X
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২
১৭ আষাঢ় ১৪২৯

১৯ বছর পর লক্ষ্মীপুর সদর ও পৌর আ.লীগের সম্মেলন

আপডেট : ১০ মে ২০২২, ১৪:২১

দীর্ঘ ১৯ বছর পর বুধবার (১১ মে) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে লক্ষ্মীপুর সদর থানা ও পৌর আওয়ামী লীগের সম্মেলন। বহুদিন পর এ সম্মেলন হওয়ায় নেতাকর্মীরা উজ্জীবিত হয়ে উঠেছেন। সর্বশেষ ২০০৩ সালে এই ইউনিটগুলোর সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সম্মেলনকে ঘিরে পুরো লক্ষ্মীপুর শহর প্রার্থীদের বড় বড় বিলবোর্ড, ব্যানার, ফেস্টুনে ভরে গেছে। প্রচারণায় ডিজিটাল প্রযুক্তির ব্যবহার করছেন প্রার্থীরা।

জানা গেছে, বহুদিন ধরে সম্মেলন না হওয়ায় নেতাকর্মীদের মাঝে অসন্তোষ ও ক্ষোভ ছিল। সম্মেলন না হওয়ায় নতুন নেতৃত্ব আসেনি। ২০১৫ সালে জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ওই সম্মেলনে গোলাম ফারুক পিংকু সভাপতি ও নূর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন সাধারণ সম্পাদক র্নিবাচিত হন। দীর্ঘ সাত বছরে লক্ষ্মীপুর সদর থানা ও পৌর আওয়ামী লীগের সম্মেলনের জন্য ১০-১২ বার তারিখ দিলেও তা হয়নি। অবশেষে দলীয় সভানেত্রীর কড়া নির্দেশের পর জেলার ছয়টি ইউনিটের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

এবার সদর থানায় সভাপতি পদে প্রার্থী হয়েছেন– লক্ষ্মীপুর সদর থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক হুমায়ুন কবির পাটওয়ারী, লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও সদর উপজেলার সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন বকুল, বাংলাদেশ সরকারী কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সভাপতি হেদায়েত হোসেন এবং লক্ষ্মীপুর বারের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ছাত্রনেতা মোসাদ্দেক সবুজ।

সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হচ্ছেন– জেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক সৈয়দ সাইফুল হাসান পলাশ, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মনিরুজ্জামান পাটওয়ারী, দক্ষিণ হামছাদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মীর শাহ আলম, চর রমণীমোহন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন মেম্বার।

লক্ষ্মীপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রার্থী হচ্ছেন– লক্ষ্মীপুর পৌর আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি ইসমাইল হোসেন, জেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক সৈয়দ আহমদ পাটওয়ারী এবং জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন ভূঁইয়া আজাদ। সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হচ্ছেন– পৌর আওয়ামী লীগের বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন বাবর, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক নেতা ও পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন মিঠু প্রমুখ।

১১ মে ২০২২ সালের সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন– চট্টগ্রাম বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ স্বপন, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী এবং কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী প্রমুখ। লক্ষ্মীপুর জেলা শহরের এন আহম্মদিয়া প্রাইমারি স্কুল মাঠে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

সদর থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ও সভাপতি প্রার্থী হুমায়ুন কবির বলেন, ‘ছাত্রলীগ করা সময় থেকে দলের জন্য কাজ করে আসছি। দুর্দিনে দলের সঙ্গে ছিলাম। দলের সিদ্ধান্ত কখনও অমান্য করিনি। আশা করি দল আমাকে মূল্যায়ন করবে।’

আরেক সভাপতি প্রার্থী বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী সমিতির সভাপতি হেদায়েত হোসেন বলেন, ‘সরকারি চাকরি করেও দলেরও জন্য কাজ করেছি। এটা ঠিক, লক্ষ্মীপুর জেলায় দলীয় কোনও কর্মকাণ্ডে আমার ভূমিকা ছিল না।’

সদর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক সৈয়দ সাইফুল হাসান পলাশ বলেন, ‘কলেজ ছাত্রলীগ, জেলা ছাত্রলীগ ও যুবলীগের দায়িত্ব পালন করেছি দলের দুর্দিনে। দীর্ঘদিন থেকে রাজনীতি করে আসছি। আশা করছি, দলের কাউন্সিলর ও কেন্দ্রীয় নেতারা আমার কাজের মূল্যায়ন করবেন।’

সদর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান বলেন, ‘২০০১ সাল থেকে দলের দুর্দিনে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে রাজপথে আন্দোলন করেছি। দলের জন্য জেল খেটেছি, দলের সঙ্গে কখনও বেঈমানি করিনি। সুবিধাবাদী কিছু নেতার মতো বিদ্রোহী প্রার্থী হইনি। দল অবশ্যই আমার কাজের প্রতিদান দেবে এই সম্মেলনে।’

পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রার্থী ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন আজাদ বলেন, ‘বর্তমান কমিটিতে সাবেক ছাত্রলীগের নেতাদের দায়িত্ব দিলে দল সুসংগঠিত হবে। দলীয় সভানেত্রীর হাত শক্তিশালী হবে।’

পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রার্থী ও জেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক সৈয়দ আহম্মদ পাটওয়ারী বলেন, ‘দলের জন্য কাজ করে আসছি। আওয়ামী লীগ করতে গিয়ে বিভিন্ন সময়ে জেল খেটেছি। দুর্দিনে দলকে ছেড়ে যাইনি, রাজপথে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছি।’

পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আরিফ হোসেন মিঠু বলেন, ‘সময় এসেছে সাবেক ছাত্রলীগ নেতাদের আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দেওয়ার। আমাকে দল মূল্যায়ন করলে লক্ষ্মীপুর পৌর আওয়ামী লীগ হবে সবচেয়ে শক্তিশালী সংগঠন। আমি দলের সবাইকে নিয়ে কাজ করবো।’

পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ও দলের বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন বাবর বলেন, ‘তিন বছর সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছি। আমি দায়িত্বে থাকাকালে সংগঠনকে শক্তিশালী করেছি। লক্ষ্মীপুর পৌরসভায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে বিজয়ী করেছি। আশা করি দল আমাকে মূল্যয়ন করবে।’

 

 

 

/এমএএ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
বিদ্যুৎ কোম্পানিতে চাকরি, শিক্ষাগত যোগ্যতা এইচএসসি
বিদ্যুৎ কোম্পানিতে চাকরি, শিক্ষাগত যোগ্যতা এইচএসসি
টিভিতে আজ
টিভিতে আজ
‘এতদিন শুকনো খাবার খেয়ে থাকা যায়?’
‘এতদিন শুকনো খাবার খেয়ে থাকা যায়?’
নির্গমন কমাতে বাইডেনের ক্ষমতা কমিয়ে দিলো সুপ্রিম কোর্ট
নির্গমন কমাতে বাইডেনের ক্ষমতা কমিয়ে দিলো সুপ্রিম কোর্ট
এ বিভাগের সর্বশেষ
গোমতীর পানি কমে বেরিয়ে আসছে ক্ষত
গোমতীর পানি কমে বেরিয়ে আসছে ক্ষত
খাগড়াছড়িতে ১১ সরকারি প্রতিষ্ঠানের কোটি টাকার বিদ্যুৎ বিল বকেয়া
খাগড়াছড়িতে ১১ সরকারি প্রতিষ্ঠানের কোটি টাকার বিদ্যুৎ বিল বকেয়া
মন্ত্রিপরিষদের নির্দেশনা: বি-বাড়িয়া নয়, এখন থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া
মন্ত্রিপরিষদের নির্দেশনা: বি-বাড়িয়া নয়, এখন থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এক কাউন্সিলরের মামলায় আরেক কাউন্সিলরের জেল ও জরিমানা
এক কাউন্সিলরের মামলায় আরেক কাউন্সিলরের জেল ও জরিমানা
চট্টগ্রাম কাস্টমসে ৫৯ হাজার ২৫৬ কোটি টাকা রাজস্ব আদায়
চট্টগ্রাম কাস্টমসে ৫৯ হাজার ২৫৬ কোটি টাকা রাজস্ব আদায়