একজন শনাক্তের পর ৩০ লাখ পরীক্ষা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:২৫, অক্টোবর ২৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:২৬, অক্টোবর ২৬, ২০২০

জিনজিয়াং প্রদেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের একটি ছোট ক্লাস্টার শনাক্তের পর ৩০ লাখ মানুষের করোনা পরীক্ষা করেছে চীন। নতুন সংক্রমণ ঠেকাতে চীনের ত্বরিৎ পদক্ষেপের সর্বশেষ উদাহরণ এটি। মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গ এখবর জানিয়েছে।

জিনজিয়াং স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ জানায়, নিয়মিত পরীক্ষা কর্মসুচিতে ১৭ বছরের এক কিশোর করোনায় আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়। এরপর পরীক্ষা চালিয়ে আরও ১৩৭ জন শনাক্ত হয়। আক্রান্তদের সবাই কিশোরের বাবা যে কারখানায় কাজ করেন সেখানে কর্মরত। আক্রান্তদের সবাই উপসর্গবিহীন।

কাশগার এলাকায় বিনামূল্যে প্রায় ৪০ লাখ ৭৫ হাজার করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। শহরটি চীনের পশ্চিম দিকে অবস্থিত। চীনের স্থানীয় সময় রবিবার দুপুর ২টা পর্যন্ত ২০ লাখ ৮৩ হাজার মানুষের পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে এবং ৩ লাখ ৩৪ হাজার ৮০০ মানুষ করোনা নেগেটিভ বলে জানা গেছে।

কর্তৃপক্ষ সংক্রমণ ক্লাস্টারের ১০ কিলোমিটার এলাকায় বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। তবে যান চলাচল অব্যাহত রয়েছে। গত সাত দিনের মধ্যে করোনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ মানুষ ভ্রমণ করতে পারছেন।

মধ্য আগস্ট থেকে চীনে দৈনিক সংক্রমণ ১০০ জনের কম রয়েছে। শনাক্ত হওয়ার বেশিরভাগই বিদেশ ফেরত।

এর আগে জুনেও একটি ক্লাস্টারের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছ চীন। ওই সময় মাত্র কয়েক দিনের ভেতরে কয়েক লাখ মানুষের করোনা পরীক্ষা করা হয়। 

/এএ/

লাইভ

টপ