মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাবাকে কুপিয়ে জখম

Send
রাজবাড়ী প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২২:৪২, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:০১, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২০

রাজবাড়ীরাজবাড়ী সদরের আলীপুরে স্কুলপড়ুয়া মেয়েকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় বাবা রিপন খোন্দকারকে (৪০) কুপিয়ে জখমের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তিনি এখন রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে আছেন। অভিযুক্তরা এখন মেয়েটির পরিবারের অন্য সদস্যদেরও হুমকি দিচ্ছে। মেয়েটি ভয়ে স্কুলে যেতে পারছে না। মেয়েটির পরিবারের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে ওই মেয়েটিকে উত্ত্যক্ত করে আসছে স্থানীয় কিছু বখাটে যুবক। এর প্রতিবাদ করায় গত ২০ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ১২টার দিকে আলীপুর এলাকায় মেয়েটির বাবাকে কুপিয়ে আহত করে তারা। শরীরে একাধিক সেলাইয়ের যন্ত্রণা নিয়ে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে এখন দিন কাটছে ওই বাবার। এদিকে, বখাটেদের ভয়ে বন্ধ হয়ে গেছে মেয়েটির লেখাপড়া।
ওই হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, রিপন খোন্দকারের ডান হাতে একাধিক সেলাই করা হয়েছে। যন্ত্রণায় চোখ দিয়ে পানি ঝরছে। পাশে বসে তার মাথায় হাত বুলিয়ে দিচ্ছে মেয়েটি। তাদের ছেলেশিশুকে নিয়ে আতঙ্কে আছেন রিপনের স্ত্রী মরিয়ম বেগম।
রিপন বলেন, ‘প্রায় বছরখানেক আগে থেকেই গ্রামের কিছু বখাটে আমার মেয়েকে নানাভাবে বিরক্ত করে আসছে। তাদের ভয়ে মেয়েটির লেখাপড়া বন্ধ হয়ে গেছে। গত ২০ ফেব্রুয়ারি রাত ১২টায় আমার বাড়ির পাশে সাউন্ড বক্সে উচ্চস্বরে গান বাজাতে থাকে তারা। এ সময় নিষেধ করলে ক্ষিপ্ত হয়ে তারা আমাকে কুপিয়ে জখম করে।’
মেয়েটি জানায়, অনেক দিন ধরে কিছু বখাটে তাকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছে। তাদের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বাবাকে এভাবে কোপানো হয়েছে।
রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. রবিউল আজম জানান, রোগীর ডান হাতে জখম ছিল। সেলাই করে হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে।
আলীপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. শওকত হাসান বলেন, ‘আমি বিষয়টি শুনেছি। খোঁজ নিয়ে দেখবো।’
রাজবাড়ী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) স্বপন কুমার মজুমদার জানান, ওই দিন রাতে সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ বিষয়ে বিস্তারিত খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। বিষয়টি তদন্তাধীন। পুলিশ অসহায় মানুষের পাশে আছে। মানুষের জানমাল রক্ষা ও নিরাপত্তায় পুলিশ সব সময় প্রস্তুত আছে।’

/আইএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ