভারনাইট বান্দরবান পাঠিয়ে দেবো’ বিজ্ঞাপন

পুলিশ পরিচয়ে বড়ভাইয়ের সামনে থেকে তুলে নিয়ে কিশোরীকে নির্যাতন

পুলিশ পরিচয়ে বড়ভাইয়ের সামনে থেকে তুলে নিয়ে কিশোরীকে নির্যাতন

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

২০০ বছরের পুরনো হাটে ক্রেতা নেই

২০০ বছরের পুরনো হাটে ক্রেতা নেই

ধর্ষণের কথা আমলে নেয়নি মা, সৎ বাবাকে পুলিশে দিলো কিশোরী

ধর্ষণের কথা আমলে নেয়নি মা, সৎ বাবাকে পুলিশে দিলো কিশোরী

সড়ক থেকে তুলে নিয়ে নারী শ্রমিককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

সড়ক থেকে তুলে নিয়ে নারী শ্রমিককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

বোঝার উপায় নেই নারায়ণগঞ্জে চলছে লকডাউন

বোঝার উপায় নেই নারায়ণগঞ্জে চলছে লকডাউন

পরকীয়া নিয়ে রাতে ঝগড়া, সকালে ফ্যানে ঝুলছিল স্ত্রীর লাশ

পরকীয়া নিয়ে রাতে ঝগড়া, সকালে ফ্যানে ঝুলছিল স্ত্রীর লাশ

২১ ঘণ্টায়ও উদ্ধার হননি পদ্মা সেতু প্রকল্পের চীনা প্রকৌশলী

২১ ঘণ্টায়ও উদ্ধার হননি পদ্মা সেতু প্রকল্পের চীনা প্রকৌশলী

টিকার ২ ডোজ নেওয়া শিক্ষকের করোনায় মৃত্যু

টিকার ২ ডোজ নেওয়া শিক্ষকের করোনায় মৃত্যু

একসঙ্গে ৬ কোটি টাকার গরু বিক্রি করবেন এরশাদ

একসঙ্গে ৬ কোটি টাকার গরু বিক্রি করবেন এরশাদ

সৈয়দ নজরুল মেডিক্যালে কর্মচারীদের কর্মবিরতি, রোগীদের ভোগান্তি

সৈয়দ নজরুল মেডিক্যালে কর্মচারীদের কর্মবিরতি, রোগীদের ভোগান্তি

প্রেমিকার নামে ‘ফেক অ্যাকাউন্ট’ খুলে কারাগারে যুবক 

প্রেমিকার নামে ‘ফেক অ্যাকাউন্ট’ খুলে কারাগারে যুবক 

© 2021 Bangla Tribune