X
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
৮ ফাল্গুন ১৪৩০

নাতিকে রক্ষা করতে গিয়ে প্রাণ গেলো দাদারও

জামালপুর প্রতিনিধি
০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭:৫৬আপডেট : ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭:৫৬

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দাদা-নাতির মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার কামরাবাদ ইউনিয়নের কান্দারপাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। সরিষবিাড়ী থানার ওসি মহব্বত কবীর আহমদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন

এলাকাবাসী জানান, উপজেলার কামরাবাদ ইউনিয়নের কান্দারপাড়া গ্রামের মজিবর রহমান (৬০) মঙ্গলবার বাড়ির পাশের জমিতে বিদ্যুৎচালিত সেচ যন্ত্র দিয়ে সেচের কাজ করছিলেন। এ সময় তার নাতি কাওসার (৩) ওই সেচ যন্ত্রের তারে জড়িয়ে যায়। কাওসারকে উদ্ধার করতে গেলে দাদাও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। পরে তাদেরকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সরিষাবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। কাওসারের বাবার নাম রাজা মিয়া।

এ বিষয়ে কামরাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম জানান, বিদ্যুৎচালিত সেচ যন্ত্রের তারে মজিবর রহমান ও তার নাতি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়। পরে তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

/এফআর/
সম্পর্কিত
‘প্রবেশ নিষিদ্ধ’ ভবনের ছাদে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মারা গেলেন আরেকজন
ত্রিশালে তিনতলার ছাদ থেকে পড়ে দুই শ্রমিকের মৃত্যু
ভবন নির্মাণের মাটি পরীক্ষার সময়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ৩ শ্রমিকের মৃত্যু
সর্বশেষ খবর
বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কে ‘নতুন অধ্যায়’: কী চায় দুই দেশ?
বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কে ‘নতুন অধ্যায়’: কী চায় দুই দেশ?
বিশেষ দিনগুলোতে ফুল বিক্রি কমে এসেছে
বিশেষ দিনগুলোতে ফুল বিক্রি কমে এসেছে
‘সুষম উন্নয়ন নিশ্চিতে ঐতিহ্যকে ধারণ করে এগোতে হবে’
‘সুষম উন্নয়ন নিশ্চিতে ঐতিহ্যকে ধারণ করে এগোতে হবে’
ফুল দেওয়াকে কেন্দ্র করে নোয়াখালী প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে হট্টগোল-বিশৃঙ্খলা
ফুল দেওয়াকে কেন্দ্র করে নোয়াখালী প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে হট্টগোল-বিশৃঙ্খলা
সর্বাধিক পঠিত
কেন বারবার অকেজো হয় মেট্রো স্টেশনের টিকিট মেশিন?
কেন বারবার অকেজো হয় মেট্রো স্টেশনের টিকিট মেশিন?
চার মাস কারও সঙ্গে দেখা করবেন না খন্দকার মোশাররফ
চার মাস কারও সঙ্গে দেখা করবেন না খন্দকার মোশাররফ
বঙ্গবন্ধুর ছবি মুছে ব্যঙ্গচিত্র, জাবি ছাত্র ইউনিয়নের দুই নেতাকে বহিষ্কার
বঙ্গবন্ধুর ছবি মুছে ব্যঙ্গচিত্র, জাবি ছাত্র ইউনিয়নের দুই নেতাকে বহিষ্কার
আত্মীয় হলেই চাকরি মেলে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে!
আত্মীয় হলেই চাকরি মেলে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে!
‘বড় শাস্তির ভয়ে’ কারাগারে প্রাণ দিলেন হত্যা মামলার আসামি
‘বড় শাস্তির ভয়ে’ কারাগারে প্রাণ দিলেন হত্যা মামলার আসামি