প্রথম বারের মতো মাস্ক পরে প্রার্থনায় যোগ দিলেন পোপ

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২৩:৪৫, অক্টোবর ২০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১১:৩৬, অক্টোবর ২১, ২০২০

প্রথমবারের মতো কোনও প্রকাশ্য প্রার্থনা সভায় মাস্ক পরে উপস্থিত হয়েছেন ক্যাথলিক খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা পোপ ফ্রান্সিস। মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) সারা বিশ্বের শান্তি কামনায় রোমে ওই প্রার্থনার আয়োজন করা হয়। এতে পোপের পাশাপাশি অন্য ধর্মীয় নেতারাও মাস্ক পরে যোগ দেন। এর আগে পোপ কেবলমাত্র ভ্যাটিকানে সমবেত দর্শণার্থীদের সঙ্গে সাপ্তাহিক শুভেচ্ছা বিনিময়ের সময় গাড়িতে যেতে মাস্ক পরেছেন। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

করোনাভাইরাসের মহামারির মধ্যে সাধারণ দর্শণার্থীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ কিংবা কখনও কখনও আগতদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগের সময়ও পোপ ফ্রান্সিসকে মাস্ক পরতে দেখা যায়নি। এনিয়ে খানিক সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকেই তার সমালোচনা করেন।

৮৩ বছর বয়সী পোপ মঙ্গলবার রোমের ব্যাসিলিকায় অন্য খ্রিস্টান নেতাদের সঙ্গে প্রার্থনা সভায় যোগ দেন। এদের মধ্যে ছিলেন অর্থোডক্স খ্রিস্টানদের আধ্যাত্মিক নেতা প্যাটরিয়ার্চ বার্থোলোমেউ।  প্রার্থনা সভায় বক্তব্য রাখার সময়ে মাস্ক খুলে রাখেন পোপ। পরে বক্তব্য শেষে আবারও তা পরে নেন। অন্যান্য নেতারাও একই কাজ করেন।

ব্যাসিলিকায় ওই প্রার্থনার সভা চলার সময়ে রোমের অন্যান্য স্থানে শান্তির জন্য প্রার্থনা করেন ইহুদি, বৌদ্ধ, শিখ, হিন্দু ও মুসলমান ধর্মাবলম্বীরা। নিজ নিজ ধর্মীয় স্থাপনায় সমবেত হয়ে তারা প্রত্যেকেই বিশ্ব শান্তির প্রার্থনা করেন।

উল্লেখ্য, বার্ষিক এই প্রার্থনা সভার আয়োজন শুরু হয় ১৯৮৬ সালে। প্রয়াত পোপ জন পল এবং রোমের ক্যাথলিক সম্প্রদায় এই আয়োজন শুরু করেন। করোনাভাইরাস মহামারির কারণে এবারে আয়োজনের পরিসর সীমিত রাখা হয়।

/জেজে/বিএ/

লাইভ

টপ