X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

করিমগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান সুমন বরখাস্ত

আপডেট : ২৪ মে ২০১৭, ১৪:৫৪

সাইফুল ইসলাম সুমন বিএনপি থেকে নির্বাচিত কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম সুমনকে বরখাস্ত করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে গত ২৩ মে এ ব্যাপারে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

সিনিয়র সহকারী সচিব লুৎফুন নাহার স্বাক্ষরিত এ প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, উপজেলা চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম সুমনের বিরুদ্ধে টিআর, কাবিখা, কাবিটা, এডিপি ও রাজস্ব তহবিল ব্যবহারে অনিয়ম, নিজ দফতরে অনুপস্থিত এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে অশালীন আচরণের অভিযোগে দু’জন ভাইস চেয়ারম্যান ও ১১ জন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান অনাস্থা দেন। এসব অভিযোগ তদন্তে প্রমাণিত হওয়ার পর উত্থাপিত অনাস্থা প্রস্তাবের পক্ষে ও বিপক্ষে ভোটগ্রহণ করা হয়। যাতে প্রস্তাবের পক্ষে ১৩ ভোট ও বিপক্ষে একটি ভোট পড়ে। অনাস্থা প্রস্তাব চার-পঞ্চমাংশের বেশি ভোটে গৃহীত হওয়ায় উপজেলা পরিষদ আইন, ১৯৯৮ [উপজেলা পরিষদ(সংশোধন) আইন, ২০১১ দ্বারা সংশোধিত] এর ১৩(ক) ধারার (১৩) উপধারা অনুসারে সাইফুল ইসলাম সুমনকে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণ করে চেয়ারম্যান পদটি শূন্য ঘোষণা করা হলো।

এ প্রজ্ঞাপনের অনুলিপি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়সহ নির্বাচন কমিশনের সচিবের কাছেও পাঠানো হয়। তাতে নির্ধারিত সময়ে শূন্য আসনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করার অনুরোধ করা হয়। 

জানা গেছে, বিএনপি থেকে নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম সুমনের সঙ্গে উপজেলা পরিষদ পরিচালনা নিয়ে দুই ভাইস চেয়ারম্যান, ১১টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং প্রশাসনের কর্মকর্তাদের দীর্ঘদিন থেকে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এ সব কারণে প্রকল্পের তালিকা প্রণয়ন ও অনুমোদন না হওয়ায় এ বছর বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি), টেস্ট রিলিফ (টিআর) ও কাজের বিনিময়ে টাকা (কাবিটা) কর্মসূচির বিপরীতে বরাদ্দ দেওয়া সাড়ে তিন কোটি টাকা ফেরত যাওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়।

এ পরিস্থিতিতে গত ৯ মার্চ উপজেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভায় বিএনপি থেকে নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম সুমনের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনে ইউপি চেয়ারম্যানরা। গত ৮ ও ৯ মে ঢাকা বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মোহাম্মদ মুনির হোসেন সরেজমিন করিমগঞ্জে গিয়ে অনাস্থা বিষয়ে তদন্ত করেন। ৯ মে তিনি উপজেলা চেয়ারম্যান, দুই ভাইস চেয়ারম্যান ও ১১ ইউপি সদস্যের অনাস্থার প্রস্তাবের পক্ষে-বিপক্ষে ভোট নেন।

কিশোরগঞ্জ স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক জহিরুল ইসলামের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা হলে তিনি বলেন, তদন্তের অংশ হিসেবে ৯ মে যে ভোটাভুটির আয়োজন হয় তাতে ১৪ ভোটের মধ্যে উপজেলা চেয়ারম্যান পেয়েছেন মাত্র এক ভোট। ১৩ জনই উনার বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন। তিনি বলেন, তদন্ত শেষ। এখন তদন্ত কর্মকর্তা প্রতিবেদন পাঠাবেন। এরপর ব্যবস্থা নেবে মন্ত্রণালয়।

এ বিষয়ে সাইফুল ইসলাম সুমনের প্রতিক্রিয়া জানতে তার মোবাইল ফোনে কল দেওয়া হলে তিনি তা ধরেননি।

কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. আজিমুদ্দিন বিশ্বাস বলেন, দীর্ঘদিন ধরে সমস্যাটি চলছিল। ইউপি চেয়াম্যানদের অসন্তোষ একপর্যায়ে অনাস্থায় রূপ নেয়। তারই প্রেক্ষাপটে তদন্ত শেষে তাকে বরখাস্ত করেছে স্থানীয় সরকার বিভাগ।

/বিএল/

বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
এসডিজি অর্জনে ‘মাই কনস্টিটিউয়েন্সি’ অ্যাপ কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে: স্পিকার
এসডিজি অর্জনে ‘মাই কনস্টিটিউয়েন্সি’ অ্যাপ কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে: স্পিকার
কারাগারে বন্দির সঙ্গে দেখা করতে এসে আটক নারী
কারাগারে বন্দির সঙ্গে দেখা করতে এসে আটক নারী
বঙ্গবন্ধু কেমিক্যাল মেট্রোলজি অলিম্পিয়াডে দেশসেরা শাবির রিফাত
বঙ্গবন্ধু কেমিক্যাল মেট্রোলজি অলিম্পিয়াডে দেশসেরা শাবির রিফাত
পিবিআই’র তদন্ত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলার নির্দেশ হাইকোর্টের
পিবিআই’র তদন্ত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলার নির্দেশ হাইকোর্টের
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
ঘরে মিললো মা ও ২ সন্তানের লাশ
ঘরে মিললো মা ও ২ সন্তানের লাশ
দোকানের শাটার ফেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ ছাত্রীকে যৌন নির্যাতন
দোকানের শাটার ফেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ ছাত্রীকে যৌন নির্যাতন
স্ত্রী ও দুই সন্তানের লাশ উদ্ধারের ঘটনায় স্বামী আটক
স্ত্রী ও দুই সন্তানের লাশ উদ্ধারের ঘটনায় স্বামী আটক
ভাদাইমাখ্যাত অভিনেতা আহসান আলী আর নেই
ভাদাইমাখ্যাত অভিনেতা আহসান আলী আর নেই
কাশিমপুর মহিলা কারাগারে হাজতির মৃত্যু
কাশিমপুর মহিলা কারাগারে হাজতির মৃত্যু