X
শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ৯ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

রংপুরে বিভাগীয় জাসদের স্লোগান: ঐক্যবদ্ধ জাসদ চাই

আপডেট : ০৪ এপ্রিল ২০১৬, ১৯:০৯

ঐক্যবদ্ধ জাসদের দাবি জানিয়ে এক সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করেছে রংপুর বিভাগীয় জাসদের নেতাকর্মীরা। ‘জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের ভাঙন রোধে ঐক্যবদ্ধ জাসদ চাই’ এ স্লোগানকে সামনে রেখে সোমবার দুপুরে নগরীর গুপ্তপাড়ায় একটি কমিউনিটি সেন্টারে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

বিভাগীয় জাসদের নেতাকর্মীদের সংবাদ সম্মেলন
এই সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রংপুর বিভাগের আট জেলা থেকে আসা জাসদের জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। সম্মেলনে হাসানুল হক ইনু ও অপর অংশের নাজমুল হক প্রধানসহ সবাইকে সব ধরনের মতবিরোধ ভুলে ও নেতা হবার ‘খায়েশ’ পরিত্যাগ করে দল না ভেঙে জাসদকে ঐক্যবদ্ধ রাখার আহ্বান জানান বক্তারা।
বক্তারা আরও জানান, ঐক্য প্রতিষ্ঠিত না হলে রংপুর বিভাগের বিভাগের সকল স্তরের জাসদের নেতাকর্মীরা দুইগ্রুপের নেতাদের ঘেরাও করে ঐক্যবদ্ধ জাসদের রাজনীতি সমুন্নত রাখতে তাদের বাধ্য করা হবে।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত অভিযোগে বলা হয়, গত ১২ ও ১৩ মার্চ ঢাকায় অনুষ্ঠিত জাসদের কেন্দ্রীয় সম্মেলন ও কাউন্সিলে ‘সৃষ্ট অপ্রত্যাশিত ঘটনাকে’ কেন্দ্র করে দলে অনৈক্য সৃষ্টি হয়। যার ফলশ্রুতিতে সারাদেশের তো কর্মীদের ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নের পক্ষের বিশাল জরগোষ্ঠী মর্মাহত ও হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছে।

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের রাজনৈতিক লক্ষ্য বাস্তবায়নের সম্ভাবনাও ক্ষীণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এসব কারণে সারাদেশের নেতাকর্মীদের প্রত্যাশা অনুযায়ী রংপুর বিভাগের জাসদ পরিবারের সকল সদস্য জাসদের কেন্দ্রীয় নেতাদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানিয়েছেন। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে বলেও জানা তারা।

সংবাদ সম্মেলনে জাসদ নেতা মাসুদ নবী মুন্নার সভাপতিত্বে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জাসদ নেতা গৌতম রায়। এ সময় রংপুর বিভাগের আট জেলার যেসব নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন তারা হলেন গাইবান্ধা জেলা জাসদ নেতা শাহ সাইফুল ইসলাম বাবলু, নীলফামারী জেলা জাসদের সাধারন সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিন্টু , দিনাজপুর জেলা জাসদ সাধারন সম্পাদক শহিদুল ইসলাম , লালমনিরহাট জেলা জাসদ খোরশেদ আলম , পঞ্চগড় জেলা জাসদ নেতা এমরান আল আমিন , কুড়িগ্রাম জেলা জাসদের যুগ্ন সম্পাদক ইসমাইল হোসেন ঠাকুরগাও জেলা জাসদ নেতা পারভেজসহ অন্যান্য নেতারা।

/জেবি/এইচকে/

সম্পর্কিত

‘রোহিঙ্গা’ বলায় মাইক্রোচালককে পিটিয়ে হত্যা!

‘রোহিঙ্গা’ বলায় মাইক্রোচালককে পিটিয়ে হত্যা!

রংপুর বিভাগে করোনায় আরও ১৫ মৃত্যু

রংপুর বিভাগে করোনায় আরও ১৫ মৃত্যু

জরিমানা পরিশোধ না করে পুলিশ পরিদর্শককে পেটানোর অভিযোগ

জরিমানা পরিশোধ না করে পুলিশ পরিদর্শককে পেটানোর অভিযোগ

হাসপাতালে ২৭ ঘণ্টা চিকিৎসা না পেয়ে সাংবাদিকের মায়ের মৃত্যু

হাসপাতালে ২৭ ঘণ্টা চিকিৎসা না পেয়ে সাংবাদিকের মায়ের মৃত্যু

পদ্মা সেতু এড়িয়ে ফেরি চলার কোনও সুযোগ নেই

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ১৮:৫৬

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌ রুটে ফেরিগুলো পদ্মা সেতু এড়িয়ে চলতে পারে না। মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাট ও মাদারীপুরের বাংলাবাজার ঘাটের ভৌগলিক অবস্থানের কারণে এই রুটে ফেরি চলতে গেলে পদ্মা সেতুর নিচ দিয়ে যেতে হবে।

শনিবার (২৪ জুলাই) বিকালে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) শিমুলিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ ফয়সাল এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, আগে মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি ছিল ফেরিঘাট। কিন্তু পদ্মা সেতু প্রকল্পের নদী শাসনের কাজের জন্য সেই ফেরিঘাট সরিয়ে নদীর আপস্ট্রিমে বাংলাবাজার স্থাপন করা হয়েছিল। কারণ, নদীর ডাউনস্ট্রিমে নদী শাসন কাজ করছে পদ্মা সেতু প্রকল্পের ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান সিনোহাইড্রো করপোরেশন। কাজেই শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌ রুটে সকল ফেরিকে পদ্মা সেতুর নিচ দিয়েই চলতে হবে। এছাড়া আর কোনও চ্যানেল নেই।

উল্লেখ্য, শুক্রবার (২৩ জুলাই) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বাংলাবাজার ঘাট থেকে ২৯টি যানবাহন নিয়ে শিমুলিয়া ঘাটে আসার পথে পদ্মা সেতুর ১৭ নম্বর পিলারের সঙ্গে ফেরি শাহ জালালের ধাক্কা লাগে। এ ঘটনায় ফেরির ২০ যাত্রী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। তবে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের দাবি, এতে কেউ আহত হননি। ঘটনার পর চালক আব্দুর রহমানকে বরখাস্ত করা হয়।

এ ঘটনায় রাতে পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের মাদারীপুরের শিবচর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। তবে, এখনই এই রুটে ফেরি চলাচল বন্ধের ব্যাপারে কোনও সুপারিশ করবে না সেতু কর্তৃপক্ষ।

নির্বাহী প্রকৌশলী জানান, আপাতত এই চ্যানেলে ফেরি চলাচল বন্ধ করতে সেতু কর্তৃপক্ষ কোনও নিষেধাজ্ঞা দেবে না।

জানা গেছে, শনিবারও এই রুটে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক আছে। তবে, করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে বিধিনিষেধের কারণে রুটের ১৯টি ফেরির মধ্যে আজ ছয়টি ফেরি চলেছে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

কারখানা খোলা রাখায় এ-ওয়ান পলিমারকে জরিমানা

কারখানা খোলা রাখায় এ-ওয়ান পলিমারকে জরিমানা

ফতুল্লায় বন্ধুর ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

ফতুল্লায় বন্ধুর ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

পদ্মা সেতুর সেই পিলার পরিদর্শনে মন্ত্রণালয়ের টিম

পদ্মা সেতুর সেই পিলার পরিদর্শনে মন্ত্রণালয়ের টিম

কারখানা খোলা রাখায় এ-ওয়ান পলিমারকে জরিমানা

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ১৮:৫১

সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে টঙ্গীর টিঅ্যান্ডটি বাজার এলাকায় আনোয়ার গ্রুপের এ-ওয়ান পলিমার লিমিটেডের প্লাস্টিক পণ্য তৈরির কারখানা চালু রাখায় ৭০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শনিবার (২৪ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টায় ওই কারখানায় অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা করা হয়।

গাজীপুর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না রহমান জ্যোতি জানান, সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে কারখানাটি খোলা রাখা হয়েছে। খবর পেয়ে সেখানে অভিযান চালিয়ে কারখানা কর্তৃপক্ষকে জরিমানা করা হয়েছে।

এ সময় সব শ্রমিকদের বের করে কারখানাটি বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

/এফআর/

সম্পর্কিত

পদ্মা সেতু এড়িয়ে ফেরি চলার কোনও সুযোগ নেই

পদ্মা সেতু এড়িয়ে ফেরি চলার কোনও সুযোগ নেই

ফতুল্লায় বন্ধুর ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

ফতুল্লায় বন্ধুর ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

পদ্মা সেতুর সেই পিলার পরিদর্শনে মন্ত্রণালয়ের টিম

পদ্মা সেতুর সেই পিলার পরিদর্শনে মন্ত্রণালয়ের টিম

পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা দেওয়া ফেরিচালককে আটক করা হয়নি: পুলিশ

পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা দেওয়া ফেরিচালককে আটক করা হয়নি: পুলিশ

ফতুল্লায় বন্ধুর ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ১৮:২২

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় টাকা-পয়সা নিয়ে বিরোধের জেরে বন্ধুর ছুরিকাঘাতে মাসুদ (২৬) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন।  শনিবার (২৪ জুলাই) দুপুর ১২টায় ফতুল্লার পাগলা লাবনী ফুড ফ্যাক্টরির সামনে এ ঘটনা ঘটে। 

ঘাতক সোহেলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সেই সঙ্গে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সোহেলের বাবা আইয়ুব আলীকে আটক করা হয়েছে। মাসুদ চাঁদপুর জেলার হাইমচর এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। 

ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সোহাগ চৌধুরী বলেন, প্রথমিকভাবে জানা গেছে, মাসুদের সঙ্গে সোহেলের টাকা-পয়সা নিয়ে বিরোধ চলছিল। এর জের ধরেই শনিবার দুপুরে দুই জনের মধ্যে ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে সোহেল মাসুদকে ছুরি দিয়ে আঘাত করেন। মাটিতে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে গেলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রকিবুজ্জামান জানান, এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন। বাকিটা তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

পদ্মা সেতু এড়িয়ে ফেরি চলার কোনও সুযোগ নেই

পদ্মা সেতু এড়িয়ে ফেরি চলার কোনও সুযোগ নেই

কারখানা খোলা রাখায় এ-ওয়ান পলিমারকে জরিমানা

কারখানা খোলা রাখায় এ-ওয়ান পলিমারকে জরিমানা

‘রোহিঙ্গা’ বলায় মাইক্রোচালককে পিটিয়ে হত্যা!

‘রোহিঙ্গা’ বলায় মাইক্রোচালককে পিটিয়ে হত্যা!

পদ্মা সেতুর সেই পিলার পরিদর্শনে মন্ত্রণালয়ের টিম

পদ্মা সেতুর সেই পিলার পরিদর্শনে মন্ত্রণালয়ের টিম

ঈদের চতুর্থ দিনেও বসেছে পশুর হাট

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ১৮:২২

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকার আরোপিত কঠোর লকডাউন উপেক্ষা করে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জের জনতার বাজারে বসেছে ঈদ পরবর্তী পশুর হাট। কিন্তু খবর পেয়ে সেখানে উপস্থিত হয়ে হাটটি বন্ধ করে দেয় উপজেলা প্রশাসন।

শনিবার (২৪ জুলাই) বিকাল সাড়ে ৪টায় নবীগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) উত্তম কুমার দাশের নেতৃত্বে একদল সেনা সদস্য জনতার বাজার পশুর হাটটি বন্ধ করে দেয়।

জানা গেছে, জনতার বাজার পশুর হাট ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ঘেঁষা নবীগঞ্জ উপজেলার গজনাইপুর ইউনিয়নে অবস্থিত। জেলার সর্ববৃহৎ এ পশুর হাটটি প্রতি শনি ও সোমবার বসে।

আজ ঈদ পরবর্তী এ হাটে বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে পশু কেনাবেচা করতে আসেন ক্রেতা-বিক্রেতারা। সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই শুরু চলছিল হাটটি। বিকালে উত্তম কুমার দাশের নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন এএসএম শিহাবুজ্জামান শিহাব সহকারে একদল সেনা সদস্য জনতার বাজারে গিয়ে মাইকিং করে দ্রুত বাজার বন্ধ করার ও পশু নিয়ে বাজার ত্যাগ করার জন্য আহ্বান জানান। প্রশাসনের ঘোষণার ১০-১৫ মিনিটের মধ্যে ক্রেতা-বিক্রেতারা ত্যাগ করলে হাটটি ফাঁকা হয়ে যায়।

নবীগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) উত্তম কুমার দাশ বলেন, ‘লকডাউন অমান্য করে জনতার বাজার পশুর হাট বসে। খবর পেয়ে বাজারে গিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়।’

এ প্রসঙ্গে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শেখ মহি উদ্দিন বলেন, ‘সারাদেশে কঠোর লকডাউন চলছে। বিগত কয়েকদিন ধরে পশুর হাট না বসানোর জন্য বাজার কমিটিসহ সংশ্লিষ্টদের বলা হয়েছিল। কিন্তু অতিউৎসাহি কিছু গরুর ব্যবসায়ী বাজারে পশু নিয়ে আসেন এবং বাজার বসায়। এসিল্যান্ডকে পাঠিয়ে বাজার বন্ধ করা হয়েছে।’

/এফআর/

সম্পর্কিত

মাছ ধরা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৩০

মাছ ধরা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৩০

সুনামগঞ্জে ৮ চিকিৎসক-নার্স করোনায় আক্রান্ত

সুনামগঞ্জে ৮ চিকিৎসক-নার্স করোনায় আক্রান্ত

সিলেটে ভোটগ্রহণ নিশ্চিতে কঠোর অবস্থানে থাকবে প্রশাসন

সিলেটে ভোটগ্রহণ নিশ্চিতে কঠোর অবস্থানে থাকবে প্রশাসন

মাছ ধরা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৩০

আপডেট : ২৪ জুলাই ২০২১, ১৭:২৬

হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে হাওরে মাছ ধরা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন। শনিবার (২৪ জুলাই) দুপুরে উপজেলার নয়া পাতারিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

সংঘর্ষে গুরুতর আহত দুই জনকে সিলেটে ও ১০ জনকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এমরান হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, বানিয়াচং উপজেলার নয়া পাতারিয়া গ্রামের আজমান মিয়ার সঙ্গে একই গ্রামের খুর্শিদ মিয়ার মতবিরোধ রয়েছে। শনিবার দুপুরে খুর্শিদের পক্ষের এক ব্যক্তি হাওরে মাছ ধরতে যান। এ সময় তাকে বাধা দেন প্রতিপক্ষের লোকজন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে দুই পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র টেটা-বল্লম নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। 

স্থানীয় মক্রমপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আহাদ মিয়া জানান, সংঘর্ষে আহতদের হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে পুলিশের ভয়ে অনেকেই হাসপাতালে আসতে আসেনি। বিভিন্ন ক্লিনিক চিকিৎসা নিচ্ছেন তারা।

ওসি এমরান হোসেন জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

ঈদের চতুর্থ দিনেও বসেছে পশুর হাট

ঈদের চতুর্থ দিনেও বসেছে পশুর হাট

সুনামগঞ্জে ৮ চিকিৎসক-নার্স করোনায় আক্রান্ত

সুনামগঞ্জে ৮ চিকিৎসক-নার্স করোনায় আক্রান্ত

সিলেটে ভোটগ্রহণ নিশ্চিতে কঠোর অবস্থানে থাকবে প্রশাসন

সিলেটে ভোটগ্রহণ নিশ্চিতে কঠোর অবস্থানে থাকবে প্রশাসন

সর্বশেষ

পদ্মা সেতু এড়িয়ে ফেরি চলার কোনও সুযোগ নেই

পদ্মা সেতু এড়িয়ে ফেরি চলার কোনও সুযোগ নেই

কারখানা খোলা রাখায় এ-ওয়ান পলিমারকে জরিমানা

কারখানা খোলা রাখায় এ-ওয়ান পলিমারকে জরিমানা

আইসিইউ ফাঁকা আছে মাত্র ৩৮টি

করোনাভাইরাসআইসিইউ ফাঁকা আছে মাত্র ৩৮টি

বাংলাদেশের চামড়াজাত ও সিরামিক পণ্যে আগ্রহ দক্ষিণ কোরিয়ার ব্যবসায়ীদের

বাংলাদেশের চামড়াজাত ও সিরামিক পণ্যে আগ্রহ দক্ষিণ কোরিয়ার ব্যবসায়ীদের

শীতে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট আসবে! আশঙ্কা ফরাসি বিশেষজ্ঞের

শীতে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট আসবে! আশঙ্কা ফরাসি বিশেষজ্ঞের

কিশোরীকে পতিতালয়ে বিক্রির হুমকি, আটক ১

কিশোরীকে পতিতালয়ে বিক্রির হুমকি, আটক ১

‘২১ কোটি ভ্যাকসিনের ব্যবস্থা করা হয়েছে’

‘২১ কোটি ভ্যাকসিনের ব্যবস্থা করা হয়েছে’

নমুনা পরীক্ষার সঙ্গে কমেছে শনাক্তও

নমুনা পরীক্ষার সঙ্গে কমেছে শনাক্তও

ফতুল্লায় বন্ধুর ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

ফতুল্লায় বন্ধুর ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

‘অন্য দেশে স্বাস্থ্যকর্মীদের স্যালুট দেয়, আর আমাদের দেশে অপমান’

‘অন্য দেশে স্বাস্থ্যকর্মীদের স্যালুট দেয়, আর আমাদের দেশে অপমান’

ঈদের চতুর্থ দিনেও বসেছে পশুর হাট

ঈদের চতুর্থ দিনেও বসেছে পশুর হাট

ভারত থেকে ২০০ টন অক্সিজেন আসছে কাল

ভারত থেকে ২০০ টন অক্সিজেন আসছে কাল

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

‘রোহিঙ্গা’ বলায় মাইক্রোচালককে পিটিয়ে হত্যা!

‘রোহিঙ্গা’ বলায় মাইক্রোচালককে পিটিয়ে হত্যা!

রংপুর বিভাগে করোনায় আরও ১৫ মৃত্যু

রংপুর বিভাগে করোনায় আরও ১৫ মৃত্যু

জরিমানা পরিশোধ না করে পুলিশ পরিদর্শককে পেটানোর অভিযোগ

জরিমানা পরিশোধ না করে পুলিশ পরিদর্শককে পেটানোর অভিযোগ

হাসপাতালে ২৭ ঘণ্টা চিকিৎসা না পেয়ে সাংবাদিকের মায়ের মৃত্যু

হাসপাতালে ২৭ ঘণ্টা চিকিৎসা না পেয়ে সাংবাদিকের মায়ের মৃত্যু

লকডাউনে বগুড়া থেকে হিলিতে চকলেট কিনতে যাওয়ায় জরিমানা

লকডাউনে বগুড়া থেকে হিলিতে চকলেট কিনতে যাওয়ায় জরিমানা

মদপানে ২ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৫

মদপানে ২ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৫

লকডাউন অমান্য করায় ব্যবসায়ীর ৭ দিনের জেল

লকডাউন অমান্য করায় ব্যবসায়ীর ৭ দিনের জেল

ময়লার ভাগাড় ও রাস্তায় পড়ে আছে চামড়া

ময়লার ভাগাড় ও রাস্তায় পড়ে আছে চামড়া

রংপুরে আরও ১৫ মৃত্যু, খালি নেই আইসিইউ বেড

রংপুরে আরও ১৫ মৃত্যু, খালি নেই আইসিইউ বেড

দানের মাংস বেচে মাদক কিনছে ওরা!

দানের মাংস বেচে মাদক কিনছে ওরা!

© 2021 Bangla Tribune