X
বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২
২১ আষাঢ় ১৪২৯

রুশ সমর্থিত ‘বৈশ্বিক নিরাপত্তা উদ্যোগ’ তুলে ধরলো চীন

আপডেট : ২১ এপ্রিল ২০২২, ২০:০২

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বৃহস্পতিবার বৈশ্বিক নিরাপত্তা উদ্যোগ-এর একটি প্রস্তাব তুলে ধরেছেন। এই প্রস্তাবে ‘অবিভাজ্য সুরক্ষার’ নীতি ঊর্ধ্বে তুলে ধরা হয়েছে। এই উদ্যোগটির প্রতি সমর্থন জানিয়েছে রাশিয়াও। অবশ্য কীভাবে তা বাস্তবায়িত হবে তা সম্পর্কে চীনা প্রেসিডেন্ট বিস্তারিত জানাননি। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর জানিয়েছে।

বাউয়াও এশিয়া ফোরামে ভিডিও লিঙ্কে দেওয়া বক্তব্যে শি জিনপিং বলেছেন, বিশ্বকে অবশ্যই সব দেশের সার্বভৌমত্ব ও আঞ্চলিক অখণ্ডতার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে হবে। একই সঙ্গে ‘ন্যায়সঙ্গত’ সব নিরাপত্তা উদ্বেগে মনোযোগ দিতে হবে।

শি জিনপিং বলেন, আমাদের অবিভাজ্য সুরক্ষার নীতি ঊর্ধ্বে তুলে ধরতে হবে, একটি ভারসাম্যমূলক, কার্যকর ও টেকসই নিরাপত্তা কাঠামো নির্মাণ করতে হবে এবং অন্য দেশের নিরাপত্তাহীনতার ভিত্তিতে জাতীয় নিরাপত্তা নির্মাণের বিরোধিতা করতে হবে।

ইউক্রেন ইস্যুতে কথা বলতে গিয়ে রাশিয়া জোর দিয়ে আসছে যে, পশ্চিমা সরকারগুলো ১৯৯৯ সালের একটি চুক্তির প্রতি শ্রদ্ধাশীল। যে চুক্তির ভিত্তি হলো ‘অবিভাজ্য নিরাপত্তা’ নীতি। এর আওতায় অন্যের নিরাপত্তা বিঘ্নিত করে নিজেদের সুরক্ষা শক্তিশালী না করার কথা বলা হয়েছে।

চীন ও রাশিয়া ক্রমশ ঘনিষ্ঠ হচ্ছে। ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণের নিন্দা জানাতে অস্বীকৃতি জানিয়ে আসছে চীন। ইউক্রেনে আক্রমণকে ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ হিসেবে দাবি করে আসছে রাশিয়া। যে অভিযানের লক্ষ্য ইউক্রেনকে নিরস্ত্রীকরণ করা। ইউক্রেন সংকটের জন্য চীন পূর্ব ইউরোপে ন্যাটোর সম্প্রসারণকে দায়ী করে আসছে।

বিশ্লেষকরা উল্লেখ করছেন, এই প্রথম চীন রাশিয়া-ইউক্রেন সংকট এবং এশিয়ায় মার্কিন কর্মকাণ্ডের বাইরে গিয়ে ‘অবিভাজ্য নিরাপত্তার’ কথা বললো।

সিঙ্গাপুরভিত্তিক এস. রাজরত্নম স্কুল অব ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজ-এর সহযোগী অধ্যাপক লি মিংজিয়াং বলেন, চীন যদি তাইওয়ান বা দক্ষিণ চীন সাগরে যুক্তরাষ্ট্র ও দেশটির মিত্রদের কর্মকাণ্ডকে নিজেদের নিরাপত্তা উদ্বেগ বলে মনে করে তাহলে পাল্টা পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য ‘অবিভাজ্য নিরাপত্তার’ ধারণাকে কাজে লাগাতে পারে।

হংকংয়ের সিটি ইউনিভার্সিটির আইন বিষয়ের অধ্যাপক ওয়াং জিয়াগিউ জানান, ইউরোপ থেকে আগত অবিভাজ্য নিরাপত্তার ধারণাটি তুলে ধরার মাধ্যমে চীন আশা করতে পারে নিজেদের মৌলিক স্বার্থ সুরক্ষায় তা অপর দেশগুলোর কাছে অনেক বেশি ন্যায়সঙ্গত হিসেবে হাজির হতে পারে।

ইউক্রেনে আক্রমণের ঘটনায় রাশিয়ার বিরুদ্ধে পশ্চিমাদের শাস্তিমূলক পদক্ষেপের কথা সরাসরি উল্লেখ না করে শি জিনপিং আবারও বলেছেন, চীন একপাক্ষিক নিষেধাজ্ঞা এবং বিদেশিদের বিরুদ্ধে স্থানীয় আদালতের বিচারের এখতিয়ারের বিরোধিতা করেছেন।

রাশিয়াসহ বিভিন্ন দেশের ওপর জারি করা পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞার সমালোচনা বারবার করে আসছে চীন। কিন্তু মস্কোকে সহযোগিতা করার ক্ষেত্রে বেইজিং খুব সতর্ক। তাদের আশঙ্কা, এর ফলে বেইজিংও নিষেধাজ্ঞার শিকার হতে পারে।

চীনা প্রেসিডেন্ট বলেছেন, বৈশ্বিক সাপ্লাই চেইনকে স্থিতিশীল করতে উদ্যোগ প্রয়োজন। কিন্তু চীনের অর্থনীতি স্থিতিশীল রয়েছে এবং দীর্ঘদিনের প্রবণতায় কোনও পরিবর্তন আসেনি।

 

/এএ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
ভিজিএফের চালে পাথর, সুবিধাভোগীদের মাঝে ক্ষোভ
ভিজিএফের চালে পাথর, সুবিধাভোগীদের মাঝে ক্ষোভ
এডিট করা ছবি ভাইরালের হুমকি, যুবকের ৮ বছর জেল
এডিট করা ছবি ভাইরালের হুমকি, যুবকের ৮ বছর জেল
গরু ব্যবসায়ীদের ৩০ লাখ টাকা ও ১০টি গরু ডাকাতি
গরু ব্যবসায়ীদের ৩০ লাখ টাকা ও ১০টি গরু ডাকাতি
হাটে ছাগল আছে ক্রেতা নেই
হাটে ছাগল আছে ক্রেতা নেই
এ বিভাগের সর্বশেষ
রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে আটক রুশ বিজ্ঞানীর মৃত্যু
রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে আটক রুশ বিজ্ঞানীর মৃত্যু
বাইডেনের সহায়তা চাইলেন রাশিয়ায় আটক মার্কিন বাস্কেটবল তারকা
বাইডেনের সহায়তা চাইলেন রাশিয়ায় আটক মার্কিন বাস্কেটবল তারকা
রাশিয়ার শত শত পণ্যবাহী গাড়ি জব্দ করেছে ফিনল্যান্ড
রাশিয়ার শত শত পণ্যবাহী গাড়ি জব্দ করেছে ফিনল্যান্ড
ভারতের হোটেল ও রেস্টুরেন্টে সার্ভিস চার্জ নিষিদ্ধ
ভারতের হোটেল ও রেস্টুরেন্টে সার্ভিস চার্জ নিষিদ্ধ
বিক্ষোভের মুখে পার্লামেন্ট ছাড়তে বাধ্য হলেন শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট
বিক্ষোভের মুখে পার্লামেন্ট ছাড়তে বাধ্য হলেন শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট