রাজস্ব আয়ের গতি ঊর্ধ্বমুখী

Send
গোলাম মওলা
প্রকাশিত : ০২:১৫, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:১৫, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০

বাংলাদেশ ব্যাংক

নিম্নমুখী ধারা থেকে বেরিয়ে এসেছে সরকারের আর্থিক জোগানদাতা রাজস্ব খাত। পরপর দুই মাস ধরে অভ্যন্তরীণ সম্পদ আহরণ বা রাজস্ব আদায়ের গতি বেড়ে গেছে। সর্বশেষ গত ডিসেম্বরে রাজস্ব আয়ের প্রবৃদ্ধি হয়েছে ২২ শতাংশের মতো। আগের মাস নভেম্বরে রাজস্ব আয়ের প্রবৃদ্ধি ছিল ৭ দশমিক ৭৬ শতাংশ। বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এই তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে, গত ডিসেম্বরে রাজস্ব আয়ের প্রবৃদ্ধি হয়েছে ২১ দশমিক ৯২ শতাংশ। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে রাজস্ব আয় হয়েছিল ১৮ হাজার ৩৩৩ কোটি ১৪ লাখ টাকা। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে রাজস্ব আয় হয়েছে ২২ হাজার ৩৫২ কোটি ৬৭ লাখ টাকা। অর্থাৎ গত বছরের ডিসেম্বরের চেয়ে এই বছরের ডিসেম্বরে রাজস্ব আয় বেড়েছে ৪ হাজার ১৭ কোটি টাকা।

এ প্রসঙ্গে ভ্যাট কমিশনারেট ঢাকা (পশ্চিম) এর কমিশনার ড. মঈনুল খান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘জানুয়ারি পর্যন্ত শুধু ঢাকা পশ্চিমে ২৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে। অন্যান্য অঞ্চলেও প্রবৃদ্ধি ভালো হচ্ছে। এর প্রভাব পড়েছে জাতীয় পর্যায়ে।’ তিনি বলেন, ‘এনবিআরের নতুন চেয়ারম্যানের নির্দেশনা অনুযায়ী, আমরা রাজস্ব আয় বাড়ানো চেষ্টা করছি। মনিটরিং ব্যবস্থা আগের চেয়ে জোড়দার করার পাশাপাশি বর্তমানে আমরা সুশাসনের দিকে নজর দিয়েছি। নতুন চেয়ারম্যানের নির্দেশনা ছিল— ব্যবসা ও রাজস্ববান্ধব পরিবেশ তৈরি করা। আমরা সেটা করেছি। ফলে সার্বিক রাজস্ব আয়ে এর ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে।’

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য বলছে, অর্থবছরের প্রথম ৬ মাসে ( জুলাই- ডিসেম্বর) রাজস্ব আয়ের প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৮ দশমিক ৭৩ শতাংশ। আগের অর্থ বছরের (২০১৮-১৯) একই সময়ে প্রবৃদ্ধি হয়েছিল ৬  দশমিক ৭৯ শতাংশ। আর গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরের পুরো সময়ে (১২ মাস) রাজস্ব আয়ের প্রবৃদ্ধি হয়েছিল ১০ দশমিক ৬৭ শতাংশ।

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী এই অর্থবছরের প্রথম ৬ মাসে ( জুলাই- ডিসেম্বর) রাজস্ব আয় হয়েছে ১ লাখ ৬ হাজার ৫৫১ কোটি টাকা। আর আগের অর্থবছরের একই সময়ে রাজস্ব আয় হয়েছিল ৯৭ হাজার ৯৯৩ কোটি টাকা। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় প্রথম ৬ মাসে রাজস্ব আয় বেড়েছে ৮ হাজার ৫৫৮ কোটি টাকা।

চলতি অর্থবছরে সোয়া ৫ লাখ কোটি টাকার বাজেট পাস  হয়েছে। এই বাজেট বাস্তবায়নে এনবিআরকে ৩ লাখ ২৫ হাজার ৬০০ কোটি টাকার রাজস্ব আদায় করতে হবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য মতে, আগামী ৬ মাসে বাজেট বাস্তবায়নে এনবিআরকে আরও ২ লাখ ১৯ হাজার কোটি টাকা আদায় করতে হবে।

প্রসঙ্গত, ২০১৯-২০ অর্থবছরের শুরু থেকেই রাজস্ব আয় কমতে থাকে। বিশেষ করে অর্থবছরের দ্বিতীয় মাস আগস্টে রাজস্ব আয়ের প্রবৃদ্ধি হয়েছে নেতিবাচক। সেপ্টেম্বর ও অক্টোবরেও রাজস্ব আয়ের প্রবৃদ্ধিতে নেতিবাচক প্রভাব লক্ষ্য করা যাচ্ছিল।

বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে, গত আগস্টে রাজস্ব আয়ের প্রবৃদ্ধি হয়েছে মাইনাস ৫ দশমিক ০৮ শতাংশ। ২০১৮ সালের আগস্টে রাজস্ব আয় হয়েছিল ১৪ হাজার ৯৪৮ কোটি ৫২ লাখ টাকা। ২০১৯ সালের আগস্টে রাজস্ব আয় হয়েছে ১৪ হাজার ১৮৯ কোটি ৬২ লাখ টাকা। অর্থাৎ গত বছরের আগস্টের চেয়ে এই বছরের আগস্টে রাজস্ব আয় কমেছে ৭৫৮ কোটি টাকা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাব বলছে, গত সেপ্টেম্বরেও রাজস্ব আয়ের চিত্র ভালো ছিল না। আগের বছরের একই সময়ের চেয়ে গত সেপ্টেম্বর মাসে রাজস্ব আয়ের প্রবৃদ্ধি হয়েছে মাত্র ১ দশমিক ৫২ শতাংশ। যদিও ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে আগের বছরের একই সময়ের চেয়ে রাজস্ব আয়ের প্রবৃদ্ধি হয়েছিল ১৩ দশমিক ০৫ শতাংশ।

 

/এপিএইচ/

লাইভ

টপ