গীতিকবি সংঘ’র আত্মপ্রকাশ

Send
সুধাময় সরকার
প্রকাশিত : ২১:২৬, জুলাই ২৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:২৮, জুলাই ২৬, ২০২০

যথাক্রমে বাঁদিক থেকে- শহীদ মাহমুদ জঙ্গী, লিটন অধিকারী রিন্টু, সালাউদ্দিন সজল, হাসান মতিউর রহমান, গোলাম মোরশেদ, আসিফ ইকবাল, কবির বকুল, জুলফিকার রাসেল, প্রীতম আহমেদ, জাহিদ আকবর, জয় শাহরিয়ার ও সোমেশ্বর অলিবাংলাদেশের সংগীতাঙ্গনে এখনও গড়ে ওঠেনি সর্বস্তরের কোনও সংগঠন। এ নিয়ে সংগীত স্রষ্টাদের মাঝে রয়েছে হতাশার দীর্ঘ ছায়া। কারণ, অধিকার নিয়ে কথা বলার কেউ নেই, নেই কোনও প্ল্যাটফর্ম। সেটি কাটিয়ে তোলার লক্ষ্যে চলমান করোনাকাল উপেক্ষা করে জোটবদ্ধ হলেন দেশের সর্বস্তরের গীতিকবিরা। অন্তর্জালে কয়েক দফা বৈঠক শেষে সৃষ্টি হলো ‘গীতিকবি সংঘ, বাংলাদেশ’ নামের সংগঠন।

শুক্রবার (২৪ জুলাই) বিকাল ৩টায় এক অনলাইন সভায় সংগঠনের গঠনতন্ত্র ও নাম চূড়ান্ত, সমন্বয় কমিটি গঠন এবং পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন দেশের প্রবীণ-নবীন গীতিকবিরা।
‘গীতিকবি সংঘ, বাংলাদেশ’-এর সমন্বয় কমিটির প্রধান হিসেবে শহীদ মাহমুদ জঙ্গীর নাম ঘোষণা করা হয় উক্ত সভায়। জানানো হয়, তার নেতৃত্বে সমন্বয় কমিটির সদস্যরা দ্রুত নির্বাচনের মাধ্যমে একটি নির্বাচিত কমিটি উপহার দেবেন।
নির্বাচন সমন্বয় কমিটির সদস্যরা হলেন লিটন অধিকারী রিন্টু, সালাউদ্দিন সজল, হাসান মতিউর রহমান, গোলাম মোরশেদ, আসিফ ইকবাল, কবির বকুল, জুলফিকার রাসেল, প্রীতম আহমেদ, জাহিদ আকবর, জয় শাহরিয়ার ও সোমেশ্বর অলি। এর আগে এই সদস্যরাই শহীদুল্লাহ ফরায়জীর নেতৃত্বে গঠনতন্ত্র প্রণয়নের কাজে যুক্ত ছিলেন।
‘গীতিকবি সংঘ, বাংলাদেশ’ নিয়ে সমন্বয় কমিটির প্রধান শহীদ মাহমুদ জঙ্গী বলেন, ‌‘গীতিকবিদের নৈতিক ও আর্থিক অধিকারের দাবিকে সামনে রেখে সৃজনশীল এই সংগঠন কাজ করবে। আমাদের বিশ্বাস, এটি হয়ে উঠবে দেশের সব গীতিকবির প্রধান প্ল্যাটফর্ম। অচিরেই একটি নির্বাচনের মাধ্যমে আমরা যোগ্য নেতৃত্বের হাতে দায়িত্ব হস্তান্তর করবো। গঠনতান্ত্রিক পদ্ধতিতে তারাই সংগঠন পরিচালনা করবেন।’
গত ৩ জুলাই জুলফিকার রাসেলের সমন্বয় ও সঞ্চালনায় ‘গীতিকবি সংঘ, বাংলাদেশ’-এর প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর আরও দুটি সভায় অর্ধশতাধিক গীতিকবির মতামতের ভিত্তিতে গঠনতন্ত্র ও নাম চূড়ান্ত করা হয়। এসব সভায় সংগঠনের প্রতি সমর্থন জানিয়ে উক্ত সভায় বার্তা পাঠিয়েছেন জ্যেষ্ঠ গীতিকবি গাজী মাজহারুল আনোয়ার, মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান, কাজী রোজী, খোশনূরসহ অনেক প্রবীণ গীতিকবি।
সভাগুলোতে আরও উপস্থিত ছিলেন মনিরুজ্জামান মনির, মুনশী ওয়াদুদ, জাহিদুল হক, সৈয়দ আশিক মাহমুদ, নাসির আহমেদ, শহীদুল্লাহ ফরায়েজী, নকীব খান, মাকসুদুল হক, এনামুল করিম নির্ঝর, সেজান মাহমুদ, হায়দার হোসেন, প্রিন্স মাহমুদ, লতিফুল ইসলাম শিবলী, মিলন খান, মাহমুদ খুরশীদ, আহমেদ রিজভী, জাহাঙ্গীর হায়দার, আশরাফ ফারুক, শেখ আলী আশরাফ, সোহেল আরমান, তানভীর তারেক, শফিক তুহিন, নিয়াজ আহমেদ অংশু, তরুনমুন্সী, বাকীউল আলম, রাসেল ও'নীল, শেখ রানা, রাশেদ উদ্দিন আহমেদ তপু, লুৎফর হাসান, রেজাউল করিম লিমন, মাহমুদ মানজুর, জনি হক, এস এ হক অলীক, শাহান কবন্ধ, নীহার আহমেদ, রবিউল ইসলাম জীবন, এ মিজান, সাকি আহমেদ, খৈয়াম সানু সন্ধি, ওমর ফারুক বিশাল, আবদার রহমান, প্রসেনজিৎ ওঝা, বর্ণ চক্রবর্তী, সিরাজুম মুনির, ফয়সাল রাব্বিকীন, সুস্মিতা বিশ্বাস সাথী, তারেক আনন্দ, মেহেদী হাসান লিমন, ওয়াসিক সৈকত, আপন আহসান, মাসুদ আহমেদ, অধরা জাহান, মাহী ফ্লোরা প্রমুখ।
‘গীতিকবি সংঘ, বাংলাদেশ’-এর সদস্য সংগ্রহের কাজ শুরু হয়েছে। আগ্রহী গীতিকবিরা [email protected] ইমেইল ঠিকানায় অথবা সমন্বয় কমিটির সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যমে সদস্যপদ সংগ্রহ করতে পারবেন। তবে সদস্যপদ পেতে হলে অবশ্যই উক্ত গীতিকবির প্রকাশিত গানের সংখ্যা হতে হবে কমপক্ষে ২৫টি।

/এমএম/

লাইভ

টপ
X