দ. আফ্রিকায় পুরনো প্লাস্টিক দিয়ে রাস্তা সংস্কার

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৮:০৮, ফেব্রুয়ারি ০৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:১০, ফেব্রুয়ারি ০৯, ২০২০

দক্ষিণ আফ্রিকায় রাস্তা সংস্কারে পুরনো দুধের প্লাস্টিক বোতল রিসাইকেল করে ব্যবহার করা হচ্ছে। গত আগস্টে দেশটিতে প্রথম ওই কার্যক্রম শুরু করে শিসাল্যাঙ্গা কনস্ট্রাকশন নামের একটি কোম্পানি। এ উদ্যোগকে দেশটির রাস্তার মানোন্নয়ন ও বর্জ্য সমস্যার সমাধান হিসেবে দেখা হচ্ছে। রবিবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সম্প্রচারমাধ্যম সিএনএন।

দক্ষিণ আফ্রিকার রোড ফেডারেশন জানিয়েছে, প্রতি বছর দেশটিতে রাস্তা সংস্কারে ৩ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলার খরচ হয়। বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ২৮ হাজার ৮৫৪ কোটি ৪৯ লাখ টাকা।

গত আগস্টে দেশটির পূর্বাঞ্চলের উপকূলীয় কোয়াজুলু নাটাল (কেজেডএন) প্রদেশে রাস্তা সংস্কারে রিসাইক্লিং প্রক্রিয়ায় পুরনো দুধের প্লাস্টিক বোতল ব্যবহার করে শিসাল্যাঙ্গা কনস্ট্রাকশন। তারা দুই লিটার দুধের প্রায় ৪০ হাজার প্লাস্টিক বোতল রিসাইক্লিং করে পিচে পরিণত করে। ওই পিচ ব্যবহার করে ডারবানের উপকণ্ঠ ক্লিফড্যালে ৪শ’ মিটারের বেশি রাস্তা সংস্কার করা হয়।

শিসাল্যাঙ্গা বলছে, প্রচলিত প্রক্রিয়ার তুলনায় এই প্রক্রিয়ায় কম বিষাক্ত গ্যাস নির্গমন হয়। আর অন্য পিচের তুলনায় এটা বেশি টেকসই, পানি প্রতিরোধী এবং ৭০ ডিগ্রি তাপমাত্রায়ও সহনশীল।

কর্তৃপক্ষ বলছে, এই পিচ দিয়ে রাস্তা সংস্কারের ব্যয় স্বাভাবিক ব্যয়ের মতোই। তবে এটা নিয়মিত ব্যবহার করলে সড়কগুলো আরও বেশি টেকসই হবে। ফলে দীর্ঘমেয়াদে খরচ আরও কম পড়বে।

কোম্পানির ব্যবস্থাপক ডিন কোকেমোয়ার বলেন, ‘প্লাস্টিকের বোতল রিসাইক্লিং করে রাস্তা সংস্কারের ফলাফল চমৎকার। কাজটিও অসাধারণ ছিল।’

কোম্পানিটি বলছে, বোতল রিসাইক্লিং করে রাস্তায় ব্যবহারের ফলে প্লাস্টিক বর্জ্যের নতুন বাজার তৈরি হয়েছে।

কেজেডএন প্রদেশের পরিবহন বিভাগের মান নিয়ন্ত্রণ প্রযুক্তিবিদ কিট ডুকেসে বলেছেন, ‘প্লাস্টিক দিয়ে রাস্তা সংস্কারের কাজটা দারুণ। এটা ভালোভাবে কাজ করছে। এটি যে দুর্দান্ত একটি কাজ, সেটা সময়ই বলে দেবে।’

/এইচকে/এমপি/

লাইভ

টপ