নেত্রকোনায় প্রথম দুই করোনা রোগী শনাক্ত

Send
নেত্রকোনা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২৩:৫৯, এপ্রিল ১০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:১১, এপ্রিল ১১, ২০২০



নেত্রকোনানেত্রকোনায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত দুই রোগী শনাক্ত হয়েছেন। শুক্রবার (১০ এপ্রিল) বিকালে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের ল্যাবে পরীক্ষায় তাদের শরীরে কোভিড-১৯ ধরা পড়ে। আক্রান্তদের একজন খালিয়াজুরি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সিনিয়র নার্স (৪৮)। অপর জন সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর গ্রামের বাসিন্দা (৪৫)। তারা নিজ বাড়ি ও কর্মস্থলে রয়েছেন।

এদিকে, শুক্রবার সন্ধ্যা ছয়টায় খবর পাওয়ার পর পর জেলা প্রশাসন ও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে খালিয়াজুরি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও লক্ষ্মীপুর গ্রামটি লকডাউন করে দেওয়া হয়।

জেলা প্রশাসক মঈনউল ইসলাম সন্ধ্যায় বলেন, জেলায় এই প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী পাওয়া গেছে। এর মধ্যে একজন খালিয়াজুরি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সিনিয়র নার্স ও অপর জন সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর গ্রামের বাসিন্দা। লক্ষ্মীপুর গ্রামের ওই ব্যক্তি কয়েকদিন আগে ঢাকা থেকে বাড়িতে আসেন। জ্বর-সর্দি ও শ্বাসকষ্ট সমস্যা থাকায় বৃহস্পতিবার তার নমুনা সংগ্রহ করে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের ল্যাবে পাঠানো হয়েছিল। তিনি এখন বাড়িতেই আছেন।

জেলা প্রশাসক আরও বলেন, সবচেয়ে বেশি চিন্তা হাসপাতালের ওই সেবিকাকে নিয়ে। কারণ, তিনি এই কয়েক দিনে হয়তো অনেক রোগীকে সেবা দিয়েছেন। সে বিষয়ে অনুসন্ধান চালানো হচ্ছে। এছাড়া পুলিশ ওই গ্রামটি ও পুরো হাসপাতালটি লকডাউন করে দিয়েছে। তারা কীভাবে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, তা আমরা বের করার চেষ্টা করছি।

উল্লেখ্য গত কয়েকদিনে নেত্রকোনার বিভিন্ন এলাকা থেকে ৭১ জন রোগীর নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এরমধ্যে সবগুলোর নেগেটিভ রিপোর্ট আসে। গত বৃহস্পতিবার ১৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করে ময়মনসিংহে পাঠানো হলে তাদের মধ্যে এই দুই জনের কেভিড-১৯ শনাক্ত হয়।

আক্রান্তদের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে কিনা জানতে একাধিকবার সিভিল সার্জনের মোবাইলফোনে যোগাযোগ করা হলেও, তিনি ফোন রিসিভ করেননি। পরে সিভিল সার্জন অফিসের মেডিক্যাল অফিসার ডা. উত্তম কুমার পাল জানান, আক্রান্ত দুই জন বর্তমানে নিজ নিজ স্থানে অবস্থান করছে। অবস্থার অবনতি হলে তাদের আধুনিক সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে আনা হবে।

/টিটি/

লাইভ

টপ