ডালিয়া পয়েন্টে রেকর্ড ২৫৫ মিলিমিটার বৃষ্টি

Send
নীলফামারী প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৯:৪১, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:০৭, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০

নীলফামারীর বাবুপাড়া মহল্লার সড়কে জমে গেছে পানি।

টানা বৃষ্টিপাতের ফলে রবিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) নীলফামারীর ডালিয়া পয়েন্টে গত ২৪ ঘণ্টায় গড় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ২৫৫ মিলিমিটার। এটি জেলায় এ মৌসুমে সর্বোচ্চ গড় বৃষ্টিপাতের রেকর্ড। এমন অবিরাম বৃষ্টিতে ডুবে গেছে শহর ও গ্রামের রাস্তাঘাট, বসতবাড়ির আঙিনা ও ফসলি মাঠ। বেড়েছে ছোট বড় নদীর পানি। পাউবোর গেজ পাঠক ও পানি পরিমাপক নুরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, জেলার ডিমলা আবহাওয়া কার্যালয়ের আবহাওয়া সহকারী আনিছুর রহমান জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় গড় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ২২৬ মিলিমিটার। এতে উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে অনেকের বাড়িঘরের উঠানে পানি জমে গেছে।

উপজেলার খগাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের খগাখড়িবাড়ী গ্রামের বাসিন্দা আছির উদ্দিন (৫৭) জানান, সকাল থেকে যে পরিমাণ পানি হয়েছে তাতে গোয়াল ঘর থেকে গরু পর্যন্ত বের করতে পারিনি। এছাড়াও আলোক চুলায় রান্না করে পরিবারের লোকজন খেয়েছে। শুধু বৃষ্টি আর বৃষ্টি। আজ সারাদিন এরকম বৃষ্টি হলে শুকনা খাবার খেয়ে দিনযাপন করতে হবে।

তিস্তা ব্যারেজের ডালিয়া পয়েন্ট

জেলার সৈয়দপুর আবহাওয়া কার্যালয়ের আবহাওয়া সহকারী লোকমান হাকিম মুঠোফোনে জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ২০২ মিলিমিটার। এতে উপজেলার অধিকাংশ মানুষ কর্মহীন পড়ে। বিশেষ করে দিন এনে দিন খাওয়া মানুষগুলো বিড়ম্বনায় পড়েছে। একদিকে বৈশ্বিক করোনা মহামারিতে শ্রমজীবী মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে জীবনযাপন করছে অপরদিকে, সপ্তাহব্যাপী বৃষ্টিতে ঘরবন্দি হয়ে এসব মানুষ আরও বিপদে পড়েছে।

ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানায়, তিস্তা নদীসহ জেলার চারালকাটা, যমুনেশ্বরী, চিকলি, কুমলাই, দেওনাই নদীর পানি সামান্য বৃদ্ধি পেয়েছে। তিস্তা নদীর পানি ডালিয়া পয়েন্টে আজ রবিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে বিপৎসীমার (৫২.৬০) ২০ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে পানি প্রবাহিত হলেও ওই পয়েন্টে গতকাল সন্ধ্যা ৬টায় বিপৎসীমার ১০ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে পানি প্রবাহ অব্যাহত ছিল।

 

/টিএন/

লাইভ

টপ
X