X
শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪
২৯ চৈত্র ১৪৩০

বান্দরবান হানাদারমুক্ত দিবস আজ

বান্দরবান প্রতিনিধি
১৪ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৩:৩৪আপডেট : ১৪ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৩:৩৪

১৪ ডিসেম্বর ১৯৭১। এই দিনে বান্দরবান পার্বত্য জেলা (তৎকালীন বান্দরবান মহুকুমা) থেকে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীকে বিতাড়িত করে লাল সবুজের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়েছিল। আর এভাবেই আজকের দিনটিকে বান্দরবান হানাদারমুক্ত দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

মুক্তিযোদ্ধারা জানান, বান্দরবানে কোনও সম্মুখযুদ্ধ না হলেও ১৯৭১ সালের নভেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে পাকিস্তানি বাহিনীকে পরাস্ত করতে যুদ্ধ হয় বান্দরবানের দুর্গম সীমান্তবর্তী কয়েকটি এলাকায়। দুর্গম গহিন অরণ্যে বর্তমান রোয়াংছড়ি উপজেলার নোয়াপতং ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ড আন্তাহাপাড়া, কানাইজোপাড়ার পাহাড়ি এলাকায় বিক্ষিপ্তভাবে সংঘর্ষ চলে হানাদার বাহিনীর সঙ্গে। মুক্তিযোদ্ধাদের নেতৃত্ব দেন তৎকালীন ইপিআরের সুবেদার মেজর তাহের মোহাম্মদ আলী ওরফে টিএম আলী। প্রায় চার ঘণ্টা যুদ্ধ চলার পর সকাল ৮টায় পরিস্থিতি শান্ত হয়।

কানাইজোপাড়াবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শী মং চ উ মারমার তথ্যমতে, ১৫ নভেম্বর সারা রাত পাকিস্তানি বাহিনীর সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধাদের যুদ্ধ চলে। সেই যুদ্ধে শহিদ হন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সুবেদার মেজর টিএম আলী। পরবর্তী সময়ে বান্দরবানের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মুক্তিযোদ্ধারা একত্রিত হয়ে বিতাড়িত করেন হানাদার বাহিনীকে। এভাবে চলতে চলতে ১৪ ডিসেম্বর হানাদারমুক্ত হয় বান্দরবান জেলা।

মেজর তাহের মোহাম্মদ আলী বীর প্রতীকের কবর

বান্দরবান পার্বত্য জেলার মুক্তিযোদ্ধার সাবেক জেলা কমান্ডার ক্যাপ্টেন (অব.) আবুল কাশেম চৌধুরী জানান, তৎকালীন বান্দরবান মহুকুমা প্রশাসক শুক্কুর আলী, বান্দরবান বোমাং সার্কেল চিফ বোমাংগ্রী রাজা মং শৈ প্রু চৌধুরী ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে নিয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা সুবল চন্দ্র মুহুরির নেতৃত্বে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্যে দিয়ে ১৯৭১সালে ১৪ ডিসেম্বর ঘোষণা করা হয় বান্দরবান হানাদারমুক্ত দিবস।  বান্দরবান জেলায় স্বাধীনতা যুদ্ধে একমাত্র শহীদ খেতাবধারী মুক্তিযোদ্ধা তাহের মোহাম্মদ আলী (টিএম আলী) বীর প্রতীক। তার স্মৃতি রক্ষার্থে শহীদ হওয়া স্থানটিতে একটি স্মৃতিসৌধ নির্মাণের দাবি জানান তিনি। 

এদিকে ১৪ ডিসেম্বর বান্দরবান হানাদারমুক্ত দিবস ও শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ, জেলা প্রশাসন, বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন নানান কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

/কেএইচটি/
সম্পর্কিত
‘মিজোরাম কুকি-চিনকে নাশকতায় কখনোই মদত দেবে না’
বান্দরবানে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে সরকার
গরু চরাতে গিয়ে অপহরণের শিকার আরও ৬ জন
সর্বশেষ খবর
পোড়া ক্ষত কেড়ে নিয়েছে ঈদের আনন্দ
পোড়া ক্ষত কেড়ে নিয়েছে ঈদের আনন্দ
কীভাবে চলবে সদরঘাটে নিহত রিপনের সংসার?
কীভাবে চলবে সদরঘাটে নিহত রিপনের সংসার?
চায়ের দোকানে আ.লীগ ও যুবলীগের দুই নেতাকে গুলি
চায়ের দোকানে আ.লীগ ও যুবলীগের দুই নেতাকে গুলি
সৈকতে জনসমুদ্র!
সৈকতে জনসমুদ্র!
সর্বাধিক পঠিত
ঈদের দিনে ইসরায়েল থেকে ঢাকায় ফ্লাইট এলো কেন?
ঈদের দিনে ইসরায়েল থেকে ঢাকায় ফ্লাইট এলো কেন?
‘মিজোরাম কুকি-চিনকে নাশকতায় কখনোই মদত দেবে না’
‘মিজোরাম কুকি-চিনকে নাশকতায় কখনোই মদত দেবে না’
আলো ছড়াচ্ছে কুষ্টিয়ার বয়স্ক বিদ্যালয়
আলো ছড়াচ্ছে কুষ্টিয়ার বয়স্ক বিদ্যালয়
ঈদে ফাঁকা বাসা থেকে স্বর্ণালঙ্কার চুরি, নিয়ে গেলো ফ্রিজের মাছ-মাংসও
ঈদে ফাঁকা বাসা থেকে স্বর্ণালঙ্কার চুরি, নিয়ে গেলো ফ্রিজের মাছ-মাংসও
এস আলমের কারখানায় একের পর এক অগ্নিকাণ্ড, জনমনে নানা প্রশ্ন
এস আলমের কারখানায় একের পর এক অগ্নিকাণ্ড, জনমনে নানা প্রশ্ন