X
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪
২১ ফাল্গুন ১৪৩০

যৌন হয়রানির অভিযোগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসক বরখাস্ত

রাবি প্রতিনিধি
০৫ নভেম্বর ২০২৩, ১৬:৫৪আপডেট : ০৫ নভেম্বর ২০২৩, ১৬:৫৮

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষিকার মেয়েকে যৌন হয়রানির অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয় মেডিক্যাল সেন্টারের উপ-প্রধান চিকিৎসক রাজু আহমেদকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে প্রশাসন। একইসঙ্গে অভিযোগ তদন্তে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

রবিবার (০৫ নভেম্বর) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পাণ্ডে। 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‌‘যৌন হয়রানির অভিযোগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় মেডিক্যাল সেন্টারের উপ-প্রধান চিকিৎসক রাজু আহমেদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। রবিবার থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হয়েছে। চিকিৎসক রাজুর বিরুদ্ধে আনা যৌন হয়রানির অভিযোগ তদন্তের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ইতিমধ্যে তিন সদস্যের কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এছাড়া অভিযোগ তদন্তের জন্য যৌন হয়রানি ও নিপীড়ন নিরোধ বিষয়ক অভিযোগ কমিটিকেও দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।’

এদিকে রবিবার সকালে ওই চিকিৎসকের দ্রুত বহিষ্কার, গ্রেফতার ও বিচার দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবনের সামনে প্যারিস রোডে মানববন্ধন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি এ কর্মসূচির আয়োজন করে। শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক বোরাক আলীর সঞ্চলনায় কর্মসূচিতে সংহতি জানিয়ে অংশ নেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা মহিলা ক্লাব ও বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ। কর্মসূচিতে চার শতাধিক শিক্ষক-শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন। এর আগে রাজুর দ্রুত বহিষ্কারের দাবিতে প্রশাসনিক ভবনের ফটকে তালা দেন শিক্ষার্থীরা। পরে প্রক্টর, জনসংযোগ প্রশাসক ও ছাত্র উপদেষ্টার উপস্থিতিতে তালা খুলে দেওয়া হয়।

মানববন্ধনে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি রাশেদা খালেক বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে দাঁড়িয়ে এ ধরনের কথা বারবার বলতে আমাদের মাথা নিচু হয়ে আসে। যৌন হয়রানির কাজগুলো যখন বিশ্ববিদ্যালয়কেন্দ্রিক হয়, তখন লজ্জায় আমাদের মুখ লুকানোর জায়গা থাকে না। নারীরা যেখানে কর্মক্ষেত্রে যাচ্ছে সেখানে এ ঘটনাগুলো ঘটছে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসাকেন্দ্রে হাজার হাজার নারী শিক্ষার্থী, নারী শিক্ষক সেবা নিতে যান। হাইকোর্ট নির্দেশিত প্রত্যেক শিক্ষাঙ্গনে যৌন হয়রানি প্রতিরোধ সেল আছে। আমাদের এখানে যে সেল আসে, সেখানে দ্রুত এই বিষয়সহ আগে যে ঘটনাগুলো ঘটেছিল, সেগুলোর বিষয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে হবে।’ 

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক ও ফোকলোর বিভাগের অধ্যাপক মোবাররা সিদ্দিকা বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে কোনও যৌন নিপীড়কের থাকার অধিকার নেই। বিশ্ববিদ্যালয়ে যে দুটি কারণে চাকরিচ্যুত হয়, তার অন্যতম একটি নৈতিক স্খলন। এ ঘটনার পরে আমরা আরও অনেক জায়গা থেকে তার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগের কথা শুনতে পাচ্ছি। এমনকি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষিকাও হয়রানির শিকার হয়েছেন। এমন যৌন নিপীড়ককে আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ে দেখতে চাই না।’ 

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের আহ্বায়ক অধ্যাপক আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘আমি সিন্ডিকেট সদস্য ছিলাম। আমি জানি এখনকার বিধি ব্যবস্থাগুলো। বিশ্ববিদ্যালয়ের যে আইন আছে, সেখানে রাজুকে বহিষ্কার করতে কোনও বাধা নেই। সে দুষ্কৃতকারী, নারী নির্যাতনকারী ও মানসিকভাবে বিকলঙ্গ। বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরি করার অধিকার নেই তার।’ 

গত সোমবার (৩০ অক্টোবর) রাত ৮টা ৪০ মিনিটের দিকে নগরীর তালাইমারি এলাকার আমেনা ক্লিনিকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষিকার অষ্টম শ্রেণি পড়ুয়া কিশোরীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ ওঠে চিকিৎসক রাজু আহমেদের বিরুদ্ধে। ঘটনার পরদিন বোয়ালিয়া মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর মা।

/এএম/
সম্পর্কিত
‘হিজাব না পরায়’ ছাত্রীদের চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগে শিক্ষিকা বরখাস্ত
মুরাদের ফোন ও ল্যাপটপে যৌন হয়রানির প্রমাণ মিলেছে
ভিকারুননিসার শিক্ষার্থীদের যৌন হয়রানি: শিক্ষক মুরাদ কারাগারে
সর্বশেষ খবর
গর্ভপাতকে সাংবিধানিক অধিকার দিলো ফ্রান্স
গর্ভপাতকে সাংবিধানিক অধিকার দিলো ফ্রান্স
চাকরি না করেই নিয়েছেন বেতন-ভাতা, শখ অধ্যক্ষ হওয়া
চাকরি না করেই নিয়েছেন বেতন-ভাতা, শখ অধ্যক্ষ হওয়া
প্রার্থিতা বাতিলের মামলায় জিতলেন ট্রাম্প
প্রার্থিতা বাতিলের মামলায় জিতলেন ট্রাম্প
ভেঙে পড়বো না, কীভাবে জেতা যায় সেই চেষ্টা করবো: জাকের
ভেঙে পড়বো না, কীভাবে জেতা যায় সেই চেষ্টা করবো: জাকের
সর্বাধিক পঠিত
শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি খেলাফত মজলিসের
শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি খেলাফত মজলিসের
৩ কারণে কাক কমছে ঢাকায়, পরিবেশ বিপর্যয়ের আশঙ্কা
৩ কারণে কাক কমছে ঢাকায়, পরিবেশ বিপর্যয়ের আশঙ্কা
সাত মসজিদ রোডের সব বুফে রেস্তোরাঁ বন্ধ
সাত মসজিদ রোডের সব বুফে রেস্তোরাঁ বন্ধ
বাংলাদেশ ভ্রমণ শেষে ভারতে গিয়েই সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার ব্রাজিলিয়ান তরুণী
বাংলাদেশ ভ্রমণ শেষে ভারতে গিয়েই সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার ব্রাজিলিয়ান তরুণী
ইউক্রেন অবশ্যই রাশিয়ার অংশ: পুতিন মিত্র
ইউক্রেন অবশ্যই রাশিয়ার অংশ: পুতিন মিত্র