X
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪
৪ বৈশাখ ১৪৩১

রুশ হামলা প্রতিহত করলেও পরিস্থিতি কঠিন: ইউক্রেনীয় সেনাপ্রধান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
০১ মার্চ ২০২৪, ২০:৫৯আপডেট : ০১ মার্চ ২০২৪, ২০:৫৯

ইউক্রেনের সেনাপ্রধান ওলেক্সান্ডার সিরস্কি বলেছেন, আভদিভকার পশ্চিমে ওরলিভকা গ্রামে রুশ সেনাদের হামলা প্রতিহত করেছে ইউক্রেনীয় সেনারা। কিন্তু পূর্বাঞ্চলীয় রণক্ষেত্রের পরিস্থিতি এখনও কঠিন। বৃহস্পতিবার (১ মার্চ) তিনি এই মন্তব্য করেছেন। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে।

লাস্তোচকাইন গ্রাম থেকে উত্তর-পশ্চিমে দুই কিলোমিটারের কম দূরত্বে অবস্থিত ওরলিভকা গ্রাম। চলতি সপ্তাহে রুশ সেনারা লাস্তোচকাইন দখল করেছে। এর আগে কয়েক মাস হামলার পর পূর্বাঞ্চলীয় শহর আভদিভকা দখল করে রাশিয়া।

চলতি সপ্তাহে ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনী বলেছে, আভদিভকার কাছে মোট তিনটি গ্রাম থেকে সেনাদের পিছু হটতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পশ্চিমা সহযোগিতা কমে আসায় ভূখণ্ড হারাচ্ছে তারা।

টেলিগ্রামে সিরস্কি বলেছেন, রণক্ষেত্রের বিভিন্ন এলাকায় শত্রুরা সক্রিয় আক্রমণ চালাচ্ছে। জাপোরিজ্জিয়া ও আভদিভকা সেক্টরে পরিস্থিতি উত্তেজনাপূর্ণ। 

তিনি বলেছেন, রুশ সেনারা ইউক্রেনীয় প্রতিরক্ষা ভেঙে টনেঙ্কে, ওরলিভকা, সেমেনিভকা, বারডাইচি ও ক্রাসনোহোরিভকা গ্রাম দখলের চেষ্টা করছে।

সম্প্রতি পূর্বাঞ্চলীয় রণক্ষেত্র পরিদর্শন করা ইউক্রেনীয় সেনাপ্রধান বলেছেন, কমান্ডাররা তাকে বিভিন্ন ঘাটতির কথা তুলে ধরেছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সব পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। অতিরিক্ত গোলাবারুদ ও সরঞ্জাম বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় তাদের দৈনন্দিন আপডেটে বলেছে, আভদিভকা সেক্টরে তাদের সেনারা সুবিধাজনক অবস্থান নিয়েছে। ওরলিভকা ও আশেপাশের গ্রামে ইউক্রেনীয় ইউনিট ক্ষয়ক্ষতির মুখে পড়েছে।

ইউক্রেনীয় এক কমান্ডার বলেছেন, আভদিভকা হাতছাড়া হওয়ার পর লড়াইয়ে বড় ধরনের পার্থক্য এসেছে। রুশরা এখন বিমান হামলা কম করছে। কিন্তু কামান ও ড্রোন ব্যবহার করছে বেশি। সঙ্গে রয়েছে পদাতিক বাহিনী।

ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী এবং প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, পশ্চিমা সহযোগিতার ঘাটতির কারণে সেনাদের রুশ আক্রমণ প্রতিহত করার জন্য প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম এবং গোলাবারুদের ঘাটতি দেখা দিয়েছে।

 

/এএ/
সম্পর্কিত
‘দিদির শপথ’ নামে তৃণমূল কংগ্রেসের ইশতেহার প্রকাশ
৪০০ আসনে জিততে চায় মোদির এনডিএ জোট, কী বলছে জরিপ?
গাজায় যুদ্ধবিরতির আলোচনার অবস্থা ‘নাজুক’: কাতার
সর্বশেষ খবর
গলায় কই মাছ আটকে কৃষকের মৃত্যু
গলায় কই মাছ আটকে কৃষকের মৃত্যু
চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন: কোন পদে লড়ছেন কে
চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন: কোন পদে লড়ছেন কে
মেট্রোরেল চলাচলে আসতে পারে নতুন সূচি
মেট্রোরেল চলাচলে আসতে পারে নতুন সূচি
দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে ধাক্কা লেগে মোটরসাইকেল আরোহী মামা-ভাগনে নিহত
দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে ধাক্কা লেগে মোটরসাইকেল আরোহী মামা-ভাগনে নিহত
সর্বাধিক পঠিত
‘ভুয়া ৮ হাজার জনকে মুক্তিযোদ্ধার তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে’
‘ভুয়া ৮ হাজার জনকে মুক্তিযোদ্ধার তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে’
হজ নিয়ে শঙ্কা, ধর্ম মন্ত্রণালয়কে ‍দুষছে হাব
হজ নিয়ে শঙ্কা, ধর্ম মন্ত্রণালয়কে ‍দুষছে হাব
এএসপি বললেন ‌‘মদ নয়, রাতের খাবার খেতে গিয়েছিলাম’
রেস্তোরাঁয় ‘মদ না পেয়ে’ হামলার অভিযোগএএসপি বললেন ‌‘মদ নয়, রাতের খাবার খেতে গিয়েছিলাম’
এবার নায়িকার দেশে ‘রাজকুমার’ 
এবার নায়িকার দেশে ‘রাজকুমার’ 
‘আমি এএসপির বউ, মদ না দিলে রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দেবো’ বলে হামলা, আহত ৫
‘আমি এএসপির বউ, মদ না দিলে রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দেবো’ বলে হামলা, আহত ৫