বন্যা মোকাবিলায় ভেনিসে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করবে ইতালি

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২১:৫৭, নভেম্বর ১৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৫৭, নভেম্বর ১৪, ২০১৯

প্রবল বন্যায় প্রায় ছয় ফুট পানির নিচে তলিয়ে গেছে ইতালির ভেনিস নগরী। ইউনেস্কোঘোষিত বিশ্ব ঐতিহ্যখ্যাত শহরটির প্রায় ৮০ শতাংশ এলাকাই জোয়ারের সময় পানির নিচে চলে যাচ্ছে। এই বন্যাকে দেশের হৃদয়ে আঘাত বলে বর্ণনা করে ইতালির প্রধানমন্ত্রী গুইসেপ কন্টে দ্রুত তহবিল ও অন্যান্য সামগ্রী বরাদ্দের আশ্বাস দিয়েছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, বন্যা মোকাবিলায় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করতে যাচ্ছেন তিনি।

সাগরের পানির ওপর গড়ে ওঠা পৃথিবীর একমাত্র ভাসমান শহর ভেনিস। ভাসমান এ শহরটি দেখতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রতিদিন অসংখ্য পর্যটক আসে। ফলে ইতালি সরকারের অন্যতম আরেকটি আয়ের উৎস ভেনিস। তবে সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে উচ্চতা কম হওয়ায় সামান্য জোয়ারেই ডুবে যায় ভেনিসের নিচু অঞ্চলগুলো। প্রতিবছর অক্টোবর থেকে ফেব্রুয়ারিতে এ জোয়ারের পানি আসে।

তবে এবছর মারাত্মক বন্যার কবলে পড়েছে শহরটি। বন্যার জন্য জলবায়ু পরিবর্তনকে দায়ী করেছেন শহরটির মেয়র লুইগি ব্রুগনারো। তিনি বলেন, এই সপ্তাহে পানির উচ্চতা গত ৫০ বছরের রেকর্ড ভেঙেছে। বন্যায় বিপুল ক্ষতি হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, এটি স্থায়ী চিহ্ন রেখে যাবে।

বন্যা মোকাবিলায় সব ধরণের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। কয়েকটি এলাকা থেকে বন্যার পানি সরাতে বুধবার পাম্প বসানো হয়েছে। বন্যার কারণে শহর ছেড়ে যাওয়া পর্যটকদের আবারও ফিরে আসার আহ্বান জানিয়েছেন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা।

 

/জেজে/

লাইভ

টপ