X
বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪
৪ বৈশাখ ১৪৩১
ধর্মগ্রন্থ অবমাননা

মুসলিম দেশগুলোর সঙ্গে সম্পর্ককে ঝুঁকিপূর্ণ করছে সুইডেন: সৌদি বিশ্লেষক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
২৪ জুলাই ২০২৩, ১৫:৩০আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২৩, ১৩:৪৬

সুইডিশ সরকার যদি ঘৃণা ছড়ানোর বিষয়ে তার আইন পরিবর্তন না করে, তাহলে অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কনফারেন্স (ওআইসি) এ নিয়ে কাজ করবে। সৌদি ভূ-রাজনৈতিক বিশ্লেষক সালমান আল-আনসারি আরব নিউজের সাপ্তাহিক শো ‘ফ্র্যাঙ্কলি স্পিকিং’-কে কথা বলেছেন।

তিনি বলেন, ‘যদি সুইডিশ সরকার চরমপন্থী এবং মৌলবাদীদের ঘৃণা ছড়াতে দেওয়ার বিষয়ে তাদের আইন সংশোধন না করে তাহলে ওআইসি ব্যবস্থা নিতে এগিয়ে আসলে আমি অবাক হব না।’

ডেনমার্কের কোপেনহেগেনে ইরাকি দূতাবাসের বাইরে ডানস্কে প্যাট্রিওটার (ডেনিশ প্যাট্রিয়টস) নামে একটি উগ্র-ডানপন্থী সংগঠন দ্বারা কোরআনের অনুলিপি পোড়ানোর তীব্র নিন্দা জানিয়ে ওআইসি রবিবার একটি বিবৃতি জারি করে। এর পর পর আল-আনসারি এই মন্তব্য করেন।

ঈদুল আযহার ছুটিতে সুইডেনের স্টকহোমে ইরাকি অভিবাসী সালওয়ান মোমিকা পবিত্র কোরআনের একটি অনুলিপি পোড়ান। সুইডেনের আইনে, এটি মত প্রকাশের স্বাধীনতা। তাই সুইডিশ সরকার এমন কর্মসূচিতে অনুমতি দিয়েছিল। এর পর আরেক নর্ডিক দেশ ডেনমার্কে এই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হয়। এসব ঘটনায় মুসলিম বিশ্বের সঙ্গে এই দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কের চরম অবনতি হয়।

এর আগে জানুয়ারিতে স্টকহোমে তুর্কি দূতাবাসের সামনে কোরআনের একটি অনুলিপি পুড়িয়ে দেন ডানপন্থি ডেনিশ নেতা রাসমুস পালুদান।

এক বিবৃতিতে রবিবার ওআইসি-এর মহাসচিব হিসেন ব্রাহিম ত্বহা বলেন, ‘সীমালঙ্ঘন এর পুনরাবৃত্তির ঘটনায় আমরা অসন্তুষ্ট। এই ধরনের কাজগুলো ধর্মীয় বিদ্বেষ, অসহিষ্ণুতা এবং বৈষম্যের ডেকে আনে। এটার বিপজ্জনক পরিণতি হতে পারে।’

তিনি বলেন, ‘পবিত্র কোরআন, বাইবেল, তাওরাত বা যে কোনও পবিত্র গ্রন্থের অনুলিপি পোড়ানো একেবারেই ঘৃণ্য, অযৌক্তিক এবং চরম ঘৃণার কাজ। এটা যদি ঘৃণা না হয়, তাহলে ঘৃণা কিসের? এটি আমার প্রশ্ন।’

ওআইসি-এর মহাসচিব সুইডিশ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ভণ্ডামি করার জন্য অভিযোগ আনেন। তিনি বলেন, ‘তারা যুক্তি দিচ্ছে যে কোরআন পোড়ানো বা কোনোও পবিত্র গ্রন্থ পোড়ানো মত প্রকাশের স্বাধীনতার অংশ। তাই নাকি! তাহলে নাৎসি স্লোগান সম্পর্কে কি বলবেন?’

তিনি বলেন, ‘কেন এটা কেবল নাৎসি স্লোগানের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। ১ দশমিক ৭ বিলিয়ন মানুষের বিরুদ্ধে ঘৃণা প্রচারে কি লাভ?’

ত্বহা বলেন, ‘আমরা চাই সুইডিশ সরকার যুক্তিসঙ্গত আরচণ করবে। এসব তাদের কারণেই হচ্ছে। ঘৃণা ছড়াতে চায় এমন কিছু মৌলবাদী ও চরমপন্থীদের খুশি করার জন্য আপনারা ৫৭টি মুসলিম দেশের সঙ্গে সম্পর্ককে বিপন্ন করতে চাইবেন না বলে আশা করি।’

সূত্র: আরব নিউজ 

/এসপি/
সম্পর্কিত
কলকাতায় চালু হল চালকবিহীন মেট্রো
ইউক্রেন যুদ্ধে ৫০ হাজার রুশ সেনা নিহত: বিবিসি
ইরানের ওপর আসতে পারে আরও নিষেধাজ্ঞা
সর্বশেষ খবর
সেমিতে সেই পিএসজি, আরও ভালোভাবে প্রস্তুত ডর্টমুন্ড
সেমিতে সেই পিএসজি, আরও ভালোভাবে প্রস্তুত ডর্টমুন্ড
দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে স্বামী-স্ত্রী নিহত
দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে স্বামী-স্ত্রী নিহত
ছেলের হাতে মা খুনের অভিযোগ
ছেলের হাতে মা খুনের অভিযোগ
এতই বিকট শব্দ আসছে মনে হচ্ছে, বাড়ির পাশে যুদ্ধ চলছে
এতই বিকট শব্দ আসছে মনে হচ্ছে, বাড়ির পাশে যুদ্ধ চলছে
সর্বাধিক পঠিত
ডিপ্লোমাধারীদের বিএসসির মর্যাদা দিতে কমিটি
ডিপ্লোমাধারীদের বিএসসির মর্যাদা দিতে কমিটি
উৎসব থমকে যাচ্ছে ‘রূপান্তর’ বিতর্কে, কিন্তু কেন
উৎসব থমকে যাচ্ছে ‘রূপান্তর’ বিতর্কে, কিন্তু কেন
চুরি ও ভেজাল প্রতিরোধে ট্যাংক লরিতে নতুন ব্যবস্থা আসছে
চুরি ও ভেজাল প্রতিরোধে ট্যাংক লরিতে নতুন ব্যবস্থা আসছে
রুশ হামলা ঠেকানোর ক্ষেপণাস্ত্র ফুরিয়ে গেছে: জেলেনস্কি
রুশ হামলা ঠেকানোর ক্ষেপণাস্ত্র ফুরিয়ে গেছে: জেলেনস্কি
আপনি কি টক্সিক প্যারেন্ট? বুঝে নিন এই ৫ লক্ষণে
আপনি কি টক্সিক প্যারেন্ট? বুঝে নিন এই ৫ লক্ষণে