X
বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২
২২ আষাঢ় ১৪২৯

স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেননি বাবুল আক্তার

আপডেট : ১৭ মে ২০২১, ১৮:৪২

মাহমুদা খানম মিতু হত্যা মামলায় পাঁচ দিনের রিমান্ড শেষে সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার (১৭ মে) দুপুরে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সরোয়ার জাহানের আদালত এ আদেশ দেন।

সহকারী পুলিশ কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী শাহাবুদ্দিন আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, ৫ দিনের রিমান্ড শেষে বাবুল আক্তারকে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেওয়ার জন্য আজ আদালতে হাজির করা হয়। বাবুল আক্তার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেননি। পরে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।

২০১৬ সালের ৫ জুন সকালে চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি মোড়ে ছেলেকে স্কুল বাসে তুলে দিতে যাওয়ার সময় সড়কে খুন হন পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের স্ত্রী মিতু। খুনিরা গুলি করার পাশাপাশি ছুরিকাঘাতে তাকে হত্যা করে। ঘটনার সময় বাবুল আক্তার ঢাকায় ছিলেন। হত্যাকাণ্ডের পর বাবুল আক্তার নিজে নগরীর পাঁচলাইশ থানায় অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে মামলা করেন। ওই মামলা তদন্ত করতে গিয়ে বাবুল আক্তারের সম্পৃক্ততা পায় পুলিশ। এ ঘটনায় বুধবার (১২ মে) ৫৭৫ পৃষ্ঠার চূড়ান্ত প্রতিবেদন আদালতে জমা দেয় পিবিআই। প্রতিবেদনে পিবিআই বলছে, মিতু হত্যা ছিল কন্ট্রাক্ট কিলিং। বাবুল আক্তারের পরিকল্পনায় এটি সংঘটিত হয়। মিতুকে হত্যার জন্য তিন লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে বলে তার জানান। এরপর একই দিন নগরীর পাঁচলাইশ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন মিতুর বাবা মোশাররফ হোসেন।

এর আগে গত সোমবার (১০ মে) মামলার বাদী হিসেবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পিবিআই চট্টগ্রাম মেট্রো কার্যালয়ে ডেকে আনা হয় বাবুল আক্তারকে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে পরদিন তাকে মিতুর বাবা মোশাররফ হোসেনের দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পিবিআই। শুনানি শেষে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সরোয়ার জাহানের আদালত বাবুল আক্তারকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে পাঠানোর আদেশ দেন।

/এমআর/এমওএফ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
ব্রিটেনের দুই প্রভাবশালী মন্ত্রীর পদত্যাগ, চাপে বরিস জনসন
ব্রিটেনের দুই প্রভাবশালী মন্ত্রীর পদত্যাগ, চাপে বরিস জনসন
পারিবারিক সহিংসতায় বেড়েছে মাদকসেবন ও আত্মহত্যার প্রবণতা: ফ্লাড
পারিবারিক সহিংসতায় বেড়েছে মাদকসেবন ও আত্মহত্যার প্রবণতা: ফ্লাড
বন্যাকবলিত মানুষের পাশে আমিরাত প্রবাসীরা
বন্যাকবলিত মানুষের পাশে আমিরাত প্রবাসীরা
ভিজিএফের চালে পাথর, সুবিধাভোগীদের মাঝে ক্ষোভ
ভিজিএফের চালে পাথর, সুবিধাভোগীদের মাঝে ক্ষোভ
এ বিভাগের সর্বশেষ
স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু, রিমান্ডে কাউন্সিলর পুত্র
স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু, রিমান্ডে কাউন্সিলর পুত্র
ডিপোতে আগুন: তদন্ত শেষ করতে পারেনি ৬ কমিটির পাঁচটি
ডিপোতে আগুন: তদন্ত শেষ করতে পারেনি ৬ কমিটির পাঁচটি
চট্টগ্রাম সিটির বর্জ্য অপসারণ করবে ৫ হাজার শ্রমিক 
চট্টগ্রাম সিটির বর্জ্য অপসারণ করবে ৫ হাজার শ্রমিক 
পশুর অবৈধ হাট বসানোয় ৪০ হাজার টাকা জরিমানা
পশুর অবৈধ হাট বসানোয় ৪০ হাজার টাকা জরিমানা
র‍্যাবের সঙ্গে মাদক ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষে আহত ৩
র‍্যাবের সঙ্গে মাদক ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষে আহত ৩