সোমালিয়ায় সামরিক ঘাঁটিতে জঙ্গি হামলা, ১২ সেনা নিহত

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২২:৪৭, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৫০, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০

আফ্রিকার দেশ সোমালিয়ায় দুইটি সামরিক ঘাঁটিতে আত্মঘাতী হামলায় অন্তত ১২ সেনা নিহত হয়েছে। বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) দেশটির দুইটি সামরিক ঘাঁটিতে বিস্ফোরক বোঝাই গাড়ি দিয়ে হামলা চালায় দেশটির সশস্ত্র গোষ্ঠী আল শাবাব। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার এক প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

১৯৯১ সালে সেনা শাসনের অবসান হওয়ার পর থেকে সোমালিয়াতে সহিংসতা ও অস্থিতিশীলতা ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে। প্রেসিডেন্ট মোহামেদ সিয়াদ বারে ক্ষমতাচ্যুত হলে দেশের যুদ্ধবাজ গোত্রপতিরা হানহানিতে জড়িয়ে পড়ে। দেশটি থেকে সোমালিল্যান্ড ও পুন্টাল্যান্ড নামের দুটি অঞ্চল আলাদা হয়ে যায়। সোমালিয়া কার্যত একটি যুদ্ধক্ষেত্রে পরিণত হয়। ২০১২ সালে দেশটিতে জাতিসংঘ সমর্থিত সরকার দায়িত্ব নেয়। এরপর থেকে আল শাবাব জঙ্গি গোষ্ঠীকে বাধাগ্রস্ত করা সম্ভব হলেও দেশটির গ্রামীণ এলাকায় তারা এখনও তৎপর।

বুধবার স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা নুর আহমেদ বলেছেন, ‘সকালে আল সালিনি সামরিক ঘাঁটিতে আত্মঘাতী বোমা হামলা চালানো হয়েছে। পরে সেখানে নির্বিচারে গুলি চালায় সন্ত্রাসীরা। এবং কিছুক্ষণের জন্য ঘাঁটি দখলে নেয় তারা। অস্ত্র ও গোলাবারুদ লুট করা হয়েছে। পরে অতিরিক্ত সেনা পাঠানোর পর ঘাঁটি নিয়ন্ত্রণে নেয় সামরিক বাহিনী।’

আর দ্বিতীয় হামলা হয়েছে রাজধানী মোগাদিসু থেকে ৯৫ কিলোমিটার পশ্চিমে কোরিওলি সেনা ঘাঁটিতে। সেখানে আফ্রিকান ইউনিয়নের আরও সেনা মোতায়েন করা হয়েছে।

সোমালিয়ার সামরিক কমান্ডার মোহাম্মদ আদান বলেছেন, ‘সন্ত্রাসীরা কোরিওলি ও আল সালিনি সামরিক ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে, তবে আমাদের সাহসী সেনারা তাদের প্রতিহত করেছেন। এখন উভয় এলাকা সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আত্মঘাতী হামলা চালিয়ে আল শাবাব জঙ্গিরা একটি সেতুর আংশিক ধ্বংস করে দিয়েছে। যে সেতু দিয়ে কোরিওলি সামরিক ঘাঁটিতে প্রবেশ করতে হয়।’

পরে এক বিবৃতিতে ওই হামলার দায় স্বীকার করেছে সশস্ত্র বিদ্রোহী গোষ্ঠী আল শাবাব।

/এইচকে/

লাইভ

টপ