X
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
১১ আশ্বিন ১৪২৯

আড়াল থেকে উঠে আসা লেখক সালমান রুশদি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১৩ আগস্ট ২০২২, ১১:২৯আপডেট : ১৩ আগস্ট ২০২২, ১১:২৯

নিউ ইয়র্কে অনুষ্ঠান মঞ্চে ছুরিকাঘাতের শিকার হওয়া স্যার সালমান রুশদি পাঁচ দশকের লেখালেখির ক্যারিয়ারে বহুবার মৃত্যুর হুমকি পেয়েছেন। ভারতীয় বংশোদ্ভূত এই উপন্যাসিকের যুক্তরাজ্য এবং যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব রয়েছে। তার অনেক বই ব্যাপক সফলতা পেয়েছে। দ্বিতীয় উপন্যাস ‘মিডনাইট’স চিলড্রেন’ লেখার জন্য ১৯৮১ সালে বুকার পুরস্কার পান তিনি।

তবে ১৯৮৮ সালে প্রকাশিত তার চতুর্থ উপন্যাস ‘দ্য স্যাটানিক ভার্সেস’ হয়ে ওঠে তার সবচেয়ে বিতর্কিত কাজ। এই বই প্রকাশের জেরে বিশ্বজুড়ে শুরু হয় নজিরবিহীন অস্থিরতা। সালমান রুশদিকে বারবার হত্যার হুমকি দেওয়া হতে থাকে। ফলে বই প্রকাশের পর আড়ালে চলে যেতে বাধ্য হন তিনি। ওই সময়ে ব্রিটিশ সরকার তাকে পুলিশি সুরক্ষা দেয়।

এই ইনস্টিটিউটেই আক্রান্ত হয়েছেন রুশদি। ছবি: রয়টার্স

সালমান রুশদিকে কেন্দ্র করে ভেঙে যায় যুক্তরাজ্য ও ইরানের কূটনৈতিক সম্পর্ক। ‘দ্য স্যাটানিক ভার্সেস’ বইটিকে বহু মুসলিম ধর্ম অবমাননাকর বলে মনে থাকে। তবে পশ্চিমা বিশ্বের লেখক ও বুদ্ধিজীবীরা মত প্রকাশের স্বাধীনতার পক্ষে দাঁড়িয়ে সালমান রুশদিকে দেওয়া হুমকির নিন্দা জানান। উপন্যাসিক সালমান রুশদিকে হত্যার আহ্বান জানিয়ে ১৯৮৯ সালে ফতোয়া জারি করেন ইরানের তৎকালীন সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ রুহুল্লাহ খোমেনি।

ভেন্টিলেশনে সালমান রুশদি, কথা বলতে পারছেন না: এজেন্ট

যুক্তরাজ্যের কাছ থেকে ভারতের স্বাধীনতা লাভের দুই মাস আগে মুম্বাই শহরে জন্ম হয় সালমান রুশদির। ১৪ বছর বয়সে তাকে ইংল্যান্ডে পাঠানো হয়। সেখানে রাগবি স্কুলে ভর্তি হন। পরে মর্যাদাবান ক্যামব্রিজের কিংস কলেজ থেকে ইতিহাসে স্নাতক ডিগ্রি করেন তিনি।

পরে ব্রিটিশ নাগরিকত্ব লাভ করেন সালমান রুশদি। ধীরে ধীরে নিজের মুসলিম বিশ্বাস ছাড়তে শুরু করেন। সামান্য সময়ের জন্য অভিনয় করেছেন, ক্যামব্রিজের ফুটলাইটসে কাজ করেছেন। উপন্যাস লেখার পাশাপাশি বিজ্ঞাপনের কপিরাইটার হিসেবেও কাজ করেছেন সালমান রুশদি।

অস্ত্রোপচার টেবিলে সালমান রুশদি

তার প্রথম বই গ্রিমাস খুব বেশি সফলতা পায়নি। তবে এই বইয়ের মাধ্যমে অনেক লেখকই এক সম্ভাব্য বড় লেখকের উত্থান দেখতে পায়। দ্বিতীয় বই ‘মিডনাইট’স চিলড্রেন’ লিখতে পাঁছ বছর সময় নেন তিনি। এই বইয়ের জন্য ১৯৮১ সালে বুকার পুরস্কার লাভ করেন তিনি। ব্যাপক সফলতা বইটির প্রায় পাঁচ লাখ কপি বিক্রি হয়।

মঞ্চেই আক্রান্ত হয়েছেন রুশদি। ছবি: রয়টার্স

‘মিডনাইট’ চিলড্রেন’ ভারত নিয়ে লেখা হলেও ১৯৮৩ সালে প্রকাশিত রুশদির তৃতীয় উপন্যাস ‘শেম’ কেবল পাকিস্তানের ছদ্মবেশ নিয়ে লেখা হয়। চার বছর পর রুশদি লেখেন ‘দ্য জাগুয়ার স্মাইল’। এটি ছিল তার নিকারাগুয়া সফরের বর্ণনা।

সালমান রুশদির ঘাড়ে ছুরিকাঘাত: পুলিশ

১৯৮৮ সালের সেপ্টেম্বরে প্রকাশ হয় তার জীবন বিপন্ন করে তোলা বই ‘দ্য স্যাটানিক ভার্সেস’। জাদুবাস্তব, উত্তরাধুনিক এই উপনস্যাসটি বহু মুসলিমকে ক্ষুব্ধ করে তোলে। তারা এই বইটিকে ধর্ম অবমাননাকর বলে মনে করতে শুরু করে।

বইটি প্রথম নিষিদ্ধ হয় তার জন্মস্থান ভারতে। এরপর পাকিস্তানে নিষিদ্ধ করে সালমান রুশদির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়। এরপর অন্য মুসলিম দেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকায় বইটি নিষিদ্ধ করা হয়।

হেলিকপ্টারে হাসপাতালে নেওয়া হয় তাকে। ছবি: রয়টার্স

উপন্যাসটি অনেক মহলে প্রশংসিত হয় এবং এটি উপন্যাসের জন্য হুইটব্রেড পুরস্কার জেতে। কিন্তু বইটির বিরুদ্ধে প্রতিক্রিয়া বাড়তে থাকে এবং দুই মাস পরে রাস্তায় বিক্ষোভ জোরালো হতে শুরু করে। অনেক মুসলিম বইটিকে ইসলাম অবমাননাকারী বলে বিবেচনা করেন। বইটিতে বর্ণিত বেশ কিছু চরিত্র নিয়ে আপত্তি নিয়ে তোলে মুসলিমরা।

১৯৮৯ সালের জানুয়ারিতে ব্রাডফোর্ডের মুসলিমরা প্রথমে বইটির একটি কপিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। এছাড়া তারা একটি দোকানের প্রদর্শনী থেকে নামিয়ে ফেলতে বাধ্য করে। তবে ধর্ম অবমাননার অভিযোগ অস্বীকার করেন সালমান রুশদি।

সালমান রুশদির ওপর হামলা

ফেব্রুয়ারিতে রুশদির নিজের শহর মুম্বাইয়ে রুশদি বিরোধী দাঙ্গায় ১২ জন নিহত হয়। ইরানের রাজধানী তেহরানের ব্রিটিশ দূতাবাসে পাথর নিক্ষেপ করা হয়। এছাড়া লেখকের মাথার মূল্য নির্ধারণ করা হয় ২০ লাখ মার্কিন ডলার।

এদিকে, যুক্তরাজ্যে কিছু মুসলিম নেতা মধ্যপন্থার আহ্বান জানালেও অন্যরা আয়াতুল্লাহকে সমর্থন করেন। যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স এবং অন্য পশ্চিমা দেশগুলো হত্যার হুমকির নিন্দা জানায়। পুলিশি সুরক্ষায় স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে পালিয়ে থাকা সালমান রুশদি মুসলিমদের দুর্ভোগের কারণ হওয়ার জন্য দুঃখপ্রকাশ করেন। কিন্তু ইরানের নেতা আয়াতুল্লাহ খোমেনি তাকে হত্যার হুমকি পুনর্ব্যক্ত করেন।

হামলার পর নিরাপত্তা বাহিনীর তৎপরতা। ছবি: রয়টার্স

বইটির প্রকাশক ভাইকিং পেঙ্গুইনের লন্ডন কার্যালয়ে লুটপাট চলে। তাদের নিউ ইয়র্কের কার্যালয়ে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়।

এতসব ঘটনার পরেও আটলান্টিকের দুই পাড়েই বইটি বেস্ট সেলার হয়ে ওঠে। উগ্র মুসলিম প্রতিক্রিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সমর্থন দেয় ইউরোপীয় দেশগুলো। এই দেশগুলোর সবাই সাময়িকভাবে তেহরান থেকে তাদের রাষ্ট্রদূতদের প্রত্যাহার করে নেয়।

তবে বইটির কন্টেন্ট নিয়ে কেবল লেখক একাই হুমকি পাননি। ‘দ্য স্যাটানিক ভার্সেস’ এর জাপানি অনুবাদককে ১৯৯১ সালের জুলাই মাসে টোকিওর উত্তর-পূর্বে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে গলাকাটা অবস্থায় পাওয়া যায়। পুলিশ জানায় অনুবাদক এবং তুলনামূলক সংস্কৃতির সহযোগী অধ্যাপক হিতোশি ইগারাশিকে বেশ কয়েকবার ছুরিকাঘাত করে তসুকুবা বিশ্ববিদ্যালয়ে তার কার্যালয়ের বাইরে ফেলে যাওয়া হয়।

এই হাসপাতালেই চিকিৎসা চলছে সালমান রুশদির। ছবি: রয়টার্স

ওই একই মাসে বইটির ইতালীয় অনুবাদক এত্তোরে ক্যাপ্রিলোকে তার মিলানের বাসায় ছুরিকাঘাত করা হয়। তবে হামলার পরও বেঁচে যান তিনি।

রুশদিকে হত্যার হুমকির ফতোয়া ১৯৯৮ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রত্যাহার করে নেয় ইরান সরকার।

চারবার বিয়ে করেছেন সালমান রুশদি। দুই সন্তান রয়েছে তার। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী এই লেখককে ২০০৭ সালে সাহিত্যে অবদানের জন্য নাইট উপাধিতে ভূষিত করে ব্রিটিশ সরকার। ২০১২ সালে ‘দ্য স্যাটানিক ভার্সেস’ লেখার জেরে সৃষ্ট বিতর্ক নিয়ে তিনি প্রকাশ করেন নিজের আত্মজীবনি।

সূত্র: বিবিসি

/জেজে/
সম্পর্কিত
ইতালির নির্বাচনে ডানপন্থী জর্জিয়া মেলোনির জয়
ইতালির নির্বাচনে ডানপন্থী জর্জিয়া মেলোনির জয়
যুক্তরাজ্য ও নরওয়ের রাষ্ট্রদূতকে তলব ইরানের
যুক্তরাজ্য ও নরওয়ের রাষ্ট্রদূতকে তলব ইরানের
রাশিয়াকে ‘বিপর্যয়কর’ পরিণতির হুঁশিয়ারি যুক্তরাষ্টের
রাশিয়াকে ‘বিপর্যয়কর’ পরিণতির হুঁশিয়ারি যুক্তরাষ্টের
নাগরিকদের মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিচ্ছেন পুতিন: জেলেনস্কি
নাগরিকদের মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিচ্ছেন পুতিন: জেলেনস্কি
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
হাজারীবাগে কুরিয়ার সার্ভিস ডিপোতে ‘বিস্ফোরণ’, নিহত ১ 
হাজারীবাগে কুরিয়ার সার্ভিস ডিপোতে ‘বিস্ফোরণ’, নিহত ১ 
৯ ঘণ্টা পর আবার উদ্ধার অভিযান শুরু
৯ ঘণ্টা পর আবার উদ্ধার অভিযান শুরু
কলকাতা থেকে আখাউড়া হয়ে ট্রেন যাবে আগরতলা
কলকাতা থেকে আখাউড়া হয়ে ট্রেন যাবে আগরতলা
আলমডাঙ্গায় স্বামী-স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধারে ঘটনায় মামলা
আলমডাঙ্গায় স্বামী-স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধারে ঘটনায় মামলা
এ বিভাগের সর্বশেষ
ইতালির নির্বাচনে ডানপন্থী জর্জিয়া মেলোনির জয়
ইতালির নির্বাচনে ডানপন্থী জর্জিয়া মেলোনির জয়
যুক্তরাজ্য ও নরওয়ের রাষ্ট্রদূতকে তলব ইরানের
যুক্তরাজ্য ও নরওয়ের রাষ্ট্রদূতকে তলব ইরানের
রাশিয়াকে ‘বিপর্যয়কর’ পরিণতির হুঁশিয়ারি যুক্তরাষ্টের
রাশিয়াকে ‘বিপর্যয়কর’ পরিণতির হুঁশিয়ারি যুক্তরাষ্টের
নাগরিকদের মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিচ্ছেন পুতিন: জেলেনস্কি
নাগরিকদের মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিচ্ছেন পুতিন: জেলেনস্কি
ইরানি ড্রোন নিয়ে ফের ইউক্রেনে হামলা রাশিয়ার
ইরানি ড্রোন নিয়ে ফের ইউক্রেনে হামলা রাশিয়ার