কলারোয়ায় একই পরিবারের ৪ সদস্য খুন: ৫ দিনের রিমান্ডে রায়হানুল

Send
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৬:৩৩, অক্টোবর ১৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৩১, অক্টোবর ১৮, ২০২০

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ৪ খুনের ঘটনায় নিহত গৃহকর্তার ছোটভাই রায়হানুলের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।



সাতক্ষীরার কলারোয়ায় দুই সন্তানসহ স্বামী-স্ত্রী খুনের ঘটনায় নিহত শাহিনুরের ছোট ভাই রায়হানুল ইসলামকে ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

রবিবার (১৮ অক্টোবর) দুপুর ১টার দিকে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক ইয়াসমিন নাহারের আদালতে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেছিলেন সিআইডির কর্মকর্তা। শুনানি শেষে আদালত ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে  শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) বেলা আড়াইটার দিকে কলারোয়ায় চাঞ্চল্যকর চার খুন মামলায় সন্দিগ্ধ আসামি হিসেবে গ্রেফতার দেখিয়ে নিহতের ছোট ভাই রায়হানুল ইসলামকে আদালতে পাঠানো হয়। সাতক্ষীরা কোর্ট ইন্সপেক্টর অমল কুমার রায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ সূত্র জানায়, এর আগে বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) তাকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়।

পুলিশ সূত্র জানায়, রায়হানুল ইসলামকে বৃহস্পতিবার আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তার কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। তবে তদন্তের স্বার্থে তা প্রকাশ করা যাবে না। তাকে আমলি আদালত-২ এর বিচারক ইয়াসমিন নাহারের আদালতে ১০ দিনের রিমান্ড চাওয়া হলে বিচারক ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

প্রসঙ্গত বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) ভোররাতে সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার হেলাতলা ইউনিয়নের খলসি গ্রামে একই পরিবারের চার জনকে গলা কেটে হত্যা করা হয়। নিহতরা হলেন খলসি গ্রামের শাহাজান আলীর ছেলে হ্যাচারি মালিক শাহিনুর রহমান, তার স্ত্রী সাবিনা খাতুন, ছেলে সিয়াম হোসেন মাহি  ও মেয়ে তাসনিম। পরে কলারোয়ার ব্রজবক্সা গ্রামে নানার বাড়িতে চার জনকে দাফন করা হয়। রাতে শাহিনুরের শাশুড়ি ময়না খাতুন বাদী হয়ে কলারোয়া থানায় অজ্ঞাতদের আসামি করে হত্যা মামলা (নম্বর-১৪) দায়ের করেন। এ মামলা তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় সিআইডি পুলিশকে। এ ঘটনায় নিহত শাহিনুরের ছোট ভাই রায়হানুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি পুলিশ। রায়হানুল ইসলামকে ১০ দিনের রিমান্ড চাওয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। শাহিনুরের চার মাসের মেয়ে মারিয়া সুলতানার দায়িত্ব নিয়েছেন ডিসি এসএম মোস্তফা কামাল। তিনি ওই শিশুর সব ব্যয় বহন করবেন বলে জানিয়েছেন। শিশুটি বর্তমানে হেলাতলা ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য নাসিমা খাতুনের হেফাজতে রয়েছে।

 

 

/টিএন/এমএমজে/

লাইভ

টপ
X