X
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪
১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

অনেক দিন গোসল করতে করতে কেঁদেছি: অপু

বিনোদন রিপোর্ট
২৪ অক্টোবর ২০২২, ১৭:২২আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২২, ১২:৫০

রাশেদ মামুন অপুর শুরুটা মূলত কমেডি ঘরানার কাজ দিয়ে। প্রথম দিকে তার মুখে আঞ্চলিক ভাষার সংলাপগুলো দর্শকের মুখে হাসি জোগাতো বটে। কিন্তু একপর্যায়ে সেটা অভিনেতার জন্য যেমন অতৃপ্তির, তেমনি দর্শকের কাছেও বিরক্তির হয়ে ওঠে। সেই জায়গা থেকে এখন একেবারে বিপরীতমুখী অবস্থানে অপু। এখন তাকে ভয়ানক-সিরিয়াস সব চরিত্রে দেখা যায়; আর দর্শকের মনেও ছুঁয়ে যায় মুগ্ধতা।

নিজেকে আমূল বদলে ফেলার সেই গল্পটা নিয়ে রাশেদ মামুন অপু বলেন, ‘হাতে গোনা কয়েকটি কাজে আঞ্চলিক ভাষায় কাজ করেছি। কিন্তু এটা এত বেশি জনপ্রিয় হয়েছিল যে মনে হয় পঞ্চাশ-ষাটটি কাজ! তো ওই সময়ে আমি চাকরি করতাম, একটি এনজিওতে। সেজন্য মাসে ১৬-১৭ দিন ঢাকার বাইরে থাকতে হতো। এ কারণে মিডিয়ার কারও সঙ্গে যোগাযোগ করতাম না। একমাত্র নোমান রবিনের সঙ্গে শিডিউল মিলতো, সেজন্য তার সঙ্গেই কাজ করতাম। একটা সময় হুট করে মনে হলো, আমি তো অভিনেতা, কেন আমি নিজেকে বেঁধে ফেলেছি!’

অপু জানান, প্রায় ৮-৯ বছর আগে আঞ্চলিক ঘরানার সব কাজ একদম ছেড়ে দেন তিনি। ফলে তাৎক্ষণিক ভালো কাজের সুযোগও সেভাবে পাননি। মেধাবী এই অভিনেতার ভাষ্য, ‘দিনের পর দিন গেছে, আমি কোনও পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগই পেতাম না। পরীক্ষা ছাড়াই ফেল! আমাকে ভালো কাজে নেওয়া হতো না, ভালো কাজের স্ক্রিপ্ট পেতাম না। কিন্তু আমি শুটিং নিয়মিত করে যাচ্ছি মাসে বিশ থেকে বাইশ দিন। আর্থিক দিক থেকেও কোনও অভাব নেই। দিনের পর দিন মানসিক চাপে ছিলাম। রাত একটা-দেড়টার সময় বাসায় ফিরে যখন গোসল করতাম, অনেক দিন আমি গোসল করতে করতে কেঁদেছি; আমি কী করছি! সারা দিনে তো একটা বেস্ট ডেলিভারিও দিতে পারিনি।’

নির্মাতা রায়হান রাফীর ওয়েব ফিল্মে কাজ করেই পুনর্জন্ম হয় অভিনেতা রাশেদ মামুন অপুর। সে স্মৃতি হাতড়ে তিনি বলেন, “করোনা মহামারি এলো, বাসায় বসে থাকার ওই সময়ে মনে হলো, আমি কুইট করবো (অভিনয় পুরোপুরি ছেড়ে দেওয়া)। আমি বোধহয় আবার এনজিওতে চলে যাবো। এরকম অবস্থার মধ্যেই রায়হান রাফীর পরিচালনায় ‘অক্সিজেন’ মুক্তি পায়। এরপর থেকে ভালো ভালো গল্প-স্ক্রিপ্ট আসতে শুরু করে। এখন যথাসাধ্য চেষ্টা করছি কিছু করার।’’

ক্যারিয়ারে উত্থান, চলমান ব্যস্ততা, ভবিষ্যৎ পরিকল্পনাসহ বিভিন্ন বিষয়ে রাশেদ মামুন অপু কথা বলেছেন বাংলা ট্রিবিউনের নিয়মিত অনুষ্ঠান ‘মামানামা-আউট অব দ্য বক্স’-এ। জনি হকের প্রযোজনায় এতে অপুর মুখোমুখি হয়েছেন বাংলা ট্রিবিউনের বিনোদন বিভাগের প্রধান মাহমুদ মানজুর।

পুরো সাক্ষাৎকারটি দেখুন নিচের লিংকে:  

/কেআই/এমওএফ/
সম্পর্কিত
বিনোদন বিভাগের সর্বশেষ
কানের অফিসিয়াল লালগালিচায় ঢাকার একমাত্র মুখ
কান উৎসব ২০২৪কানের অফিসিয়াল লালগালিচায় ঢাকার একমাত্র মুখ
এক দিনে দুই ঝলক: স্থির বাঁধন, চলমান অপূর্ব
এক দিনে দুই ঝলক: স্থির বাঁধন, চলমান অপূর্ব
এবার অস্কারের পাতায় আলিয়া
এবার অস্কারের পাতায় আলিয়া
ক্রমশ ফাঁকা হয়ে আসছে কানসৈকত 
কান উৎসব ২০২৪ক্রমশ ফাঁকা হয়ে আসছে কানসৈকত 
ফের প্যারিসে কনসার্ট, অভিজ্ঞতা জানালেন ইভান
ফের প্যারিসে কনসার্ট, অভিজ্ঞতা জানালেন ইভান