X
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪
১১ আষাঢ় ১৪৩১

যুদ্ধবিরতির পর ত্রাণের প্রথম বহর ঢুকলো গাজায়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
০২ ডিসেম্বর ২০২৩, ২২:১৫আপডেট : ০৩ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৯:৫৬

যুদ্ধবিরতির পর প্রথমবারের মতো সীমিত আকারে ত্রাণের বহর প্রবেশ করেছে গাজায়। মিসরের রাফাহ ক্রসিং দিয়ে সীমিত সংখ্যক ট্রাক গাজায় প্রবেশ করেছে। ত্রাণকর্মীরা এসব ত্রাণ সীমান্ত থেকে গ্রহণ করছে বলে জানিয়েছে ফিলিস্তিন রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি (পিআরসিএস)। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এ খবর জানিয়েছে। 

পিআরসিএস বলছে, রাফাহ ক্রসিং দিয়ে ৫০টি ট্রাক  প্রবেশ করেছে। ত্রাণবহরে রয়েছে খাবার, বিশুদ্ধ পানি, ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম। যুদ্ধবিরতির পর শুক্রবার থেকে ইসরায়েলি সেনারা গাজায় পুনরায় হামলা শুরু করলে ত্রাণবাহী ট্রাকগুলোর প্রবেশ বন্ধ হয়ে যায়। শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে কোনও জ্বালানি গাজায় প্রবেশ করতে পারেনি।

যুদ্ধবিরতির সময় গাজায় প্রতিদিন ২০০টির মতো ত্রাণবাহী ট্রাক  প্রবেশ  করেছে।  এর আগে ১০০টিরও কম ট্রাক গাজায় প্রবেশ করে প্রতিদিন। জাতিসংঘ বলছে, গাজাবাসীর চাহিদা তুলনায় ত্রাণের পরিমাণ সামান্য।  

গাজার অভ্যন্তরে ত্রাণবহর প্রবেশে প্রধান অন্তরায় ইসরায়েলি চেকপয়েন্ট। গত ২১ অক্টোবর থেকে চালু হওয়া এই চেকপয়েন্টে প্রতিটি ট্রাক তল্লাশি করছে ইসরায়েলি বাহিনী। ইসরায়েল নিশ্চিত করতে চাইছে যেন কোনও ত্রাণবহর হামাসের হাতে না যায়। 

রেড ক্রসের ইন্টারন্যাশনাল কমিটির হিশাম মান্না বলেন, গাজায় অব্যাহত ইসরায়েলি হামলা ফলে ত্রাণ সরবরাহ করা কঠিন হয়ে পড়েছে। গাজাবাসীর মানবিক সহায়তার জন্য স্থায়ী যুদ্ধবিরতি দরকার। এতে সামান্য হলেও তাদের দুর্ভোগ কমবে। 

জাতিসংঘের মানবিক সহায়তা বিষয়ক সংস্থা (ওসিএইচএ) শনিবার তাদের সর্বশেষ প্রতিবেদনে বলেছে, গাজার মধ্যে মানবিক কার্যক্রম অনেকাংশে বন্ধ হয়ে গেছে, শুধু আশ্রয়কেন্দ্রে পরিষেবা এবং  গাজার দক্ষিণে আটা সীমিত বিতরণ ছাড়া।

শনিবার, ফিলিস্তিন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ঘোষণা করেছে যে ৭ অক্টোবর যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে গাজায় ইসরায়েলি হামলায় নিহত ফিলিস্তিনিদের সংখ্যা বেড়ে ১৫ হাজার ছাড়িয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

/এসএসএস/
সম্পর্কিত
রাশিয়ার শোইগু ও গেরাসিমভের বিরুদ্ধে আইসিসির পরোয়ানা
ফ্রান্সে গৃহযুদ্ধের আশঙ্কা নিয়ে ম্যাক্রোঁর হুঁশিয়ারি
হিজবুল্লাহর সঙ্গে বিরোধ নিরসনে কূটনৈতিক সমাধান ইসরায়েলের প্রথম পছন্দ
সর্বশেষ খবর
১০ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ: সাবেক শ্রমিক লীগ নেতা কারাগারে
১০ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ: সাবেক শ্রমিক লীগ নেতা কারাগারে
বাঙালির আবেগ নিয়ে আর কত খেলবেন সাকিব-শান্তরা?
বাঙালির আবেগ নিয়ে আর কত খেলবেন সাকিব-শান্তরা?
মৌলভীবাজারে বন্যা: চার দিনে পানিতে ডুবে ৭ জনের মৃত্যু
মৌলভীবাজারে বন্যা: চার দিনে পানিতে ডুবে ৭ জনের মৃত্যু
কিস্তির টাকা না বাড়িয়ে ঋণের বাড়তি সুদ আদায় করবে ব্যাংক
কিস্তির টাকা না বাড়িয়ে ঋণের বাড়তি সুদ আদায় করবে ব্যাংক
সর্বাধিক পঠিত
আছাদুজ্জামান মিয়ার তথ্য ফাঁস করায় পুলিশের এডিসি বরখাস্ত
আছাদুজ্জামান মিয়ার তথ্য ফাঁস করায় পুলিশের এডিসি বরখাস্ত
বানের পানির মতো আসছে রেমিট্যান্স, পাচারের অর্থও কি সঙ্গে আসছে?
বানের পানির মতো আসছে রেমিট্যান্স, পাচারের অর্থও কি সঙ্গে আসছে?
পরীমণিকাণ্ডে চাকরি হারাচ্ছেন পুলিশ কর্মকর্তা সাকলায়েন
পরীমণিকাণ্ডে চাকরি হারাচ্ছেন পুলিশ কর্মকর্তা সাকলায়েন
কোরবানির ১ লাখ ৭২ হাজার পশুর চামড়া গেলো কোথায়?
কোরবানির ১ লাখ ৭২ হাজার পশুর চামড়া গেলো কোথায়?
কঠিন সমীকরণ নিয়ে আফগানদের মুখোমুখি বাংলাদেশ
কঠিন সমীকরণ নিয়ে আফগানদের মুখোমুখি বাংলাদেশ