X
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২২, ৪ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

তুলার দাম বেশি, লেপ-তোশক কিনতে এসে ফিরে যাচ্ছেন ক্রেতা

আপডেট : ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:০৩

নীলফামারীতে শীত পড়তে শুরু করেছে। জেলা শহরের বিভিন্ন এলাকায় আগাম প্রস্ততি হিসেবে লেপ-তোশক কিনতে দোকানে ভিড় করছেন ক্রেতারা। চাহিদা যেমন বেড়েছে, তেমন ব্যস্ততা বেড়েছে কারিগরদের। তবে তুলার দাম বাড়ায় ক্ষুব্ধ ক্রেতা-বিক্রেতারা। অনেকে লেপ-তোশকের দাম শুনে ফিরে যাচ্ছেন।

শহরের কালিবাড়ী মোড়ের শান্ত বেডিং হাউজের মালিক নুর হোসেন বাবু বলেন, এবার তুলা ও লেপ-তোশকের কাপড়ের দাম বাড়ায় ক্ষুব্ধ ক্রেতা-বিক্রেতারা। গত এক মাস আগে ব্লেজার প্রতিকেজি তুলার দাম ছিল ৩০ থেকে ৩৫ টাকা। আর এখন সেই তুলার দাম বেড়ে হয়েছে ৪৫ থেকে ৫০ টাকা।

তুলার দাম বাড়ায় ক্ষুব্ধ ক্রেতা-বিক্রেতারা

প্রায় এক সপ্তাহ ধরে ডোমার, ডিমলা ও জলঢাকায় শীত পড়তে শুরু করেছে। এতে বাজারে তুলার দোকানগুলোতে লেপ-তোশক বানাতে ভিড় করছেন অনেকে। আবার অনেকেই শুধু তুলা কিনতে দোকানগুলোতে ভিড় করছেন। আগে প্রতিটি লেপ এক থেকে দেড় হাজার টাকায় বিক্রি হতো। বর্তমানে তা বেড়ে পরিমাপ অনুযায়ী বিক্রি হচ্ছে দেড় হাজার থেকে দুই হাজার টাকায়। আর তোশক দুই হাজার থেকে বেড়ে আড়াই হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

নীলফামারী হাজী মহসিন সড়কের দুলাল বেডিং স্টোরে লেপ কিনতে আসা খতিবর রহমান খোকন বলেন, গত কয়েকদিন ধরে উত্তরের এই অঞ্চলে শীত ও কুয়াশা পড়তে শুরু করেছে। পুরোনো লেপ-তোশক ইঁদুর কেটে ফেলছে। তাই নতুন করে বানাতে দোকানে এসেছি। তবে কাপড় ও তুলার দাম বেশি হওয়ায় বাড়তি টাকা গুনতে হচ্ছে। আগে লেপ মেরামত বা বানাতে কারিগররা ২০০-২৫০ টাকা মজুরি নিতো। এখন নিচ্ছে ৩০০ টাকা।

জেলা শহরের নিউ বাবুপাড়া মুরগী হাটি মহল্লার আশেদা বেগম তোশক কিনতে এসে বলেন, অল্প আয়ের সংসার। কম দামে তোশক বানাতে এসে অবাক হলাম। সাত দিন আগে তুলার দাম শুনে গেলাম ৩৫ থেকে ৪০ টাকা, আজ কিনতে এসে দাম চাচ্ছে ৫০ টাকা কেজি।

লেপ-তোশকের দাম শুনে ফিরে যাচ্ছেন অনেকে

মরাল সংঘ মোড় এলাকার লেপ-তোশকের কারিগর আনোয়ার হোসেন বলেন, বছরে ৬-৭ মাস অলস সময় কাটাতে হয়। কিন্তু শীতের দুই থেকে তিন মাস আমাদের মৌসুম। গত কয়েকদিন ধরে শীত পড়ায় লেপ-তোশকের চাহিদা বেড়েছে। তাই আমাদের কাজের ব্যস্ততাও বেড়েছে। তবে তুলা, কাপড় ও সুতার দাম বেড়ে যাওয়ায় ক্রেতারা দরদাম করে চলে যাচ্ছে।

দুলাল বেডিং স্টোরের তুলা বিক্রেতা দুলাল শেখ বলেন, তুলা ও কাপড়ের দাম বেশি। তুলার দাম প্রতি কেজি ৩০ থেকে ৩৫ টাকা বেড়েছে। একইভাবে কাপড়ে গজ প্রতি ১০ থেকে ১২ টাকা বেড়েছে। তবে এটা শিকার করতে হবে আগের চেয়ে কাজের একটু চাপ বেড়েছে। সেই সাথে বেচাকেনাও বাড়ছে।

/এসএইচ/
সম্পর্কিত
তুলে ফেলা হলো ১০ হাজার তরমুজ গাছ  
তুলে ফেলা হলো ১০ হাজার তরমুজ গাছ  
ইভিএমে ভোট দ্রুত হলে ব্যবধান বড় হতো: আইভী 
ইভিএমে ভোট দ্রুত হলে ব্যবধান বড় হতো: আইভী 
আপত্তিকর পোস্ট দেওয়ায় ৭ বছরের জেল, লাখ টাকা জরিমানা
আপত্তিকর পোস্ট দেওয়ায় ৭ বছরের জেল, লাখ টাকা জরিমানা
পুলিশের পিকআপ পুকুরে, ২ এসআই নিহত
পুলিশের পিকআপ পুকুরে, ২ এসআই নিহত

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
তুলে ফেলা হলো ১০ হাজার তরমুজ গাছ  
তুলে ফেলা হলো ১০ হাজার তরমুজ গাছ  
ইভিএমে ভোট দ্রুত হলে ব্যবধান বড় হতো: আইভী 
ইভিএমে ভোট দ্রুত হলে ব্যবধান বড় হতো: আইভী 
আপত্তিকর পোস্ট দেওয়ায় ৭ বছরের জেল, লাখ টাকা জরিমানা
আপত্তিকর পোস্ট দেওয়ায় ৭ বছরের জেল, লাখ টাকা জরিমানা
পুলিশের পিকআপ পুকুরে, ২ এসআই নিহত
পুলিশের পিকআপ পুকুরে, ২ এসআই নিহত
রংপুরে সংক্রমণের ঊর্ধ্বমুখী, একদিনে শনাক্ত ৪৯
রংপুরে সংক্রমণের ঊর্ধ্বমুখী, একদিনে শনাক্ত ৪৯
© 2022 Bangla Tribune