X
বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২
২ ভাদ্র ১৪২৯

আসন স্বল্পতায় ট্রেনে দাঁড়িয়ে যাতায়াত

কুদরতে খোদা সবুজ, কুষ্টিয়া
২০ জুন ২০২২, ১৫:৫১আপডেট : ২০ জুন ২০২২, ১৫:৫১

কুষ্টিয়ার মিরপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে প্রতিদিন অসংখ্য যাত্রী ঢাকা, রাজশাহীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করেন। তবে ট্রেনে আসন স্বল্পতার কারণে প্রতিনিয়ত যাত্রীদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। বিশেষ করে ঢাকা ও রাজশাহীগামী যাত্রীরা আসনের অভাবে অনেক সময় দাঁড়িয়ে যাতায়াত করেন।

স্টেশন সূত্রে জানা গেছে, সপ্তাহে ছয় দিন পাঁচটি আন্তনগর ট্রেন নিয়মিত এই রুটে চলাচল করে। এর মধ্যে রাজশাহীগামী কপোতাক্ষ ট্রেনে ২০টি এবং মধুমতি ট্রেনে ১০টি আসন বরাদ্দ রয়েছে। এ ছাড়াও খুলনাগামী সাগরদাঁড়ি এক্সপ্রেস ট্রেনে ১০টি আসন এবং ঢাকাগামী চিত্রা এক্সপ্রেসে ১৫টি আসন বরাদ্দ রয়েছে। তবে এর বিপরীতে প্রতিদিন প্রায় দুই শতাধিক যাত্রী এই স্টেশন থেকে যাতায়াত করেন।

মিরপুর রেলওয়ে স্টেশন মিরপুর সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের সহকারী দলিল লেখক মো. রফিকুল ইসলাম জোয়ারদার বলেন, ‘স্টেশনটি দীর্ঘদিন বন্ধ ঘোষণার তালিকায় থাকায় এটি নিয়ে একটা সময় মিরপুর নাগরিক কমিটি আন্দোলন করে। সে সময় কুষ্টিয়া-৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহবুব উল আলম হানিফের সদিচ্ছায় এটি পুনরায় চালু করা সম্ভব হয়। কিন্তু আসনের অভাবে রাজশাহী ও ঢাকাগামী মানুষগুলো ব্যাপক দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করে আসন সংখ্যা বাড়ানো জরুরি। সেই সঙ্গে রেলওয়ে স্টেশনটির অবকাঠামোগত উন্নয়ন হওয়াটাও জরুরি।’

উপজেলার ধুবইল গ্রামের মো. হামিদুল ইসলাম বলেন, ‘মিরপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে যেখানেই যেতে চান ট্রেনে সিট পাওয়া যায় না। সেই সঙ্গে স্টেশনের নিরাপত্তাহীনতাও রয়েছে।’

স্থানীয় মিরপুর নাগরিক কমিটির প্রচার সম্পাদক সাংবাদিক হুমায়ুন কবির হিমু বলেন, ‘স্টেশনটি দীর্ঘদিন বন্ধের তালিকায় ছিল। উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গগামী মানুষের দুর্ভোগ বিবেচনা করে নাগরিক সমাজের আন্দোলনের মাধ্যমে গত বছর এটি পুনরায় চালু হয়। তবে আসন সংখ্যা কম হাওয়ায় যাত্রীদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। বিশেষ করে ঢাকাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস এবং চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেন দুটি দিনের বেলা থামলেও রাতে থামে না। এ কারণে যাত্রীদের দুর্ভোগ চরমে।’

মিরপুর রেলওয়ে স্টেশনে কর্তব্যরত মো. মোস্তফা কবির বলেন, ‘রাজশাহীগামী কপোতাক্ষ ট্রেনের জন্য ২০টি এবং মধুমতি ট্রেনে ১০টি আসন বরাদ্দ রয়েছে। এ ছাড়াও খুলনাগামী সাগরদাঁড়ি এক্সপ্রেস ট্রেনে ১০টি আসন এবং ঢাকাগামী চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনে ১৫টি আসন বরাদ্দ রয়েছে। তবে প্রায় প্রতিদিন এখান থেকে রাজশাহীগামী ট্রেনে ৭০ থেকে ৮০ জন যাত্রী যাতায়াত করেন। এ ছাড়াও ঢাকাগামী চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনে ৩০ থেকে ৪০ জন যাত্রী যাতায়াত করেন। তবে সে তুলনায় আসন সংখ্যা কম।’

 

 

/আরকে/এমএএ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
ইউক্রেন সফরে আসছেন এরদোয়ান ও গুতেরেস
ইউক্রেন সফরে আসছেন এরদোয়ান ও গুতেরেস
গ্রিস-তুরস্ক সীমান্তের নির্জন দ্বীপে ৩৮ অভিবাসী উদ্ধার
গ্রিস-তুরস্ক সীমান্তের নির্জন দ্বীপে ৩৮ অভিবাসী উদ্ধার
কেজিতে ৪০ টাকা কমলো কাঁচা মরিচের দাম 
কেজিতে ৪০ টাকা কমলো কাঁচা মরিচের দাম 
ভিয়েনায় জাতীয় শোক দিবস পালিত
ভিয়েনায় জাতীয় শোক দিবস পালিত
এ বিভাগের সর্বশেষ
গাজীপুরে লাইনচ্যুত বগি উদ্ধার, ১২ ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল শুরু
গাজীপুরে লাইনচ্যুত বগি উদ্ধার, ১২ ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল শুরু
১১ ঘণ্টা পর মিটারগেজ লাইনে ট্রেন চলাচল শুরু
গাজীপুরে বগি লাইনচ্যুত১১ ঘণ্টা পর মিটারগেজ লাইনে ট্রেন চলাচল শুরু
ট্রেনের ইঞ্জিন বিকল, রাতভর দুর্ভোগ যাত্রীদের
ট্রেনের ইঞ্জিন বিকল, রাতভর দুর্ভোগ যাত্রীদের
দ্রুতযান এক্সপ্রেস থেকে নামার সময় কাটা পড়ে মৃত্যু
দ্রুতযান এক্সপ্রেস থেকে নামার সময় কাটা পড়ে মৃত্যু
বনলতা এক্সপ্রেসের ইঞ্জিন বিকল, ২ ঘণ্টা বন্ধ ট্রেন চলাচল
বনলতা এক্সপ্রেসের ইঞ্জিন বিকল, ২ ঘণ্টা বন্ধ ট্রেন চলাচল