করোনার কারণে স্থগিত কান

Send
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৯:৩৬, মার্চ ২০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:১৮, মার্চ ২০, ২০২০

কান উৎসবের পতাকাসিনেমা-ক্যালেন্ডারের সবচেয়ে বৃহৎ আয়োজন কান উৎসব। প্রতিবছরের মে মাস এলেই ১২ দিনের জন্য তামাম দুনিয়া হাজির হয় দক্ষিণ ফরাসি উপকূলের শহরে। কিন্তু এবার ছন্দপতন। 
করোনাভাইরাস বিস্তারের কারণে স্থগিত করা হয়েছে চলচ্চিত্রের বৈশ্বিক এই আয়োজন। বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) মধ্যরাতে ই-মেইল বার্তায় উৎসব পিছিয়ে দেওয়ার কথা জানান আয়োজকরা।

কান উৎসবে নির্মাতা, তারকাসহ হাজার হাজার মানুষ অংশ নেন। এর ৭৩তম আসর হওয়ার কথা ছিল আগামী ১২ মে থেকে ২৩ মে। কিন্তু বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় বার্ষিক এই আয়োজন এবার আদৌ হবে কিনা তা নিয়ে জল্পনা চলছিল কয়েক সপ্তাহ ধরে। শেষমেশ উৎসব পিছিয়ে দিতে বাধ্য হয়েছে কান কর্তৃপক্ষ।
এক বিবৃতিতে আয়োজকরা বলেন, ‘বিশ্বব্যাপী চরম সংকট দেখা দিয়েছে। এ সময় আমরা কোভিড-১৯ আক্রান্তদের কথাই ভাবছি বেশি। যারা এই ভাইরাসের সঙ্গে লড়ছেন তাদের সবার সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করছি।’
ফ্রান্সে এখন পর্যন্ত প্রায় ১১ হাজার করোনা আক্রান্ত রোগীর তথ্য পাওয়া গেছে। এছাড়া ৩৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে।
আয়োজকরা জানান, আগামী জুনের শেষ প্রান্ত থেকে শুরু করে জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে কান উৎসব করার কথা ভাবছেন। তাদের কথায়, ‘ফ্রান্সসহ আন্তর্জাতিক পরিস্থিতির উন্নতি হলে আমরা আলোচনার মাধ্যমে সময়সূচি নির্ধারণ করবো। এরপর আমাদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেবো।’
এবারের মূল প্রতিযোগিতা বিভাগের সভাপতি থাকবেন আমেরিকান নির্মাতা স্পাইক লি। এবারই প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ কোনও পরিচালক কানে বিচারকদের সভাপতি হচ্ছেন। তাই তার নাম উঠতে যাচ্ছে ইতিহাসের পাতায়।
কান স্থগিত করার ঘটনা এবারই প্রথম নয়। ১৯৩৯ সালে প্রথম আসরে ‘হাঞ্চব্যাক অব নটর ডেম’ প্রদর্শনের পরদিন উৎসবটি বাতিল করা হয়। কারণ, ওই বছরের ১ সেপ্টেম্বর পোল্যান্ডে হামলা চালায় হিটলার বাহিনী। এ কারণে ১৯৪৬ সালকে ধরা হয় কানের প্রথম আসর। এছাড়া ১৯৬৮ সালের মে মাসে ফ্রান্সজুড়ে ছাত্র-শ্রমিকদের আন্দোলনের মুখে ব্যাহত হয় কান উৎসব।
কান স্থগিতের ঘোষণা চলচ্চিত্র ব্যবসায় আরেকটি ধাক্কা। তারকাখচিত ঝলমলে প্রিমিয়ারের বাইরে প্রযোজনা ও পরিবেশনা সংস্থা সাগরপাড়ের শহরে ছবি বেচাকেনার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করে রেখেছিল। এবারও যথারীতি বিশ্বের বিভিন্ন দেশের চলচ্চিত্র শিল্পের পসরা বসার কথা রয়েছে।
করোনাভাইরাসের কারণে কান উৎসবের আগে বিনোদন শিল্পের বেশ কিছু আয়োজন স্থগিত কিংবা বাতিল হয়েছে। নিউ ইয়র্কের ট্রাইবেকা চলচ্চিত্র উৎসব (১৫-২৬ এপ্রিল), মেক্সিকোর গুয়াদালাজারা চলচ্চিত্র উৎসব (২০-২৭ মার্চ), আমেরিকার কস্টিউম ইনস্টিটিউট অ্যাট দ্য মেট্রোপলিটন মিউজিয়াম অব আর্টের তহবিল সংগ্রহের আয়োজন মেট গালা (৪ মে) পিছিয়ে গেছে। এছাড়া লন্ডনের মঞ্চনাটক বন্ধ রয়েছে।

বড় বাজেটের বেশ কিছু ছবির মুক্তি স্থগিত করা হয়েছে। এ তালিকায় উল্লেখযোগ্য মারভেল স্টুডিওসের ‘ব্ল্যাক উইডো’ (১ মে), জেমস বন্ড ফ্র্যাঞ্চাইজির ‘নো টাইম টু ডাই’ (১০ এপ্রিল), ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস’ সিরিজের ‘এফনাইন’ (২২ মে), ডিজনির ‘মুলান’ (২৭ মার্চ), ‘দ্য নিউ মিউট্যান্টস’ (৩ এপ্রিল), ‘অ্যান্টলার্স’ (১৭ এপ্রিল), জন ক্র্যাসিনস্কির ‘অ্যা কোয়ায়েট প্লেস টু’ (২০ মার্চ), প্যারামাউন্ট পিকচার্সের ‘দ্য লাভবার্ডস’ (৩ এপ্রিল) ও ‘ব্লু স্টোরি’ (২০ মার্চ), সনি পিকচার্সের ‘পিটার র‌্যাবিট টু: দ্য রানঅ্যাওয়ে’ (২৭ মার্চ)।
রবার্ট প্যাটিনসন অভিনীত ‘দ্য ব্যাটম্যান’, ক্রিস প্রাটের ‘জুরাসিক ওয়ার্ল্ড: ডমিনিয়ন’, এডি রেডমেইন অভিনীত ‘ফ্যান্টাস্টিক বিস্টস থ্রি’, মারভেল স্টুডিওসের ‘শাং চি’ ও ‘লিজেন্ডস অব দ্য টেন রিংস’, কিয়ানু রিভসের ‘ম্যাট্রিক্স ফোর’ এবং ডিজনির ‘হোম অ্যালোন’, ‘দ্য লিটল মারমেইড’, ‘দ্য লাস্ট ডুয়েল’, ‘নাইটমেয়ার অ্যালি’, ‘পিটার প্যান’, ‘ওয়েন্ডি’ ও ‘শ্রাঙ্ক’ ছবির শুটিং বন্ধ আছে। স্টিভেন স্পিলবার্গ প্রযোজিত অ্যামাজনের মিনি সিরিজ ‘মেক্সিকা’ (হাভিয়ার বারদেম) এবং নেটফ্লিক্সের প্রযোজনায় ‘রেড নোটিশ’ ছবির কাজ স্থগিত রয়েছে।
আমেরিকার বিনোদন শিল্প ইউনিয়ন আইএটিএসই তথা ইন্টারন্যাশনাল অ্যালায়েন্স অব থিয়েট্রিক্যাল স্টেজ এমপ্লয়িজ জানিয়েছে, করোনাভাইরাসে সব থমকে যাওয়ায় হলিউডে ইতোমধ্যে ১ লাখ ২০ হাজার মানুষ চাকরি হারিয়েছে।
তথ্যসূত্র: রয়টার্স

/জেএইচ/এমএম/এমওএফ/

লাইভ

টপ