ভারতীয়দের হাতে খুন, চার দিন পরও লাশ দেয়নি বিএসএফ

Send
হবিগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৬:০০, মে ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:০২, মে ২৮, ২০২০

লোকমান হোসেনভারতীয় নাগরিকদের হাতে খুন হওয়া বাংলাদেশির লাশ চার দিন পরেও ফেরত দেয়নি ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী-বিএসএফ। বৃহস্পতিবার (২৮ মে) সকালে বিজিবির হবিগঞ্জ ৫৫ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সামিউন নবী চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ২৪ মে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের গোপালনগরে এই হত্যার ঘটনা ঘটে। নিহত লোকমান হোসেন (৩২) হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী ধর্মঘর ইউনিয়নের মালঞ্চপুর গ্রামের মৃত আব্দুল হাসিমের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম করে লোকমান ভারতের মোহন এলাকায় তার আত্মীয়ের বাড়িতে যাচ্ছিলেন। ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের গোপালনগর পৌঁছাতেই এক দল ভারতীয় নাগরিক লোকমানকে গরু চোর বলে নির্মমভাবে পিটিয়ে জঙ্গলে ফেলে যায়। খবর পেয়ে ত্রিপুরা রাজ্যের সিধাই থানা পুলিশ মুমূর্ষ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে। পরে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসকরা লোকমানকে মৃত ঘোষণা করেন।

লোকমানের লাশ ফিরিয়ে আনতে বুধবার (২৭ মে) বিকালে বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী মোহনপুরে বিজিবি-বিএসএফ এর পতাকা বৈঠক হয়। বৈঠকে ভারতের পক্ষে বিএসএফ এর ১২০ ব্যাটালিয়নের মোহনপুর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার ইন্সপেক্টর শশি কান্ত ও বাংলাদেশের পক্ষে ৫৫ বিজিবির ধর্মঘর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার দেলোয়ার হোসেন ছিলেন। তবে বিএসএফ ময়নাতদন্ত রিপোর্ট ছাড়া লাশ হাস্তান্তর করতে চাইলে সমাধান ছাড়াই বৈঠক সমাপ্ত হয়।

লেফটেন্যান্ট কর্নেল সামিউন নবী চৌধুরী জানান, লোকমানকে কী কারণে মারা হয়েছে বিষয়টি স্পষ্ট নয়। ময়নাতদন্ত ছাড়া লাশ ফেরত দিতে চাইলে আমরা অস্বীকৃতি জানাই। তাই কিছুটা বিলম্ব হচ্ছে। তবে শিগগিরই তার লাশ ফিরিয়ে আনা হবে।

/এনএস/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ