X
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২
১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

ছয় মাস পর বুস্টার ডোজের অ্যান্টিবডি কমতে থাকে: বিএসএমএমইউ

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
২২ আগস্ট ২০২২, ১৬:২১আপডেট : ২২ আগস্ট ২০২২, ১৬:২১

করোনা প্রতিরোধী টিকার বুস্টার ডোজ নেওয়ার ৬ মাস পরও শতভাগ টিকাগ্রহীতার দেহেই অ্যান্টিবডির উপস্থিতি পাওয়া গেছে। তবে তা আগের তুলনায় কম। সম্প্রতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় এই তথ্য পাওয়া যায়। সোমবার (২২ আগস্ট) বিএসএমএমইউর শহীদ মিল্টন হলে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএসএমএমইউ উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শারফুদ্দিন আহমেদ এ তথ্য জানান।

ডা. শারফুদ্দিন বলেন, এ গবেষণায় তৃতীয় (বুস্টার) ডোজ গ্রহণের ৬ মাস পর শরীরে করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে তৈরি অ্যান্টিবডির মাত্রা পরিমাপ করা হয়।

উল্লেখ্য, কোভিড-১৯ টিকার প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণের ১ মাস পরে পরিচালিত গবেষণায় ২২৩ জনের মধ্যে ৯৮ শতাংশের শরীরে অ্যান্টিবডির উপস্থিতি পাওয়া গিয়েছিল। যারা আগেই কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন, তাদের শরীরে তুলনামূলক বেশি অ্যান্টিবডি পাওয়া গিয়েছিল।

টিকা গ্রহণের ৬ মাস পার হওয়ার পরে দেখা গিয়েছিল, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই অ্যান্টিবডির পরিমাণ হ্রাস পেয়েছে।

তাদের মধ্যে ৩০ জন টিকাগ্রহীতার ক্ষেত্রে দেখা যায়, ৭৩ শতাংশের অ্যান্টিবডির মাত্রা হ্রাস পেয়ে গড় অ্যান্টিবডির মাত্রা ৬ হাজার ৭৯২ এইউ/এমএল থেকে ৩ হাজার ৯৬৩ এইউ/এমএলে নেমে এসেছিল।

তিনি আরও জানান, এ সময় ২ জন টিকাগ্রহীতার দেহে পর্যাপ্ত অ্যান্টিবডি পাওয়া যায়নি। বুস্টার গ্রহণের ১ মাস পরে শতভাগ অংশগ্রহণকারীদের দেহেই অ্যান্টিবডি পাওয়া যায় এবং প্রায় সবার ক্ষেত্রেই অ্যান্টিবডির মাত্রা পুনরায় বৃদ্ধি পেয়ে অ্যান্টিবডির মাত্রা দাঁড়িয়েছিল ২০ হাজার ৮৭৮ এইউ/এমএল। বুস্টার গ্রহণের ৬ মাস পরেও শতভাগ অংশগ্রহণকারীদের দেহেই অ্যান্টিবডি পাওয়া যায়, কিন্তু প্রায় সবার ক্ষেত্রেই অ্যান্টিবডির মাত্রা কমে গড় অ্যান্টিবডির মাত্রা দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৬৭৫.৭ এইউ/এমএল। এর মধ্যে যাদের কোভিড আক্রান্ত হওয়ার ইতিহাস আছে, তাদের ক্ষেত্রেই অ্যান্টিবডির মাত্রা বৃদ্ধি পেয়েছে। এ ছাড়া তাদের রক্তে হিমোগ্লোবিন ও প্লাটিলেটসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন দেখা যায়নি।

বুস্টার ডোজের পরও চতুর্থ ডোজ বা দ্বিতীয় বুস্টার ডোজ প্রয়োজন কিনা তা নিরূপণের জন্য এ গবেষণা করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন গবেষণা দলের প্রধান ও বিএসএমএমইউর হেমাটোলজি বিভাগের সভাপতি অ্যধাপক ডা. সালাহউদ্দিন শাহ।

/এসও/এফএ/
পাহাড় থেকে বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার
পাহাড় থেকে বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার
সার্বিয়াকে হারিয়ে নকআউটে সুইসরা
সার্বিয়াকে হারিয়ে নকআউটে সুইসরা
ব্রাজিলকে হারিয়ে দিলো ক্যামেরুন
ব্রাজিলকে হারিয়ে দিলো ক্যামেরুন
‘এত উন্নয়ন হয়েছে, প্রবাসীরা দেশে ফিরে নিজের গ্রামই চিনবেন না’
‘এত উন্নয়ন হয়েছে, প্রবাসীরা দেশে ফিরে নিজের গ্রামই চিনবেন না’
সর্বাধিক পঠিত
আঙুলের অপারেশনে শিশুর মৃত্যু, গোসলের সময় দেখা গেলো পুরো পেটে সেলাই
আঙুলের অপারেশনে শিশুর মৃত্যু, গোসলের সময় দেখা গেলো পুরো পেটে সেলাই
শাহবাগে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় মৃত্যু দুর্ঘটনা নয়, হত্যাকাণ্ড: রমনা ডিসি
শাহবাগে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় মৃত্যু দুর্ঘটনা নয়, হত্যাকাণ্ড: রমনা ডিসি
তারেক রহমানকে ‘বেয়াদব’ বললেন ওবায়দুল কাদের
তারেক রহমানকে ‘বেয়াদব’ বললেন ওবায়দুল কাদের
বিএনপির সমাবেশে খালেদা জিয়ার যোগদান নিয়ে যা বললেন তথ্যমন্ত্রী
বিএনপির সমাবেশে খালেদা জিয়ার যোগদান নিয়ে যা বললেন তথ্যমন্ত্রী
খালেদা জিয়া মুক্ত, জামিন দেওয়ার কী আছে: আইনমন্ত্রী
খালেদা জিয়া মুক্ত, জামিন দেওয়ার কী আছে: আইনমন্ত্রী