তাইওয়ানে করোনা ভাইরাসে প্রথম মৃত্যু

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২০:৫৯, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৩১, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০

তাইওয়ানে করোনা ভাইরাসে প্রথমবারের মতো একজনের মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয় সময় শনিবার রাতে তিনি ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়। রবিবার এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী চেন শিহ-চুং বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেলগুলোতে এ সংবাদ সম্মেলন সম্প্রচার করা হয়।
৬০ বছরের ওই ব্যক্তি পেশায় একজন ট্যাক্সি ড্রাইভার ছিলেন। শ্বাসকষ্ট শুরু হলে গত ৩ ফেব্রুয়ারি তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার রাতে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী চেন শিহ-চুং জানান, মৃত ব্যক্তির পরিবারের আরও একজন সদস্য করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

এদিকে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীনে ইতোমধ্যেই মৃতের সংখ্যা ১৬শ’ ছাড়িয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা অর্ধলক্ষাধিক। এরমধ্যেই শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) দেশটিতে ওই ভাইরাসের উপসর্গ গোপন করাকে ফৌজদারি অরপাধ হিসেবে আখ্যা দিয়েছে দেশটির একটি আদালত। একইসঙ্গে আক্রান্ত হওয়ার উপসর্গ কেউ ইচ্ছাকৃতভাবে গোপন করলে তার মৃত্যুদণ্ড পর্যন্ত হতে পারে বলে জানিয়েছেন আদালত। এমনকি ভ্রমণের তথ্য গোপন করলে তা-ও ফৌজদারি অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হবে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম বেইজিং ডেইলির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কেউ ভাইরাসটি ছড়াতে সহযোগিতা করলে তাকে মানুষের নিরাপত্তা হুমকিতে ফেলার অপরাধে অভিযুক্ত করা হবে। গুরুতর ক্ষেত্রে নির্দেশনা অমান্যকারীদের ১০ বছরের জেল ও যাবজ্জীবন কারাদণ্ড অথবা মৃত্যুদণ্ডের মুখোমুখি হতে হবে।

শনিবার চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশনও একটি নতুন নির্দেশনা জারি করেছে। সেখানে জ্বর, কাশি অথবা অন্য কোন রোগে আক্রান্তদের সড়ক, রেল কিংবা বিমানে ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান শহরের একটি বন্যপ্রাণীর বাজার থেকে ছড়িয়ে পড়ে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস। একপর্যায়ে এই ভাইরাস নিয়ে বিশ্বজুড়ে জরুরি স্বাস্থ্য পরিস্থিতি (হেলথ ইমার্জেন্সি) ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। এখন পর্যন্ত অন্তত ২৮টি দেশে শনাক্ত হয়েছে এই ভাইরাস। এতে কেবল চীনে মারা গেছে এক হাজার ৬৬৫ জন। আর আক্রান্ত হয়েছে ৬৮ হাজারের বেশি মানুষ। সূত্র: আল জাজিরা, স্ট্রেইট টাইমস।

/এমপি/

লাইভ

টপ