মামলার ভয় দেখিয়ে ব্যবসায়ীর টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে

Send
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২৩:৩৯, জানুয়ারি ২১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:০১, জানুয়ারি ২২, ২০২০

থানায় নিয়ে ডাকাতির মামলার ভয় দেখিয়ে এক গরুর ব্যবসায়ীর কাছ থেকে প্রায় লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে এক পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে। সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সামিউল ইসলামের বিরুদ্ধে শাহজাদপুরের পোরজনা ইউনিয়নের চর পোরজনা গ্রামের গরু ব্যবসায়ী আজাদ আলী শেখ ঘটনার প্রতিকার ও বিচার পেতে শাহজাদপুর পুলিশ সার্কেল অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন। সোমবার (২০ জানুয়ারি) এই লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়।

লিখিত অভিযোগে জানা যায়,‘পাবনার বেড়া উপজেলার হাটে গরু বিক্রি শেষে গত ১৪ জানুয়ারি সন্ধ্যায় বাড়ি ফেরার সময় ব্যবসায়ী আজাদসহ ৩ জনকে ধরে থানায় আনেন এসআই সামিউল। এ সময় তাদের থেকে গরুর বিক্রির প্রায় ৩ লাখ ৩৮ হাজার টাকা পুলিশ জমা নেন। পরে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে রাতে মুচলেকা দিয়ে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়। এসময় ৯৩ হাজার টাকা রেখে বাকি ২ লাখ ৪৫ হাজার টাকা ফেরত দেন এসআই সামিউল। বাকি টাকা চাইলে ডাকাতি মামলার ভয় দেখিয়ে তাদের থানা থেকে বিদায় করা হয়।’

এ ঘটনার পর ভুক্তভোগী গরু ব্যবসায়ী আজাদ উপজেলা চেয়ারম্যান, নির্বাহী অফিসার ও সার্কেল অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন।

শাহজাদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) দুপুরে বলেন, ‘নিয়মিত রুটিন চেকের সময় ওই তিন জনকে আটক করা হয়। পরে ওই ঘটনায় সাধারণ ডায়েরি করে গরু ব্যবসায়ী আজাদসহ তিন জনকে মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। এরপর পুলিশের বিরুদ্ধে ঊর্ধ্বতন বরাবর অভিযোগ দেওয়ার বিষয়টি বোধগম্য নয়।’

শাহজাদপুর সার্কেলের পুলিশ অফিসার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফাহমিদা হক শেলী বলেন,‘অভিযোগ পেয়ে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। দোষ প্রমাণিত হলে অবশ্যই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

পুলিশ সুপার আবু ইউসুফ মঙ্গলবার বিকালে বলেন,‘অভিযোগের বিষয়টি সার্কেল অফিসার তদন্ত করছেন। তদন্ত শেষে প্রাপ্ত ফলাফলের ভিত্তিতেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এদিকে অভিযুক্ত এসআই সামিউল বলেন, ‘গতিবিধি সন্দেহ হওয়ায় থানায় নিয়ে এসে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রাতে ছেড়ে দেওয়া হয় ব্যবসায়ীদের। তাদের কাছ থেকে কোনো টাকা রাখা হয়নি। সম্পূর্ণ টাকাই ফেরত দেওয়া হয়েছে।’

/এনএস/

লাইভ

টপ