সেকশনস

করোনাকালেও প্রবাসী আয়ে রেকর্ড

আপডেট : ০১ জুলাই ২০২০, ০০:৪৭

রেমিট্যান্স মহামারি করোনার মধ্যেও প্রবাসীরা রেমিট্যান্স পাঠানোর ক্ষেত্রে রেকর্ড গড়েছেন। চলতি অর্থবছরের ২ দিন বাকী থাকতেই গত ২৮ জুন পর্যন্ত তারা ১৮ বিলিয়ন (এক হাজার ৮০০ কোটি) ডলারের বেশি রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এই তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা বলছেন, স্বাধীনতার পর কোনও অর্থবছরে এতো রেমিট্যান্স আসেনি। এই পরিমাণ রেমিট্যান্সকে তারা এযাবতকালের মধ্যে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স প্রবাহ বলছেন।
বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য বলছে,  চলতি অর্থবছরের শুরুর দিন অর্থাৎ ১ জুলাই থেকে ২৮ জুন পর্যন্ত প্রবাসীরা রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন ১ হাজার ৮০২ কোটি ডলার। এই অঙ্ক ২০১৮-১৯ অর্থবছরের পুরো সময়ের (জুলাই-জুন) চেয়েও ৯ দশমিক ৮০ শতাংশ বেশি। গত অর্থবছরের পুরো সময়ে রেমিট্যান্স এসেছিল এক হাজার ৬৪১ কোটি ৯৬ লাখ ডলার(১৬.৪১ বিলিয়ন।
বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে, প্রবাসীরা জুন মাসে এ যাবত কালের সবোর্চ্চ রেমিট্যান্স পাঠিয়ে  আরেকটি রেকর্ড গড়েছেন। তারা করোনার মধ্যেই ১ জুন থেকে ২৮ জুন পর্যন্ত (২৮ দিনে) ১৬৫ কোটি ৯০ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। যদিও গত বছরের পুরো জুন মাসে রেমিট্যান্স এসেছিল ১৩৬ কোটি ৮০ লাখ ডলার। আর ২০১৮ সালের জুনে প্রবাসীরা রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিলেন ১৩৮ কোটি ৪৩ লাখ ডলার।

আর এই রেমিট্যান্সের ওপর ভর করেই দেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভও সর্বোচ্চ উচ্চতায় উঠেছে। সোমবার (২৯ জুন) দিন শেষে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩৫ দশমিক ৭৬ বিলিয়ন (৩ হাজার ৫৭৬ কোটি) ডলার। দেশের ইতিহাসে এত বেশি রিজার্ভ আর কখনও ছিল না।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক কাজী সাইদুর রহমান বলেন, প্রবাসীরা এই করোনার মধ্যেও রেকর্ড পরিমাণ রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। তাদের এই রেমিট্যান্স প্রবাহ বাড়ার কারণে তিনটি রেকর্ড হয়েছে। প্রথমত, অর্থবছরের ২ দিন বাকী থাকতেই প্রবাসী আয় ১৮ বিলিয়ন ডলার ছাড়ালো। দ্বিতীয়ত, জুন মাসের ২৮ দিনে রেকর্ড পরিমাণ রেমিট্যান্স এসেছে। আর তৃতীয়, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৩৫ দশমিক ৭৬ বিলিয়ন অতিক্রম করেছে।  তিনি উল্লেখ করেন, গত অর্থবছরে প্রবাসীরা ১৬ দশমিক ৪১ বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিলেন।

এদিকে আগামীতে রেমিট্যান্স বা প্রবাসী আয়ে বড় পতনের আশঙ্কা প্রকাশ করেছে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরাম (ডব্লিউইএফ)। সংস্থাটি বলছে, করোনার পাশাপাশি বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমায়ও মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে অর্থনৈতিক সংকট দেখা দিয়েছে। এ কারণে তারা অভিবাসী শ্রমিকদের ছাঁটাই করছে। এর বড় কোপ পড়ছে বাংলাদেশি শ্রমিকদের ওপর।

যদিও বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য বলছে, এই করোনার সময়ে প্রবাসীরা যত রেমিট্যান্স পাঠিয়েছে। এর আগে কখনও কোনও অর্থবছরের পুরো সময়েও এই পরিমাণ রেমিট্যান্স আসেনি।

২০১৭-১৮ অর্থবছরে বাংলাদেশ রেমিট্যান্স থেকে আয় করেছিল এক হাজার ৪৯৮ কোটি কোটি ১৬ লাখ ডলার। অবশ্য ২০১৪-১৫ অর্থবছরের রেমিট্যান্সকে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স এসেছে বলে মনে করা হতো। ওই অর্থবছরে রেমিট্যান্স এসেছিল এক হাজার ৫৩১ কোটি ৬৯ লাখ মার্কিন ডলার।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, গত মে মাসে রেমিট্যান্স এসেছিল ১৫০ কোটি ৪৬ লাখ (১.৫) বিলিয়ন ডলার। অবশ্য গত মার্চে ১২৮ কোটি ৬৮ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স এসেছিল, যা গত বছরের মার্চ মাসের চেয়ে ১৩ দশমিক ৩৪ শতাংশ কম। পরের মাস এপ্রিলে রেমিট্যান্স আরও কমে ১০৮ কোটি ১০ লাখ ডলারে নেমে আসে, যা গত বছরের এপ্রিলের চেয়ে ২৪ দশমিক ৬১ শতাংশ কম। কিন্তু মে মাসে চিত্র পাল্টাতে থাকে। প্রথম ১১ দিনে ৫১ কোটি ২০ লাখ ডলার রেমিট্যান্স আসে, ৩১ মে মাস শেষে সেই রেমিট্যান্স গিয়ে দাঁড়ায় ১৫০ কোটি ৪০ লাখ ডলারে।

জুনের মতো পরবর্তী মাসগুলোতে রেমিট্যান্স প্রবাহ বাড়ানোর জন্য এখন থেকেই পরিকল্পনা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (বিআইডিএস) গবেষক ড. জায়েদ বখত। তিনি বলেন, পৃথিবীর সব দেশের অবস্থা এখনও খারাপই আছে।  ফলে সামনে দিনগুলোতে কেমন রেমিট্যান্স আসে সেটাই দেখার বিষয়।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের অর্থনীতির অন্যতম চালিকাশক্তি মনে করা হয় বিভিন্ন দেশে থাকা বাংলাদেশিদের পাঠানো অর্থ বা রেমিট্যান্সকে।

 

/এমআর/

সম্পর্কিত

শত কোটি টাকার সাপের বিষসহ গ্রেফতার ৩

শত কোটি টাকার সাপের বিষসহ গ্রেফতার ৩

‘পরিবেশবিষয়ক আইন ও বিধি যুগোপযোগী করা হবে’

‘পরিবেশবিষয়ক আইন ও বিধি যুগোপযোগী করা হবে’

পিতার বিরুদ্ধে মেয়েকে ধর্ষণের মামলা: রায় ৯ ফেব্রুয়ারি

পিতার বিরুদ্ধে মেয়েকে ধর্ষণের মামলা: রায় ৯ ফেব্রুয়ারি

দুদকের মামলায় পাপিয়া দম্পতির বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ২১ মার্চ

দুদকের মামলায় পাপিয়া দম্পতির বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ২১ মার্চ

রাজউকের প্লট জালিয়াতি: হাসেমপুত্রসহ চার জনের বিরুদ্ধে মামলা চলবে

রাজউকের প্লট জালিয়াতি: হাসেমপুত্রসহ চার জনের বিরুদ্ধে মামলা চলবে

৪ দফা দাবিতে পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

৪ দফা দাবিতে পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

বাজারে কবে আসবে আমদানি করা চাল?

বাজারে কবে আসবে আমদানি করা চাল?

চালের দাম সহনীয় রয়েছে: খাদ্যমন্ত্রী

চালের দাম সহনীয় রয়েছে: খাদ্যমন্ত্রী

সীমাবদ্ধতা সত্ত্বেও বিপন্ন মানবতার পাশে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী

সীমাবদ্ধতা সত্ত্বেও বিপন্ন মানবতার পাশে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী

সম্রাট-আরমানের বিরুদ্ধে অর্থপাচার মামলার প্রতিবেদন ৩ মার্চ

সম্রাট-আরমানের বিরুদ্ধে অর্থপাচার মামলার প্রতিবেদন ৩ মার্চ

টিকা নিতে প্রস্তুত তারা

টিকা নিতে প্রস্তুত তারা

ভ্যাকসিন নেওয়ার কথা পরিবারকেও জানাইনি: নাসিমা সুলতানা

ভ্যাকসিন নেওয়ার কথা পরিবারকেও জানাইনি: নাসিমা সুলতানা

সর্বশেষ

পশ্চিম তীরে মসজিদ গুড়িয়ে দিলো ইসরায়েল

পশ্চিম তীরে মসজিদ গুড়িয়ে দিলো ইসরায়েল

বিমানের ১৭ সিবিএ নেতার বিষয়ে দুদকের পদক্ষেপ জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট

বিমানের ১৭ সিবিএ নেতার বিষয়ে দুদকের পদক্ষেপ জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট

শত কোটি টাকার সাপের বিষসহ গ্রেফতার ৩

শত কোটি টাকার সাপের বিষসহ গ্রেফতার ৩

‘পরিবেশবিষয়ক আইন ও বিধি যুগোপযোগী করা হবে’

‘পরিবেশবিষয়ক আইন ও বিধি যুগোপযোগী করা হবে’

নেটফ্লিক্সে উঠছে ফারুকী-ইরফানের ‘ডুব’

নেটফ্লিক্সে উঠছে ফারুকী-ইরফানের ‘ডুব’

মুজিববর্ষে ঘর পেলো ৭০ হাজার পরিবার

মুজিববর্ষে ঘর পেলো ৭০ হাজার পরিবার

টলিউডের ‘ডিকশনারি’ নিয়ে হাজির মোশাররফ করিম

ভিডিওতে টলিউডের মোশাররফ করিম

করোনায় আরও ১৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৫০৯

করোনায় আরও ১৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৫০৯

বাংলাদেশের স্পিন সামলাতে প্রস্তুত ক্যারিবীয়রা

বাংলাদেশের স্পিন সামলাতে প্রস্তুত ক্যারিবীয়রা

পিতার বিরুদ্ধে মেয়েকে ধর্ষণের মামলা: রায় ৯ ফেব্রুয়ারি

পিতার বিরুদ্ধে মেয়েকে ধর্ষণের মামলা: রায় ৯ ফেব্রুয়ারি

ভ্যাকসিন সরবরাহ সংকট উত্তরণের চেষ্টায় ইইউ-অ্যাস্ট্রাজেনেকা

ভ্যাকসিন সরবরাহ সংকট উত্তরণের চেষ্টায় ইইউ-অ্যাস্ট্রাজেনেকা

করোনার মধ্যেই নাইজেরিয়ায় কলেরার প্রাদুর্ভাব

করোনার মধ্যেই নাইজেরিয়ায় কলেরার প্রাদুর্ভাব

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

বাজারে কবে আসবে আমদানি করা চাল?

বাজারে কবে আসবে আমদানি করা চাল?

সেরা করদাতা হলেন যারা

সেরা করদাতা হলেন যারা

ভোজ্যতেলের দাম কমবে কবে?

ভোজ্যতেলের দাম কমবে কবে?

আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহারে প্রকৌশলীদের এগিয়ে থাকতে হবে: বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহারে প্রকৌশলীদের এগিয়ে থাকতে হবে: বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

করোনায় সম্পদ বেড়েছে কোটিপতিদের, কমেছে গরিবদের

করোনায় সম্পদ বেড়েছে কোটিপতিদের, কমেছে গরিবদের

ভারতে বিদ্যুতের দর বৃদ্ধির দায় নিতে নারাজ বাংলাদেশ

ভারতে বিদ্যুতের দর বৃদ্ধির দায় নিতে নারাজ বাংলাদেশ

আইসিএসবি গোল্ড অ্যাওয়ার্ড পেলো ইসলামী ব্যাংক

আইসিএসবি গোল্ড অ্যাওয়ার্ড পেলো ইসলামী ব্যাংক

সেচ মৌসুমে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ-জ্বালানি সরবরাহের নির্দেশ

সেচ মৌসুমে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ-জ্বালানি সরবরাহের নির্দেশ


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.