X
শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
১০ ফাল্গুন ১৪৩০

ঋণের জামানত মূল্যায়ন করবে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গঠিত প্যানেলভুক্ত প্রতিষ্ঠান

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
২৮ নভেম্বর ২০২৩, ২২:৩১আপডেট : ২৮ নভেম্বর ২০২৩, ২২:৪৪

জামানত জালিয়াতি ঠেকাতে নতুন নীতিমালা জারি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত একটি নীতিমালা জারি করেছে।

নীতিমালার নির্দেশনা অনুযায়ী, ঋণের বিপরীতে জামানত মূল্যায়ন প্রতিষ্ঠানগুলো নিয়ে একটি প্যানেল গঠন করবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। কোনও ব্যাংক ঋণ দেওয়ার আগে এই প্যানেল থেকে একটি বা দুটি প্রতিষ্ঠান দিয়ে জামানত মূল্যায়ন করতে হবে। প্যানেলভুক্ত জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানের রিপোর্টের ভিত্তিতেই কেবল ঋণ দিতে পারবে ব্যাংকগুলো। তবে ১ কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণ মঞ্জুর করতে ব্যাংকগুলো নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় জামানত মূল্যায়ন করতে পারবে।

নতুন নীতিমালা অনুযায়ী ঋণের পরিমাণ ১০০ কোটি টাকা বা তদূর্ধ্ব অঙ্কের ঋণ মঞ্জুরি, বর্ধিতকরণের বা প্রযোজ্য ক্ষেত্রে নবায়নের সময় গৃহীত বা গৃহীতব্য জামানত (সম্পত্তি, মালামাল, যন্ত্রপাতি ইত্যাদি) ন্যূনতম দুটি জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠান দ্বারা পৃথকভাবে মূল্যায়ন করতে হবে।

নীতিমালা অনুযায়ী, একাধিক মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠান বা মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি ব্যাংকের নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় মূল্যায়নের ক্ষেত্রে উভয়পক্ষের মূল্যায়নের মধ্যে যে মূল্যায়ন ব্যাংকের জন্য অধিকতর অনুকূলে হবে তা গ্রহণ করতে হবে। তবে উভয় মূল্যায়নের ব্যবধান ২০ শতাংশের অধিক হলে ব্যাংক মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানের কাছে ব্যাখ্যা চাইতে পারবে।

নির্দেশনায় বলা হয়, ঋণের ঝুঁকি কমাতে ব্যাংক ঋণগ্রহীতার কাছ থেকে সাধারণত স্থাবর সম্পত্তি (জমি ও ইমারত) এবং অস্থাবর সম্পত্তি (মেশিনারিজ, সহজে বিপণনযোগ্য দ্রব্যাদি) জামানত হিসেবে গ্রহণ করে। ব্যাংকিং খাতে ঋণের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা, ঋণ শৃঙ্খলা বজায় রাখা, খেলাপি ঋণ আদায়, অবলোপন, নন-ব্যাংকিং সম্পদ অন্তর্ভুক্তিকরণ, ঋণ পুনঃতফসিলিকরণসহ শ্রেণিকৃত ঋণের বিপরীতে রাখা প্রভিশন সঠিকভাবে হিসাবায়নের প্রয়োজনে ঋণের বিপরীতে রাখা জামানতের যথাযথ ও নির্ভরযোগ্য মূল্যায়ন খুবই জরুরি।

এতে বলা হয়, যথাযথ ও নির্ভরযোগ্য মূল্যায়ন নিশ্চিত করার জন্য যোগ্য জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর ন্যূনতম যোগ্যতা ও উপযুক্ততা নির্ধারণ সাপেক্ষে তালিকাভুক্তি এবং তালিকা প্রকাশ অত্যাবশ্যক। কোনও ব্যাংকের ঋণগ্রহীতার মাধ্যমে ঋণের বিপরীতে প্রদত্ত জামানত মূল্যায়নের জন্য যোগ্য জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে একটি সুনির্দিষ্ট, স্বচ্ছ ও গ্রহণযোগ্য প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকে তালিকাভুক্তি করতে এ নীতিমালা প্রণয়ন করা হলো।

জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠান

তালিকাভুক্তির জন্য জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানের নিম্নোক্ত ইনস্টিটিউশন বা অ্যাসোসিয়েশনগুলোর মধ্যে ন্যূনতম একটির সদস্যপদ থাকতে হবে।

১. বাংলাদেশ সার্ভে অ্যান্ড ভ্যালুয়েশন কোম্পানিজ, ফার্মস অ্যান্ড ইন্ডিভিজুয়াল কনসার্নস অ্যাসোসিয়েশন (বিএসভিসিএফআইসিএ)।

২. বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স সার্ভেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন।

৩. বাংলাদেশ ব্যাংকের বিবেচনায় সমজাতীয় স্বীকৃত কোনও পেশাজীবী সংগঠন।

এসব সংগঠনের সদস্য ছাড়াও ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্টস অব বাংলাদেশ এবং ইনস্টিটিউট অব কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্টেন্টস অব বাংলাদেশের সদস্য এ সার্কুলারে করা শর্তগুলো পূরণ করে তালিকাভুক্তির জন্য আবেদন করতে পারবে।

এছাড়া ব্যাংকসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে (আর্থিক প্রতিষ্ঠান, সরকারি প্রতিষ্ঠান, ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি, মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি) জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানের সার্ভে বা ভ্যালুয়েশন কাজে ন্যূনতম ৩ বছরের বাস্তব অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। এসব প্রতিষ্ঠানের নিবন্ধন থাকতে হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনায় বলা হয়, জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানে দক্ষ ও অভিজ্ঞ জনবল (হিসাবরক্ষক, পুরপ্রকৌশলী, যন্ত্রপ্রকৌশলী, ডিপ্লোমা প্রকৌশলী) এবং প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সার্ভেয়ার থাকতে হবে। এছাড়া মূল্যায়ন কাজে প্রতিষ্ঠানের আধুনিক যন্ত্রপাতিসহ প্রয়োজনীয় লজিস্টিক সুবিধা থাকতে হবে।

নীতিমালায় আরও বলা হয়, জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর আবেদন পাওয়ার পর বাংলাদেশ ব্যাংক তালিকাভুক্তির কার্যক্রম শুরু করবে। এসব প্রতিষ্ঠানের আবেদন মূল্যায়ন প্রক্রিয়া অনুসরণ করে প্রতি বছরে দুইবার যোগ্য জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানের হালনাগাদ তালিকা প্রকাশ করবে। জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানের তালিকাভুক্তির মেয়াদ হবে সর্বোচ্চ ৩ বছর। আর এসব প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকে তালিকাভুক্তির তারিখ থেকে প্রতি ৩ বছর পর পর (মেয়াদপূর্তির ৬ মাস পূর্বে) পুনরায় তালিকাভুক্তির জন্য আবেদন করতে হবে।

/জিএম/এমএস/
সম্পর্কিত
মানুষের হাতে আছে কত কোটি টাকা?
পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৩০০ কোটি টাকার আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ চুন্নুর
এক বছরে সন্দেহজনক লেনদেন বেড়েছে ৬৫ শতাংশ
সর্বশেষ খবর
জাম্পার স্পিনে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে সিরিজ অস্ট্রেলিয়ার
জাম্পার স্পিনে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে সিরিজ অস্ট্রেলিয়ার
মেলায় জাকারিয়া আহমেদের কবিতার বই ‘দাঁড়কাক’
মেলায় জাকারিয়া আহমেদের কবিতার বই ‘দাঁড়কাক’
‘আ.লীগ কার্যালয়ে বসে বিরোধী দল হিসেবে জাতীয় পার্টিকে বেছে নেওয়া হয়েছে’
‘আ.লীগ কার্যালয়ে বসে বিরোধী দল হিসেবে জাতীয় পার্টিকে বেছে নেওয়া হয়েছে’
জাতিসংঘের পূর্ণ সদস্য হতে চায় ফিলিস্তিন
জাতিসংঘের পূর্ণ সদস্য হতে চায় ফিলিস্তিন
সর্বাধিক পঠিত
বাড়িওয়ালাদের তালিকা ধরে অভিযান চালাবে এনবিআর
বাড়িওয়ালাদের তালিকা ধরে অভিযান চালাবে এনবিআর
ইউরোপে মানবপাচারে জড়িত বিমানবন্দরের কর্তারা: ডিবির হারুন
ইউরোপে মানবপাচারে জড়িত বিমানবন্দরের কর্তারা: ডিবির হারুন
চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আরভিঅ্যান্ডএফ কোরের সদস্যদের প্রস্তুত থাকতে বলেছেন সেনাপ্রধান
চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আরভিঅ্যান্ডএফ কোরের সদস্যদের প্রস্তুত থাকতে বলেছেন সেনাপ্রধান
পারমাণবিক বোমারু বিমানে চড়ে পশ্চিমাদের বার্তা দিলেন পুতিন
পারমাণবিক বোমারু বিমানে চড়ে পশ্চিমাদের বার্তা দিলেন পুতিন
হাসপাতাল পরিচালনায় ১০ নির্দেশনা, না মানলে লাইসেন্স বাতিল
হাসপাতাল পরিচালনায় ১০ নির্দেশনা, না মানলে লাইসেন্স বাতিল