X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

উত্তর প্রদেশের নির্বাচনে মথুরা কেন গুরুত্বপূর্ণ?

আপডেট : ২৮ জানুয়ারি ২০২২, ১২:৩৬

ভারতের সবচেয়ে জনবহুল রাজ্য উত্তর প্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন ঘিরে জমে উঠেছে প্রচার। এর অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার মথুরার বৃন্দাবনে শ্রী বাকে বিহারি মন্দিরে পুজা দিয়েছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তার এই সফরকে মথুরা জয়ে বিজেপির মরিয়া চেষ্টা হিসেবে দেখা হচ্ছে। অযোধ্যা ও বারানসির পর মথুরাকেই সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে হিন্দু জাতীয়তাবাদী দল বিজেপি। দেবতা শ্রীকৃষ্ণের জন্মস্থান মথুরা বলে বিশ্বাস করেন হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা। সেখানে কৃষ্ণ জন্মভূমি মন্দির নির্মাণ করতে চায় বিজেপি।

উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এবং উপমুখ্যমন্ত্রী কেশ প্রসাদ মৌর্য উভয়েই সম্প্রতি বলেছেন, অযোধ্যা ও কাশির পর এবার মথুরাকে পুনরুজ্জীবিত করা হবে। এর আগে শোনা যাচ্ছিল যোগী আদিত্যনাথ মথুরা থেকেই প্রার্থী হবেন। গোরখপুর থেকে নির্বাচিত হয়ে মুখ্যমন্ত্রী হলেও নিজের মেয়াদে ১৮ বার মথুরা সফর করেছেন যোগী আদিত্যনাথ।

মন্দির নির্মাণস্থলে সম্প্রতি ভ্রমণে গিয়ে সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভি দেখতে পেয়েছে, মূল মন্দিরের সামনে বড় প্রবেশ পথ নির্মাণের কাজ এগিয়ে চলেছে। মন্দির পুনর্নির্মাণ অনেকের কাছে আবেগের বিষয় হলেও অনেকে  মথুরার উন্নয়নও দেখতে চান।

পুনর্নির্মাণ এলাকার কাছে একটি চায়ের দোকানে স্থানীয় বাসিন্দা রমেশ ত্রিপাঠির সঙ্গে কথা বলেন এনডিটিভি প্রতিনিধি। ওই বাসিন্দা বলেন, ‘অযোধ্যা এবং কাশির পর এবার মথুরার পালা। এই পবিত্র মন্দির পুনর্নির্মাণ বড় কাজ হবে। আমি বিজেপিকে ভোট দেবো। কিন্তু নির্মাণ এবং ভেঙে ফেলা চলতেই থাকবে... বেকারত্ব সমস্যার সমাধান দরকার। গত কয়েক বছরে এই সমস্যা আরও খারাপ হয়েছে।’

আরেক বাসিন্দা যোগেন্দ্র কুমার বলেন, ‘সরকার ভালো কাজ করেছে। মন্দিরের পুরো প্রবেশ পথ যেটি দেকা যাচ্ছে সেটি তাদের কারণে নির্মাণ হয়েছে। এখান থেকে বিজেপি জিতবে।’

মন্দির কমপ্লেক্সে রয়েছে শাহী ঈদগাহ মসজিদ। এটি নির্মাণ করা হয় মুঘল শাসক আওরঙ্গজেবের সময়ে। অযোধ্যার রাম জন্মভূমি মামলার মতোই মথুরার একটি আদালতে মসজিদ অপসারণের মামলা চলছে। মথুরার ১৫ থেকে ১৭ শতাংশ জনগোষ্ঠী মুসলিম। দেবতা কৃষ্ণের উপাসনায় ব্যবহৃত নানা সামগ্রী তৈরি করেন এসব মুসলিম জনগোষ্ঠী। তারা বলছেন উন্নয়নের অভাবেই তারা বিজেপি থেকে মুখ ঘুরিয়ে নিয়েছেন।

মোহাম্মদ শানু নামে এক কারিগর বলেন, ‘কোনও উন্নয়ন হয়নি। চারদিকে বেকারত্ব। মহামারি শুরুর পর মন্দিরে কোনও দর্শণার্থী কমে গেছে। আমাদের কাজের জিনিসগুলো কে কিনবে? মন্দির-মসজিদে কিছুই হয় না।’

মথুরা আসন থেকে এবার বিজেপির হয়ে লড়ছেন ক্ষমতাসীন এমএলএ এবং রাজ্যের জ্বালানি মন্ত্রী শ্রীকান্ত শর্মা। ২০১৭ সালের নির্বাচনে তিনি এক লাখ ৪০ হাজার ভোটের ব্যবধানে জয়ী হন। তিনি বলেন, ‘সবসময়ই উন্নয়ন আগে। আমরা উন্নয়নে সর্বান্তকরণে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। কিন্তু আমাদের মতাদর্শিক বাধ্যবাধকতাও আছে। এই সরকার সনাতন ধর্মাবলম্বীদের। সেকারণে সনাতন ধর্মের মন্দির পুনর্নির্মাণ হচ্ছে। অন্য সব দল মন্দির থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। আমরা তা করিনি।’

শ্রীকান্ত শর্মার মূল প্রতিদ্বন্দ্বি চারবারের এমএলএ কংগ্রেসের প্রদীপ মাথুর। তিনি এনডিটিভিকে বলেন, ‘বিজেপি কোনও উন্নয়ন করতে ব্যর্থ হয়েছে। তাদের নেতারা মানুষের কাছে যায় না আর মানুষ তাদের ওপর বিরক্ত। তারা জনসেবক কাউকে চায়। তারা কোনও রাজা চায় না। কৃষ্ণ জন্মভূমি তাদের (বিজেপি) কাছে কেবল অজুহাত। এটা মানুষের ইস্যু নয়। প্রকৃত ইস্যু হলো যমুনা দূষণ এবং বিদ্যুতের উচ্চ মূল্য, যা সম্পূর্ণভাবে অবজ্ঞা করা হচ্ছে। আমি জিতলে মূল্য কমানোর চেষ্টা করবো।’

/জেজে/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির মামলায় পশ্চিমবঙ্গের শিল্পমন্ত্রীকে ৩ ঘণ্টা জেরা 
শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির মামলায় পশ্চিমবঙ্গের শিল্পমন্ত্রীকে ৩ ঘণ্টা জেরা 
এনআইডির বয়স সংশোধনে ৩০ হাজার টাকা দাবির অভিযোগ
এনআইডির বয়স সংশোধনে ৩০ হাজার টাকা দাবির অভিযোগ
গাড়ি তল্লাশিকে কেন্দ্র করে পুলিশ ও র‍্যাবের হাতাহাতি, তদন্ত কমিটি গঠন
গাড়ি তল্লাশিকে কেন্দ্র করে পুলিশ ও র‍্যাবের হাতাহাতি, তদন্ত কমিটি গঠন
জলবায়ু অভিযোজন অর্থায়ন বাড়ানোর আহ্বান ডিএনসিসির মেয়রের
জলবায়ু অভিযোজন অর্থায়ন বাড়ানোর আহ্বান ডিএনসিসির মেয়রের
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
৩১ বছর পর মুক্তি পাচ্ছে রাজিব গান্ধীর এক হত্যাকারী
৩১ বছর পর মুক্তি পাচ্ছে রাজিব গান্ধীর এক হত্যাকারী
দূষণে ২০১৯ সালে ভারতে ২৩ লাখ মানুষের মৃত্যু: গবেষণা
দূষণে ২০১৯ সালে ভারতে ২৩ লাখ মানুষের মৃত্যু: গবেষণা
শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির মামলায় পশ্চিমবঙ্গের শিল্পমন্ত্রীকে ৩ ঘণ্টা জেরা 
শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির মামলায় পশ্চিমবঙ্গের শিল্পমন্ত্রীকে ৩ ঘণ্টা জেরা