মেয়েকে ছুরিকাঘাতের অভিযোগে মামলা, পিতা কারাগারে

Send
খুলনা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০১:৩১, আগস্ট ০৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:৩৮, আগস্ট ০৫, ২০২০



খুলনার পাইকগাছা উপজেলার সোলাদানা ইউপির বেতবুনিয়া গ্রামে মেয়েকে চাকু মেরে জখম করার অভিযোগে দায়ের মামলায় পিতাকে আটক করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। আটক পিতার নাম সিরাজুল ফকির। তার হেফাজত থেকে পুলিশ চাকুটি জব্দ করেছে। মেয়ে মরিয়াম তার মামলায় সৎ মাকেও অভিযুক্ত করেছেন।

বাদী মরিয়ম জানান, পিতা সিরাজুল ফকির দ্বিতীয় বিয়ের পর তিন বোন ও এক ভাইকে ঠিকমতো ভরণ পোষণ দিতেন না। এনিয়ে বিভিন্ন সময়ে ঝগড়া বা অশান্তি লেগে থাকতো।

মরিয়মের অভিযোগ, সর্বশেষ ৩ আগস্ট বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে বেতবুনিয়া বাজারের আহসানুর গোলদারের মুদি দোকানের সামনে গেলে পিতার হুকুমে সৎ মা রোজিনা বেগম, দাদা মজিদ ফকির তাকে ও ছোট বোন চম্পাসহ ৯ বছরের ছোট ভাই হাসানকে মারধর করতে থাকে। এক পর্যায়ে পিতা সিরাজুল ফকির ছোট বোন চম্পার ডান হাতে চাকু মেরে জখম করে। খবর পেয়ে পাইকগাছা থানার এসআই জাহিদ ঘটনাস্থলে পৌঁছে সিরাজুলকে আটক এবং চাকুটি জব্দ করেন।

পাইকগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এজাজ শফি জানান, মেয়ে মরিয়ম এর দায়ের করা মামলায় পিতা সিরাজুল ফকিরকে মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। 

 

/এএইচ/

লাইভ

টপ