X
শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪
১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

পিবিআই প্রধানের বিরুদ্ধে বাবুল আক্তারের করা মামলার আবেদন খারিজ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪:০৪আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫:৪৩

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) প্রধান বনজ কুমার মজুমদারসহ ছয় পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সাবেক এসপি বাবুল আক্তারের করা মামলার আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন আদালত। রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ ড. বেগম জেবুন্নেছা শুনানি শেষে আবেদনটি খারিজ করেন। একইসঙ্গে ফেনী কারাগারে নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য ওই কারাগারের জেল সুপারকে নির্দেশের আবেদনও নামঞ্জুর করেছেন আদালত।

আদালতের সরকারি কৌঁসুলি বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট মো. ফখরুদ্দিন চৌধুরী বাংলা ট্রিবিউনকে এই তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ‘হেফাজতে নির্যাতনের যে অভিযোগ বাবুল আক্তার করেছেন তা এক বছর ৪-৫ মাস আগের। এরই মধ্যে তিনি জামিন শুনানিতে কখনও এই অভিযোগ তোলেননি। তার বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেওয়া হয়েছে। মামলা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে এই অভিযোগ তুলেছেন বাবুল আক্তার। এ কারণে পিবিআই প্রধান বনজ কুমার মজুমদারসহ ছয় পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে করা মামলার আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে ফেনী কারাগারে নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য জেল সুপারকে নির্দেশের আবেদনও নামঞ্জুর করেন। আওতাভুক্ত না হওয়ায় এই আবেদন খারিজ করা হয়।’

পিবিআই হেফাজতে নির্যাতনের অভিযোগ এনে গত ৮ সেপ্টেম্বর পিবিআই প্রধান বনজ কুমার মজুমদারসহ ছয় পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আইনজীবীর মাধ্যমে আদালতে মামলার আবেদন করেন কারাগারে থাকা বাবুল আক্তার। চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ ড. বেগম জেবুন্নেছার আদালতে তিনি মামলার আবেদন করেন।

বনজ কুমার মজুমদার ছাড়াও পিবিআই চট্টগ্রাম জেলা ইউনিটের এসপি নাজমুল হাসান, চট্টগ্রাম মেট্রো ইউনিটের এসপি নাঈমা সুলতানা, পিবিআইয়ের সাবেক পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা, এ কে এম মহিউদ্দিন সেলিম ও সংস্থাটির চট্টগ্রাম জেলা ইউনিটের পরিদর্শক কাজী এনায়েত কবিরকে আসামি করা হয়েছে।

আবেদনে নির্যাতন ও হেফাজতে মৃত্যু (নিবারণ) আইন, ২০১৩-এর ১৫(১) ধারা এবং সংশ্লিষ্ট আইনের ৫(২) ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে।

এতে উল্লেখ করা হয়েছিল, ২০২১ সালের ১০ থেকে ১৭ মে পর্যন্ত সময়ে পিবিআই চট্টগ্রাম মেট্রো ও জেলা অফিসে বাবুল আক্তারের ওপর নির্যাতন করা হয়। স্ত্রী হত্যার ঘটনায় স্বীকারোক্তি দেওয়ার জন্য বাবুল আক্তারের সঙ্গে নিষ্ঠুর আচরণ করা হয়। এই কারণে মামলার আবেদন করা হয়।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৫ জুন চট্টগ্রাম নগরের জিইসি মোড় এলাকায় গুলি করে ও কুপিয়ে বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতুকে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। সেই মামলায় বর্তমানে কারাগারে আছেন তিনি। সম্প্রতি তদন্ত শেষে পিবিআই এই মামলায় বাবুল আক্তারসহ সাত জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আদালতে জমা দিয়েছেন। বাবুল আক্তার বর্তমানে ফেনী কারাগারে আছেন।

/এফআর/এমওএফ/
সম্পর্কিত
মিতু হত্যা: বাবুল আক্তারকে চট্টগ্রাম থেকে পাঠানো হলো ফেনী কারাগারে
আদালতে সাক্ষী মোস্তাইন বললেনবাবুল আক্তারের সোর্স মুছাকে পাঠানো হয় ৪৯ হাজার টাকা
বাবুলের নির্দেশে মিতুকে হত্যা, আদালতকে নিখোঁজ মুছার স্ত্রী
সর্বশেষ খবর
টসে জিতে কুমিল্লাকে ব্যাটিংয়ে পাঠালো বরিশাল
টসে জিতে কুমিল্লাকে ব্যাটিংয়ে পাঠালো বরিশাল
স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনার বর্ণনা দিলেন আহত স্বামী
স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনার বর্ণনা দিলেন আহত স্বামী
‘ভবন ব্যবস্থাপনায় ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে আসছে সরকার’
তদন্তের দাবি রাজনীতিক ও সংগঠকদের‘ভবন ব্যবস্থাপনায় ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে আসছে সরকার’
ডার্ক সার্কেল দূর করতে কফি ব্যবহার করুন ৫ উপায়ে
ডার্ক সার্কেল দূর করতে কফি ব্যবহার করুন ৫ উপায়ে
সর্বাধিক পঠিত
বাংলাদেশ থেকে যাওয়া হিন্দুদের নাগরিকত্ব দিতে নতুন পোর্টাল করছে ভারত
বাংলাদেশ থেকে যাওয়া হিন্দুদের নাগরিকত্ব দিতে নতুন পোর্টাল করছে ভারত
দুই ছেলের আবদার মেটাতে গিয়ে লাশ হলেন মা’সহ ৩ জনই
দুই ছেলের আবদার মেটাতে গিয়ে লাশ হলেন মা’সহ ৩ জনই
আগুন কেড়ে নিলো ইতালি প্রবাসী মোবারকের পরিবারের সবাইকে
আগুন কেড়ে নিলো ইতালি প্রবাসী মোবারকের পরিবারের সবাইকে
বেইলি রোডের আগুনে অন্তত ৪৪ জনের মৃত্যু
বেইলি রোডের আগুনে অন্তত ৪৪ জনের মৃত্যু
প্রাণিসম্পদ অধিদফতরে নতুন ডিজি
প্রাণিসম্পদ অধিদফতরে নতুন ডিজি